English Version

২য় শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ করেছে ৭০ বছরের ‍বৃদ্ধ, থানায় মামলা

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

মো:মাহবুবুল আলম রিপন, ধামরাই: ঢাকার ধামরাইয়ে উপজেলার সদর ইউনিয়নে আশুলিয়া গ্রামের ২য় শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে একই এলাকার দুদু মিয়া (৭০) নামে এক ব্যাক্তির বিরুদ্ধে। বুধবার (৭ নভেম্বর) সন্ধ্যায় ধর্ষিতার নিজ বাড়িতে এ ধর্ষণের ঘটনা ঘটে।ধর্ষিতা আশুলিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালেয়ের ২য় শ্রেণির ছাত্রী।এ ঘটনায় ধর্ষিতার বাবা সিদ্দিক মিয়া ওই রাতে বাদী হয়ে ধামরাই থানায় নারী ও শিশু র্নিযাতন আইনে একটি মামলা দায়ের করেছেন।মামলা নং-১৩।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, বুধবার ধর্ষিতার মা বাবার বাড়ি বাথুলি বেড়াতে যান। সেই সুযোগ কাজে লাগিয়ে পূর্বে থেকে ওৎ পেতে থাকা ধর্ষক দুদু মিয়া ম্যাচ বাতি আনার কথা বলে ঘরে ঢোকে। ঘরে শিশুটিকে একা পেয়ে তারই ওড়না দিয়ে মুখ ও হাত বেঁধে ধর্ষণ করে। এরপর হাত মুখ বাঁধা অবস্থায় ফেলে রেখে চলে যায়। শিশু নিজেই বন্ধনমুক্ত হয়ে ডাক চিৎকার করলে আশপাশের বাড়ির লোক এগিয়ে আসে। ততক্ষনে ধর্ষক দুদু মিয়া পালিয়ে যায়। পরে শিশুর মাকে খবর দিলে বাড়িতে এসে মেয়ের বাবাকে বিষয়টি জানালে মেয়ের বাবা থানায় এসে একটি ধর্ষনের অভিযোগ দায়ের করেন । ওই রাতেই ধামরাই থানা পুলিশ অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে ঘটনাস্থলে গিয়ে ধর্ষণের আলামত সংগ্রহ করেন এবং বৃহস্পতিবার (৮ নভেম্বর) সকালে নারী ও শিশু র্নিযাতন আইনে একটি মামলা গ্রহণ করেন পুলিশ।

শিশুটির বাবা বলেন, আমার মেয়ের যে ক্ষতি দুদু মিয়া করেছে সে ক্ষতি কোন কিছু দিয়ে পূরণ করা সম্ভব না।আমি আইনের মাধ্যমে দুদু মিয়ার ফাঁসি চাই।আমি আর বেশি কিছু বলতে পারব না। এ ব্যাপারে ধামরাই থানার উপ-পরিদর্ষক (এস আই) ভজন রায় জানান, ২য় শ্রেণির ছাত্রী ধর্ষনের অভিযোগ পাওয়ার পর আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। ধর্ষনের আলামত সংগ্রহ করেছি এবং নারী ও শিশু র্নিযাতন আইনে একটি মামলা নিয়েছি। মামলা নং-১৩।আসামি দুদু মিয়াকে ধরার অভিযান অব্যাহত আছে।যেকোন সময় দুদু মিয়া আমাদের হাতে ধরা পড়বে। বিডিটুডেস/আরএ/০৮ নভেম্বর, ২০১৮

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

twelve − 1 =