English Version

আজকের চাকরির খবর লাইভ খেলা দেখুন

কবিতা: ওরাই রাক্ষস


ওরাই রাক্ষস
ফয়সাল হাবিব সানি

———————————————————–

ওরা ওদের প্রকৃত চেহারার অাড়ালে পরিধান করে মুখোশ,
ওরাই রাক্ষস।
দুর্নীতি করতে মারে ফোশ,
ওরাই রাক্ষস।
ওদের অঙ্গ-প্রত্যঙ্গে অমানবতার কোষ,
ওরাই রাক্ষস।
ওরা ঘুষের টাকায় কিনে নিয়ে যায় গোশ,
ওরাই রাক্ষস।
ওরা ভালো গুণেও খুঁজে দোষ,
ওরাই রাক্ষস।
ওরা নারী-পুরুষ করে পাচার,
ওদের কথায় চলে বাজার;
ওরা করে গুণ্ডামি, করে ভণ্ডামি—
ওরা প্রতিভাকে চিনতে করে অাপোষ,
ওরাই রাক্ষস।
ওরা নিরীহের উপর চালায় রুলার!
ওরাই রাক্ষস, ওরাই বাটপার; ওরাই সাধারণকে ঠকিয়ে ব্যবসায় লাভ করে বাম্পার।
ওরা ওদের কলঙ্কিত অায়ে-
বিভিন্ন শহরে দালানকোঠা গড়ে হাজার,
তবে ওরাই রাক্ষস, ওরাই চামার; ওরাই জাতির অাঁধার।
ওরা দিনমজুর খেঁটে খাওয়া মানুষদের ঘামের দেয় না সঠিক দাম,
ওদের সারা দেহে রাক্ষসের চাম।
চায় শুধু যশ,
ওরাই রাক্ষস।
ওরা ছেলেধরা, ওরা নীতিহীন, ওরা নারীলোভী;
ওরা ওদের দুষ্কর্ম চালায় চুপি-চুপি
ওরা মরণাস্ত্রের কেরামতিতে দেখায় সাহস,
বলে রাখি-
সর্বচাক্ষুষ বিধাতা জানে, বিশ্বব্রহ্মাণ্ড জানে, অামি জানি ওরাই রাক্ষস
ওরা খাওয়ার সময় ফেলে দেয় ভাত,
ওরাই রাক্ষস, ওরাই বজ্জাত; ওদেরই কালো হাত।
ওরা টাকা গুণে হাতে,
চাঁদাবাজি করে দিনে-রাতে।
লোকে ওদের বলে বোস,
কিন্তু ওরাই রাক্ষস।
ওরা শুধু মানবখেকো নয়; ওরা দেশখেকো— এমনকি পৃথিবীখেকো রাক্ষস!
তাই জীবনের সন্তাপেই, দ্রোহের উত্তাপেই, হৃদযন্ত্রের দাপে তিক্তস্বরে বলছি-
অন্তরের দৃষ্টিতে ওদের দেখলেই মোর বক্ষ ভেদে, জীবন-মরণের সঙ্গে পাল্লার জিদে-
হৃদয় শহরের লুপ্ত ফণা হঠাৎ নেঁচে প্রাণনাশের নেশায় করে ফসফস।
ওরা গরিব-অসহায়দের শরীর থেকে চুষে রস,
তাই অাবারও দ্বিধাহীন চিত্তেই, বজ্র গীতেই বলছি-
ওরাই রাক্ষস; ওরাই শূয়োরের চেয়ে নিকৃষ্ট মাতৃ-বংশহীন রাক্ষস