Logo
শিরোনাম
জীবন চরিত্র ০৩

আল্লামা শাহ্সূফী সৈয়দ মইনুদ্দীন আহমদ আল্-হাসানী ওয়াল্ হোসাইনী

প্রকাশিত:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

জাতিসংঘে ভাষণ ও মিলাদে মোস্তফা (দঃ) এর শুভ উদ্বোধন

বিগত ২০০০ সালের ২৮-৩১শে আগষ্ট জাতিসংঘ সদর দপ্তরে বিশ্বশান্তি সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এ সম্মেলনে উদ্বোধন করেন তৎকালিন জাতিসংঘ মহাসচিব কফি আনান। এ সম্মেলনে পৃথিবীর বিভিন্ন ধর্মের শীর্ষ স্থানীয় ধর্মগুরু ও আধ্যাত্মিক শীর্ষ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ অংশ গ্রহণ করেন। বাংলাদেশ থেকে প্রতিনিধি দলে নেতৃত্ব দেন আওলাদে রাসূল (দঃ) শায়খুল ইসলাম হযরত শাহ্সূফী মাওলানা সৈয়দ মইনুদ্দিন আহমদ আল্-হাসানী ওয়াল্ হোসাইনী (মাঃজিঃআঃ)।
জাতিসংঘে আয়োজিত উক্ত কনফানেন্সে হুজুর কেবলা ভাষণে বলেনঃ আজকের জাতিসংঘ বিশ্ব-শান্তি ও সকল ধর্মের ও বর্ণের মানুষের মধ্যে ভেদাভেদ, হানাহানি, যুদ্ধ, ক্ষুধা ও দরিদ্র নিসনের যে উদ্যোগ গ্রহণ করেছে, তা আজ থেকে ১৪০০ বছর পূর্বে আমাদের মহানবী হযরত মুহাম্মদ (দঃ) ‘মদিনার সনদের’ মাধ্যমে বিশ্ববাসীকে উপহার দিয়েছিলেন, যা জাতিসংঘ আজ বাস্তবায়ন করার প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।
সম্মেলন সমাপনী দিবসে প্রার্থনা পর্বে আওলাদে রাসূল (দঃ) সৈয়দ মইনুদ্দিন আহমদ আল্-হাসানী ওয়াল্ হোসাইনী (মাঃজিঃআঃ) মিলাদ শরীফ (ছালাত ও সালাম) পরিচালনা করেন এবং সমগ্র বিশ্ববাসীর সুখ-শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা করে মুনাজাত পরিচালনা করেন। জাতিসংঘের ইতিহাসে তিনিই প্রথম ব্যাক্তিত্ব, যিনি মিলাদে-মোস্তফা (দঃ) এর শুভ উদ্বোধন করেন। মিলাদ মাহফিলে রাবেতার মহাসচিব আবদুল্লাহ ওমর নাসিফ, ইরাক, ইরান, ভারত ও পাকিস্থানসহ বিভিন্ন দেশের ধর্মীয় নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

উজবেকিস্তান সরকার ও ইউনেস্কোর যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত বিশ্ব-আধ্যাত্মিক সম্মেলনে আমন্ত্রিত এবং ধর্মীয় নেতৃবৃন্দ কর্তৃক বিপুলভাবে বিরল সম্মানে ভূষিত।

২০০০ ইং সালের ১৭-১৮ই সেপ্টেম্বর উজবেকিস্তান সরকার প্রধানের আমন্ত্রণে এবং ইউনেস্কোর তত্ত্বাবধানে উজবেকিস্তানের রাজধানী তাসখন্দে হোটেল শেরাটনে অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক আধ্যাত্মিক সম্মেলনে অষ্ট্রেলিয়া, আজারবাইজান, বেনিন, চীন, ফ্রান্স, ভারত, ইন্দোনেশিয়া, ইরান, ইস্রাইল, জাপান, সুদান, কাজাখাস্তান, মরক্কো, সউদী আরব, স্পেন, শ্রীলংকা, সুইজারল্যান্ড, থাইল্যান্ড, তিউনিশিয়া, তুরস্ক, ভ্যাটিকান, যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্য থেকে ধর্মীয় আধ্যাত্মিক শীর্ষস্থানীয় নেতৃবৃন্দ অংশ গ্রহন করেন। বড় শাহজাদা আল্হাজ্ব শাহ্সূফী সৈয়দ সাইফুদ্দীন আহমদ আল্-হাসানী ওয়াল্ হোসাইনী (মাঃজিঃআঃ) সফরসঙ্গী ছিলেন। জর্দানের প্রিন্স আল্-হাসান বিন্ তালাল স্বাগত বক্তব্য রাখেন। সভাপতিত্ব করেন ইউনেস্কো সদর দপ্তর হতে আগত ডাইক্টের ডায়েন (উড়ঁফড়ঁ উরবহব)। ইন্টারন্যাশনাল এ কনফানেন্সে মুর্শেদ কেবলা বিশেষভাবে সমাদৃত হন। তাসখন্দ ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় তাঁকে সংবর্ধনা দেওয়া হয়। উজবেকিস্তান সরকার তাঁকে বিশেষ ফ্লাইটে পবিত্র বুখারী নগরীতে নিয়ে যান। তিনি হযরত ইমান বুখারী (রঃ), ইমাম আহমদ বিন হাম্বল (রঃ) এবং শায়খ বাহাউদ্দিন নক্শবন্দী (রঃ) প্রমুখ মনীষীদের মাজার জিয়ারত করেন।


আরও খবর

সূফিবাদের প্রয়োজনীয়তা

বৃহস্পতিবার ৩০ জুন ২০২২

সুফিবাদের উৎপত্তি ও ক্রমবিকাশ

বৃহস্পতিবার ৩০ জুন ২০২২




গজারিয়ায় ভাটেরচর উচ্চ বিদ্যালয়ে এস.এস.সি পরীক্ষার্থীদের বিদায় সংবর্ধনা

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৬ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০১ জুলাই ২০২২ |
Image

গজারিয়া উপজেলা প্রতিনিধি ঃ

বৃহস্পতিবার  সকাল ১১ঘটিকায় উপজেলার ভাটেরচর দেওয়ান আবদুল মান্নান পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ে  প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অত্র বিদ্যালয়ের সভাপতি ও রূপালী ব্যাংক লিঃ এর ডিজিএম জনাব সাখাওয়াত হোসেন।বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অভিভাবক সদস্য  শাহআলম মিয়া, বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মুহাম্মদ শাহজাহান শিকদার এর সঞ্চালনায় অন্যান্যদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন,  বীরমুক্তি যোদ্ধা মোল্লা মো ছানাউল্লাহ, সাবেক কো-অপ্ট সদস্য সিরাজুল ইসলাম, সাবেক সদস্য মিন্টু খন্দকার

 মুকবুল হোসেন,আবুল কালাম খোকন, সহকারী শিক্ষক  দেওয়ান কামরুজ্জামান, আরো উপস্থিত ছিলেন, অত্র বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক ফারজানা ইয়াসমিন, সিনিয়র শিক্ষক আফজাল হোসেন, মাওলানা আব্দুর রশিদ, মোয়াজ্জেম হোসেন, ফাতেমা আক্তার, হালিমা আক্তার, রোমেনা আফরোজা , আশরাফুন্নেছা, সাবিকুন্নাহার, কৃষ্ণপদ হালদার, শাহাদাত হোসেন, রতন আহমেদ, সাখাওয়াত  হোসেন, নাজমুল হোসেনসহ, সমাজের গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ,সংবাদকর্মী এবং রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ।

অনুষ্ঠানে বিদায়পূর্ব মিলাদ ও দোয়ার অনুষ্ঠানের পর শিক্ষক ও ছাত্র/ছাত্রীদের মাঝে উপহার সামগ্রী বিতরণ করা হয়।


আরও খবর



আফগানিস্তানে ভয়াবহ ভূমিকম্পে নিহত অন্তত ২৫০

প্রকাশিত:বুধবার ২২ জুন 20২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

ভয়াবহ ভূমিকম্প আঘাত হেনেছে আফগানিস্তানে। এতে নিহত হয়েছেন অন্তত ২৫০ জন। এছাড়া আহত হয়েছেন আরও বহু মানুষ। বুধবার (২২ জুন) ভোরে দেশটিতে এই ভূমিকম্প আঘাত হানে। এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে বিবিসি।

প্রতিবেদনে বলা হয়, সোশ্যাল মিডিয়ার বিভিন্ন প্লাটফর্মে শেয়ার করা বহু ছবি ছড়িয়ে পড়েছে। এসব ছবিতে আফগানিস্তানের পাকতিকা প্রদেশে স্ট্রেচারে করে আহত ব্যক্তিদের পাশাপাশি ধ্বংসস্তূপ এবং ধ্বংস হয়ে যাওয়া বাড়ি-ঘরের দৃশ্য উঠে এসেছে।

আফগানিস্তানের স্থানীয় এক সরকারি কর্মকর্তা বলেছেন, মৃতের সংখ্যা ২৫০ জনের বেশি বাড়তে পারে। আরও ১৫০ জনেরও বেশি মানুষ আহত হয়েছেন। ভূমিকম্পটির কেন্দ্রস্থল আফগানিস্তানের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলের শহর খোস্ত থেকে ৪৪ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত। কেন্দ্রস্থল থেকে অন্তত ৫০০ কিলোমিটার পর্যন্ত ভূমিকম্পটি অনূভত হয়েছে। এমনকি পাকিস্তান ও ভারতেও এর আঁচ পাওয়া গেছে।


আরও খবর



সিলেট-লন্ডন ফ্লাইট বাতিল

প্রকাশিত:শনিবার ১৮ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

সিলেট বিমানবন্দরে বন্যার পানি প্রবেশ করায় ঢাকা থেকে সিলেট হয়ে লন্ডনগামী ফ্লাইটটি বাতিল করেছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স।

শনিবার (১৮ জুন) সকাল ৮ টায় ফ্লাইটটি ঢাকা ছাড়ার কথা ছিল। বিমানবন্দরের রানওয়েতে বন্যার পানি প্রবেশ করায় সেখানে ফ্লাইট চলাচল বন্ধ রয়েছে। তাই ফ্লাইটটি ঢাকা ছাড়েনি।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছে বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (বেবিচক)।

বেবিচক জানায়, ফ্লাইটটি (বিজি-২০১) ঢাকা থেকে শনিবার সকাল ৮ টায় সিলেটের উদ্দেশে রওনা হয়ে যাত্রী নিয়ে লন্ডন যাওয়ার কথা ছিল। সিলেট থেকে লন্ডন হয়ে আবার সিলেট যাওয়ার কথা ছিল। তবে বিমান ফ্লাইটটি বাতিল ঘোষণা করেছে। বাতিল করা এই ফ্লাইটের তারিখ পরবর্তীতে জানিয়ে দেওয়া হবে বলে যাত্রীদের জানিয়েছে বিমান।

এ বিষয়ে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের মহাব্যবস্থাপক-জনসংযোগ (জিএম-পিআর) তাহেরা খন্দকার বলেন, বিমান ২১ তারিখ পর্যন্ত ঢাকা-সিলেট-লন্ডনের সব ফ্লাইট বাতিল করেছে। পরের ফ্লাইটের বিষয়ে ২১ তারিখে সিদ্ধান্ত হবে।

শুক্রবার বিকেলে সিলেট ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের রানওয়ের কাছে বন্যার পানি চলে আসায় বিমান চলাচল বন্ধ ঘোষণা করে বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ।

শুক্রবার সিলেট ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের পরিচালক হাফিজ আহমদ বলেন, বন্যার পানি বিমানবন্দরের রানওয়ের কাছাকাছি চলে এসেছে। এ ছাড়া বিমানবন্দরের বিভিন্ন যন্ত্রপাতি বন্যার পানি থেকে রক্ষার জন্য ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। বিমানবন্দরের বিমান চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে। আপাতত এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। পরে পরিস্থিতি বিবেচনা করে বিষয়টি জানানো হবে।

রবিবার ও বুধবার (২২ জুন) বিমানের ঢাকা-সিলেট-লন্ডন রুটের ফ্লাইট রয়েছে। সেই ফ্লাইটগুলোও বাতিল করা হয়েছে।


আরও খবর



রাত ৮টার পরও খোলা থাকবে যেসব প্রতিষ্ঠান

প্রকাশিত:সোমবার ২০ জুন ২০22 | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

বিদ্যুৎ ও জ্বালানি সাশ্রয়ে সোমবার (২০ জুন) থেকে রাত ৮টার পর সারাদেশে দোকান, বিপণি-বিতান, মার্কেট বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। তবে এই নির্দেশনার বাইরে থাকবে বেশ কিছু প্রতিষ্ঠান। সেগুলো হলো; সিনেমা হল, তরিতরকারির দোকান, সেলুন, পান, বিড়ি, সিগারেটসহ বেশকিছু প্রতিষ্ঠান।

শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ে অনুষ্ঠিত এক বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী বেগম মন্নুজান সুফিয়ানের সভাপতিত্বে বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

বৈঠকে ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন, এমপ্লয়ার্স ফেডারেশন, এফবিসিসিআই, এমসিসিআই, বিজিএমইএ, বিকেএমইএ, বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতি, ঢাকা চেম্বারসহ বিভিন্ন ব্যবসায়ী মালিক সংগঠন এবং শ্রমিক সংগঠনের প্রতিনিধি এবং বাণিজ্য, বিদ্যুৎ, শিল্প মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

যেসব প্রতিষ্ঠান রাত ৮টার পর খোলা থাকবে :

* ডক, জেটি, স্টেশন, বিমানবন্দর এবং পরিবহন সার্ভিস টার্মিনাল অফিস।

* তরিতরকারি, মাছ, মাংস, দুগ্ধজাতীয় সামগ্রী, রুটি, পেস্ট্রি, মিষ্টি এবং ফুল বিক্রির দোকান।

*ওষুধ, অপারেশন সরঞ্জাম, ব্যান্ডেজ অথবা চিকিৎসা সংক্রান্ত প্রয়োজনীয় সামগ্রীর দোকান।

* দাফন ও অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া সম্পাদনের জন্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী বিক্রির দোকান।

* তামাক, সিগারেট, পান-বিড়ি, বরফ, খবরের কাগজ, সাময়িকী বিক্রির দোকান এবং দোকানে বসে খাওয়ার (হালকা) নাশতা বিক্রির খুচরা দোকান।

* খুচরা, পেট্রল বিক্রির জন্য পেট্রলপাম্প এবং মেরামত কারখানা নয় এমন মোটরগাড়ির সার্ভিস স্টেশন।

* নরসুন্দর এবং কেশ প্রসাধনীর দোকান।

* যেকোনো ময়লা নিষ্কাশনকারী প্রতিষ্ঠান ও স্বাস্থ্যকেন্দ্র।

* যেকোনো শিল্প, ব্যবসা বা প্রতিষ্ঠান যা জনগণকে শক্তি আলো অথবা পানি সরবরাহ করে এমন প্রতিষ্ঠান।

* ক্লাব, হোটেল, রেস্তোরাঁ, খাবার দোকান, সিনেমা অথবা থিয়েটার।

তবে শর্ত থাকে যে, একই দোকানে অথবা ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে যদি একাধিক ব্যবসা-বাণিজ্য পরিচালিত হয় এবং অধিকাংশ তাদের প্রকৃতির কারণে এই ধারার অধীন অব্যাহতি পাওয়ার যোগ্য হয়, তাহলে সমগ্র দোকান বা ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানটির ক্ষেত্রে উক্তরূপ অব্যাহতি প্রযোজ্য হবে।

এছাড়াও প্রধান পরিদর্শক সরকারি গেজেটে প্রজ্ঞাপিত সাধারণ বা বিশেষ আদেশ দ্বারা উপরোক্ত প্রত্যেক প্রতিষ্ঠান বা প্রতিষ্ঠান শ্রেণির জন্য খোলা ও বন্ধের সময় স্থির করে দিতে পারবেন।

মুদি দোকানের ক্ষেত্রে কী হবে- সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. এহছানে এলাহী বলেন, আইনে যেসব প্রতিষ্ঠান নির্দেশনার বাইরে থাকবে বলা হয়েছে, তার বাইরে সব ধরনের দোকান বন্ধ থাকবে। সেক্ষেত্রে মুদি দোকানও রাত ৮টার পর বন্ধ থাকবে।

এর আগে গত ১৬ জুন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মহাপরিচালক (প্রশাসন) মো. আহসান কিবরিয়া সিদ্দিকের সই করা চিঠিতে বলা হয়, বিশ্বব্যাপী জ্বালানির অব্যাহত মূল্যবৃদ্ধিজনিত বিদ্যমান পরিস্থিতিতে বিদ্যুৎ ও জ্বালানি সাশ্রয়ের নিমিত্তে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী নির্দেশনা দিয়েছেন।

এ লক্ষ্যে বাংলাদেশ শ্রম আইন, ২০০৬ এর ১১৪ ধারার বিধান কঠোরভাবে প্রতিপালনপূর্বক সারাদেশে রাত আটটার পর দোকান, শপিংমল, মার্কেট, বিপণি বিতান, কাঁচাবাজার ইত্যাদি খোলা না রাখার বিষয়টি যথাযথভাবে নিশ্চিত করার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হলো।


আরও খবর

ছোট ও মাঝারি গরুর দাম বেশি

শুক্রবার ০১ জুলাই ২০২২




মা হচ্ছেন আলিয়া

প্রকাশিত:সোমবার ২৭ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

বিয়ের আড়াই মাসের মধ্যে অন্তঃসত্ত্বা আলিয়া ভাট। সপ্তাহের শুরুতে খুশির জোয়ার কাপুর পরিবারে। মা হতে চলেছেন রণবীর-ঘরনি! সোমবার (২৭ জুন) নিজেই ঘোষণা করেছেন সন্তানের আগমন বার্তা। সঙ্গে হাসপাতালে পরীক্ষা-নিরীক্ষা চলার ছবি।

ইনস্টাগ্রামে আলিয়ার ওই পোস্টে দেখা গেছে, আল্ট্রাসোনোগ্রাফি চলছে অভিনেত্রীর। হাসিমুখে কম্পিউটারের পর্দায় চোখ রেখে হাসপাতালের শয্যায় শুয়ে ‘গাঙ্গুবাঈ’। ফ্রেমে রয়েছেন রণবীর। তার উৎসুক চোখও মনিটরে। যেন একসঙ্গে স্বপ্ন বুনছেন যুগলে।

ছবিটি অনুরাগীদের সঙ্গে ভাগ করে নিয়ে আলিয়া লিখেছেন, আমাদের সন্তান... শীঘ্রই সে আসছে।


আরও খবর

শিশুদের সিনেমায় মিথিলা

শুক্রবার ০১ জুলাই ২০২২