English Version

লম্বা নখ আর দানবাকৃতির দাবা!!

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

বিডিটুডেস ডেস্ক: ডাইনোসরের থাবা ধরে রয়েছে গ্লাভস পরা মানুষের হাত— এটা কী করে সম্ভব! আর খুঁটিয়ে দেখলেই বোঝা যায়, এই থাবা মোটেই নকল নয়। দেখে আঁতকে উঠতে হয়। মানুষের হাতের তুলনায় তাকে ‘দানবীয়’ বলতেই হয়। এমনই এক থাবার ছবি ঘিরে টুইটারে দেখা দিয়েছে চাঞ্চল্য। বিজ্ঞান বিষয়ক গণমাধ্যম ‘লাইভসায়েন্স’- এ প্রকাশিত এক প্রতিবেদন থেকে জানা যাচ্ছে, টুইটারে সারা ডেভিস নামের এক মহিলা এই ছবিটি পোস্ট করার পরে তা ভাইরাল হয়ে যায়। অনেকেই বলেতে শুরু করেন, এটি নির্ঘাত ডাইনোসরের থাবা। কিন্তু ডাইনোসরের থাবা ধরে রয়েছে গ্লাভস পরা মানুষের হাত— এটা কী করে সম্ভব! আর খুঁটিয়ে দেখলেই বোঝা যায়, এই থাবা মোটেই নকল নয়।

সারা ডেভিস পেশায় একজন প্যালিওন্টোলজিস্ট। অর্থাৎ ফসিল সংক্রান্ত বিষয়ে বিশেষজ্ঞ। তাঁর টুইটে এহেন থাবা দেখে লোকের সন্দেহ ডাইনোসরের দিকে ঢলতেই পারে। কিন্তু সারা জানাচ্ছেন, এই থাবা ডাইনোসর অথবা লুপ্ত হয়ে যাওয়া কোনও প্রাণীর নয়। এই থাবার অধিকারী বহাল তবিয়তেই বেঁচে রয়েছে।

ইউটিউব এ সাবস্ক্রাইব করুন

সারা জানাচ্ছেন, এটি একটি পাখির পা। পাখিটির নাম ‘সাদার্ন ক্যাসোওয়ারি’। তাদের ‘জীবন্ত ডাইনোসর’ বলেই গণ্য করা হয়। প্রজাতি হিসেবে তারা কিউয়ি-র আত্মীয়। একই বংশধারা থেকে তাদের জন্ম। মূলত অস্ট্রেলিয়ায় এদের বাস। এরা উড়তে পারে না। সারা তাঁর টুইটে এই ধরনের পাখিদের সঙ্গে ডাইনোসরদের সম্পর্ককেই ব্যক্ত করতে চেয়েছেন। সারার গবেষণার বিষয় ‘অ্যাভিয়ান প্যালিওন্টোলজি’, অর্থাৎ বিলুপ্ত পাখিদের নিয়েই তাঁর কাজ। তিনি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ইউনিভার্সিটি অফ টেক্সাস অ্যাট অস্টিনে পিএইচডি স্তরে গবেষণারত। বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণাগারে একটি মৃত সাদার্ন ক্যাসোওয়ারি-র দেহ ব্যবচ্ছেদ করার সময়েই তিনি এই ছবিটি তোলেন এবং তা টুইট করেন। এবেলা অবলম্বনে, বিডিটুডেস/আরএ/২৮ জানুয়ারি, ২০১৯

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

one × 2 =