ঢাকা, বাংলাদেশ, ৩০°সে | আজ |
English Version

পানির ট্যাংক থেকে মা-মেয়ের লাশ উদ্ধার

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

জে.জাহেদ, চট্টগ্রাম: খুলশী থানাধীন ফ্লোরা আটার মিল এলাকার নির্মানাধীন একটি ভবনের পানির রিজার্ভ ট্যাংক থেকে মা ও মেয়ের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহতরা হলেন- মনোয়ারা বেগম (৯৪) ও তার মেয়ে মেহেরুন নেছা বেগম (৬৭)। তাদের গ্রামের বাড়ি চাঁদপুর জেলার মতলব থানার নায়েরগাঁও গ্রামে।

রোববার দুপুরে লাশ দুটি উদ্ধার করা হয় বলে জানিয়ে খুলশী থানার ওসি শেখ নাসির উদ্দিন বলেন, পাঁচতলার যে ভবনে তাদের লাশ পাওয়া গেছে সেটি তাদের নিজস্ব। নিচতলার কাজ শেষ হওয়ার পর থেকেই ওই ভবনে মা ও মেয়ে থাকতেন। কোন পুরুষ সদস্য ভবনে থাকতেন না।খুনের ঘটনার ব্যাপারে বিস্তারিত আর কিছু জানা যায়নি।

আরো পড়ুন: আওয়ামীলীগের প্রার্থী তালিকা প্রায় চূড়ান্ত, ৮৫টি সংসদীয় আসনে আসছে নতুন মুখ

স্থানীয় সূত্র জানায়, মেহেরুন নেছা রূপালী ব্যাংকের প্রিন্সিপাল অফিসার হিসেবে অবসর নিয়েছিলেন। ভবনটি তার নামে ছিল।

নগর পুলিশের সহকারী কমিশনার (বায়েজিদ বোস্তামি জোন) সোহেল রানা জানান, আত্মীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে রোববার দুপুরে খুশলী থানার আমাবাগান এলাকায় মেহের মঞ্জিল নামের ওই ভবন থেকে তারা লাশ দুটি উদ্ধার করেন। হত্যাকা-ের শিকার মেহেরুন্নেসা বেগম রূপালী ব্যাংকের সাবেক প্রিন্সিপাল অফিসার। ৯৪ বছর বয়সী মা মনোয়ারা বেগমকে সঙ্গে নিয়ে ব্যক্তগত ওই বাড়িতে থাকতেন তিনি।

আমাদের  ফেসবুক পেজে লাইক দিতে “এখানে ক্লিক করুন ”

পুলিশ জানায়, চার তলা ভবনটির নিচতলায় মেহেরুন্নেসারা থাকতেন। ভবনের নির্মাণ কাজ শষে হয়নি। অবিবাহিত মেহেরুন্নেসার চার ভাই ও চার বোনের দেশে ও দেশের বাইরে থাকেন। মা-মেয়ে ছাড়া আর কেউ ওই বাসায় থাকতেন না। সকালে একজন আত্মীয় এসে খোলা বাসায় তাদের না পেয়ে থানায় খবর দেয়। পরে পুলিশ গিয়ে রিজার্ভ ট্যাংকে লাশ দেখতে পায়।

সেখান থেকে লাশ তোলার জন্য ফায়ার সার্ভিসকে খবর দেওয়া হয়েছে এবং পুলিশের ক্রাইম সিন ইউনিট আলামত সংগ্রহের কাজ শুরু করছে বলে জানান তিনি। এই পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, “আমাদের ধারণা, তাদের হত্যা করে লাশ পানির ট্যাংকে ফেলে রাখা হয়েছে। বিডিটুডেস/আরএ/১৫ জুলাই, ২০১৮