English Version

আজকের চাকরির খবর লাইভ খেলা দেখুন

শুটিং বন্ধ ‘বেপরোয়া’ ছবির


 

 

ওয়ার্ক পারমিট না থাকায় ছবির শুটিং না করেই ফিরে যেতে হয়েছে ভারতীয় কলাকুশলীদের। ফলে বন্ধ হয়ে গেছে ‘বেপরোয়া’ ছবির শুটিং।  বাংলাদেশে অবৈধভাবে কাজ করায় প্রশাসনের বাঁধার মুখে ঢাকা ত্যাগ করেছেন রয়েছেন কলকাতার পরিচালক দেবজিত চন্দ (রাজা চন্দ), প্রধান সহকারী পরিচালক নাজিমুদ্দিন, সহকারী পরিচালক দেবাঞ্জন চন্দ, বনি রয় চৌধুরী, বিধান দেবনাথ, দেবব্রত দাস, ফাইট ডিরেক্টর রাজেশ কানন, কোরিওগ্রাফার রাজেশ কুমার যাদব, সহকারী কোরিওগ্রাফার সঞ্জয় কুমার বিমল ও অভিনেতা পিয়ান সরকার।

৮ সেপ্টেম্বর রাতে এফডিসিতে শুটিং করছিল বেপরোয়া ছবির ইউনিট। বাংলাদেশ পুলিশের বিশেষ শাখার (এসবি) একটি টিম তাদের কাছে ওয়ার্ক পারমিটসহ বাংলাদেশে কাজ করার সব ধরনের অনুমতি চায়। কিন্তু তারা বা ছবিটির প্রযোজনা সংস্থার কর্তাব্যক্তিরা সেটা দেখাতে ব্যর্থ হন। পরে রাত ৮টার দিকে ছবিটির শুটিং বন্ধ করে দেয় এসবি।

এফডিসিতে গিয়ে দেখা যায়, ৭ নাম্বার ফ্লোরে তালা দেয়া। এখানেই ছবিটির শুটিং চলছিল গত দুই দিন ধরে। ৯ সেপ্টেম্বর ভারতীয় কলাকুশলী ছাড়াই বাংলাদেশের কয়েকজনকে নিয়ে ছবির শুটিং শুরু করে প্রযোজনা সংস্থা জাজ মাল্টিমিডিয়ার সিস্টার কনসার্ন অপরাজিতা এন্টারটেইনমেন্ট। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তাও বন্ধ হয়ে গেল।

অভিযোগ রয়েছে, এদের সবাই ভ্রমণ ভিসায় বাংলাদেশে এসে কাজ করছেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কলকাতায় অবস্থিত বাংলাদেশ হাইকমিশনের কাউন্সিলর জিএম জামাল হোসেন।

নিয়মানুযায়ী কোনো দেশে কাজ করতে গেলে ওয়ার্ক পারমিট নিয়ে ওয়ার্কিং ভিসায় যেতে হবে। কিন্তু জাজ মাল্টিমিডিয়া সেটা লঙ্ঘন করেছে বলে অভিযোগ রয়েছে। যদিও এ দশজন ভারতীয় কলাকুশলীর কাজের জন্য তথ্য মন্ত্রনালয় থেকে অনুমোদন নেয়া হয়েছে। কিন্তু বৈধভাবে কাজ করতে গেলে তথ্য মন্ত্রণালয় ছাড়া আরও ১১টি সংস্থার অনুমতি নিতে হয়।

এম এস – বিডিটুডেস-১২/৯/২০১৭