English Version

আজকের চাকরির খবর লাইভ খেলা দেখুন

সত্তরের ভয়াল সেই ঘূর্ণিঝড়, নিহতদের স্মরণে মোমবাতি প্রজ্বলন


বিডিটুডেস ডেস্ক: ১৯৭০ সালের এই দিনে প্রলয়ঙ্কারী ঘূর্ণিঝড়ে দেশের দক্ষিণ উপকূলীয় অঞ্চলের অন্তত ১০ লাখ লোক নিহত হয়। দুঃসহ সেই স্মৃতি আজো কাঁদায় উপকূলবাসীকে। ’৭০ এ ভয়াল সেই ঘূর্ণিঝড়ে নিহতদের স্মরণে মেঘনা নদীর তীরে মোমবাতি প্রজ্জ্বলন করে উপকূল দিবস পালন করেছে উপকূল বাঁচাও আন্দোলন (উবা)।

গতকাল রোববার সন্ধ্যা ৭টার দিকে উপকূলীয় জেলা নোয়াখালীর হাতিয়া উপজেলার তমরদ্দি লঞ্চ ঘাট সংলগ্ন মেঘনা নদী তীর ও খুলনা শহরের ভৈরব নদীর পাঁচ নম্বর লঞ্চ ঘাটে ব্যতিক্রম ধর্মী এ উদ্যোগটি পালিত হয়। ৪৭ বছর আগের এই দিনটিতে ঝড়-জলোচ্ছ্বাসে লণ্ডভণ্ড হয়ে যায় পুরো উপকূল অঞ্চল।

সেই দিনটিকে স্মরণীয় করে রাখতে দিনটিকে উপকূল দিবস হিসেবে পালন করেছে উপকূল বাঁচাও আন্দোলন (উবা)। এছাড়াও কোস্টাল বাংলাদেশসহ বিভিন্ন সংগঠন দিবসটি পালন করছে।

সেদিনের সন্ধ্যায় ঘটে যাওয়া ভয়াবহ সেই তাণ্ডবে নিহতদের স্মরণে উপকূল বাঁচাও আন্দোলনের (উবা) উদ্যোগে হাতিয়া দ্বীপের তমরুদ্দিন লঞ্চঘাটে মোমবাতি প্রজ্জালন করে নিহতদের স্মরণ করা হয়।

এতে স্মৃতিচারণ করে সংগঠনের উপদেষ্টা অধ্যাপক নঈম শামীম খান বলেন, আমি তখন ছোট ছিলাম। সেদিন ছিল রোজার দিন। গুড়ি গুড়ি বৃষ্টিসহ টানা বাতাস বইছিল সারাদিন। উপকূলের ওপর দিয়ে প্রায় দুশ’ কিলোমিটার বেগে বয়ে যায় ঘূর্ণিঝড় ও জলোচ্ছ্বাস। আমাদেরকে নিয়ে বাবা-মা সবাই চিন্তিত। তারা ভয়ে আমাদেরকে ধানের গোলায় ভরে রাখে যাতে করে আমরা না হারিয়ে  যাই। আর জোয়ারে ভেসে গেলেও যাতে গোলাসহ ভাসি।

তিনি আরও বলেন, ঝড় তুফানের সারারাত এই গোলায় বসে কাটিয়ে দিলাম। সকালের আলো ফোটার পর চারদিক দেখি গাছের সঙ্গে ঝুলে ছিল হাজারো মানুষের মৃতদেহ। দুর্যোগে গৃহহীন পুরো জেলার মানুষ। আমাদের বাড়িতেও ৫ জন মারা যায়।

এতে উপস্থিত ছিলেন উপকূল বাঁচাও আন্দোলনের (উবা) উপদেষ্টা অধ্যাপক নঈম শামীম খান, হাতিয়া জেলা বাস্তবায়নের আহবায়ক অ্যাডভোকেট ফজলে আজিম তুহিন, উপকূল বাঁচাও আন্দোলনের (উবা) কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি সাংবাদিক শাহেদ শফিক,  সাধারণ সম্পাদক ছারোয়ার হোসেন হৃদয়, হাতিয়া শাখার আহবায়ক আরিফুল ইসলাম আজাদ, সদস্য রাসেল উদ্দিন, নুরুল হাসনাত শাওন, প্রান্ত, শাদাত, নিশাদ, নোমান প্রমুখ।

এদিকে, একই সময়ে সংগঠনের খুলনা শাখার উদ্যোগে শহরের ভৈরব নদীর পাঁচ নম্বর লঞ্চঘাটে মোমবাতি প্রজ্জালন করে দিবসটি পালন করা হয়েছে। কর্মসূচির পরিচালনা করেন এম মোস্তফা কামাল। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন সিডিপি খুলনা শাখার সমন্বয়কারী এস এম ইকবাল হোসেন বিপ্লব।

বিডিটুডেস/ এস আই/ ১৩ নভেম্বর, ২০১৭


  • 25
    Shares