English Version

নেইমারকে ধুয়ে দিচ্ছেন সমর্থকরা

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

বিডিটুডেস ডেস্ক: প্রায় তিন মাস যাবত মাঠের বাইরে আছেন পিএসজির ব্রাজিলিয়ান সুপারস্টার নেইমার। যার ফলে গণমাধ্যমের শিরোনামে তার নামটা একেবারেই দেখা যাচ্ছে না। কিন্তু তিনি সব সময়ই তো শিরোনামে থাকতে পছন্দ করেন। এবার তিনি শিরোনামে এসেছেন ইসরায়েল সফর করতে চেয়ে। যা নিয়ে ব্রাজিলজুড়ে শুরু হয়েছে তোলপাড়। সম্প্রতি ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছেন জাইর বোলসোনারো। ৬৪ বছর বয়সী এই রাজনীতিবিদ বিভিন্ন কারণে নিজ দেশেই সমালোচিত। সেই বোলসোনারো প্রেসিডেন্ট হয়ে বন্ধুত্ব গড়েছেন ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর সঙ্গে। চার দিনের সফরে ইসরায়েলেও গিয়েছেন তিনি। সেখানেই দুই নেতা মিলে এক ভিডিও বার্তা রেকর্ড করে নেইমার ও ব্রাজিলের সফল সার্ফিং তারকা গ্যাব্রিয়েল মেদিনাকে ইসরায়েলে আসতে বলেছেন। নেতানিয়াহু বলেছেন, ‘নেইমার ও মেদিনা, তোমরা ইসরায়েলে এসো। তোমাদের দুজনকেই আমন্ত্রণ জানাচ্ছি। জেরুজালেম তোমাদের অপেক্ষায়।’

ওই ভিডিও বার্তার জবাব নেইমারও দিয়েছেন আরেক ভিডিও বার্তা দিয়ে। সেখানে তিনি বলেছেন, ‘বেনিয়ামিন ও বোলসোনারো, আমাদের আমন্ত্রণ জানানোর জন্য ধন্যবাদ। আমরা ইসরায়েলে আসছি।’ নেইমারের এই ভিডিও বার্তা ছড়িয়ে পড়ার সঙ্গে সঙ্গে সমালোচনা শুরু হয়েছে। টুইটারে সবাই ধুয়ে দিচ্ছেন পিএসজি তারকাকে। বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর মতো ‘মানবতাবিরোধী’ ও ‘খুনি’ প্রেসিডেন্টের দেশে নিজ দেশের সবচেয়ে বড় তারকা কীভাবে যেতে পারে, ব্রাজিলিয়ানরা ভেবেই পাচ্ছেন না। একজন টুইটারে লিখেছেন, ‘নেইমার বুঝতেও পারছে না নেতানিয়াহুর মতো একজনকে সমর্থন করে ও কী ভুল করতে যাচ্ছে।’

আরেকজন নেইমারের সাবেক বান্ধবীর সঙ্গে তুলনা দিয়েছেন নেইমারের, ‘যেখানে ব্রুনা (নেইমারের সাবেক বান্ধবী) আফ্রিকার দেশগুলো ভ্রমণ করে অসহায় শিশুদের মুখে খাবার তুলে দেয়, সেখানে নেইমার একজন খুনির দেশে যাচ্ছে, যে ফিলিস্তিনের শিশুদের খুন করেছে। দুজনের ছাড়াছাড়ি হওয়ায় ব্রুনার কোনো ক্ষতি হয়নি, বরং নেইমারের কবল থেকে রক্ষা পেয়েছেন।’ বিডিটুডেস /ডি আই/ ৬ এপ্রিল, ২০১৯

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

6 + eighteen =