English Version

সোনাদিয়ায় গভীর সমুদ্র বন্দর হবে তিন ধাপে : নৌমন্ত্রী


নৌ-পরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খান বলেছেন, কক্সবাজার জেলার সেনাদিয়ায় একটি গভীর সমুদ্র বন্দর নির্মাণের জন্য পরামর্শক প্রতিষ্ঠান পিসিআই’র সমীক্ষা প্রতিবেদনে তিন ধাপে এই গভীর সমুদ্রবন্দর নির্মাণের প্রকল্প বাস্তবায়নের প্রস্তাব করা হয়েছে। এতে প্রথম পর্যায়ে বন্দর নির্মাণের জন্য লাগবে পাঁচ বছর। এছাড়া জাইকা মাতার বাড়িতে একটি গভীর সমুদ্রবন্দর স্থাপনের সম্ভাব্যতা সমীক্ষা করছে বলেও তিনি জানান।

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী সংসদের বাজেট অধিবেশনে সোমবার টেবিলে উত্থাপিত প্রশ্নোত্তর পর্বে মোহাম্মদ ইলিয়াছের (কক্সবাজার-১) প্রশ্নের জবাবে তিনি সংসদে এ তথ্য জানান।

নৌমন্ত্রী বলেন, ২০০৯ সালে জাপানের প্যাসিফিক কনসালট্যান্ট ইন্টারন্যাশনাল (পিসিআই) কোম্পানি গভীর সমুদ্র বন্দর নিমার্ণের জন্য ‘টেকনো ইকোনোমিক ফ্যাসিবিলিটি স্টাডি’ করে এই প্রতিবেদন দাখিল করে। এতে সোনাদিয়ায় বন্দর নির্মাণে দ্বিতীয় পর্যায়ের কাজ শেষ হবে ২০৩৫ সালে এবং তৃতীয় পর্যায়ের কাজ ২০৫৫ সালে সমাপ্তির পরিকল্পনা করা হয়েছে। কক্সবাজারে গভীর সমুদ্র বন্দর নির্মাণে প্রকল্পটি সরকারের ফাস্ট ট্রাক প্রকল্পের অন্তর্ভূক্ত রয়েছে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।