Logo
শিরোনাম

আলোচিত সেই ম্যাচে সেপ্টেম্বরে মুখোমুখি হচ্ছে ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা?

প্রকাশিত:বুধবার ২২ জুন 20২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

তথ্য গোপনের অভিযোগে করোনা মহামারী সময় মাঠে খেলা শুরু হওয়ার পরও তা বন্ধ বন্ধ করে দেয় ব্রাজিল ফুটবল কর্তৃপক্ষ। ম্যাচটি পরবর্তী খেলার  ঘোষণা দিয়ে তা বাতিল করে ফিফা কর্তৃপক্ষ। পরে সেই ম্যাচটি দুই পক্ষকে খেলানোর অনেক চেষ্টা করা হয়। কিন্তু আর্জেন্টিনা তাতে রাজি হচ্ছিল না। ফিফার নির্দেশ, নির্ধারিত সময়ই খেলতে হবে ‘পরিত্যাক্ত’ হওয়া সেই ম্যাচ। সেজন্য আগামী বুধবারের মধ্যে ব্রাজিলকে ম্যাচের ভেন্যুর ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে হবে।

সাও পাওলোতে গত বছর সেপ্টেম্বরে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের অগ্নিগর্ভ ম্যাচে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ব্রাজিলের মুখোমুখি হয়েছিল আর্জেন্টিনা।  ম্যাচের ৭ মিনিটের মাথায় কোভিড বিধিনিষেধ ভাঙার অভিযোগে আর্জেন্টিনার চার খেলোয়াড়কে ধরতে মাঠে ঢুকে পড়েন ব্রাজিলের স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তারা। এতে বেধে যায় লংকাকাণ্ড। স্থগিত হয়ে যায় ম্যাচ। 

আর্জেন্টিনা আশায় ছিল, পণ্ড ম্যাচের পুরো তিন পয়েন্ট তাদের ঝুলিতে যাবে। কিন্তু পাঁচ মাসের বেশি সময় পর  গত ফেব্রুয়ারি ফিফা সেই ম্যাচ ফের আয়োজনের নির্দেশ দেয়। পাশাপাশি মিথ্যা তথ্য দিয়ে ব্রাজিলে প্রবেশের অভিযোগে আর্জেন্টিনার চার ফুটবলার রোমেরো, এমিলিয়ানো মার্তিনেজ, এমিলিয়ানো বুয়েন্দিয়া ও জিওভান্নি লো সেলসোকে দুই ম্যাচ করে নিষিদ্ধ করে ফিফা।

কিন্তু এরইমধ্যে ম্যাচটি দুই দলের কাছেই গুরুত্বহীন হয়ে পড়ে। কারণ ইতোমধ্যে কাতার বিশ্বকাপের টিকিট নিশ্চিত করে ফেলে লাতিন আমেরিকার দুই পরাশক্তি। যে কারণে যেকোনও উপায়ে ম্যাচটি এড়িয়ে যেতে চাচ্ছিল ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা।

কিন্তু তা আর হচ্ছে না। তাদের বাতিল হওয়া সেই ম্যাচটি আগামী ২২ সেপ্টেম্বরের মধ্যে ম্যাচ আয়োজনের নির্দেশ দিয়েছে ফিফা। আর বুধবারের মধ্যে সেই ম্যাচের ভেন্যু ঠিক করে ফিফাকে জানাতে হবে ব্রাজিলকে। 

এদিকে ম্যাচ আয়োজনের জন্য তিনটি ভেন্যুর বিষয় পর্যালোচনা করছে ব্রাজিলিয়ান ফুটবল ফেডারেশন - ইউরোপ, যুক্তরাষ্ট্র কিংবা ব্রাজিলে।

ইউরোপে আর্জেন্টিনার বিপক্ষে ম্যাচটি খেলার পর একটি আফ্রিকান দলের বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচ খেলার পরিকল্পনা রয়েছে ব্রাজিলের। 

এদিকে যুক্তরাষ্ট্র ব্রাজিল-আর্জেন্টিনার দ্বৈরথ আয়োজনে আগ্রহী অনেকদিন ধরেই। তাদের কথাও মাথায় রেখেছে ব্রাজিল। এই দুটির কোনোটি না হলে ব্রাজিল ঘরের মাঠেই আর্জেন্টিনাকে আতিথেয়তা দিতে চায়।

 সূত্র: এমএসসি ফুটবল, ওলেডটকম, আর্জেন্টিনা


আরও খবর



প্রথম টি-টোয়েন্টিতে সম্ভাব্য বাংলাদেশ দল

প্রকাশিত:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

আটলান্টিক পাড়ি দেওয়ার বিভীষিকা কাটিয়ে আজই টি-টোয়েন্টি সিরিজের মিশনে নেমে যেতে হচ্ছে মাহমুদউল্লাহর দলকে। ক্যারিবিয়ানে সাদা পোশাকের বিবর্ণ লড়াইয়ের পর রঙিন জার্সিতে ঘুরে দাঁড়ানোর পালা টাইগারদের। ডোমিনিকার  উইন্ডসর পার্কে আজ বাংলাদেশ সময়  রাত সাড়ে ১১টায়  শুরু হবে ম্যাচটি। একই ভেন্যুতে আগামীকাল সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে।

দুই টেস্ট  সিরিজে হোয়াইটওয়াশ  হওয়ার পর  ঘুরে দাঁড়ানোর জন্য এটাই বাংলাদেশ দলের সেরা সময়। অবশ্য খুদে ফরম্যাটের নিকট অতীতও সুবিধার নয় টাইগারদের। শেষ ১০ ম্যাচে জয় মাত্র একটি। চলতি বছরের শুরুতে আফগানদের হারিয়েছিল বাংলাদেশ।

আজ একাদশের কম্বিনেশনেও স্পিনাররা প্রাধান্য পেতে পারেন। কারণ উইন্ডসর পার্কের উইকেট অতীতে স্পিনারদেরই সাহায্য করেছিল। সেক্ষেত্রে স্পিন আক্রমণে সাকিব, নাসুম, শেখ মেহেদী থাকতে পারেন। পেস বিভাগে তাসকিন, মুস্তাফিজ, শরীফুলের সুযোগ পাওয়ার কথা।

ওপেনিংয়ে লিটন দাসের সঙ্গী হতে পারেন বিজয়। অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহর সঙ্গে একাদশের বাকি দুই সদস্য হতে পারেন আফিফ, সোহান।

বাংলাদেশ দল (সম্ভাব্য): মাহমুদুল্লাহ (অধিনায়ক), সাকিব আল হাসান, লিটন দাস, এনামুল হক বিজয়, মুনিম শাহরিয়ার, নুরুল হাসান (উইকেটরক্ষক), মোসাদ্দেক হোসেন, আফিফ হোসেন, মুস্তাফিজুর রহমান, শরিফুল ইসলাম ও নাসুম আহমেদ।


আরও খবর



সৌদিতে আরও ২ বাংলাদেশি হজযাত্রীর মৃত্যু

প্রকাশিত:বুধবার ২২ জুন 20২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

সৌদি আরবে মারা গেলেন আরও দুই বাংলাদেশি হজযাত্রী। মঙ্গলবার (২১ জুন) মদিনায় মারা যান তারা। এ নিয়ে বাংলাদেশি হজযাত্রী মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো ৬ জনে।

ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের আইটি হেল্পডেস্কের হজের প্রতিদিনের বুলেটিনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

মৃত হজযাত্রীরা হলেন— রংপুর পীরগাছার মো. আব্দুল জলিল খান (৬২)।  তার পাসপোর্ট নম্বর- BX0552614 ও ঢাকার কোতোয়ালির বিউটি বেগম (৪৭)। তার পাসপোর্ট নম্বর- EA0009584।

বুলেটিনে জানানো হয়েছে, মঙ্গলবার পর্যন্ত ৭৮টি ফ্লাইটে সৌদি আরবে গেছেন ২৮ হাজার ৩০৯ জন হজযাত্রী।

সৌদি আরব যাওয়া হজযাত্রীদের মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনার ৩ হাজার ৩৮৫ জন ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনার ২৪ হাজার ৯২৪ জন রয়েছেন। 

গত ৫ জুন বাংলাদেশ থেকে হজ ফ্লাইট শুরু হয়। ঢাকা থেকে শেষ হজ ফ্লাইট ছেড়ে যাবে ৪ জুলাই।





আরও খবর

১০ জুলাই পবিত্র ঈদুল আযহা

শুক্রবার ০১ জুলাই ২০২২




প্যানেল মেয়র ও তার ভাইয়ের বিরুদ্ধে কবরস্থানের জায়গা দখলের অভিযোগ

প্রকাশিত:সোমবার ১৩ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

উচিংছা রাখাইন, রাঙ্গামাটি  প্রতিনিধি

প্যানেল মেয়র ও তার ভাইয়ের বিরুদ্ধে কবরস্থানের জায়গা দখলের অভিযোগ উঠেছে। রাঙ্গামাটি শহরের রির্জাভ বাজারের পশ্চিমে শরিয়তপুর এলাকায় কবরস্থানের জায়গা দখলের অভিযোগ উঠেছে রাঙ্গামাটি পৌরসভার প্যানেল মেয়র হেলাল উদ্দিনও তার বড় ভাই আলমগীরের বিরুদ্ধে। সোমবার বিকালে ওই এলাকার কবরস্থানের সামনে স্থানীয় প্রতিবাদী জনতা স্থানীয় প্রিন্ট এন্ড ইলেকট্টনিক্স মিডিয়ার সামনে এসব অভিযোগ তুলেন। 

এসময় প্যানেল মেয়র হেলাল উদ্দিন ও তার বড় ভাইয়ের বিরুদ্ধে জায়গা দখলের অভিযোগ এনে স্থানীয় জনতা বলেন, শরিয়তপুরে পূর্বেও হেলাল রাতারাতি ১শতাধিক শ্রমিক নিয়ে রাতের আধাঁরে মন্দিরের জায়গা দখল করে। তারই ধারাবাহিকতায় শরিয়তপুর কবরস্থানের জায়গা দখলের পায়তারা করছেন তারা। এর প্রতিবাদ করতে গিয়ে স্থানীয় লোকজনের বিরুদ্ধে হামলা মামলার হুমকি দিচ্ছে প্যানেল মেয়র হেলাল ও তার বড় ভাই। 

শরিয়তপুর জামে মসজিদের সভাপতি শফি সওদাগর ও স্থানীয় যুবক আবুল হোসেন আরমান বলেন, হেলালের বড় ভাই কবরস্থানের জায়গাটি লঞ্চ মেরামত করার জন্য ভায়া নিয়েছিলেন। পরে সে কবরস্থানের জায়গা দখলের চেষ্টা করেন। আবার বিভিন্ন জনের কাছে বলে বেড়ায় সে জায়গাটি ক্রয় করেছেন।

এব্যাপারে হেলালের বড় ভাইয়ের সাথে স্থানীয় লোকজনের সাথে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে হালকা পাতলা মারধরের ঘটনা ঘটে। বিষয়টি কেন্দ্র করে হেলালের বড় ভাই আমাদের বিরুদ্ধে কোতয়ালি থানায় অভিযোগ করলে থানা থেকে তদন্ত ও আসে। বর্তমানে হেলাল কমিশনার ও তার ভাই এলাকার লোকজনদের বিভিন্ন ভাবে হুমকি ধমকি দিচ্ছে। 

প্যানেল মেয়র হেলাল উদ্দিন বলেন, আমার বড় ভাই ওই জায়গাটি ভাড়া নিয়েছিল বটে। তবে তার সাথে স্থানীয় লোকজনের সাথে বিরোধ সৃষ্টি হয়েছে শুনে তা আমি নিরসনের চেষ্টা করি। কিন্তু ওই এলাকার উত্তেজিত জনতা আমার কথা শুনতে নারাজ। তারা আমার বিরুদ্ধে ও আমার ভাইয়ের বিরুদ্ধে যে সকল কুরুচিপূর্ণ বক্তব্য দিয়েছেন তা সম্পূর্ণ মিথ্যা ও ষড়যন্ত্রমূলক। আমার ভাই ও আমি কবরস্থানের জায়গা জমি দখল করতে যাইনি।


আরও খবর



সীতাকুণ্ডে অগ্নিকাণ্ড: ঘটনাস্থল পরিদর্শনে যাচ্ছেন ৩ মন্ত্রী

প্রকাশিত:সোমবার ০৬ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডের বিএম ডিপোতে বিস্ফোরণস্থল পরিদর্শনে যাচ্ছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল, নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী এবং দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. এনামুর রহমান। ৩ মন্ত্রীর দপ্তর থেকে সোমবার (৬ জুন) এ তথ্য জানানো হয়েছে।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা শরীফ মাহমুদ অপু জানান, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সীতাকুণ্ডে দুর্ঘটনাস্থল পরিদর্শনে যাচ্ছেন। সোমবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে চট্টগ্রামের উদ্দেশ্যে ঢাকা থেকে রওনা দিচ্ছেন।

নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. জাহাঙ্গীর আলম খান বলেন, প্রতিমন্ত্রী দুপুর ১টায় বিমানযোগে ঢাকা ত্যাগ করবেন। দুপুর আড়াইটায় চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে বিএম কন্টেইনার ডিপোতে অগ্নিকাণ্ডের ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শন, বিকেল সাড়ে ৫টায় চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে অগ্নিকাণ্ডে আহতদের দেখতে যাবেন।  

এছাড়াও সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় প্রতিমন্ত্রী চট্টগ্রাম বন্দরে কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করবেন বলে জানান জাহাঙ্গীর আলম।

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. সেলিম হোসেন বলেন, প্রতিমন্ত্রী দুপুরে বিমানে চট্টগ্রাম যাচ্ছেন। সেখান থেকে সীতাকুণ্ড যাবেন।


আরও খবর



সেভেরোদোনেৎস্ক থেকে সরিয়ে নেওয়া হচ্ছে ইউক্রেনীয় সেনাদের

প্রকাশিত:শনিবার ২৫ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

ইউক্রেনের গুরুত্বপূর্ণ অঞ্চল লুহানেস্কের সেভেরোদোনেৎস্ক থেকে ইউক্রেনের সেনাদের সরিয়ে নেওয়া হচ্ছে। রুশ সেনারা পূর্বাঞ্চলীয় শহরটি ঘিরে ফেলায় তাদের নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেওয়া হচ্ছে। খবর সিএনএনের।

সেভেরোদোনেৎস্কের পাশের শহর লিসিচানস্কের দখল দুই-একদিনের মধ্যে রুশ সেনাদের আয়ত্তে চলে আসতে পারে।

ফলে লুহানেস্কের সেভেরোদোনেৎস্ক এবং লিসিচানস্ক দখল করতে পারলে পুরো অঞ্চলটি রাশিয়ার অধীনে চলে আসবে। লুহানেস্কের গভর্নর সেরহি হাইদাই বলেন, ইউক্রেনীয় সেনাদের সেভেরোদোনেৎস্ক ছাড়ার নির্দেশ দিয়েছেন এখানকার শীর্ষ কমান্ডার।

তিনি বলেন, সেনাদের পিছিয়ে অন্যত্র চলে যেতে এবং সেখান থেকে লড়াই চালিয়ে যাওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

লুহানেস্কের গভর্নর আরও জানিয়েছেন, রুশ বাহিনীর অব্যাহত বোমা হামলার কারণে সেভেরোদোনেৎস্ক পুরোপুরি বিধ্বস্ত হয়ে যাওয়ার পথে।

শহরের ৯০ শতাংশ ইতোমধ্যে ধ্বংস হয়ে গেছে। শহরের যেসব ভবন বা ঘরবাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে তার ৮০ শতাংশ ভেঙে ফেলতে হবে।

রুশ হামলায় এখনো অনেক ভবন থেকে ধোঁয়া বের হচ্ছে। এর মধ্য দিয়ে লুহানেস্কের শেষ ইউক্রেনীয় শহরটিও পতন হতে যাচ্ছে।


আরও খবর