English Version

আখেরী মোনাজাতের মধ্যে দিয়ে নলতায় শেষ হয়েছে বার্ষিক ওরছ শরীফ

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

শেখ আমিনুর হোসেন, সাতক্ষীরা: সাতক্ষীরার কালিগঞ্জ উপজেলার নলতা শরীফে রবিবার আখেরী মোনাজাতের মধ্যদিয়ে শেষ হয়েছে পীরে-কামেল হযরত খানবাহাদুর আহ্ছানউল্লা (র.) এঁর ৫৫ তম বার্ষিক ওরছ শরীফ। সাবেক স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা মন্ত্রী, সংসদ সদস্য আলহাজ্ব ডাঃ আ,ফ,ম রুহুল হক, এনবি আর এর সাবেক  চেয়ারম্যান ড. আব্দুল মজিদ, সাবেক সংসদ সদস্য মুনসুর আহম্মদ, বাংলা একাডেমীর সাবেক পরিচালক ড.মোঃ মাঈনউদ্দীন, নলতা আহছানিয়া মিশনের সহ-সভাপতি আলহাজ্ব সেলিমউল্লাহ, সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক এসএম মোস্তফা কামাল, সাতক্ষীরা পুলিশ সুপার মোঃ সাজ্জাদুর রহমান, কালিগঞ্জ ইউ এন ও সহ সরকারি গুরুত্বপুর্ণ পদস্থ কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি, বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দ, সাংবাদিক, সুধী ও দেশ বিদেশ থেকে আশা হাজার হাজার ভক্ত আশেকীন এ মোনাজাতে অংশগ্রহন করেন।

উল্লেখ্য যে, উপ-মহাদেশের বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ, শিক্ষা ও সমাজ সংস্কারক, সাহিত্যিক, দার্শনিক, মুসলিম রেনেসাঁর অগ্রদূত, সুফী-সাধক, সুলতানুল আউলিয়া কুতুবুল আকতাব গওছে জামান আরেফ বিল্লাহ হজরত শাহ্ছুফী খানবাহাদুর আহ্ছানউল্লা (র.) এঁর মহা পবিত্র ওরছ শরীফ উপলক্ষে অপরূপ সাজে সাজানো হয়েছে নলতা শরীফকে। পবিত্র রওজা শরীফ রঙ-বেরঙের আলোর ঝলকানি আর রওজা শরীফ প্রাঙ্গণে বহুবিধ ফুল গাছগুলো সুশোভিত আর সুগন্ধ ছড়িয়ে জানান দিচ্ছে নলতা শরীফের সুগন্ধির আবহ। দেশ বিদেশের বহু এলাকা হতে লক্ষ লক্ষ ভক্ত ও  দর্শনার্থীদের পদভারে প্রকম্পিত এবং উজ্জীবিত নলতা শরীফ। দেশের সব প্রান্ত হতে দলে দলে লোক আসছে নলতা শরীফে। এছাড়াও সুবিশাল সামিয়ানা, গেট, প্যান্ডেল, আলোক উজ্জ্বল আভার বিচ্ছুরনে নলতা শরীফ অভাবনীয় ভাবে জ্বলছে তো জ্বলছে। গত কয়েক দিন যাবৎ নলতা শরীফ সহ আশেপাশের এলাকার গ্রামগুলোতে আত্মীয়-স্বজনদের পদভারে প্রকম্পিত বিস্তীর্ণ জনপদ।

পাক রওজা শরীফ এলাকা সংলগ্ন অন্তত ৫ কিলোমিটার এলাকাব্যাপী জনস্রোত বইছে। সেই সাথে বহুবিধ পণ্যসামগ্রী নিয়ে বসেছে ছোট বড় শত শত দোকান। মনোহরী হতে শুরু করে ঘর গৃহস্থলী, ইলেট্রনিক্স, বিভিন্ন ধরনের খেলনা সামগ্রী শোভা পাচ্ছে নলতা শরীফের ওরছ উপলক্ষ্যে আয়োজিত মেলায়। আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় জেলা পুলিশ সুপারের নির্দেশে কালিগঞ্জ থানার চৌকস অফিসার ইনচার্জ হাসান হাফিজুর রহমানের নেতৃত্বে এবং ওসি ( তদন্ত) মোহাম্মদ রাজিব হোসেনের তদারকীতে পুলিশ বাহিনী, গ্রাম পুলিশ, আনসার ভিডিপি সদস্য, রোভার স্কাউটস্, স্কাউটস্, স্বেচ্ছাসেবক বাহিনী নিরালস চেষ্টা করে চলেছেন। যানবাহন রাখার সু-ব্যবস্থা, হৃদয়ে আহ্ছান, নলতা হাসপাতালের সৌজন্যে বিনামূল্যে চিকিৎসা কেন্দ্র, মিলাদ শরীফের স্টল, এ্যালটমেন্ট কক্ষ, রন্ধনশালা সহ নানা বিষয়ে পাক রওজা শরীফের শ্রদ্ধেয় খাদেম এবং ওরছ শরীফ উদ্যাপন কমিটির আহবায়ক আলহাজ্জ মৌলভী আনছার উদ্দিন আহমদ’র বিশেষ দিক নির্দেশনায় ও নলতা কেন্দ্রীয় আহ্ছানিয়া মিশন কর্মকর্তাদের তত্ত্বাবধানে নলতা শরীফ সহ আশপাশের এলাকায় ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্য পরিবেশ বিরাজ করছে।

বৃটিশ শাসনামলে নলতা শরীফের পীর খ্যাত খানবাহাদুর আহ্ছানউল্লা (র.) শিক্ষা বিভাগের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। শিক্ষা বিস্তার এবং প্রসারের পাশাপাশি মনীষী সমাজ সংস্কারক এবং ইসলাম প্রচারে বিশেষ ভুমিকা রাখেন। রবিবার সকাল ৯ টায় রওজা শরীফ ময়দানে লক্ষ জনতার অংশগ্রহনে অনুষ্ঠিত হয়েছে আখেরী মোনাজাত। দোয়া ও মোনাজাত পরিচালনা করেন নলতা শরীফ শাহী মসজিদের পেশ ঈমাম হজরত মাওঃ মুফতি আবু ছাইদ (রংপুরী)। এসময় আমিন আমিন ধ্বনীতে প্রকম্পিত হয়ে ওঠে নলতা শরীফ এলাকা। বৃহৎ এ মোনাজাতে অংশগ্রহনের জন্য দুর দুরান্ত থেকে মুসুল্লীগন ফজরের নামাজ পড়েই ছুটে আসেন। সবমিলে অনেক শান্তিপুর্ণ পরিবেশে ঝামেলা ছাড়াই সম্পন্ন হয়েছে তিনদিন ব্যাপী নলতার ওরছ শরীফ। বিডিটুডেস /ডি আই/ ১০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

2 + eleven =