ঢাকা, বাংলাদেশ, ০°সে | আজ |
ইংরেজী ভার্সন English Version

ইউরোপে ছড়াচ্ছে আরবের ভয়ংকর ‘ধর্ষণ-খেলা’ তাহারুশ

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

বিডিটুডেস ডেস্ক:  মধ্যপ্রাচ্য তথা আরব বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে ইউরোপে আশ্রয়ের জন্য যাচ্ছে মানুষ। এসব মানুষের সঙ্গে যাচ্ছে তাদের পরিবার, অভ্যাস আর সংস্কৃতি। যাচ্ছে ঘৃণ্য কিছু অভ্যাসও। ‘তাহারুশে’র মতো আরব তরুণদের ঘৃণ্য ও বদ অভ্যাস ইউরোপে ঢুকে পড়ছে। আর এর শিকার হচ্ছেন নারীরা।ইন্ডিয়া টাইমস জানিয়েছে, নতুন বছরের সন্ধ্যায় এ বিষয়টি ধরা পড়েছিল জার্মান পুলিশের চোখে। পরে জার্মান পুলিশই জানিয়েছে, আশ্রয়ের সন্ধানে আসা আরব তরুণদের সঙ্গে ইউরোপে চলে এসেছে তাহারুশ।

তাহারুশ কী? এটি এক ধরনের ঘৃণ্য কাজ, যাকে ‘ধর্ষণ-খেলা’ বলা যেতে পারে। এতে একজন মেয়েকে মাঝখানে ঘিরে রাখা হয়। চারদিকে থাকে তরুণদের দল। আর মেয়েটিকে ইচ্ছেমতো শারীরিক ও মানসিকভাবে নাজেহাল করা হয়। শরীরের বিভিন্ন অংশ ধরে টানাটানি করবে, জামা কাপড় ছিঁড়ে ফেলা ইত্যাদি। এদেরই মধ্যে কয়েকজন ভাব করবে যে মেয়েটিকে তাঁরা বাঁচানোর চেষ্টা করছে। কিন্তু আসলে এটাও তাহারুশের একটা অংশ। একসময় ওরাও মেয়েটির কাছ থেকে সুযোগ নেবে।

আরও পড়ুনবাত থেকে বাঁচতে কী কী নিয়ম পালন করতে হবে
জার্মানির পুলিশ জানিয়েছে সম্প্রতি বার্লিন, হামবুর্গ, ফ্রাংকফুর্ট, ডুসেলডর্ফ এবং স্টুটগার্টে এ ধরনের ঘটনা ঘটেছে। তবে কেবল জার্মানি নয় অস্ট্রিয়া, সুইজারল্যান্ডেও এমন ঘটনা ঘটেছে।তাহারুশ প্রথম ঘটে মিসরে। কিন্তু প্রতিটি আরব দেশেই তরুণরা তাহারুশ ঘটায়। ২০১৩ সালের কায়রো তাহরির স্কয়ারে ঘটার পর ভয়াবহ এ খেলাটি বিশ্ববাসীর নজরে আসে।

বিডিটুডেস/রুস/13.02.18