English Version

খুব সহজে আঁচিল দূর করার ঘরোয়া পদ্ধতি

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

বিডিটুডেস ডেস্ক: আঁচিল না হয়ে তিল হলেও একটা কথা ছিল। কারণ তিল আমাদের চেহারায় সৌন্দর্য বাড়াতে সাহায্য করে। আর আঁচিল তার উলটা। দেখতে তো বাজে লাগেই আবার মাঝে মাঝে এমন এমন জায়গায় হয় যে খুবই বিরক্ত লাগে। আপনি চাইলে এটা অপারেশন করে ফেলে দিতে পারেন। তবে সেটা হয়ে যায় ধান ভাঙতে শিবের গীতের মতো। তার চাইতে কিছু ঘরোয়া উপায় জেনে নিন জার মাধ্যমে আপনি খুব সহজেই আঁচিল থেকে মুক্তি পেতে পারেন।

অ্যাপল সিডার ভিনিগার: ভিনিগারে ভেজানো তুলো আঁচিলের উপর রেখে দিন সারা রাত। পাঁচ দিন করুন। অ্যাপল সিডার ভিনিগারে প্রচুর অ্যাসিড রয়েছে। এই অ্যাসিড প্রাকৃতিকভাবে জড়ুল বা আঁচিল পুড়িয়ে দেয়। ফলে আঁচিলের বৃদ্ধি রোধ হয়।

অ্যালভেরা: একটা অ্যালভেরা পাতা কেটে নিন। ভিতরের থকথকে জেলিটা ওই জায়গায় লাগিয়ে দিন। কয়েকদিন করলেই আঁচিল শুকিয়ে যাবে। নিজে থেকে ঝরেও যাবে। অ্যালোভেরার মধ্যে উপস্থিত ম্যালিক অ্যাসিড এই ম্যাজিক করে দেখাবে।

বেকিং পাউডার: ক্যাস্টর অয়েল এবং বেকিং পাউডারের একটি মিশ্রণ তৈরি করে ফেলুন। মিশ্রণটা আঁচিলের উপর ভালো করে লাগিয়ে বেঁধে রাখুন জায়গাটা। সারা রাত এইভাবে ফেলে রাখুন। দু-তিন দিন পর থেকেই ফল পেতে শুরু করবেন। ক্রমশ আঁচিল অদৃশ্য হয়ে যাবে।

রসুন: ত্বকের যত্নে রসুন খুবই উপকারি। অ্যালিসিন রয়েছে রসুনে। অ্যালিসিন অ্যান্টি-মাইক্রোবিয়াল। রসুন থেঁতো করে ওই জায়গায় লাগালে উপকার হবে।

কলার খোসা: কলা খেতে ভালবাসেন? খোসাটা ফেলবেন না। খোসার উৎসেচক ত্বককে রক্ষা করে। রোজ কলার খোসা জড়ুলের উপর ঘষলে ফল পাবেন।

মাথার চুল: কী, মাথার চুল শুনে একটু অবাক হচ্ছেন? অবাক হওয়ার কিছুই নেই। আমাদের দেশে আঁচিল দূর করার সব চাইতে সহজ ও বেশি ব্যবহারের পদ্ধতি হচ্ছে চুল। আপনার আঁচিল যদি বর আর লম্বাটে টাইপ হয়ে থাকে তাহলে আপনার মাথা থেকে শক্ত দেখে একটি চুল নিয়ে দুই বা তিন ভাজ করে নিন। তারপর আচিলের গোড়ার দিকে শক্ত করে একটা বাঁধন দিন। খেয়াল রাখবেন খুব বেশি ঢিলা যেন না হয়। এমন টাইট করুন যেন আচিলের গোড়ায় বেশি চাপ পরে। তারপর চুলের বাড়তি অংশগুলো কেটে দিন। তারপর অপেক্ষা করুন। তারপর আপনার আঁচিল কোথায় এবং কীভাবে পরবে সেটা আপনি টেরও পাবেন না। বিডিটুডেস /ডি আই/ ১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

7 + ten =