English Version

আজকের চাকরির খবর লাইভ খেলা দেখুন

বিশ্ব কপাচ্ছে নোলানের ডানকার্ক


ডানকার্ক দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের ইতিহাসে বারবার নেওয়া একটি নাম। একটি যুদ্ধের গল্প যা বেশীরভাগ মানুষ জানেন তা সম্পূর্ন ভিন্নধর্মী ভাবে উপস্থাপনের জন্য নোলান ব্যাবহার করেছেন তার নিজেস্ব পদ্ধতি। গল্পটি নোলান বলেছেন তিনটি সমগামী সময়রেখা ধরে।
প্রথম- দি মোল। যেখানে সৈনিকরা অবরুদ্ধ হয়ে অপেক্ষায় দৈব সহায়তার, এই মৃত্যুকূপ ডানকার্ক ত্যাগ করে ঘরে ফেরার জন্য। এর সময়রেখা ৭দিন।

 

দ্বিতীয়- দ্যা সী। যেখানে দেখাযায় একজন সাধারন ব্রিটিষ নাগরিক, যে তার ইয়ট নিয়ে সৈনিকদের উদ্ধারের জন্য তৈরী হচ্ছেন। এর সময়রেখা ১দিন।
তৃতীয়- দ্যা এয়ার। এখানে ইংলিশ চ্যানেলের আকাশে ২জন রয়েল এয়ার ফোর্সের স্পিটফায়ার বৈমানিক ও জার্মান বৈমানিকদের ডগফাইট। এর সময়রেখা ১ঘন্টা।

 

সম্পূর্ন ফিল্মের সময়রেখা অনুযায়ী প্রথম সময়রেখা ৭দিনের যার শেষদিনটি হচ্ছে দ্বিতীয় সময়রেখা এবং এই শেষদিনের শেষ ঘন্টাটি হচ্ছে তৃতীয় সময়রেখা।

৩টি ভিন্ন ভিন্ন সময়রেখা বর্ননার ক্ষেত্রে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের অন্য ফিল্মগুলোর থেকে ভিন্নধর্মী গল্প লিখলেও নোলান খুব যুক্তি সংগত পথে হেটেছেন। নোলান তার ৩টি সময়রেখাকে এমনভাবে উপাস্থপন করেছেন যে খুব সহজেই সেই প্রেক্ষাপটের চরিত্রগুলোর অনুভূতি অনুধাবন করা যায়। আপনি যদি অন্যান্য যুদ্ধের ফিল্মের মতো কোন একটা নির্দিষ্ট চরিত্রের অথবা কোন রাজনৈতিক দৃষ্টিকোনের অথবা যুদ্ধে বিচ্ছেদের গল্প দেখার আশা করে থাকেন তবে সেটা ভুল। ডানকার্ক কোন একজনের বীরত্বের নয়। এটা ডানকার্কের ভয়াবহতার গল্প।


  • 23
    Shares