English Version

খাগড়াছড়িতে পাহাড়ী ঢলে ঘরবাড়ি প্লাবিত, পাহাড় ধসে শিশু নিহত


মো. আজিম উদ্দিন, খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি: খাগড়াছড়ি জেলার লক্ষ্মীছড়ি উপজেলায় শনিবার রাত থেকে টানা ভারি বর্ষন ও উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ী ঢলে কয়েকটি এলাকা প্লাবিত হয়। লক্ষীছড়ি সদরে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ের পিছনের রাস্তা দিয়ে বেলতলী পাড়া, হাইস্কুলের পেছনে ধুরুং পাড়া, গুচ্ছ গ্রামের কিছু অংশ, উপজেলা মসজিদ এবং পার্শ্ববর্তি ঘরবাড়ি বর্মাছড়ি এলাকার অধিকাংশ নিন্ম এলাকাসহ প্রায় ৩০-৪০টি বাড়ি ঘর তলিয়ে গেছে। এতে অনেকে ঘরবাড়ি নিরাপদ জায়গায় সরিয়ে নিচ্ছে।

 

ময়ুরখিল ১০ নং পুলিশ ফারির নিচের বেইলী ব্রিজ এর উপর সীমা অতিক্রম করে বন্যার পানিতে তাৎক্ষনিকভাবে ক্ষয়-ক্ষতির পরিমাণ এখোনো পরিমাপ করা সম্ভব হয়নি।

অন্যদিকে ভোর ৬ টায় যতীন্দ্র কার্বারী পাড়ায় হেংত্যা চাকমার ৭ বছরের শিশু ইপন চাকমা মারা গেছেন বলে প্রাথমিক তথ্যে জানা গেছে। তবে আরো একজন নিখোজের হওয়ার খবর পাওয়া পাওয়া গেছে।

 

এই বিষয়ে উপজেলা লক্ষীছড়ি উপজেলা নির্বাহী অফিসার জাহিদ ইকবাল বলেন, লক্ষিছড়িতে জনসংখ্যার পরিমাণ কম ও পাহাড়ের ঢালে বসবাস করার মত তেমন কোন পরিবার নেই। তবে পাহাড় ধসে যে শিশুটি মারা গেছে সেটি আসলে একটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা।

অপরদিকে পানি না সরে যাওয়া পর্যন্ত উদ্ধার কাজক্রম চালানো সম্ভব হচ্ছে না, পানি সরে গেলে আমরা প্রশাসনের পক্ষ থেকে খুব দ্রুত ভাবে কার্যক্রম শুরু করব।