Logo
শিরোনাম

আকাশ ছুঁলো কাঁচা মরিচের দাম

প্রকাশিত:শনিবার ০৬ আগস্ট ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ |
Image

অস্থিতিশীল হয়ে উঠেছে কাঁচা মরিচের বাজার। গেল সপ্তাহে প্রতি কেজি ২০০ টাকায় বিক্রি হলেও এক লাফে এ সপ্তাহে ছাড়াল আড়াইশ টাকা। কয়েকটি বাজারে ২৬০ টাকা পর্যন্ত উঠেছে। ব্যবসায়িরা বলছেন, মৌসুম শেষের দিকে। তাই ফলন কম হওয়ায় বাজারেও চাহিদা মতো আসছে না; এতে দাম আকাশ ছুঁয়েছে।

শুক্রবার রাজধানীর বিভিন্ন বাজার ঘুরে দেখা যায়, কাঁচা মরিচের দাম আকাশচুম্বী। উত্তর বাড্ডা কাঁচাবাজার ঘুরে দেখা যায়, মূল বাজার সংলগ্ন দোকানগুলোতে মরিচ বিক্রি হচ্ছে ২৫০-২৬০ টাকা কেজি দরে। রাস্তার পাশে টুকরিতে বিক্রি হচ্ছে ২৪০ টাকা। এদিকে, মানিকগঞ্জের শিবালয় উপজেলার বরঙ্গাইল বাজার কাঁচা মরিচের বড় পাইকারি বাজারে প্রতি কেজি ১৭০ থেকে ১৮০ টাকায় বিক্রি হয়েছে।

শান্তিনগর কাঁচাবাজারে মরিচের দাম ২৬০ টাকা কেজি। অনেকেই ২৫০ গ্রাম মরিচ না কিনে, খরচ বাচাতে ১৫০ গ্রাম কিনেছেন।

মরিচের দাম এত কেন জানতে চাইলে ব্যবসায়ী হেদায়েতুল্লাহ মিন্টু বলেন, আমাদের করার কী আছে? পাইকারি বাজারে মরিচের দাম বেশি।

কারওয়ান বাজারের পাইকারি ব্যবসায়ী লতিফ মুন্সী বলেন, এখানে বেশিরভাগ মরিচ আসে উত্তরবঙ্গ থেকে। তবে ফলন কম হওয়ায় চাহিদা মতো মরিচ আসছে না। যা আসছে তার দামও আকাশছোঁয়া।

মরিচের দাম কবে কমবে জানতে চাইলে মহাখালী কাঁচাবাজারের সবজি বিক্রেতা হানিফ সওদাগর বলেন, পাইকাররা বলছেন, মরিচের চলতি মৌসুম শেষের দিকে। ক্ষেতে নতুন মরিচ উঠার পর দাম কমে আসবে।

কেবল ঢাকা নয়, দেশের বেশির ভাগ এলাকায় বেড়েছে মরিচের দাম। স্থানভেদে মরিচের দাম কেজিতে ১৮০ থেকে ৩২০ টাকা পর্যন্ত। খাগড়াছড়ি জুম পাহাড়ি মরিচের কেজি ৩২০-৪০০ টাকা। ধারণা করা হচ্ছে নতুন মৌসুম শুরু না হওয়া পর্যন্ত মরিচের দাম আকাশচুম্বী থাকবে।

খাগড়াছড়ি : দীঘিনালায় স্থানীয় হাটবাজারে জুমে উৎপাদিত কাঁচা মরিচ গতকাল বিক্রি হয়েছে ৩২০ থেকে ৪০০ টাকা কেজি। বিক্রেতারা জানান, জুমের নতুন মরিচ বাজারে আসতে আরও এক মাস বাকি আছে। এখন সরবরাহ কম। এ কারণে দাম বেড়েছে।

নওগাঁ জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের তথ্যমতে, চলতি মৌসুমে নওগাঁ জেলায় ১ হাজার ৫০ হেক্টর জমিতে কাঁচা মরিচের আবাদ হয়েছে। জেলার মধ্যে সবচেয়ে বেশি কাঁচা মরিচের আবাদ হয়ে থাকে নওগাঁ সদর, মহাদেবপুর ও বদলগাছী উপজেলায়।

বদলগাছী উপজেলার ভান্ডারপুর গ্রামের চাষি খোরশেদ হোসেন বলেন, এবার দুই বিঘা জমিতে মরিচের চাষ করেছি। ফলন ও দাম ভালো। যদি কয়েক দিনের মধ্যে পর্যাপ্ত বৃষ্টি হয় তাহলে মরিচ ক্ষেতের পাতা ঝরা সমস্যা থাকবে না।

সদর উপজেলার বর্ষাইল ইউনিয়নের চকআতিতা গ্রামের চাষি রেজাউল করিম বলেন, এক মাস আগেও ৫০-৬০ কেজি দরে মরিচ বিক্রি করেছি। ১৫ দিন আগে ৭০-৮০টাকা কেজিতে বিক্রি হয়েছিল। বর্তমানে বাজার দর ভালো। এখন প্রতি কেজি মরিচ বিক্রি হচ্ছে ১৯০-১৯৫টাকা দরে। ব্যবসায়ীদের মাধ্যমে খুচরা বাজারে বিক্রি হচ্ছে ২৪০টাকা কেজিতে।

দয়ারামপুর বাজারের কাঁচামাল ব্যবসায়ী রুপ চাঁদ ও মাবুল বলেন, কাঁচা মরিচের আমদানি কম হওয়ায় দাম বেড়েছে। ফলন কম হওয়ায় মরিচ বিভিন্ন এলাকা থেকে আসছে। আমরা এক হাজার টাকায় ৫ কেজি মরিচ কিনে এক হাজার ২০০ টাকায় বিক্রি করছি।

উপজেলা নির্বাহী আফিসার নীলুফা সরকার জানান, কোনো ব্যবসায়ী যদি কাঁচা মরিচের কৃত্রিম সংকট তৈরি করেন বা দাম বাড়ান তাহলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।



আরও খবর

লিটারে ১৪ টাকা কমল সয়াবিন তেলের দাম

মঙ্গলবার ০৪ অক্টোবর ২০২২




মির্জাগঞ্জে সংখ্যালঘু পরিবারের ঘর ভেঙ্গে জমি দখলের অভিযোগ

প্রকাশিত:বুধবার ০৫ অক্টোবর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ |
Image

মির্জাগঞ্জ (পটুয়াখালী) প্রতিনিধিঃ

পটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জে এক সংখ্যালঘু পরিবারের ঘর ভেঙ্গে জমি দখলের চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে।  বুধবার (৫ সেপ্টেম্বর) সকালে উপজেলার দেউলী সুবিদখালী ইউনিয়নের ডোকলাখালি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ ব্যাপারে বুধবার ভুক্তভোগী পরিবার মির্জাগঞ্জ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

উপজেলার দেউলী সুবিদখালী ইউনিয়নের ডোকলাখালী গ্রামের আলতাফ হাওলাদার, জসিম ও আরিফসহ একাধিক ব্যক্তির নামে এ অভিযোগ করা হয়। 

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, উপজেলার ডোকলাখালী গ্রামের দিনমজুর সঞ্জয় চন্দ্র হাওলাদারের পিতা  মৃত- রাখাল চন্দ্র হাওলাদারের কাছ থেকে ডোকলাখালি মৌজার ১৩৫ নং খতিয়ান এর ৪৬ শতাংশ জমি ক্রয় করেন একই গ্রামের আলতাফ হাওলাদার গংরা। 

স্থানীয় কয়েকজন বাসিন্দা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন,প্রভাবশালী হওয়ায় এলাকায় তাদের ভয়ে  কেউ কথা বলতে সাহস পায় না। 

রাখাল চন্দ্রর মৃত্যু  পরে  অভিযুক্তরা তাদের ক্রয়কৃত সম্পত্তি ভোগ দখল না করে দিন মজুর সঞ্জীব এর বাড়ির সামনের অন্য খতিয়ানের ৬ শতাংশ জমি অবৈধভাবে জোর পূর্বক দখল করে ভোগ দখল করার পাঁয়তারা করতে ৪-৫ দিন পূর্বে ওই জমিতে  বালু ফেলে ভরাট করে এবং জমিতে পূর্বের নির্মানধীন একটি টিনের ঘর ভাংচুর করে। এসময় বাঁধা দিলে ভুক্তভোগী পরিবারের লোকজনকে মারপিট করে  সঞ্জয়ের মা ভিবা রানীর গলায় থাকা চার আনা ওজনের একটি স্বর্ণের চেইন নিয়া যায় অভিযুক্তরা। 

ভুক্তভোগী সঞ্জীব হাওলাদার আরও অভিযোগ করেন,

ওই জমির কাছে গেলে তাদের খুন জখম করার হুমকি প্রদান করেন অভিযুক্তরা।

এ ব্যাপারে সরেজমিনে ও মুঠোফোনে অভিযুক্তদের সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তাদের  পাওয়া যায়নি।

মির্জাগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ার হোসেন তালুকদারের সাথে কথা বলতে তার মুঠো ফোনে একাধিকবার কল করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।


আরও খবর



পলাতক আসামি কিভাবে বিএনপির নেতা হয়?

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৪ অক্টোবর ২০২২ |
Image

রোকসানা মনোয়ার ঃ

বেগম খালেদা জিয়া এবং তার অবর্তমানে তারেক রহমান নাকি তাদের নেতা, বিএনপি মহাসচিবের এমন বক্তব্য প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন আইনের দৃষ্টিতে তারা দুজনেই নির্বাচনের অযোগ্য।

তিনি আজ তাঁর বাসভবনে ব্রিফিংকালে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের বক্তব্যের জবাবে একথা বলেন। 

ওবায়দুল কাদের বলেন বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া দুর্নীতির দায়ে সাজাপ্রাপ্ত, আর যার নেতৃত্বে বিএনপি সুসংগঠিত বলে মির্জা ফখরুল দাবি করেন, সেই তারেক রহমান তো দুর্নীতির বরপুত্র, দন্ডিত পলাতক আসামি।

তিনি প্রশ্ন রেখে আরও বলেন রাজনীতি না করার শর্তে যিনি মুচলেকা দিয়ে দেশ থেকে পালিয়েছেন, বিপদ দেখে এমন পলায়ন প্রিয়  আর পলাতক আসামি কিভাবে  বিএনপির নেতা হয়?

আওয়ামী লীগ নাকি সন্ত্রাসী দল, বিএনপি মহাসচিবের এমন বক্তব্যের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন আওয়ামী লীগ নয়, প্রকৃতপক্ষে বিএনপি'ই দেশ-বিদেশে স্বীকৃত সন্ত্রাসী দল। কানাডার আদালতেও বিএনপিকে সন্ত্রাসী দল হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। 

আওয়ামী লীগ মাটি ও মানুষের সংগঠন এবং জনগণের আস্থার ঠিকানা এমন দাবি করে ওবায়দুল কাদের ব্রিফিং এ আরও বলেন সন্ত্রাসবাদ ও সাম্প্রদায়িক অপশক্তির বিরুদ্ধে শেখ হাসিনা সরকার এবং আওয়ামী লীগের অবস্থান অত্যন্ত কঠোর।

সন্ত্রাস তারাই করে, যারা জনবিচ্ছিন্ন এবং আন্দোলন ও নির্বাচনে ব্যর্থ এমন মন্তব্য করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন জনকল্যাণে যাদের কোনো ইতিবাচক কর্মসূচি থাকেনা, তারাই সন্ত্রাস,ষড়যন্ত্রকে ক্ষমতায় যাওয়ার হাতিয়ার হিসেবে বেছে নেয়- বিএনপিও তাই করছে।

সরকার নাকি নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বী চায় না, বিএনপি নেতাদের এমন বক্তব্য প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন প্রকৃতপক্ষে বিএনপিই নির্বাচনকে ভয় পায়। শেখ হাসিনার জনপ্রিয়তা নিয়ে তাদের যত ভয়।

বিএনপি হেরে যাওয়ার ভয়ে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে দ্বিধাগ্রস্ত  বলেও মনে করেন ওবায়দুল কাদের। 

তিনি বলেন আওয়ামী লীগ কখনো খালি মাঠে গোল দিতে চায় না, আওয়ামী লীগ চায় প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ নির্বাচন। 

সরকার সকল দলের অংশগ্রহণমূলক নির্বাচনে বিশ্বাসী,নির্বাচনে অংশগ্রহণ সকল দলের রাজনৈতিক অধিকার উল্লেখ করে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন এটি কোন সুযোগ নয়, এটি একটি অধিকার,  - কিন্তু বিএনপি পরাজয়ের ভীতিতে আক্রান্ত তাই তারা নির্বাচনে আসে না।

নির্বাচন কমিশন নিয়ে বিএনপির নেতাদের বিভিন্ন কথা বলা প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন কমিশনকে তারা বিতর্কিত করতে চায় এবং নির্বাচন ব্যবস্থাকেও প্রশ্নবিদ্ধ করার উদ্দেশ্যমূলক অপতৎপরতা চালায়।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বিএনপি নেতাদের মনে করে দিয়ে বলেন তাদের সময় কমিশন গঠনে তারা কি কারো মতামত নিয়েছিল? কোন রাজনৈতিক দলের সঙ্গে সংলাপ করেছিল?

তৎকালীন প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশেই সাদেক আলী ও আজিজ মার্কা অজ্ঞাবহ নির্বাচন কমিশন গঠিত হয়েছিল উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের  আরও বলেন সোয়া এক কোটি ভূঁয়া ভোটার তালিকাবদ্ধ করে নির্বাচনকে প্রভাবিত করার অপচেষ্টা করেছিল কারা? দলীয় ক্যাডারদের নির্বাচন কমিশনে নিয়োগ দিয়েছিল কারা?  বিএনপি কি এসব ভুলে গেছে? 

তিনি বলেন বিএনপির সময়ে নির্বাচন কমিশন গঠনে কোন মতামত নেয়া হয়নি, কোন প্রকার সংলাপ করা হয়নি।অজ্ঞাবহ কমিশন গঠনে এককভাবে সিদ্ধান্ত নিয়েছিল বিএনপি।


আরও খবর

পুলিশের পক্ষে বললেন খামেনি

মঙ্গলবার ০৪ অক্টোবর ২০২২




মোরেলগঞ্জে মানসম্মত শিক্ষা বাস্তবায়নে সভা

প্রকাশিত:রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ০৫ অক্টোবর ২০২২ |
Image

এম.পলাশ শরীফ, নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে মানসম্মত শিক্ষা বাস্তবায়নে করনীয় বিষয় মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। রবিবার বেলা ১০টায় উপজেলা চত্বরে অনুষ্ঠিত এ সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন স্থানীয় সংসদ সদস্য অ্যাড. আমিরুল আলম মিলন। সভাপতিত্ব করেন বাগেরহাট জেলা প্রশাসক মো. আজিজুর রহমান

এ ছাড়াও সরকরি এসএম কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর নীতিশ বিশ্বাস, উপজেলা চেয়ারম্যান অ্যাড. শাহ্-ই-আলম বাচ্চু,  পৌরসভা মেয়র এসএম মনিরুল হক তালুকদার, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আল মামুন উপজেলা স্কাউটস কমিশনার হোসনেয়ারা হাসিসহ সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধান শিক্ষক ও এসএমসি সভাপতিগণ উপস্থিত ছিলেন। 

অন্যান্যের মধ্যে আলোচনা করেন অধ্যক্ষ জাহাঙ্গীর আল আজাদ, ভাইস চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হক, জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. কামরুজ্জামান, প্রধান শিক্ষক মিজানুর রহমান, দুর্গা ঘরাই, স্কাউটার সারমিন আক্তার ও সাংবাদিক মশিউর রহমান মাসুম। 


আরও খবর



লন্ডনে প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ০৫ অক্টোবর ২০২২ |
Image

রোকসানা মনোয়ার : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বৃহস্পতিবার বিকেলে লন্ডনে পৌঁছেছেন। তিনি রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথের শেষকৃত্যে যোগ দেবেন। এরপর জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের (ইউএনজিএ) ৭৭তম অধিবেশনে যোগ দিতে যুক্তরাষ্ট্র যাবেন প্রধানমন্ত্রী।

রানির শেষকৃত্য অনুষ্ঠান ছাড়াও জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৭৭তম অধিবেশনে যোগ দিতে লন্ডন ও নিউইয়র্কের উদ্দেশে বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা ৪০ মিনিটে বাংলাদেশ বিমানের বিজি-১৯০৯ ভিভিআইপি ফ্লাইটে প্রধানমন্ত্রী ও তার সফরসঙ্গীরা হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ত্যাগ করেন।

১৬ সেপ্টেম্বর কমনওয়েলথ মহাসচিব প্যাট্রিসিয়া স্কটল্যান্ড প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে তার অবস্থানকালীন হোটেলে সৌজন্য সাক্ষাৎ করবেন। পরে যুক্তরাজ্যের দক্ষিণ এশিয়া, উত্তর আফ্রিকা, জাতিসংঘ ও কমনওয়েলথবিষয়ক মন্ত্রী লর্ড আহমদ প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন।

১৭ সেপ্টেম্বর যুক্তরাজ্যের বিরোধীদলীয় ও লেবার পার্টির নেতা স্যার কেইর স্টারমার প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করবেন। পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রী ১৮ সেপ্টেম্বর বাকিংহাম প্যালেসে রাষ্ট্র ও সরকারপ্রধানদের সম্মানে রাজার এক সংবর্ধনায় যোগ দেবেন।

১৯ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ওয়েস্টমিনস্টার অ্যাবেতে রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের শেষকৃত্যে অংশ নেবেন। একই দিন সন্ধ্যায় বাংলাদেশ বিমানের বিশেষ ফ্লাইটে নিউইয়র্কের উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রীর লন্ডন ত্যাগ করার কথা রয়েছে।

জন এফ কেনেডি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত জানাবেন যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মুহাম্মদ ইমরান ও জাতিসংঘ বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি মুহাম্মদ আবদুল মুহিত।

২০ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতিসংঘ মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেসের সংবর্ধনায় যোগ দেবেন। পাশাপাশি তিনি জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৭৭তম অধিবেশনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অংশ নেবেন। তিনি ইউএনএইচসিআরের ফিলিপো গ্রান্ডি ও স্লোভেনিয়ার প্রেসিডেন্ট বরুত পাহোরের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় বৈঠক করবেন। একই দিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের সংবর্ধনায় যোগ দেবেন প্রধানমন্ত্রী।

২১ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশ, বতসোয়ানা, স্লোভাক প্রজাতন্ত্র ও জাতিসংঘ আয়োজিত উচ্চ পর্যায়ের ‘টেকসই আবাসন’ শীর্ষক অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন।

২৩ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রী জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৭৭তম অধিবেশনে ভাষণ দেবেন। ২৪ সেপ্টেম্বর তিনি প্রবাসী বাংলাদেশিদের নাগরিক সংবর্ধনায় যোগ দেবেন।


আরও খবর

শিগগিরই বাড়ছে বিদ্যুতের দাম

মঙ্গলবার ০৪ অক্টোবর ২০২২




এবার ‘সুগার ড্যাডি’ নিয়ে ক্ষোভ ঝারলেন রূপাঞ্জনা মিত্র

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ |
Image

শোবিজ অঙ্গনে ‘সুগার ড্যাডি’ খুব পরিচিত শব্দ। অনেক অভিনয়শিল্পী ‘সুগার ড্যাডি’ ধরে টিভি বা ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে ফায়দা নেওয়ার অভিযোগ শোনা যায়। এবার ‘সুগার ড্যাডি’ নিয়ে ক্ষোভ ঝারলেন ভারতীয় বাংলা সিনেমার অভিনেত্রী রূপাঞ্জনা মিত্র।

বিষয়টি নিয়ে এ অভিনেত্রী তার ফেসবুকে একটি পোস্ট দিয়েছেন। তাতে তিনি বলেন, ‘একটা কথা বলতে চাই সেই সব মেয়েদের, যারা কাজ পাওয়ার জন্য ইন্ডাস্ট্রিতে ‘সুগার ড্যাডি’ ধরছেন। মেয়েগুলোর বয়স ১৬-২০ বছর। এরই মধ্যে আপনারা নিশ্চয় বুঝে গেছেন, ইন্ডাস্ট্রি কী নিয়মে চলে? কেউ কেউ তো আবার বার্থডে পার্টিও থ্রো করাছেন সেসব উটকো সুগার ড্যাডিদের দিয়ে। তাতে আমাদের ইন্ডাস্ট্রির কিছু শিল্পী-পরিচালকরাও যাচ্ছেন।’

কলকাতার মডেল-অভিনেত্রী অর্পিতা মুখার্জির কাণ্ডে তোলপাড় পশ্চিমবঙ্গ। তার বিষয়টি উল্লেখ করে রূপাঞ্জনা বলেন, ‘এই মেয়েগুলোও কি আগামী দিনে আর্পিতাদের মতো হবে। খুব চিন্তা হচ্ছে। এই মেয়েগুলোকে গাইড করার মতো অভিভাবক নেই? নিজেদের অভিভাবকরাও কীভাবে প্রশ্রয় দেন? এই ‘ফুড চেইন’ যারা পরতে চায় না তারা কি করবে? সেই মেয়েগুলো যারা মাথা তুলে ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ করতে চায়। তাদের পাশে আপনারা থাকবেন তো?’

এ পোস্ট দেওয়ার পর নেটিজেনদের বড় অংশ তার অভিমতকে সমর্থন জানিয়েছেন। আবার অনেকে দ্বি-মত পোষণ করেছেন। এ নিয়ে চলছে জোর সমালোচনা। ভারতীয় একটি সংবাদমাধ্যম রূপাঞ্জনার সঙ্গে যোগাযোগ করলে আরো বেশি ক্ষোভ ঝারেন তিনি। এ অভিনেত্রী বলেন—‘এটা কি সবাই বেশ্যাখানা তৈরি করবে? যারা কষ্ট করে নিজের জায়গা তৈরির চেষ্টা করেন, তাদের কী হবে? কেউ তো ভরসাই করতে পারবে না। নতুন অভিনেতাদের একটু ভাবা উচিত।

এই প্রবণতা কীভাবে তৈরি হয়েছে? না কি ইন্ডাস্ট্রিতে নিজেদের জায়গা তৈরি করতে সব সময়ই এই ধরনের রাস্তা বেছে নিয়েছেন কিছু অভিনয়শিল্পী? এই প্রশ্নের উত্তরে রূপাঞ্জনা বলেন, ‘হয়তো ছিল। কিন্তু এত বাড়বাড়ন্ত ছিল না। সেই সময়ে পরিবার, মা-বাবার একটা ভয় থাকত; দিনে দিনে এখন সেটাও উড়ে যাচ্ছে।



আরও খবর

ঋতুপর্ণা-প্রসেনজিতের বিয়ে

শুক্রবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২