Logo
শিরোনাম

আমদানি ব্যয় সংকোচন নীতির সুফল মিলছে অর্থনীতিতে

প্রকাশিত:রবিবার ১১ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ |
Image

সরকারের নানা পদক্ষেপের কারণে অর্থনীতি ঘুরে দাঁড়ানোর ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে। ব্যাংক-ব্যবসায় এবং বাণিজ্য সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কথা বলে এ তথ্য জানা গেছে।

সংশ্লিষ্টরা জানান, গত জুলাই ও আগস্ট মাসে অর্থনীতির কয়েকটি সূচক ঊর্ধ্বমুখী ধারায় ফিরেছে। বিশেষ করে রেমিট্যান্স প্রবাহ ও রপ্তানি আয় বৃদ্ধি পেয়েছে। এর সঙ্গে বাংলাদেশ ব্যাংকের আমদানি ব্যয় সংকোচন নীতির সুফল মিলছে অর্থনীতিতে।

বিদেশি মুদ্রার সঞ্চয়ন বা রিজার্ভের প্রধান উৎস রপ্তানি আয় ও রেমিট্যান্স। আর এ দুটির উল্লম্ফনের মধ্য দিয়ে অর্থনীতিতে স্বস্তির আভাস মিলেছে। এখন তৈরি পোশাক রপ্তানির ওপর ভর করেই গত অর্থবছরের মতো রপ্তানি আয়ে সুবাতাস বইতে শুরু করেছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য মতে, চলতি বছরের সদ্যবিদায় হওয়া মাস আগস্টে ২০৩ কোটি ৮০ লাখ ডলার রেমিট্যান্স এসেছে। গত বছরের আগস্টে এসেছিল ১৮১ কোটি ডলার। সে হিসাবে গত বছরের একই সময়ের ব্যবধানে রেমিট্যান্স বেড়েছে ১২ দশমিক ৬ শতাংশ। চলতি বছরের জুলাই মাসে রেমিট্যান্স এসেছে ২০৯ কোটি ডলার।

প্রবাসীদের পাঠানো রেমিট্যান্সের মতো রপ্তানি আয়েও সুবাতাস বইছে। গত আগস্ট মাসে বিভিন্ন পণ্য রপ্তানি করে ৪৬০ কোটি ৭০ লাখ ডলার আয় করেছেন বাংলাদেশের রপ্তানিকারকরা। এই অঙ্ক গত বছরের আগস্টের চেয়ে ৩৬ দশমিক ১৮ শতাংশ বেশি। আর লক্ষ্যমাত্রার বেশি ৭ দশমিক ১৪ শতাংশ। 

সম্প্রতি প্রকাশিত রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর (ইপিবি) হালনাগাদ তথ্য বিশ্লেষণে দেখা যায়, এই অর্থবছরের জুলাই-আগস্ট সময়ে তৈরি পোশাক রপ্তানি থেকে এসেছে ৭১১ কোটি ২৬ লাখ ডলার, যা গত বছরের একই সময়ের চেয়ে ২৬ দশমিক ১ শতাংশ বেশি। লক্ষ্যের চেয়ে বেশি আয় হয়েছে ৭ দশমিক ২৪ শতাংশ। দুই বছরের করোনা মহামারির পর রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের ধাক্কায় ওলটপালট হয়ে যাওয়া বিশ্ব অর্থনীতিতে রপ্তানি আয় কমবে বলে আশঙ্কা করছিলেন রপ্তানিকারকরা। 

আগামী দিনগুলোতেও রপ্তানি বাড়ার আশা করছেন দেশের রপ্তানি আয়ের প্রধান খাত তৈরি পোশাকশিল্প-মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএ-এর সাবেক সভাপতি বাংলাদেশ চেম্বারের বর্তমান সভাপতি আনোয়ার-উল আলম চৌধুরী পারভেজ। তিনি বলেন, নানা ধরনের উদ্বেগ-উৎকণ্ঠার মধ্যেও দুই মাসে সার্বিক রপ্তানিতে ২৫ শতাংশের বেশি প্রবৃদ্ধি অবশ্যই একটা ভালো দিক। তৈরি পোশাক রপ্তানিতে প্রবৃদ্ধি ২৬ শতাংশের বেশি। রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের মধ্যে এই উল্লম্ফন আমাদের আশান্বিত করেছে। এই সংকটের সময় রেমিট্যান্সের পাশাপাশি রপ্তানি আয় বাড়াটা খুবই দরকার ছিল। এর মধ্য দিয়ে রিজার্ভ বাড়বে। ডলারের বাজারে যে অস্থিরতা চলছে, সেটাও কেটে যাবে বলে আশা করছি।


আরও খবর

লিটারে ১৪ টাকা কমল সয়াবিন তেলের দাম

মঙ্গলবার ০৪ অক্টোবর ২০২২




শৃঙ্খলা ফেরাতে বাসে ই-টিকিটিং

প্রকাশিত:শনিবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ |
Image

মইনুল ইসলাম মিতুল : গণপরিবহনে ভাড়া নিয়ে নৈরাজ্য দীর্ঘদিনের। সরকার ভাড়া নির্ধারণ করে দিলেও তা মানত না কোনো গণপরিবহন। আর এ বিষয়ে যাত্রীদের অভিযোগেরও অন্ত ছিল না। শুধু রাজধানী নয়, দেশজুড়েই একই অবস্থা। ছিল বাড়তি ভাড়া আদায়ের সীমাহীন নৈরাজ্য। যে যেভাবে পেরেছে জিম্মি করে যাত্রীদের কাছ থেকে আদায় করেছে দ্বিগুণ-তিনগুণ অতিরিক্ত ভাড়া। তবে এবার যাত্রীদের জন্য সুখবর নিয়ে এলো পরিবহন সংশ্লিষ্টরা। রাজধানীতে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় বন্ধে চালু হয়েছে ই-টিকিটিং ব্যবস্থা। কয়েকটি রুটে মিরপুর সুপার লিংক, পরিস্থান, প্রজাপতি ও বসুমতিসহ বেশ কয়েকটি বাস পরীক্ষামূলকভাবে শুরু করেছে এ কার্যক্রম। এ ব্যবস্থা পুরোপুরি কার্যকর হলে সাধারণ যাত্রীদের গুনতে হবে না অতিরিক্ত ভাড়া। তাই নতুন এ সিস্টেমকে স্বাগত জানিয়েছেন যাত্রীরা।

টিকিট বিক্রেতারা বলছেন, ই-টিকিটিং চালু হওয়ায় যাত্রী হয়রানি কমার পাশাপাশি ভাড়ারও সমন্বয় করা হচ্ছে। জনসাধারণের সুবিধার্থে পর্যায়ক্রমে সব রুট ও বাসেই ই-টিকিটিং চালুর দাবি জানান যাত্রীরা।

এর আগে রাজধানীর অভ্যন্তরীণ পরিবহন ব্যবস্থায় যাত্রী ভোগান্তি নিরসনে চালু হচ্ছে ই-টিকিটিং ব্যবস্থা চালুর উদ্যোগ নেওয়া হয়। গত ১ সেপ্টেম্বর ঢাকা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির সঙ্গে ই-টিকিটিং সহযোগী প্রতিষ্ঠান যাত্রী সার্ভিসেস লিমিটেডের এ-সংক্রান্ত চুক্তি সই হয়।

সূত্র জানিয়েছে, এটি চালু হওয়ায় যাত্রীরা বাসের ভেতরে টাকা দিয়ে কন্ডাক্টরের কাছে থাকা মেশিন থেকে টিকিট সংগ্রহ করতে পারছেন। টিকিটের গায়ে যাত্রার বিবরণ থেকে টাকার পরিমাণ সবই উল্লেখ থাকায় অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের কোনো সুযোগ থাকল না।

এ পাইলট প্রকল্পে প্রজাপতি পরিবহন, পরিস্থান পরিবহন, অছিম পরিবহন, নূর-ই মক্কা পরিবহন ও বসুমতির বাসে ই-টিকিট সুবিধা চালু হলো। এর ফলে রাজধানীর সড়কে ফিরতে পারে শৃঙ্খলা।



আরও খবর

শিগগিরই বাড়ছে বিদ্যুতের দাম

মঙ্গলবার ০৪ অক্টোবর ২০২২




আসছেন বিশ্বব্যাংকের ভাইস প্রেসিডেন্ট

প্রকাশিত:সোমবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ |
Image

প্রথমবারের মতো বাংলাদেশ সফরে আসছেন বিশ্বব্যাংকের দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলের ভাইস প্রেসিডেন্ট মার্টিন রেইজার। ৩ দিনের সফরে তিনি সোমবার ঢাকা পৌঁছাবেন।

অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল ও সরকারের অন্য জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তাদের সঙ্গে দেখা করবেন রেইজার। এ সময় দেশের উন্নয়ন খাতে বিশ্বব্যাংকের সহায়তার বিষয়ে আলোচনা করার কথা রয়েছে।

মার্টিন রেইজার বলেন, বাংলাদেশ উন্নয়ন ও অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধিতে অসাধারণ সাফল্য দেখিয়েছে। ৫০ বছরের এই অসামান্য যাত্রায় অংশীদার হতে পেরে বিশ্বব্যাংক গর্বিত। দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলো করোনাভাইরাস, জলবায়ু পরিবর্তন ও বাড়তে থাকা বৈশ্বিক মূল্যস্ফীতির আঘাতে জর্জরিত। এই প্রেক্ষাপট বাংলাদেশ কীভাবে মোকাবিলা করছে, তা জানতে আমি আগ্রহী।

জার্মান নাগরিক রেইজার গত ১ জুলাই থেকে বিশ্বব্যাংকের দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলের ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে কাজ করছেন। এর আগে তিনি চীন ও মঙ্গোলিয়ায় বিশ্বব্যাংকের কান্ট্রি ডিরেক্টর এবং কোরিয়ার ডিরেক্টর পদে কাজ করেছেন। এ ছাড়া, তিনি তুরস্ক ও ব্রাজিলেও কান্ট্রি ডিরেক্টর হিসেবে কাজ করেছেন।


আরও খবর

লিটারে ১৪ টাকা কমল সয়াবিন তেলের দাম

মঙ্গলবার ০৪ অক্টোবর ২০২২




ইটনায় বিএনপির নেতা-কর্মীর আওয়ামীলীগে যোগদান

প্রকাশিত:রবিবার ১১ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ |
Image

মোঃ মুজাহিদ সরকার কিশোরগঞ্জ ঃ

কিশোরগঞ্জ ইটনা উপজেলায় বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি) থেকে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগে আড়াই শতাধিক নেতা-কর্মী আনুষ্ঠানিকভাবে যোগদান করেছেন। 

১১ সেপ্টেম্বর (রবিবার) দুপুরে সদর ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ড মেম্বার সামসুল ইসলাম (আবু বক্কর) এর নেতৃত্বে ২নং ওয়ার্ডের বিএনপিসহ বিভিন্ন অঙ্গসংগঠনের শতাধিক নেতা-কর্মী বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যোগদান করেন। তারপর মোঃ জুয়েল ও খালেক মিয়ার নেতৃত্বে সদর ইউনিয়নের ০১নং ওয়ার্ডের ইটনা পশ্চিম গ্রামের বিভিন্ন সংগঠনের ও সুশিল সমাজের দেড় শতাধিক নেতাকর্মীবৃন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যোগদান করেন। 

উল্লেখ্য যে, আওয়ামী লীগে যোগদানকারী নেতা-কর্মীদের পাশাপাশি আত্মীয়-স্বজনও যোগদান করেছেন। 

যোগদান অনুষ্ঠানে উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান চৌধুরী কামরুল হাসানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কিশোরগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য রেজওয়ান আহম্মদ তৌফিক, সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা ইসমাইল হোসেন, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সিনিয়র সহ-সভাপতি মোঃ ওমর ফারুক, উপজেলার আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সোহরাব উদ্দিন ঠাকুর। আরও উপস্থিত ছিলেন উপজেলার আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দসহ সেচ্ছাসেবকলীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ। 

বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের যোগদানকারী নেতাকর্মীদের ফুলের মালা দিয়ে বরণ করে নেন উপস্থিত অতিথিবৃন্দ। 

নেতাদের সাথে কর্মীদের দুরত্ব, সাংগঠনিক কার্যক্রম না থাকা সহ নানা অভিযোগে তৃণমূলের নেতা-কর্মী, সমর্থকদের মধ্যে দীর্ঘ ক্ষোভ হতাশা এই দল পরিবর্তন বলে জানিয়েছে দল ত্যাগকারী বিএনপি নেতাকর্মীরা।


আরও খবর

পুলিশের পক্ষে বললেন খামেনি

মঙ্গলবার ০৪ অক্টোবর ২০২২




হাছেন আলী ওয়েল ফেয়ার ফাউন্ডেশনের সহায়তায়

হুইলচেয়ার পেলেন,মজিদ পাগলা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ০৫ অক্টোবর ২০২২ |
Image

উত্তম কুমার মোহন্ত কুড়িগ্রাম ঃ

কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলার কাশিপুর ইউনিয়নের পশ্চিম অনন্তপুর মৌজার বাকুয়ার ভিটা গ্রামের আব্দুল মজিদ পাগলা (৬৫)কে হুইলচেয়ার সহ-নগদ অর্থ প্রদান করেন হাছেন আলী ওয়েল ফেয়ার ফাউন্ডেশন।১৩ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার দুপুরে তার বাড়িতে গিয়ে সহায়তা প্রদান করেন হাছেন আলী ওয়েল ফেয়ার ফাউন্ডেশনের প্রধান পৃষ্ঠপোষক মোঃ হাছেন আলী (চেয়ারম্যান) নাওডাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদ ও সভাপতি, বাংলাদেশ আওয়ামী নাওডাঙ্গা  ইউনিয়ন।

সাম্প্রতিক সময়ে অনলাইন পোর্টাল বিডি- টুডেজ,ও নগর বার্তা লাইভ টিভিসহ-বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে জন্মগত শারীরিক অক্ষমতা সম্পন্ন আব্দুল মজিদ পাগলার শেষ আশ্রয়স্থল বিধবা দুই বোনের সংসার। এই শিরোনামে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ হয়েছিল, সেই প্রকাশিত প্রতিবেদনে মজিদ পাগলার জীবনের অসহায়ত্বের ঘটনার বর্ণনা নজরে আসে হাছেন আলী ওয়েল ফেয়ার ফাউন্ডেশনের। পরবর্তিতে মঙ্গলবার দুপুরে হাছেন আলী ওয়েল ফেয়ার ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে তার বাড়িতে গিয়ে সহায়তা প্রদান করেন।

হুইল চেয়ারের পেয়ে আবেগ আল্পুত হয়ে অশ্রুসিক্ত হয়ে যায় মজিদ পাগলার দু নয়ন। তিনি বলেন আমি খুব অসহায় জন্মগত ভাবে শারীরিক অক্ষমতা সম্পন্ন হত্তয়ায় হাঁটাচলা করতে পারিনা।আর আমাকে সবসময় বন্ধ ঘরে সুইয়ে,থাকতে হবে না এখন হুইলচেয়ারে বসে বাহিরে চলাফেরা করতে পারব। স্ত্রী সন্তান কেউ না থাকায় শেষ বয়সে এসে বিধবা দুটি ছোট বোনের অভাবের সংসারে এসে তিন ভাইবোনে খুব কষ্ট করে দিনযাপন করছি। আমার জন্য ছোট বোনদের ও খুব কষ্ট হচ্ছে।এই বোন দুইটি ছাড়া পৃথিবীতে আপনজন বলতে আর কেউ নেই। তিনি আল্লাহর কাছে প্রার্থনা করে বলেন যারা আমাকে এই হুইল চেয়ারটি সহায়তা করলো তাদের জন্য আল্লাহর দরবারে হাজার, হাজার শুকরিয়া।

মজিদ পাগলার বিধবা দুই বোন,জমিলা বেওয়া ছালেহা বেওয়া বলেন,এতদিন আমরা দুইবোন মিলে খুব কষ্টে পাগলা ভাইটাকে ঘরবাহির করতাম। ভাইটা বন্ধ ঘরে থাকতে থাকতে কান্নাকাটি করত বাহিরে আসার জন্য আমারা সময় মতো তাকে বাহির করতে পারতাম না, কারণ আমাদের ও অনেক বয়স হয়েছে, দুই বোনের খুব কষ্ট হয়েছে, এখন হুইলচেয়ারে বসে পাগলা ভাইটা বাহিরে চলাফেরা করতে আর কষ্ট হবে না।তাতে আমার দুই বোনের ও কিছুটা কষ্ট লাঘব হলো।যারা আমার ভাই ও আমাদের সহায়তা করলো আল্লাহ যেন তার ভালো করে।

হুইলচেয়ার প্রদান কালে আরো উপস্থিত ছিলেন

ফুলবাড়ী উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি, উত্তম কুমার মোহন্ত, প্রচার ও সাংগঠনিক সম্পাদক নুরনবী মিয়া, স্থানীয় সমাজকর্মী এরশাদুল হক চৌধুরী,পল্লি চিকিৎসক, জাহাঙ্গীর আলম, কিন্ডার গার্ডেন পরিচালক, আব্দুল জব্বার, সমাজ সেবক,শাহ আলম মিয়া সহ আরো অনেক।


আরও খবর



ড. কামালের নেতৃত্বে গণফোরামের নতুন কমিটি

প্রকাশিত:রবিবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ০৫ অক্টোবর ২০২২ |
Image

ড. কামাল হোসেনকে সভাপতি ও ডা. মো. মিজানুর রহমানকে সাধারণ সম্পাদক করে গণফোরামের ১০১ সদস্যের নতুন কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে।

কমিটিতে সভাপতি পরিষদ সদস্য হয়েছেন এ এইচ এম খালেদুজ্জামান, ড. কামাল হোসেন, মফিজুল ইসলাম খান কামাল, এস এম আলতাফ হোসেন, মোকাব্বির খান, আবদুল আজিজ, শান্তিপদ ঘোষ, আ ও ম শফিকউল্লাহ, মেজবাহ উদ্দীন আহমেদ, মোমেন চৌধুরী, মোশতাক আহমেদ, ডা. আব্দুল্লাহ আল-মাহমুদ, সেলিম আকবর, সুরাইয়া বেগম, আবদুর রহমান জাহাঙ্গীর, হারুনুর রশীদ তালুকদার, ইসমাইল হোসেন ও ফরিদা ইয়াছমিন।

কোষাধ্যক্ষ হয়েছেন শাহ মো. নূরুজ্জামান। যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক দুজন হলেন মো. মাহফুজুর রহমান ও শফিউর রহমান খান বাচ্চু। সাংগঠনিক সম্পাদক হয়েছেন অধ্যক্ষ মো. ইয়াছিন। দপ্তর সম্পাদক জহিরুল ইসলাম জহির এবং প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক হয়েছেন এম এ ওয়াহাব।

তথ্য ও গণমাধ্যম সম্পাদক নাজমুল ইসলাম সাগর, শিক্ষা ও প্রশিক্ষণ সম্পাদক অধ্যাপক বকুল ইমাম, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সম্পাদক মোমেনা আহমেদ মুমু, সংস্কৃতি সম্পাদক ড. নীলিমা পারভীন, আইন ও মানবাধিকার সম্পাদক অ্যাডভোকেট শরিফুল ইসলাম সজল, যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক তৌফিকুল ইসলাম পলাশ, আন্তর্জাতিকবিষয়ক সম্পাদক মো. নবাব আলী, কৃষিবিষয়ক সম্পাদক আবদুর রাজ্জাক (নওগাঁ), শ্রমবিষয়ক সম্পাদক রফিকুল ইসলাম রতন (গাজীপুর), নারীবিষয়ক সম্পাদক সাহিদা ইসলাম শিল্পী (ঢাকা), সমাজসেবা সম্পাদক করা হয়েছে মো. আলী লালকে।

সংবাদ সম্মেলনে ড. কামাল বলেন, দেশের নির্বাচনী ব্যবস্থা আজ ধ্বংসপ্রাপ্ত ও প্রশ্নবিদ্ধ। অধিকাংশ দলের আপত্তি সত্ত্বেও ইসি ১৫০ আসনে ইভিএমে ভোটের প্রস্তুতি নিচ্ছে, তা এক ভয়ঙ্কর অশনিসংকেত।

তিনি বলেন, দেশ বর্তমানে গভীর রাজনৈতিক সংকটে নিমজ্জিত। গণতন্ত্র আজ নির্বাসিত, স্বৈরাচারী সরকারের গণবিরোধী কর্মকাণ্ডের কারণে দেশে চরম অরাজক পরিস্থিতি বিরাজ করছে। দেশের অর্থনৈতির আজ চরম দুরবস্থা। আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি ভেঙে পড়েছে। শান্তিপূর্ণ রাজনৈতিক কর্মসূচি পালনও অসম্ভব হয়ে পড়েছে।

দেশের টাকা দুর্নীতি হয়ে পাচার হচ্ছে উল্লেখ করে ড. কামাল আরও বলেন, রাষ্ট্রে যারা দায়িত্বে আছেন, তারা দায়িত্ব পালনে ব্যর্থ হচ্ছেন। সবাই মিলে এ রাষ্ট্রকে বাঁচাতে হবে। দেশকে বাঁচানোর সবচেয়ে বড় সুযোগ হচ্ছে একটি সত্যিকারের স্বাধীন ও নিরপেক্ষ নির্বাচন।


আরও খবর

পুলিশের পক্ষে বললেন খামেনি

মঙ্গলবার ০৪ অক্টোবর ২০২২