English Version

রমজানে চাহিদা মেটাচ্ছে গুড়ের নামে বিষ

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

লালপুর(নাটোর) প্রতিনিধি: পবিত্র রমজান মাসে সারা দেশে আখের গুড়ের চাহিদা বাড়ায় নাটোরের লালপুর উপজেলার ভেজাল গুড়ের কারখানা গুলোতে গুড় উৎপাদনের নামে বিষ তৈরি হচ্ছে । অধিক লাভের আশায় রমজান শুরুর অন্তত: ২০ দিন আগে থেকেই দু’একটি কারখানা ভেজাল গুড় উৎপাদন শুরু করে। সোমবার পর্যন্ত লালপুর, মোহরকয়া, হাগড়াগাড়ি, ওয়ালিয়া সহ উপজেলার বিভিন্ন এলাকার ১০টিরও অধিক সংখ্যক কারখানায় আখ ছাড়াই চিটা গুড়ের সাথে চিনি, হাইড্রোজ, ফিটকিরি, রং ও ময়দা মিশিয়ে আখের গুড় তৈরী করা হচ্ছে। আর উৎপাদিত ভেজাল গুড় গুলো স্থানীয় আড়তদারদের মাধ্যমে দেশের বিভিন্ন এলাকায় ছড়িয়ে পড়ছে।
জানা গেছে, লালপুর উপজেলার ভেজাল গুড়ের কারখানা গুলোতে ইতিপূর্বে র‌্যাব ও উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে দফায় দফায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান পরিচালিত হওয়ায় ভেজাল গুড় তৈরী কিছুটা কমে আসে। দির্ঘদিন কোন অভিযান না থাকায় কারখানা মালিকরা আবারো ভেজাল গুড় তৈরীর উৎসবে মেতেছে। আর এদেরকে মূলধন ও চিনি দিয়ে সহযোগীতা করছেন গুড় ব্যবসায়ীরা। গুড় ব্যবসায়ীরা তাদের গুড় নির্বিঘ্নে জেলার বাইরে পাঠানোর জন্য বিভিন্ন উপায়ে সংশ্লিষ্টদের ম্যানেজ করছেন বলে স্থানীয় একাধিক সূত্র জানায়।
এব্যাপারে লালপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার নজরুল ইসলাম জানান ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে শিঘ্রই ভেজাল গুড় উৎপাদনকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।