English Version

আজকের চাকরির খবর লাইভ খেলা দেখুন

ব্রণ সমস্যা! কী করবেন?

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

অ্যাকনি ভালগারিস (ইংরেজি: Acne vulgaris বা Acne) বা ব্রণ হলো মানব ত্বকের একটি দীর্ঘমেয়াদী রোগবিশেষ যা বিশেষত লালচে ত্বক, প্যাপ্যুল, নডিউল, পিম্পল, তৈলাক্ত ত্বক, ক্ষতচিহ্ন বা কাটা দাগ ইত্যাদি দেখে চিহ্নিত করা যায়। ভীতি, দুশ্চিন্তা ও বিষণ্ণতা উদ্রেকের পাশাপাশি, এটির প্রধান পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া হচ্ছে আত্মবিশ্বাস কমে যাওয়া। অতিরিক্ত পর্যায়ে মানসিক অবসাদ এবং আত্মহত্যার মত অবস্থার উদ্ভব হতে পারে। একটি সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে, ব্রণের রোগীদের আত্মহত্যার পরিমাণ ৭.১%।

আরো পড়ুন:- শিশুমনে বড়দের আত্মকেন্দ্রিকতার প্রভাব

বয়ঃসন্ধিকালে লিঙ্গ নির্বিশেষে টেস্টোস্টেরন এর মত অ্যান্ড্রোজেন বৃদ্ধির ফলে ব্রণ হতে পারে। ত্বকের উপর তৈলাক্ত গ্রন্থির মাত্রার উপর ব্রণ হওয়া নির্ভর করে। এমন সব স্থান হল-মুখ, বুকের উপর অংশ ও পিঠ। অনেকসময় ব্রণ অনাক্রম্যতা (Asymptomatic) প্রদর্শন করে। ত্বকে উপস্থিত লোম রন্ধ্র (Hair follicle) এবং সিবেসিয়াস গ্রন্থির (Sebaceous gland) সংখ্যা অ্যান্ড্রোজেন সংবেদনশীলতার হার নির্ধারণ করে। পাঁচটি করণীয়ঃ ১. দিনে দু-তিনবার হালকা কোনো সাবান দিয়ে মুখ ধুতে হবে, সারা মুখ ঘষবেন না বা রগড়াবেন না। আলতো পানির ঝাপটায় মুখ ধুয়ে ফেলুন। ২. কোনো ক্রিম ব্যবহার করবেন না। ৩. তেল ছাড়া মেকআপ ব্যবহার করতে পারেন না। যেমন- পাউডার, পাউডার ব্লাশার ইত্যাদি। ক্রিম ব্লাশার এবং বেশি ময়েশ্চারাইজারযুক্ত ফাউন্ডেশন ব্যবহার করবেন না। ৪. মানসিক চাপমুক্ত থাকার চেষ্ঠা করুন। ৫. রাতে যাতে পর্যাপ্ত ঘুম হয় সে ব্যবস্থা করবেন। ৬. রাতে ঠিকমতো ঘুমানোর চেষ্টা করুন। ৭. প্রচুর পরিমাণে ফল, সবজি খান ও প্রচুর পানি পান করুন।

পাঁচটি বর্জনীয়ঃ ১. অতিরিক্ত ব্যায়াম করবেন না। কারণ তাতে বেশি ঘাম হবে এবং তৈলগ্রন্থিগুলো অতিমাত্রায় সক্রিয় হয়ে যাবে। ফলে ব্রণ বেড়ে যাবে। তবে হালকা ব্যায়াম করতে পারেন- এতে সুস্থ রক্ত চলাচল এবং ব্রণ ভালো থাকবে। ২. ব্রণ হলে মাথায় তেল ব্যবহার করবেন না। প্রয়োজনে ডাক্তারের পরামর্শক্রমে শ্যাম্পু ব্যবহার করবেন। ৩. মুখে সরাসরি রোদ লাগাবেন না এড়িয়ে চলবেন। ৪. ব্রণ কোনোভাবেই খোঁটাখুঁটি করবেন না বা টিপবেন না। ৫. তেলযুক্ত কোনো কসমেটিকস ব্যবহার করবেন না। ৬. সব ধরনের প্রসাধনী বর্জন করতে হবে। নখ দিয়ে ব্রণ খোঁটাখুঁটি করা যাবে না। অধিকাংশ ক্ষেত্রে ব্রণ আপনা-আপনি সেরে যায়। বিডিটুডেস/আরএ/১১ জানুয়ারি, ২০১৮