Logo
শিরোনাম
মেঘনা নদীতে গোসল করার সময় নিখোঁজ ছাত্রের মরদেহ উদ্ধার রাজবাড়ীতে ট্রাকের সাথে সংঘর্ষে মোটর সাইকেল আরোহীর মৃত্যু রাজবাড়ীতে আবৃত্তি ও কথামালায় প্রকাশনা উৎসব নওগাঁয় মোটরসাইকেলের ধাক্কায় স্কুল ছাত্র নিহত-মা ও ছোট বোন আহত মোরেলগঞ্জে শ্রমীকদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করলেন এমপি মিলন লালমনিরহাটে বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে মারাগেছে স্কুলছাত্র নওগাঁয় বোরো ধান চাষের শুরুতেই বিদ্যুতের লোড শেডিং, দুঃশ্চিন্তায় কৃষকরা নওগাঁয় ৩৫ কোটি টাকা মূল্যের কষ্টিপাথরের মূর্তি উদ্ধার করেছে পুলিশ কুড়িগ্রামের শীতকাতর অসহায় মানুষের পাশে কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেত্রকোনায় বিশ্ব জলাভূমি দিবস উপলক্ষে মানববন্ধন

বাগেরহাটে হত্যার মুল হোতা ফরিদ শেখসহ ৯ জন আটক

প্রকাশিত:Sunday ১৩ November ২০২২ | হালনাগাদ:Friday ০৩ February ২০২৩ |
Image

এম.পলাশ শরীফ, বাগেরহাটঃ

নূরে আলম ওরফে তানু ভুঁইয়া(৩৫) হত্যাকান্ডের  মুল হোতাসহ ৯ জনকে আটক করেছে পুলিশ। রবিবার দুপুরে বাগেরহাট পুলিশ সুপার কেএম আরিফুল হক প্রেস ব্রিফিং করে আটকৃতদের নাম ঠিকানা প্রকাশ করেন। এ সময়ে আটককৃতদের নিকট থেকে হত্যায় ব্যবহৃত অগ্নেয়াস্ত্র ও গুলি উদ্ধার করা হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হলো হত্যাকান্ডের মুল হোতা বাগেরহাটে শহরের বাসাবাটি এলাকার টুটুল শেখের ছেলে  ফরিদ শেখ (২৮), জামাল মিস্ত্রীর ছেলে মনির (২৬)  আলী আকবরের ছেলে  রাতুল শেখ, সোবহানের ছেলে  সিরাজুল (২৭), এসমাইল শেখের ছেলে আলামিন (৩০) , রুস্তমের ছেলে সুমন (২৬) বাসাবাটি, কাড়াপাড়ার সোহাগ (২৫), পুর্ব বাসাবাটির মোসলেম শেখের ছেলে মুকুল শেখ(৫৩), ও বাসাবাটি মৃত সোবহান শেখের ছেলে কবির শেখ (৫০)। আটককৃতরা পিরোজপুরে জেলার ইন্দুরকানী উপজেলার বালিপাড়া এলাকায় ফরিদ শেখের ফুফু বাড়ীতে আত্মগোপন করেছিল বলে পুলিশ জানায়। পরে গোপন সংবাদে খবর পেয়ে শনিবার গভীর রাতে ডিবি, ডিএসবি ও থানা পুলিশ যৌথভাবে আসামীদের আটক করতে সক্ষম হয়।

শুক্রবার সাড়ে ১০ টার দিকে আটককৃতরা বাগেরহাট জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা ছাত্রদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক নুরে আলম ওরফে তানু ভূইয়াকে গুলি করে হত্যা করে। পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আসামীরা এলাকায় আধিপত্য বিস্তারের কারণে এই হত্যা কান্ডটি ঘটিয়েছে বলে পুলিশকে জানয়েছে বলে পুলিশ সুপার জানান। এদিকে তানু ভুইয়ার স্ত্রী কানিজ ফাতেমা বাদী হয়ে বাগেরহাট সদর মডেল থানায় মোট ১৭ (সতের) জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত ৭/৮ জনের বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। 


আরও খবর



কুড়িগ্রামে নাশকতার অভিযোগে ৫ জামায়াত নেতাকর্মী আটক

প্রকাশিত:Monday ২৩ January 20২৩ | হালনাগাদ:Friday ০৩ February ২০২৩ |
Image

আতাউর রহমান বিপ্লব, কুড়িগ্রাম :

কুড়িগ্রামের সদর উপজেলার ভোগডাঙ্গা ইউনিয়নের মধ্যকুমরপুর ও ঘোগাদহ ইউনিয়নের ঘোগাদহ এলাকা থেকে নাশকতার অভিযোগে ৫ জামায়াত নেতাকর্মীকে আটক করেছে কুড়িগ্রাম সদর থানা পুলিশ। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে তাদেরকে আটক করা হয়। আটককৃতদের বিরুদ্ধে এর আগেও নাশকতার অভিযোগে মামলা দায়ের করা ছিল।

কুড়িগ্রাম সদর থানার অফিসার ইনচার্জ খান মো. শাহরিয়ার জানান, অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন সময়ে নাশকতার অভিযোগে মামলা রুজু করা হয়েছিল। আবার তারা সংগঠিত হয়ে তৎপরতা শুরু করার খবর পেয়ে সোমবার সন্ধ্যায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে দুটি এলাকা থেকে তাদেরকে আটক করা হয়। 

আটককৃতরা হলেন সদর উপজেলার ঘোগাদহ ইউনিয়নের ঘোগাদহ বাজার জামায়াতের সাধারণ সম্পাদক ও রসুলপুর গ্রামের আব্দুল জব্বার খন্দকারের ছেলে আব্দুল বাতেন (৪৮) ও একই ইউনিয়নের মরাটারী গ্রামের মেহের জামালের ছেলে ও রাজারহাট দাখিল মাদ্রাসার কৃষি বিভাগের শিক্ষক জাহেদুল ইসলাম (৪০), সদর উপজেলার ভোগডাঙ্গা ইউনিয়নের চরবড়াইবাড়ী গ্রামের ভোলা শেখ’র ছেলে আবুল হোসেন (৪৮), একই ইউনিয়নের বাণির খামার (পরমালী) গ্রামের মৃত: মহর উল্যাহ ব্যাপারীর ছেলে আশরাফুল আলম ওরফে বদিউজ্জামান এবং চর বড়াইবাড়ী গ্রামের মৃত: আবুল হোসেন’র ছেলে মোস্তাফিজুর রহমান। নাশকতা সৃষ্টির ঘটনায় জড়িত থাকার অপরাধে কুড়িগ্রাম সদর থানায় তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে মামলা নম্বর-৩৬(১২)২২। 

আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করে কুড়িগ্রামের পুলিশ সুপার আল আসাদ মো. মাহফুজুল ইসলাম জানান, নাশকতার অপরাধে ৫ জামায়াত নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে মামলা দিয়ে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।


আরও খবর



পাঠান সিনেমায় খলনায়িকা দীপিকা !

প্রকাশিত:Friday ১৩ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Friday ০৩ February ২০২৩ |
Image

সবাই জানত ‘পাঠান’ ছবিতে নায়িকা চরিত্রে থাকবেন দীপিকা। এখন শোনা যাচ্ছে, নায়িকা নন বরং খলনায়িকা অর্থাৎ ভিলেন রূপে এই ছবিতে ধরা দেবেন তিনি।

স্পাই-থ্রিলার জনরার মুভিগুলোতে দৃশ্যের বাঁকে বাঁকে টুইস্ট থাকে। ‘পাঠান’ নির্মাতা সিদ্ধার্থ আনন্দ তার আগের ছবি ‘ওয়ার’-এও এরকম টুইস্ট রেখেছিলেন। টাইগার শ্রফের ‘খালিদ’ চরিত্রটিকে তিনি পজিটিভ এবং নেগেটিভ দুই শেডেই দেখিয়েছিলেন। তাই ‘পাঠান’-এও এমনটা ঘটার সম্ভাবনা উড়িয়ে দেওয়া যায় না। অন্তত এমনটাই দাবি করছে নেটপাড়ার একাংশ। তাদের মতে, ‘টাইগার’ সিরিজে ক্যাটরিনা কাইফের চরিত্রের মতো এখানেও দীপিকাকে পাকিস্তানের এজেন্ট দেখানো হতে পারে।

মূলত দীপিকার নেগেটিভ চরিত্রের কথা উঠে এসেছে ফ্যান থিওরি থেকেই। আর সেটা আসছে ছবির ট্রেলার ও গানের কিছু সংলাপ যোগ করে। ভক্ত তত্ত্ব বলছে, জন আব্রাহাম নন পাঠানের আসল ভিলেন দীপিকা। কেন এমন কথা বলছে সেটার কারণও ব্যাখ্যা করেছে তারা। ‘ঝুমে জো পাঠান’ গানে ‘দুশমন গালে লাগ জায়ে’ দিয়ে শত্রু দীপিকার সঙ্গে বন্ধুত্বের বার্তাই দিচ্ছেন শাহরুখ! এরপর ট্রেলারে এক জায়গায় জনকে বলতে শোনা যায়, ‘পাঠান দ্য হান্টার… হান্টেড?’। তারমানে শিকারি শাহরুখ নিজেই এখন শিকারে পরিণত হয়েছে।

অবশ্য সবটাই ভক্তদের কল্পনাপ্রসূত ধারণা। আসলেই দীপিকার চরিত্র কী সেটা বোঝা যাবে আগামী ২৫ জানুয়ারি। ওইদিন হিন্দি, তামিল, তেলেগু ভাষায় মুক্তি পাবে ‘পাঠান’ ছবিটি। এতে ক্যামিও চরিত্রে দেখা যাবে সালমান খানকে। যশরাজ ফিল্মসের ‘স্পাই ইউনিভার্স’র অংশ হিসেবে থাকতে পারেন কবির চরিত্রে হৃতিক রোশনও।


আরও খবর



ধামরাইয়ে সরকারি কর্মকর্তাদের পারিবারিক মিলনমেলা

প্রকাশিত:Saturday ০৭ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Thursday ০২ February 2০২3 |
Image

মাহবুবুল আলম রিপন :


ঢাকার ধামরাইয়ের সরকারি কর্মকর্তা, কর্মচারী ও তাদের পরিবার নিয়ে মিলনমেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ধামরাই সরকারি চাকরিজীবী সমবায় সমিতি লি. এর উদ্যোগে এই মিলনমেলার আয়োজন করা হয়।

শুক্রবার (০৬ জানুয়ারি) সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত ধামরাইয়ের সানোড়া ইউনিয়নের মহিশাষী এলাকার মোহাম্মদী গার্ডেন এ মিলনমেলা অনুষ্ঠিত হয়।

এ সময় ধামরাই সরকারি চাকরিজীবী সমবায় সমিতি লি. এর সদস্যদের ছেলেমেয়ে ও স্ত্রীদের মাঝে ক্রীড়া প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়।

ঢাকা জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (স্পেশাল ব্রাঞ্চ) মো. শহিদুল ইসলাম অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন।

সভাপতি তার বক্তব্যে বলেন, আজকের এই অনুষ্ঠানে ধামরাইয়ের কৃতি সন্তানরা একত্রিত হতে পেরেছেন। এই সমিতির মাধ্যমে ধামরাইয়ের উন্নয়ন হবে বলে তিনি আশা ব্যক্ত করেন। তিনি বলেন, একজন সরকারি কর্মকর্তা পারেন দেশকে উন্নত করতে। আমরা যারা সরকারের বিভিন্ন পদে কাজ করছি, যদি সঠিক ও সৎভাবে নিজেদের দায়িত্ব পালন করি তাহলে দেশটা খুব দ্রুত উন্নত হবে। তাই আমরা ক্ষুদ্র থেকে এই সমিতি গড়ে তুলছি।

তিনি আরোও বলেন, আশা করছি সামনের দিনগুলোতে ধামরাইয়ের আরো যারা সরকারি কর্মকর্তা আছেন, তাদের অনেককেই আমরা আমাদের এ সমিতির সদস্য করতে পারবো এবং ধামরাইয়ে উন্নয়নের অংশীদার হতে পারবো। সবসময় আমাদের এই সমিতির মাধ্যমে আমরা মানুষের পাশে থাকবো।

জানা যায়, সরকারি চাকরিজীবী সমবায় সমিতির মাধ্যমে এলাকার অসহায় দরিদ্র শিক্ষার্থীদের পড়ালেখার খরচ বহন করা হয়। করোনা ও বন্যার সময় শত শত মানুষের মাঝে ত্রাণসামগ্রী দেয়া হয়। এবার শীতের সময় অসহায় মানুষের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়। ২০১২ সালে এই সমিতির যাত্রা শুরু এবং ২০১৮ সনে সমিতির নিবন্ধন করা হয়।

এ সময় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, ওডিসি ক্রাফট প্রাঃ লিঃ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবুবকর সিদ্দিক খান রিপন, এশিয়ান কনজিউমার কেয়ার প্রাইভেট লিঃ এর ডাবার এর ফ্যাক্টরি ম্যানেজার নুর হোসাইন, সমিতির সাধারণ সম্পাদক মোঃ আলী হোসেন, ধামরাই প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মোঃ আনিস উর রহমান স্বপন, ধামরাই রিপোর্টার্স ক্লাবের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রাজিউল হাসান পলাশ, ধামরাই সরকারি চাকরিজীবী সমবায় সমিতি লিঃ এর সকল সদস্যবৃন্দ।


আরও খবর



ধাপে ধাপে বাড়বে বিদ্যুতের দাম !

প্রকাশিত:Monday ৩০ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Friday ০৩ February ২০২৩ |
Image

মইনুল ইসলাম মিতুল :একবারে দাম না বাড়িয়ে ধাপে ধাপে বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধির চিন্তা করছে সরকার। এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন একবারেই গ্রাহকপর্যায়ে দাম ১৫ ভাগ বাড়ানোর চিন্তা করছিল। কিন্তু বিদ্যুৎ বিভাগের নির্বাহী আদেশে মূল্যবৃদ্ধির আগে মানুষের ওপর এর কতটা চাপ পড়বে সেই বিবেচনা করার কথা বলা হয়।

মন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা বলেন, বিদ্যুতের দাম একবারে ১৫ থেকে ২০ ভাগ বাড়লে বাজারে পণ্যের দাম অনেকটা বেড়ে যায়। এজন্য সরকারের যদি কিছুটা লোকসানও হয় তাহলেও ধাপে ধাপে দাম বাড়ালে মানুষের ওপর পণ্যের দাম বৃদ্ধির প্রভাব খুব একটা পড়ে না ।

বিদ্যুৎ বিভাগ বলছে, আগামী দুই মাসে আবার পাঁচ ভাগ হারে গ্রাহকপর্যায়ে বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধি করা হবে। গ্রাহকপর্যায়ে বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধির পরে বিষয়টি সমন্বয় করে দেখা হবে। যদি মনে করা হয় পাইকারি বিদ্যুতের দাম বাড়ানো প্রয়োজন, তাহলেই তা বাড়ানো হবে। যদিও পিডিবি গ্যাসের দাম বৃদ্ধির ফলে সাড়ে সাত হাজার কোটি টাকার আর্থিক ক্ষতি হবে উল্লেখ করে। এরই মধ্যেই ইউনিটপ্রতি ৫০ পয়সা করে পাইকারি বিদ্যুতের দাম বাড়ানোর প্রস্তাব দিয়েছে। তবে এ বিষয়ে বিদ্যুৎ বিভাগ এখনই কোনো সিদ্ধান্ত নেয়নি।

বিদ্যুৎ বিভাগের এক কর্মকর্তা বলেন, পিডিবি হয়তো শুধু নিজেদের কথা চিন্তা করছে। কিন্তু সরকার সামগ্রিক ভর্তুকির কথা চিন্তা করছে।

গত বছর বিদ্যুৎ সরবরাহ দিতে পিডিবিকে ২৯ হাজার কোটি টাকা ভর্তুকি দিতে হয়েছে। চলতি বছর এর পরিমাণ ৪০ হাজার কোটি টাকা পিডিবির জন্য ভর্তুকি প্রয়োজন হবে বলে মনে করা হচ্ছে। এত বেশি পরিমাণ ভর্তুকি দেওয়া সরকারের একার পক্ষে সম্ভব না হওয়ায় সরকার বিদ্যুৎ এবং জ্বালানির মূল্য সমন্বয় করছে।

বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেন, আমরা প্রতি মাসে অল্প অল্প করে বিদ্যুতের দাম বাড়াব। এতে মানুষের ওপর চাপ কম পড়বে। সরকার ১২ জানুয়ারি নির্বাহী আদেশে গ্রাহকপর্যায়ে বিদ্যুতের দাম ৫ ভাগ দাম বাড়ায়। এর আগে ১৯ ভাগ পাইকারি বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধির ঘোষণা দেয় বিইআরসি।

এদিকে, গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধির ফলে ইনপুট খরচ বেড়ে যাওয়ায় চলতি অর্থবছরে রাষ্ট্রায়ত্ত বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের (পিডিবি) আর্থিক ক্ষতি ৫৪ হাজার কোটি টাকা ছাড়িয়ে যাওয়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। ২০২১-২২ অর্থবছরে সংস্থাটির লোকসান ছিল ২৯ হাজার ৯১৫ কোটি টাকা।

পিডিবির একজন শীর্ষ কর্মকর্তা বলেন, সম্প্রতি গ্যাসের দাম বৃদ্ধির পর গ্যাস বিল পরিশোধ করতে আমাদের ১০ হাজার কোটি টাকা অতিরিক্ত গুনতে হবে।

সরকার গত ১৮ জানুয়ারি সরকারি, বেসরকারি ও ক্যাপটিভ পাওয়ার প্লান্ট এবং শিল্প ও বাণিজ্যিক ব্যবহারকারীদের জন্য খুচরা গ্যাসের দাম বাড়িয়েছে। নতুন এই দাম ১ ফেব্রুয়ারি থেকে কার্যকর হবে। তবে বাসাবাড়ি, সিএনজিচালিত মোটরযান ও চা-বাগানের ব্যবহারের জন্য এই দাম অপরিবর্তিত রাখা হয়েছে।

পিডিবির সর্বশেষ হিসাব অনুযায়ী, ২০২১-২২ অর্থবছরে তাদের লোকসান ২৯ হাজার ৯১৫ কোটি এবং ২০২২-২৩ অর্থবছরে ৪৮ হাজার কোটি টাকা অতিক্রম করার কথা ছিল। কিন্তু পাইকারি বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধির পর লোকসান প্রায় ৪ হাজার টাকা কমে ৪৪ হাজার কোটি টাকায় নেমে আসে। এখন ফেব্রুয়ারি থেকে গ্যাসের দাম বৃদ্ধির কারণে এখন লোকসান ১০ হাজার কোটি টাকা বেড়ে যাবে।


আরও খবর



আইজিপি ব্যাজ’ পেলেন ধামরাইয়ের কৃতী সন্তান এডিঃ এসপি শহিদুল ইসলাম

প্রকাশিত:Sunday ০৮ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Thursday ০২ February 2০২3 |
Image

মাহবুবুল আলম রিপনঃ


 প্রশংসনীয় ও ভালো কাজের স্বীকৃতিস্বরূপ ‘আইজিপিস এক্সেমপ্ল্যারি গুড সার্ভিসেস ব্যাজ’ পেয়েছেন ঢাকার ধামরাইয়ের বীর মুক্তিযোদ্ধা আওলাদ হোসেনের ছেলে বর্তমান ঢাকা জেলা পুলিশের স্পেশ্যাল ব্রাঞ্চের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শহিদুল ইসলাম।

বুধবার (৪ জানুয়ারি) রাজধানীর রাজারবাগ পুলিশ লাইন্সের প্যারেড গ্র্যাউন্ডে পুলিশের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ পুরস্কার এই ব্যাজ পরিয়ে দেন পুলিশ মহাপরিদর্শক (আইজিপি) চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন। এ সময় তিনি ব্যাজপ্রাপ্তদের হাতে সনদও তুলে দেন।

পুলিশ সদর দপ্তরের এক কর্মকর্তা জানান, আইনশৃঙ্খলা রক্ষা, জননিরাপত্তা বিধান, জনসেবামূলক কর্মকাণ্ড, মামলার রহস্য উদঘাটন, ভালো পুলিশিং, সরকারি ও ব্যক্তিগত কাজের মাধ্যমে পুলিশ বাহিনীর ভাবমূর্তি বাড়ানোসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ কাজে অবদানের ভিত্তিতে পদকের জন্য যোগ্য কর্মকর্তা ও সদস্যদের নির্বাচিত করা হয়। এই পুরস্কার তাদের জনসেবার কাজে আরও উৎসাহিত করবে।

শহিদুল ইসলাম ৩০তম বিসিএস পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে ২০১২ সালে বাংলাদেশ পুলিশে যোগদান করেন। বর্তমানে তিনি কৃতিত্বের সাথে ঢাকা জেলা পুলিশের স্পেশ্যাল ব্রাঞ্চে কর্মরত রয়েছেন।

তিনি যাদবপুর বিএম হাই স্কুল এন্ড কলেজে পড়াশুনা করেছেন, পরবর্তীতে তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে কৃতিত্বের সাথে বিবিএ ও এমবিএ সম্পূর্ণ করেন। এছাড়াও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মাস্টার্স অফ পুলিশ সাইন্স (এমপিএস) ডিগ্রি অর্জন করেন।

তিনি সবসময় অবহেলিত মানুষের পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করেন।এই শীতেও তিনি নিজ উদ্যোগে তিনশত অসহায় মানুষের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করেছেন। তিনি সামাজিক কাজে অংশগ্রহণ করেন।

এ ব্যাপারে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শহিদুল ইসলাম সময় নিউজকে জানান, কর্মক্ষেত্রে অবদানের স্বীকৃতি স্বরূপ তার এ প্রাপ্তিতে পেশাদারিত্ব ও কর্ম উদ্দীপনা আরো বাড়িয়ে দিবে।


আরও খবর