English Version

জামাতের বিষয়টি আইনি প্রক্রিয়ার মাধ্যমেই নিষ্পত্তি করা হবে -মন্ত্রী আনিসুল ‍হক

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

ছবি অনলাইন

বিডিটুডেস ডেস্ক: যুদ্ধাপরাধীর দল হিসেবে জামায়াতে ইসলামীর বিরুদ্ধে কোনো আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া সরকারের কোনো পরিকল্পনা আছে কি-না, থাকলে তা কি- সংসদে এমন প্রশ্নের উত্তর দিয়েছেন মন্ত্রী আনিসুল ‍হক। রোববার সংসদে মন্ত্রীকে প্রশ্নটি করেন নেত্রকোনা-৫ আসনের সংসদ সদস্য ওয়ারেসাত হোসেন বেলাল। এ বিষয়ে আনিসুল হক জানান, ১৯৯৮ সালে জামায়াতে ইসলামীকে নিয়ে বিএনপি চার দলীয় জোট গঠন করে। যে জামায়াতে ইসলামী ১৯৭১ সালে রাজনৈতিকভাবে দৃঢ় ও প্রকাশ্য অবস্থান নিয়ে মহান মুক্তিযুদ্ধের বিরোধিতা করেছিল তাদের বাড়ি এবং গাড়িতে চার দলীয় জোট জাতীয় পতাকা উড়ায়। কিন্তু বর্তমান সরকার সবসময়ই আইনের শাসনে বিশ্বাসী। এই সরকারই বঙ্গবন্ধু,

জাতীয় চার নেতা হত্যা ও যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের মাধ্যমে এদেশে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা করেছে। এদেশের মাটিতেই যুদ্ধাপরাধীদের বিচার করে জাতিকে কলঙ্কমুক্ত করেছে। তিনি বলেন, আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে যুদ্ধাপরাধীদের একাধিক মামলার রায়ে আদালত জামায়াতে ইসলামী দল হিসেবে যুদ্ধাপরাধে জড়িত ছিল মর্মে উল্লেখ করেছে। পরবর্তীতে ২০১৮ সালের ২৮ অক্টোবর নির্বাচন কমিশন জামায়াতে ইসলামীর নিবন্ধন বাতিল করে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে। দল হিসেবে জামায়াতে ইসলামীর বিচার প্রক্রিয়ার জন্য ইতোমধ্যে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল আইনের সংশোধনী তৈরি করে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে পাঠানো হয়েছিল। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা নিয়ে পুনরায় ওই সংশোধনী মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে পাঠানোর উদ্যোগ নেওয়া হবে, যাতে এটি মন্ত্রিসভায় উপস্থাপন করা যায়। আইনি প্রক্রিয়ার মাধ্যমেই বিষয়টি নিষ্পত্তি করা হবে যোগ করেন তিনি। বিডিটুডেস/আরএ/১০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

5 + ten =