English Version

প্রিয় বন্ধুটিকে ভালোবেসে ফেলেছেন? জেনে নিন কী করবেন


জীবনে চলার পথে বন্ধুর অনেক প্রয়োজন। কিন্তু এই বন্ধুর প্রেমে যদি হঠৎ পড়ে যান, তখন কী করবেন? বন্ধুটিকে বলবেন নাকি এড়িয়ে যাবেন, এই নিয়ে দোটানায় পড়তে হয়। কী করবেন, কীভাবে বলবেন, সবাই কী মনে করবে, এত চিন্তা করা বাদ দিন। বন্ধুর প্রেমে পড়া কোন অপরাধ নয়। বরং প্রিয় বন্ধুটিকে যদি জীবনসঙ্গী হিসেবে পাওয়া যায়,তবে জীবন চলার পথটি পাড়ি দেওয়া অনেক সহজ হবে। বন্ধুটিকে মনের কথা বলার আগে করুন এই কাজগুলো।

  ১। নিশ্চিত হোন তাকে ভালোবাসেন কিনা
আপনি কি সত্যিই তাকে ভালোবাসেন? নাকি এটি শুধু আকর্ষণ? ভালোবাসা এবং আকর্ষণের মাঝে অনেক পার্থক্য রয়েছে। নিজেকে প্রশ্ন করুন, সময় নিন, এবং চিন্তা করুন। অনেক সময় ক্ষণিকের ভালোলাগাটাকে ভালোবাসা মনে হয়, পরে ভালোলাগা কমে যাওয়ার সাথে সাথে ভালোবাসা কমতে থাকে।

২। অনুমান করার চেষ্টা করুন
আপনার বন্ধুটিকে অনেকদিন ধরে চিনেন। তবুও মনের কথাটি বলার আগে সময় নিন। তার অনুভুতি বোঝার চেষ্টা করুন। আপনার কথায় সে কি প্রতিক্রিয়া করবে তা অনুমান করার চেষ্টা করুন।

৩। নিজের অনুভূতির সঠিক প্রকাশ করুন
বন্ধুকে মনের কথা জানানোর সময় কিছুটা সাবধানতা অবলম্বন করুন। এমন শব্দ পছন্দ করুন যা আপনার অনুভূতির সঠিক প্রকাশ করবে। যেমন “আমি তোমাকে পাগলের মত ভালোবাসি” তা বলার পরিবর্তে বলতে পারেন “তোমার প্রতি আমার অনুভুতি পরিবর্তন হচ্ছে। আমি তোমাকে বন্ধুর চেয়ে বেশি কিছু ভাবতে শুরু করেছি। তুমিও কি একইরকম কিছু ভাবো”?

৪। সঠিক সময় নির্বাচন করুন
ভালবাসি কথাটি বলার আগে একবার দেখে নিন সময়টি ঠিক আছে কিনা? হুট করে বলে ফেলবেন না। এতে হিতে বিপরীত হতে পারে। হয়তো তার কোন আত্নীয় মারা গেছে কিংবা কোন কারণে তার মন খারাপ এমন সময় মনের কথা বলতে যাবেন না। অপেক্ষা করুন, সময় নিন, তারপর বলুন।

৫। বলে ফেলুন মনের কথাটি
কোনো একটি সুন্দর বিকেলে সুন্দর কোনো জায়গায় বন্ধুটিকে আসতে বলুন। ধীরে ধীরে কিছুটা সময় নিয়ে বন্ধুটিকে বলে ফেলুন। প্রথমে তার কাছে ক্ষমা চেয়ে নিন এই বলে যে, আপনি যা বলতে যাচ্ছেন তা শুনে সে যদি কষ্ট পায় তবে যেন আপনাকে ক্ষমা করে দেয়। অল্প কথায় সুন্দর করে বলে ফেলুন মনের কথাটি।

৬। তার প্রতিক্রিয়া সহজভাবে নিন
হতে পারে আপনার বন্ধুটি আপনাকে ‘না’ করে দিল। এতে খুব বেশি প্রতিক্রিয়া আপনি দেখাবেন না। মেনে নিন। বন্ধুত্বটা ঠিক রাখুন। তার পছন্দ অপছন্দকে সম্মান করুন।

৭। ভবিষ্যতের কথা ভাবুন
যেকোনো সম্পর্কের ক্ষেত্রে ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করার প্রয়োজন। হয়তো আপনার বন্ধুটি আপনাকে “না” বলতে পারে, কিংবা আপনার সাথে সম্পর্কও নাও রাখতে পারে, সেটি সহজভাবে নিন, তাকে সময় দিন। তার সাথে আগের মতো বন্ধুর মতো ব্যবহার করুন। দেখবেন একসময় আপনার বন্ধুটিও সহজ হয়ে গেছে।

বিডিটুডেস/জেডএইচ/৭জানুয়ারি’১৭