English Version

আজকের চাকরির খবর লাইভ খেলা দেখুন

জিম্বাবুয়ে এসেছে গতকাল, শ্রীলঙ্কা আসছে আজ

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন


তিন দিন ধরে আসার সূচি পেছানোর পর অবশেষে গতকাল চার দলে ভাগ হয়ে ঢাকায় এসে পৌঁছেছে জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট দল। ত্রিদেশীয় টুর্নামেন্টের আরেক দল শ্রীলঙ্কার ঢাকায় পৌঁছানোর কথা আজ সকালে। চান্দিকা হাথুরুসিংহের অধীনে প্রথম অভিযানে তার সাবেক কর্মক্ষেত্র বাংলাদেশে পৌঁছাবে আজ শ্রীলঙ্কা।
জিম্বাবুয়ে দলের আসার কথা ছিল প্রথমে ১০ জানুয়ারি। কিন্তু ৯ জানুয়ারি বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) জানায় যে, একদিন পিছিয়ে ১১ জানুয়ারি আসবে জিম্বাবুয়ে দল। এরপরের দিন বিসিবি থেকে আবার জানানো হয়, জিম্বাবুয়ের বাংলাদেশ আগমন আরেকদিন পিছিয়ে গেছে। যদিও বিসিবি থেকে এই দফায় দফায় আসার তারিখ পরিবর্তনের কোনো কারণ জানানো হয়নি। তবে ভেতরের কিছু সূত্র জানিয়েছে, জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট বোর্ড আগে থেকে বাংলাদেশ ভ্রমণের জন্য বিমানের টিকিট নিশ্চিত করেনি। শেষ মুহূর্তে সেই চেষ্টা করায় এই জটিলতা তৈরি হয়েছে।
অবশেষে সব জটিলতার অবসান করে গতকাল সকালে দলের একজন সদস্য আসার ভেতর দিয়ে শুরু হয় বাংলাদেশে এই দফায় জিম্বাবুয়ের আগমন। এরপর বিকালে এক সাথে ১২ জন, রাত আটটায় আরেকজন এবং রাত ১১টায় আরও ৮ জন এসে পৌঁছানোর কথা ঢাকায়।
জিম্বাবুয়ের এই বিলম্বে আসার ফলে তাদের প্রস্তাবিত অনুশীলন ম্যাচটি আর আয়োজন হয়নি। আজই বিকেএসপিতে বিসিবি একাদশের বিপক্ষে ম্যাচ খেলার কথা ছিল তাদের। সেই ম্যাচ না খেললেও আজ বিকেলে অনুশীলন শুরু করবে হিথ স্ট্রিকের দল।
হিথ স্ট্রিক যেমন তার সাবেক কর্মক্ষেত্র বাংলাদেশে এসেছেন অ্যাসাইনমেন্ট নিয়ে, একই রকমভাবে আজ আসছেন হাথুরুসিংহে। এই বাংলাদেশের সর্বশেষ আন্তর্জাতিক ম্যাচেও দলের দায়িত্বে ছিলেন হাথুরু। সেই দলটির বিপক্ষেই এবার নিজের দেশ শ্রীলঙ্কাকে নিয়ে আজ আসছেন এই লঙ্কান কোচ।

শ্রীলঙ্কা দল ঢাকায় পৌঁছে আজ আর অনুশীলন করার সম্ভাবনা কম। তবে বিকালে জিম্বাবুয়ে অনুশীলন করবে এবং আজ সকালে দুই দিন বিরতির পর অনুশীলন করবে বাংলাদেশ দল। বাংলাদেশ দল আজ হোটেলেও উঠে যাবে।
দীর্ঘদিন পর বাংলাদেশে শুরু হতে যাওয়া এই ত্রিদেশীয় টুর্নামেন্ট একটা উত্সবের আবহ নিয়ে আসছে। ১৫ জানুয়ারি শুরু হবে মূল ত্রিদেশীয় টুর্নামেন্ট। টুর্নামেন্টে প্রতিটি দল প্রত্যেকের বিপক্ষে দু’বার করে খেলবে লিগ পর্যায়ে। এরপর অনুষ্ঠিত হবে ফাইনাল। টুর্নামেন্টের ৭টি ম্যাচই ফ্লাড লাইটের নিচে মিরপুরে অনুষ্ঠিত হবে। ১৫ জানুয়ারি বাংলাদেশ ও জিম্বাবুয়ের ম্যাচ দিয়ে শুরু হবে খেলা। এরপর ১৯ জানুয়ারি শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে, ২৩ জানুয়ারি আবার জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে এবং ২৫ জানুয়ারি আবার শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে খেলবে বাংলাদেশ। ১৭ ও ২১ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হবে দুটি শ্রীলঙ্কা ও জিম্বাবুয়ে ম্যাচ। আর ২৭ জানুয়ারি ফাইনালের ভেতর দিয়ে পর্দা নামবে এই টুর্নামেন্টের।
ত্রিদেশীয় টুর্নামেন্ট শেষ হলেও খেলা এখানে শেষ হচ্ছে না। এরপর ৩১ জানুয়ারি থেকে শুরু হবে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দ্বিপাক্ষিক সিরিজ। এই সিরিজে বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কা দুটি করে টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি খেলবে। ৩১ জানুয়ারি থেকে ৪ ফেব্রুয়ারি প্রথম টেস্ট অনুষ্ঠিত হবে চট্টগ্রামে। এরপর ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে ১২ ফেব্রুয়ারি দ্বিতীয় টেস্ট অনুষ্ঠিত হবে মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে। এই একই ভেন্যুতে ১৫ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত হবে প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচ। আর সিরিজের শেষ ম্যাচ, দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি ১৮ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত হবে সিলেটে।
ত্রিদেশীয় টুর্নামেন্ট
১৫ জানুয়ারি বাংলাদেশ ও জিম্বাবুয়ের ম্যাচ দিয়ে শুরু হবে খেলা। এরপর ১৯ জানুয়ারি শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে, ২৩ জানুয়ারি আবার জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে এবং ২৫ জানুয়ারি আবার শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে খেলবে বাংলাদেশ।

সূত্র: ইত্তেফাক
বিডিটুডেইজ/নাভূ/13.01.18