English Version

আজকের চাকরির খবর লাইভ খেলা দেখুন

সুস্থ সন্তানের জন্ম দিয়েছে ৩০ বছর বয়সী এই যুবক

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন


অবাক না হয়ে সত্যিই কোনো উপায় নেই। গত ১১ নভেম্বর যুক্তরাষ্ট্রের উইসকনসিন রাজ্যের এক হাসপাতালে একটি নবজাতক শিশুর জন্ম দেন কাইসি সুলিভান নামের ৩০ বছর বয়সী এক যুবক। কাইসি তার সন্তানের নাম রেখেছেন ফিনিক্স। জন্মগত ভাবে কাইসি ছিলেন একজন নারী। ২০ বছর বয়সে পারিবারিক ভাবে এক ব্যক্তির সঙ্গে কাইসির বিয়েও হয়। এরপরে অবশ্য তাদের ছাড়াছাড়ি হয়ে যায়, তবে প্রাক্তন স্বামীর সঙ্গে তার একটি সন্তান রয়েছে বলে জানান কাইসি। সম্প্রতি গণমাধ্যমের নেওয়া এক সাক্ষাৎকারে কাইসি বলেন, ‘ আমার মনে হয়েছে মাতৃত্ব শুধু নারীর একার নয়, তা পুরুষেরও হতে পারে।’

২০১৩ সাল, তখন কাইসির বয়স ২৫। তখন তিনি মনে করলেন তার নারী না হয়ে পুরুষ হওয়ার দরকার ছিলো। ব্যাস, এরপর তিনি শরীরে পুরুষের হরমোন নেওয়া শুরু করলেন, সঙ্গে পুরুষ বনে যাওয়ার অাধুনিক সব চিকিৎসা নিতে থাকলেন। তারপর আর কি! নারী থেকে তিনি হয়ে গেলেন পুরুষ। এরিমধ্যে অনলাইনের একটি ডেটিং ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ২৭ বছর বয়সী তরুণ স্টেভেনের সঙ্গে প্রেম হয় তার। দুজন মিলে দিব্যি সংসার করাও শুরু করেন।

কিন্তু ২০১৬ সালে শারীরিক অসুস্থতা এবং নানা রকম জটিলতায় আক্রান্ত হয়ার ফলে শরীরে পুরুষ হরমন নেওয়া বন্ধ করে দিতে হয় তাকে। এরপর পরই তিনি বুঝতে পারেন প্রেমিক স্টেভেনের সন্তান তার পেটে। মূলত পুরুষ হতে গিয়ে কাইসি সুলিভান এখন একই সঙ্গে নারী এবং পুরুষের শরীরের অধিকারী একজন মানুষ।

কাইসির কাছে তার দ্বিতীয় সন্তানের সনাক্তকারী লিঙ্গ জানতে চাওয়া হলে তিনি গণমাধ্যমকে বলেন, ‘ আমার সন্তান কোন লিঙ্গের মানুষ তা আমি এখনই কাউকে বলতে চাই না। যখন তার বুঝার বয়স হবে, তখন সে নিজেই তার পছন্দের লিঙ্গ বেছে নেবে। আর আমি চাই সে তার পছন্দের লিঙ্গের অধিকারী মানুষ হয়েই বেড়ে উঠুক।’

সূত্র: মিরর।