English Version

আজকের চাকরির খবর লাইভ খেলা দেখুন

কিভাবে বুঝলে এটা ধর্ষণ? রক্ত কোথায় থেকে বেড়িয়েছিল?


ধর্ষণ ও হত্যার ঘটনার তদন্তে গিয়ে সবার সামনে ধর্ষিতার বান্ধবীকেই আপত্তিকর প্রশ্ন করে বসলেন বিহারে এনডিএ জোটের শরিক দল রাষ্ট্রীয় লোক সমতা পার্টির বিধায়ক লালন পাশোয়ান! শুধু একটি প্রশ্নই নয়, সবার সামনে একের পর এক আপত্তিকর ও মহিলাদের প্রতি অবমাননাকর প্রশ্নে জেরবার করে দিলেন ধর্ষণের পর খুন হয়ে যাওয়া এক ছাত্রীর বান্ধবীকে!

টেলিভিশন ক্যামেরার সামনেই বিহারের ওই বিধায়ক বেপরোয়া ভাবে ধর্ষিতার বান্ধবীকে প্রশ্ন করেন, ‘‘তোমার বন্ধুকে যে ধর্ষণ করা হয়েছিল, তা তুমি বুঝলে কী ভাবে? রক্ত কোথা থেকে বেরিয়েছিল?’’ বহু মানুষের সামনে বিধায়কের ওই আচমকা প্রশ্নে অত্যন্ত লজ্জায় পড়ে যান ওই কিশোরী। হাবেভাবে ওই বিধায়ক এমনও বুঝিয়ে দেন, বৈশালীর ওই সরকারি গার্লস হস্টেলের ছাত্রীদের সঙ্গে ওই ধর্ষকের সম্পর্ক ছিল অনেক দিন ধরেই! ছাত্রীরা সেই ছেলেটিকে চিনতেন, তার সঙ্গে মেলামেশাও করতেন! রবিবার বৈশালীর ওই সরকারি গার্লস হস্টেল থেকে দশম শ্রেণির এক ছাত্রীর মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। রক্তে তার জামাকাপড় ভেসে যাচ্ছিল। বুধবার সেই হস্টেল পরিদর্শনেই গিয়েছিলেন বিধায়ক লালন পাশোয়ান। খুন করার আগে ওই ছাত্রীটিকে সত্যি-সত্যিই ধর্ষণ করা হয়েছিল কি না, বিধায়ক এ দিন নিজেই তার তদন্তে নেমে পড়ে হস্টেলের আবাসিক ছাত্রীদের নানা রকমের আপত্তিকর প্রশ্ন ও পাল্টা প্রশ্ন করতে শুরু দেন। তাতে রীতিমতো বিড়ম্বনায় পড়ে যান ছাত্রীরা।

বেশরম প্রশ্নের মুখে রীতিমতো অস্বস্তিকর পরিস্থিতির মধ্যে পড়ে যাওয়া এক ছাত্রীকে ওই বিধায়ক বলেন, ‘‘তোমরা শিক্ষিত মেয়ে। তোমাদের তো এ সব প্রশ্নে ঝটপট উত্তর দেওয়া উচিত।’’ টেলিভিশনের ক্যামেরায় দেখা গিয়েছে, ওই সময় ছাত্রীটির সামনেই দাঁড়িয়েছিলেন তাঁর শিক্ষিকারা। তার কোনও পরোয়াই করেননি বিধায়ক লালন পাশোয়ান। বরং তিনি ছাত্রীটিকে তার পরেও প্রশ্ন করেন, ‘‘তুমি কিছুই বলছ না। কাল যদি তোমাকে কেউ ধর্ষণ করে, তুমি কী করবে? কোনও ধর্ষক যদি হস্টেলে তোমার ঘরে ঢুকে পড়ে, তুমি কী করবে?’’

হস্টেল কর্তৃপক্ষ ও শিক্ষিকাদের সামনেই ওই বিধায়ককে বলতে শোনা যায়, হস্টেলের ছাত্রীরাই ছেলেদের সঙ্গে নাকি বেশরম ভাবে মেলামেশা করেন! তাঁরা উত্তেজক পোশাক পরেন! ছেলেদের প্রলুব্ধ করেন!

পরে শিক্ষিকাদের দিকে আঙুল উঁচিয়ে বিধায়ক পাশোয়ান বলেন, ‘‘আপনাদের উস্কানিতেই এ সব হচ্ছে। আপনাদের জন্যই ছেলেরা মেয়েদের ঘরে হুটহাট ঢুকে পড়তে পারছে।’’

সম্প্রতি বেঙ্গালুরুতে এক কিশোরীর শ্লীলতাহানির ঘটনার পরেও কর্নাটকের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে বলতে শোনা গিয়েছিল, ‘‘এ সব তো হয়েই থাকে!’’


  • 1.5K
    Shares