English Version

পাকিস্তানের চেয়ে এগিয়ে বাংলাদেশ, জানালেন পাকিস্তানি পদার্থবিদ

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

ছবি অনলাইন

বিডিটুডেস ডেস্ক: অর্থনীতি, সংস্কৃতিসহ অনেক বিষয়ে পাকিস্তানের থেকে এগিয়ে আছে বাংলাদেশ। পাকিস্তানের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান তা প্রকাশ্যে স্বীকার করেছেন। এছাড়াও বিভিন্ন সময়ে দেশটির অর্থনীতি বিশেষজ্ঞরা বিষয়টি নিয়ে গণমাধ্যমে আলোচনা করেছেন। পাকিস্তানকে বাংলাদেশের উন্নয়ন মডেল অনুসরণ করা উচিত বলেও মত দিয়েছিলেন তারা। পাকিস্তানের চেয়ে বাংলাদেশ কেন এগিয়ে তার কারণ ব্যাখ্যা করে ‘দ্য ডন’- এ ৯ ফেব্রুয়ারি উপসম্পাকীয় লিখেছেন পাকিস্তানের পদার্থবিদ পারভেজ হুদবয়। তিনি লিখেছেন,

১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধে পরাজয়ের পর নিজের নাম পরিবর্তন করে ফেলে পাকিস্তান (পূর্বে ছিল পশ্চিম পাকিস্তান)। তারা ভেবেছিল পূর্ব পাকিস্তান (বর্তমানে বাংলাদেশ) ফের তাদের সঙ্গে একত্রিত হতে চাইবে। যেটা শেষ পর্যন্ত হয়নি। বাংলাদেশ মানব উন্নয়ন ও অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধিতে নিজের ভবিষ্যত দেখে। তারা রফতানি বাড়ানা, বেকারত্ব হ্রাস, স্বাস্থ্যখাতের উন্নয়ন, বিদেশী ঋণ ও সাহায্যের ওপর নির্ভরতা হ্রাস এবং ক্ষুদ্র ঋণ কর্মসূচির সম্প্রসারণ ঘটিয়েছে। প্রতিবেশী ভারতের সঙ্গে পানিবণ্টন ও সীমানা বিতর্ক আছে, অভিবাসন ও মাদক নিয়ে ঝামেলা আছে। কিন্তু বাংলাদেশ কখনই তার মৌলিক অগ্রাধিকার থেকে সরে আসেনি।

অস্ত্র ও সামরিক শক্তিতে ভারতকে টেক্কা দেয়ার চেষ্টা করে পাকিস্তান। তিনি পাকিস্তানকে এ যুদ্ধ নির্ভর অর্থনীতি থেকে শান্তি নির্ভর অর্থনীতিতে আসার জরুরি বলে মন্তব্য করেন। তিনি লিখেছেন, মানব উন্নয়ন পাকিস্তানের কাছে প্রথম অগ্রাধিকার নয়। কিন্তু বাংলাদেশে জনপ্রতিনিধিরা ভোটারদের কাছে দায়বদ্ধ। তাই তাদের উন্নয়নে বিনিয়োগ করে থাকেন। নিরাপত্তার ওপর অতিরিক্ত জোর দেয়ার কারণে পাকিস্তানে অতিরিক্ত রাষ্ট্রীয় শক্তি তৈরি হয়েছে যার কারণে ২০১৪ সালের ১৬ ডিসেম্বর পেশোয়ারে গণহত্যার মতো ভয়াবহ ঘটনা ঘটেছে। তার ফলে পিছিয়ে গিয়েছে পাকিস্তান। বিডিটুডেস /ডি আই/ ১১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

20 − 11 =