English Version

এবার হরিণাকুন্ডুর ভায়না ইউনিয়ন পরিষদ থেকে চাউল চুরির সময় ২ জন আটক

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন


মো: জাহিদুর রহমান তারিক, ঝিনাইদহ: ঝিনাইদহের হরিণাকুন্ডু উপজেলার ভায়না ইউনিয়ন পরিষদ থেকে চাউল চুরির সময় দুই জনকে আটক করেছে পুলিশ। সোমবার রাতে চুরির সময় হাতে নাতে তাদের আটক করা হয়। আটককৃতরা হলো-ওই ইউনিয়ন পরিষদের উদ্যোক্তা তরিকুল ইসলাম ও ট্যাক্স আদায়কারী মানোয়ার হোসেন। এ ঘটনায় হরিণাকুন্ডু থানায় একটি মামলা হয়েছে। হরিণাকুন্ডু থানার ওসি কে এম শওকত হোসেন জানান, ভায়না ইউনিয়ন পরিষদের গুদাম থেকে ভিজিডির চাউল চুরি করা হচ্ছে এমন সংবাদে সেখানে অভিযান চালানো হয়।

আরো পড়ুন: ঝিনাইদহে ভ্রাম্যমাণ আদালতে মাদক ব্যবসায়ীর কারাদন্ড

এসময় চাউল চুরির সময় হাতে নাতে ওই ইউনিয়ন পরিষদের উদ্যোক্তা তরিকুল ইসলাম ও ট্যাক্স আদায়কারী মনোয়ার হোসেনকে আটক করা হয়। তবে এ ঘটনার সাথে ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ছমির উদ্দিনের যোগসাজস রয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এলাকাবাসী নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান, চাউল চুরির ঘটনাটি সঠিক। চেয়ারম্যান ছমির উদ্দিনের নির্দেশেই চাউল চুরি করা হচ্ছিল। ইউনিয়ন পরিষদ থেকে চাউল চুরি হচ্ছে সেটা চেয়ারম্যান জানবে না, এটা হতে পারে না। এছাড়াও ওই চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে নানা অনিয়ম ও দুর্নিতীর অভিযোগ করেন এলাকাবাসী।

চেয়ারম্যান ছমির উদ্দিন বলেন, শনিবার ইউনিয়ন পরিষদের অসহায় ও দুস্থ্য মানুষের মাঝে ৩০ কেজি করে ২০৩ বস্তা ভিজিডির চাউল উপজেলা খাদ্য গুদাম থেকে উত্তোলন করে পরিষদের গুদামে রাখা হয়। রাতে চাউলের বস্তাগুলো সাজিয়ে রাখার জন্য কর্মচারীদের বলা হলে তারা চাউলের এলোমেলো বস্তা গুলো গুদামেই সাজিয়ে রাখছিল। চুরির সাথে সে বা তার পরিষদের কেউ জড়িত না। ঘটনাটি মিথ্যা ও সাজানো। এ ব্যাপারে হরিণাকুন্ডু উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম বলেন, ঘটনাটি শুনেছি। তদন্ত স্বাপেক্ষে এ ঘটনায় যারা জড়িত থাকুক না কেন তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। বিডিটুডেস/আরএ/১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮