English Version

১৭ বছর পর পাওয়া এই জয় জিম্বাবুয়ের

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

বিডিটুডেস ডেস্ক: সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামের ‘টেস্ট অভিষেক’ নিয়ে কতো আয়োজন ছিল। ৩ নভেম্বর বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ে টেস্ট মাঠে গড়াতেই ইতিহাসে ঢুকে যায় নয়নাভিরাম স্টেডিয়ামটি। নানা উৎসবের উপকরণ শুরু থেকে থাকলেও সিলেটের দর্শকরা আসল উৎসবটা করতে চেয়েছিল ম্যাচ শেষে। বাংলাদেশের জয় উদযাপনের মধ্য দিয়ে। কিন্তু সিলেটবাসীর সেই স্বপ্ন মাটি করেছে জিম্বাবুয়ে। বাংলাদেশকে হারিয়ে নিজেদের স্মরণীয় এক জয় তুলে নিয়েছে হ্যামিল্টন মাসাকাদজার দল।

ইউটিউব এ সাবস্ক্রাইব করুন

সিলেট টেস্টে মঙ্গলবার একদিন বাকী থাকতেই ১৫১ রানের জয় তুলে নেয় জিম্বাবুয়ে। যারা সর্বশেষ বাংলাদেশকে হারিয়েছিল ২০১৩ সালে। এমনকি একই বছর পাকিস্তানের বিপক্ষে পাওয়া জয়টিই হয়েছিল তাদের সর্বশেষ টেস্ট জয়। এরপর পাঁচ বছরের খরা তারা কাটাল বাংলাদেশে এসে।

এই জয়ে দীর্ঘ ১৭ বছরের অপেক্ষার অবসানও হলো দলটির। ২০০১ সালের নভেম্বরের পর এই প্রথম বিদেশের মাটিতে টেস্ট জিতল জিম্বাবুয়ে। যে জয়টিও তারা পেয়েছিল বাংলাদেশের বিপক্ষে। এমন কি নিজেদের ইতিহাসে বিদেশের মাটিতে জিম্বাবুয়ের এটি মাত্র তৃতীয় টেস্ট জয়।

টানা ব্যর্থতায় জিম্বাবুয়ে দলটা একেবারেই ছন্নাছাড়া হয়ে পড়েছিল। বাংলাদেশে এসে অবশ্য নিজেদের ভালো সময় ফিরে পাওয়ার আশার কথা শুনিয়েছিলেন জিম্বাবুয়ে অধিনায়ক হ্যামিল্টন মাসাকাদজা। কিন্তু তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে টাইগারদের কাছে একরকম অসহায় আত্মসমর্পন করে দলটি।

সেই জিম্বাবুয়ে টেস্টে দাপট দেখাবে কে ভেবেছিল? বাংলাদেশের দর্শক বা খেলোয়াড়দের কেউ না ভাবলেও জিম্বাবুয়ে প্রবল বিশ্বাস নিয়েই শুরু করে ম্যাচ। বাংলাদেশের ব্যর্থতা বা জিম্বাবুয়ের ভালো খেলা; এই দুই ছাপিয়ে নিশ্চিতভাবে নিজেদের আত্মবিশ্বাসই ঘুরে দাঁড়ানোর বড় প্রেরণা ছিল জিম্বাবুয়ের। নইলে একেবারে বিধ্বস্ত একটা দল এমন দাপুটে প্রত্যাবর্তন করে কিভাবে!

সেটিও আবার বিদেশের মাটিতে এক রকম ইতিহাস গড়ে। দেশের বাইরে ১৭ বছর পর পাওয়া এই জয় তো জিম্বাবুয়ের জন্য ইতিহাসই।

বিডিটুডেস এএনবি/ ০৬.১১.১৮

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

3 × three =