Logo
শিরোনাম
রাজধানীর সেতু ভবনে আগুন কমপ্লিট শাটডাউন : ঢাকাসহ সারা দেশে বিজিবি মোতায়েন জয়পুরহাটের পাঁচবিবিতে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ইট বোঝায় ট্রাক খাদে কুষ্টিয়ায় আন্দোলনকারী ও ছাত্রলীগের মধ্যে সংঘর্ষ -কয়েকটি মোটর সাইকেলে আগুন পুঠিয়ায় আ’লীগের বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সভা লালমনিরহাটে অনুষ্ঠিত হয়েছে তিস্তা সমাবেশ বেনাপোল স্থল বন্দর দিয়ে মিথ্যা ঘোষণায় আমদানি করা হয়েছে ১৮ কোটি টাকার সালফিউরিক এসিড কুমারখালীতে মহাসড়ক অবরোধ করে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ, আহত-২ শরণখোলায় নার্সের চিকিৎসার অবহেলায় এক রোগীর মৃত্যুর অভিযোগ শেরপুরে কোটাবিরোধী শিক্ষার্থী-ছাত্রলীগের সংঘর্ষ, সাংবাদিকসহ আহত-২০

২০২৩ সালেও সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে পরীক্ষা !

প্রকাশিত:সোমবার ১৪ মার্চ ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২১ জুলাই ২০২৪ |

Image

করোনা পরিস্থিতির কারণে ২০২৩ সালে কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষাবোর্ডের এসএসসি-দাখিল এবং এইচএসসি-আলিম পরীক্ষা সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে নেওয়া হবে। সম্প্রতি কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষাবোর্ডের সংশ্লিষ্টদের সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

সূত্রে জানা গেছে, ২০২৩ সালের এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের ১৫০ কর্মদিবসের পুনর্বিন্যাস সিলেবাস নির্ধারণ সংক্রান্ত সভা সম্প্রতি কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা বিভাগের সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মো. মহসীন।

এ বিষয়ে জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ডের (এনসিটিবি) সদস্য মো. মশিউজ্জামান বলেন, শিক্ষাবর্ষের সাধারণ নিয়ম অনুযায়ী ২০২৩ সালের এসএসসি পরীক্ষার্থীদের নবম শ্রেণির ক্লাস শুরু হওয়ার কথা ছিল ২০২১ সালের ১ জানুয়ারি। আর এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের একাদশ শ্রেণির ক্লাস শুরু হওয়ার কথা ছিল একই বছরের ১ জুলাই। কিন্তু করোনা পরিস্থিতিতে দীর্ঘদিন প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকে। পরে গত বছরের ১২ সেপ্টেম্বর সপ্তাহে মাত্র দুই দিন করে সশরীরে ক্লাস শুরু হয়।

তিনি বলেন, ক্লাসের হিসাবে ওই শিক্ষাবর্ষের এসএসসি পরীক্ষার্থীরা নবম শ্রেণিতে প্রায় ৯ মাস সরাসরি পাঠদান থেকে বঞ্চিত ছিল। অন্যদিকে, এইচএসসি পরীক্ষার্থীরা একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি হলেও আট মাস সশরীরে ক্লাস করতে পারেনি। এতে তাদের শিক্ষার ঘাটতি থাকার আশঙ্কা রয়েছে।

মশিউজ্জামান আরও বলেন, করোনার কারণে এ বছর (২০২২ সালে) ফের এক মাস শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ছিল। এতে গত ২১ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার্থীরা নবম শ্রেণিতে মাত্র ৩৫ দিন ক্লাস করার সুযোগ পেয়েছে। ২ মার্চ থেকে সশরীরে ক্লাস শুরু হলেও তাদের শিক্ষার ঘাটতি থেকেই যাবে। তাই ২০২২ সালের পরীক্ষার্থীদের সংক্ষিপ্ত সিলেবাস ২০২৩ সালের এইচএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার জন্য প্রযোজ্য হতে পারে।

বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষাবোর্ডের পরিচালক (কারিকুলাম) প্রকৌশলী ফরিদ উদ্দিন আহমেদ জানান, এসএসসি শিক্ষাক্রম নবম ও দশম শ্রেণিতে বিভক্ত। তবে কারিগরি শিক্ষার কিছু পার্থক্য রয়েছে। কারিগরি শিক্ষায় নবম শ্রেণিতে অধ্যয়ন শেষে বোর্ড সমাপনী পরীক্ষায় অংশ নেয় ও দশম শ্রেণিতে অধ্যয়ন শেষে বোর্ড সমাপনী পরীক্ষায় অংশ নেয়। পরে দুই শ্রেণির বোর্ড সমাপনী পরীক্ষায় প্রাপ্ত নম্বর গড় করে ফলাফল প্রকাশ করা হয়।

তিনি বলেন, করোনার কারণে ২০২৩ সালের এসএসসি শিক্ষার্থীরা গত বছর নবম শ্রেণির ক্লাস করতে পারেনি। ফলে তাদের শিক্ষায় ঘাটতি রয়েছে। এ ঘাটতি দূর করতে দশম শ্রেণিতে সম্পূর্ণ সিলেবাসে পাঠদান অব্যাহত রাখার প্রস্তাব করা হয়েছে।

প্রকৌশলী ফরিদ উদ্দিন আহমেদ জানান, ২০২১ শিক্ষাবর্ষের নবম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের পাঁচ বিষয়ের ওপর গত বছরের ৬ ডিসেম্বর বোর্ড ফাইনাল পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। বর্তমানে ওই শিক্ষার্থীরা দশম শ্রেণির ক্লাস করছে। অন্যদিকে, বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষাবোর্ডের এইচএসসি ও ডিপ্লোমা ইন কমার্স শিক্ষাক্রমের একাদশ শ্রেণির ক্লাস শুরু আগামী সেপ্টেম্বরে ও পরীক্ষা হবে ২০২৩ সালের মে মাসে। আর দ্বাদশ শ্রেণির ক্লাস শুরু আগামী অক্টোবরে ও পরীক্ষা হবে ২০২৩ সালের জুন মাসে। তাই সংশ্লিষ্টদের মতামতে সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে পরীক্ষা নেওয়ার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

এসব বিষয়ে সংশ্লিষ্টদের নিয়ে বৈঠক করে তাদের মতামতের ভিত্তিতে পরবর্তী কার্যক্রম নেওয়া হতে পারে বলেও জানান তিনি।

সভায় আরও বলা হয়, ২০২৩ সালের এসএসসি/দাখিল (ভোকেশনাল) ও এইচএসসি/আলিম (ভোকেশনাল) পরীক্ষার সিলেবাস প্রণয়নের বিষয়ে বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষাবোর্ড সংশ্লিষ্টদের নিয়ে দ্রুত একটি সভা করবে। সভায় কারিগরি ও মাদরাসা বিভাগের সচিব সভাপতিত্ব করবেন।


আরও খবর



নোয়াখালীতে পানিতে ডুবে দুই শিশুর মৃত্যু

প্রকাশিত:সোমবার ১৫ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৯ জুলাই ২০২৪ |

Image

নোয়াখালী প্রতিনিধি::


নোয়াখালীর সুবর্ণচরে পৃথক স্থানে পুকুরের পানিতে ডুবে মো.জিসান (২) ও ফাতেমা আক্তার(৪) নামে দুই শিশুর মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে।  

 সোমবার (১৫ জুলাই) দুপুরে উপজেলার চরবাটা ইউনিয়ন ও চরওয়াপদা ইউনিয়নে এই ঘটনা ঘটে। শিশু দুইটির মৃত্যুতে পরিবারে শোকের মাতম চলছে।

মৃত মো.জিসান চরওয়াপদার ইউনিয়নের চরআমিনুল হক গ্রামের ১নম্বর ওয়ার্ডের মো.মুরাদের ছেলে। ফাতেমা আক্তার চরবাটা ইউনিয়নের মধ্যচরবাটা গ্রামের মো.রাসেলের মেয়ে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, দুপুর ১২টার দিকে পরিবারের সদস্যদের অগোচরে তারা পুকুরে পড়ে যায়। পরে তাদের খোঁজাখুঁজি করে না পেয়ে পুকুরে তল্লাশি করলে অচেতন অবস্থায় পাওয়া যায়। তাৎক্ষণিক তাদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক শিশুদের মৃত ঘোষণা করেন।

 চরজব্বর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ কাওসার আলম ভূঁইয়া ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। অভিযোগ না থাকায় মরদেহ ময়না তদন্ত ছাড়া পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।  


আরও খবর



হল ত্যাগের নির্দেশ মানতে নারাজ বশেমুরবিপ্রবির শিক্ষার্থী

প্রকাশিত:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২০ জুলাই ২০24 |

Image

মোঃ ছিপু মোল্লা , বশেমুরবিপ্রবি সংবাদদাতাঃ

'আমার হলে আমি থাকব, আপনি নিষেধ করার কে?' -স্লোগানে মুখরিত গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়(বশেমুরবিপ্রবি)। ছয় ঘন্টার মধ্যে প্রজ্ঞাপন প্রত্যাহার না করলে আবারো উপাচার্য ভবন ঘেরাও করা হবে বলে আল্টিমেটাম দেওয়া হয়। 

বুধবার(১৭জুলাই) বিকেলে উপাচার্য ভবনের সামনে অবস্থান নেয় কোটা সংস্কার আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা। এসময় বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েক শতাধিক শিক্ষার্থী উপস্থিত ছিলেন।

জানা যায়, ওই দিন সকাল ১১ঘটিকায় রিজেন্ট বোর্ডের সভা হয়। সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হলের শিক্ষার্থীদের হল ত্যাগ করার নির্দেশনা দেওয়া হয়। এরপর দুপুর ১২টা নাগাদ বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার মো. দলিলুর রহমান কর্তৃক স্বাক্ষরিত একটি বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হয়। বিজ্ঞপ্তিতে আবাসিক হলের ছেলে শিক্ষার্থীদের বিকেল পাঁচ ঘটিকার মধ্যে হলের ত্যাগের নির্দেশনা দেওয়া হয়। এবং মেয়ে শিক্ষার্থীদের পরদিন সকাল ১০ঘটিকা নাগাদ হল ত্যাগের নির্দেশনা দেওয়া হয়।

বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করার পর থেকে শিক্ষার্থীদের মধ্যে তীব্র ক্ষোব দেখা যায়। তারা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রতিক্রিয়া দেখায়। এরপর বিকেল ৩ঘটিকায় মিছিল বের করে। 'আমার হলে আমি থাকব, তুমি বলার কে?' 'শিক্ষা সন্ত্রাস একসাথে চলেনা' স্লোগান নিয়ে উপাচার্য ভবন ঘেরাও করে শিক্ষার্থীরা। শিক্ষার্থীরা বলেন, অবিলম্বে এই বিজ্ঞপ্তি প্রত্যাহার করতে হবে। আমরা রাত ১২টা পর্যন্ত উপাচার্যকে সময় দিয়েছি। এই সময়ের মধ্যে যদি বিজ্ঞপ্তিটি প্রত্যাহার করা না হয় তাহলে আমরা কঠোর কর্মসূচিতে যাব। তারা বলেন, আমরা কোটা সংস্কার না করে বাড়ি যাবনা।

হলের ত্যাগের বিষয়ে আন্দোলনে অংশ নেওয়া লোক প্রশাসন বিভাগ ২০১৭-১৮শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী সুবর্ণা জয় বলেন, এই বিশ্ববিদ্যালয় আমার। এই হল আমার। আমার হলে আমি থাকব। ইউজিসি আমাকে নিষেধ করার কে? রিজেন্ট বোর্ড আমাকে নিষেধ করার কে? 

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক আরেক শিক্ষার্থী বলেন, উপাচার্য হয়তো ভয় পায়। তিনি আমাদেরকে নিরাপত্তা দিতে পারবেন না সেজন্য হয়তো হল ত্যাগের নির্দেশনা দিয়েছে। তিনি বলেন, উপাচার্যের যদি নিরাপত্তার অভাব হয় তাহলে আমরা ওনাকে নিরাপত্তা দিব। হল আমাদের, আমাদের হলে আমরা থাকব। 

আন্দোলন স্থলে উপস্থিত হয়ে উপাচার্য বলেন, হল ত্যাগের নির্দেশনা আমার না। এটি ইউজিসি থেকে নেওয়া হয়েছে। আমরা শুধুমাত্র প্রশাসনিক দায়িত্ব পালন করেছি। শিক্ষার্থীরা যদি হলে থাকতে চায় তাহলে আমরা তাদেরকে সার্বক্ষণিক নিরাপত্তা দিব। আমরা পুলিশ প্রশাসনের সাথে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রাখছি। তিনি বলেন, রিজেন্ট বোর্ডের সদস্যদের সাথে যোগাযোগ করে পরবর্তী সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেওয়া হবে।


আরও খবর



পদ্মা সেতুর সমাপনী অনুষ্ঠান শুক্রবার, ব্যয় ৫ কোটির বেশি

প্রকাশিত:বুধবার ০৩ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২০ জুলাই ২০24 |

Image

 


বিডি টুডেস রিপোর্ট:



পদ্মা বহুমুখী সেতুর সমাপনী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে আগামী শুক্রবার (৫ জুলাই)। 



প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন। এই অনুষ্ঠান আয়োজনে যে ব্যয় হবে তা সরাসরি ক্রয় পদ্ধতিতে করার অনুমোদন দিয়েছে অর্থনৈতিক বিষয়-সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি।



বুধবার (৩ জুলাই) সচিবালয়ে অর্থমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত অর্থনৈতিক বিষয়-সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকে এ অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।


বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সমন্বয় ও সংস্কার সচিব মো. মাহমুদুল হোসাইন খান সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।


সমাপনী অনুষ্ঠানের বাজেট কত, সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের উত্তরে সচিব বলেন, বাজেট ৫ কোটি টাকার ওপরে। ৫ কোটি টাকার কম হলে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সচিবরা অনুমোদন করতে পারেন। খরচ না হওয়া পর্যন্ত প্রকৃত খরচ বলা সম্ভব না।


তিনি বলেন, গত দুই বছরে পদ্মা সেতু দিয়ে ১ কোটি ২৭ লাখ যানবাহন চলাচল করেছে। ২৯ জুন পর্যন্ত রাজস্ব আদায় হয়েছে ১ হাজার ৬৬১ কোটি টাকা। প্রতিদিন গড়ে যান চলাচল করেছে প্রায় ১৯ হাজার। প্রতিদিন গড়ে টোল আদায় হয়েছে ২ কোটি ৩০ লাখ টাকা।


সচিব বলেন, আমরা সবাই জানি ২০২২ সালের ২৫ জুন আমাদের গর্বের, অহংকারের পদ্মা সেতু যান চলাচলের জন্য উন্মুক্ত করা হয়। এই পদ্মা বহুমুখী সেতুর নির্মাণের মেয়াদ ২০২৪ সালের ৩০ জুন শেষ হয়েছে। এই সমাপ্তি উপলক্ষে মাওয়া প্রান্তে এক সুধী সমাবেশের আয়োজন করা হয়েছে। এই সুধী সমাবেশে প্রধানমন্ত্রী থাকার সম্মতি জ্ঞাপন করেছেন।


আগামী ৫ জুলাই এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে জানিয়ে সচবি বলেন, পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী অনুষ্ঠান যেখানে হয়েছিল সেখানেই সমাপনী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হবে।


তিনি আরও বলেন, এই অনুষ্ঠান উপলক্ষে যে কার্যক্রমগুলো নেওয়া হবে, ইভেন্ট ম্যানেজমেন্টের মাধ্যমে তা সরাসরি ক্রয় পদ্ধতিতে করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। আমাদের সময় কম, সে কারণে ওপেন টেন্ডারের মাধ্যমে করা সম্ভব হবে না।



 সে জন্য সরাসরি ক্রয় পদ্ধতিতে কাজটি করার জন্য বিষয়টি এখানে উত্থাপন করা হয়েছে এবং মন্ত্রিসভা কমিটি সেটি অনুমোদন দিয়েছে।




আরও খবর

রাজধানীর সেতু ভবনে আগুন

বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০২৪




জাতিসংঘ পুলিশের কার্যক্রমে অবদান রাখার অঙ্গীকার বাংলাদেশের

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৮ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২০ জুলাই ২০24 |

Image

বিডি টুডেস ডেস্ক: জাতিসংঘ পুলিশের কার্যক্রমে ফলপ্রসূ অবদান রাখার বিষয়ে বাংলাদেশের অঙ্গীকার ও প্রস্তুতি পুনর্ব্যক্ত করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বলেছেন, শান্তিরক্ষা কার্যত্রমে সংশ্লিষ্ট দেশগুলোর আইন ও নিরাপত্তা সংক্রান্ত সংস্থাগুলোর দক্ষতাবৃদ্ধি করতে হবে।

শুক্রবার (২৮ জুন) জাতিসংঘের বাংলাদেশ স্থায়ী মিশন এ তথ্য জানায়। এর আগে বৃহস্প‌তিবার (২৭ জুন) নিউইয়র্কে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে জাতিসংঘ পুলিশপ্রধানদের চতুর্থ সম্মেলনে প্রধান সেশনে এ অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত করেন মন্ত্রী।

 এ সময় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বর্তমান পরিবর্তিত পরিস্থিতি ও প্রেক্ষাপটে, জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে প্রাসঙ্গিক ও নির্দিষ্ট লক্ষ্যভিত্তিক বিশেষায়িত পুলিশিং-এর বিষয়ে গুরুত্বারোপ করেন।

সম্মেলনে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বাংলাদেশ প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন। জাতিসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি মোহাম্মদ আব্দুল মুহিত, বাংলাদেশ পুলিশের অতিরিক্ত মহাপরিদর্শক কামরুল আহসান এবং স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও বাংলাদেশ পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা বাংলাদেশ প্রতিনিধি দলের সদস্য হিসেবে সম্মেলনে যোগ দিয়েছেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা কার্যক্রমে মহিলা পুলিশ সদস্য প্রেরণ বৃদ্ধিতে বাংলাদেশের অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত করে তিনি জাতিসংঘ শান্তিরক্ষীদের বিরুদ্ধে নানাবিধ অপপ্রচার রোধে জাতিসংঘ কর্তৃক গৃহীত ব্যবস্থায় বাংলাদেশের অবদান তুলে ধরেন। 

পাশাপাশি শান্তিরক্ষা কার্যক্রমে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার ব্যবহারের গুরুত্ব বর্ণনা করে, এ ধরনের প্রযুক্তির দায়িত্বশীল ব্যবহারের বিষয়ে জোর দেন।


আরও খবর

রাজধানীর সেতু ভবনে আগুন

বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০২৪




গাঁজাসহ মাদক কারবারি শাজাহানকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব- ১৩

প্রকাশিত:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২০ জুলাই ২০24 |

Image

নিজস্ব প্রতিনিধি,লালমনিরহাট: 

র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) প্রতিষ্ঠাকালীন থেকেই দেশের সার্বিক আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি সমুন্নত রাখার লক্ষ্যে সব ধরনের অপরাধীকে আইনের আওতায় নিয়ে আসার ক্ষেত্রে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে আসছে। র‌্যাব নিয়মিত অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী, সঙ্গবদ্ধ অপরাধী, অপহরণকারী, ধর্ষণকারী, মাদক, ছিনতাইকারী, ডাকাতসহ নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠনের বিরুদ্ধে ব্যাপক অভিযান চালিয়ে আসছে।


এরই ধারাবাহিকতায় আজ ২৩ জুন ২০২৪ ইং তারিখ আনুমানিক পৌনে চারটায় ঘটিকার সময় লালমনিরহাট জেলার সদর থানাধীন পঞ্চগ্রাম ইউনিয়নের উমা পতি হরনারায়ন গ্রামস্থ এলাকা হতে ২.৭ গাঁজাসহ একজন মাদক কারবারিকে আটক করা হয়। উক্ত মাদক ব্যবসায়ী বহুদিন যাবত লালমনিরহাট জেলাসহ বিভিন্ন অঞ্চলে মাদক ব্যবসা করে আসছিল। গোপন সূত্রের ভিত্তিতে তার উপর সার্বক্ষণিক নজরদারি এর মাধ্যমে র‌্যাব-১৩, রংপুর এর চৌকস আভিযানিক দল মাদক ব্যবসায়ীকে সনাক্ত করতে সক্ষম হয় এবং মাদক ব্যবসায়ী শাজাহান মিয়া (২৩), পিতা-আব্বাস আলী, সাং-আফজাল নগর, থানা-লালমনিরহাট সদর, জেলা-লালমনিরহাট’কে আটক করতে সক্ষম হয়। ধৃত মাদক ব্যবসায়ীকে লালমনিরহাট জেলার লালমনিরহাট সদর থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃত আসামী স্বীকার করে যে, দীর্ঘদিন যাবৎ সে লালমনিরহাট জেলাসহ পাশের জেলাগুলোতে অবৈধ মাদক ব্যবসা করে আসছে। গ্রেফতারকৃত আসামীর বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য  লালমনিরহাট জেলার লালমনিরহাট সদর  থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।  বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন, মাহমুদ বশির আহমেদ

স্কোয়াড্রন লিডার উপ-পরিচালক (মিডিয়া) পক্ষে অধিনায়ক।


আরও খবর