Logo
শিরোনাম

বাড়লো সেমাই-চিনির দাম

প্রকাশিত:বুধবার ২৭ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | ১৭৮জন দেখেছেন
Image

ঈদে সেমাইয়ের চাহিদা বেশি থাকে। চাহিদা বাড়ার কারণে সুযোগ নেন ব্যবসায়ীরা। বাড়িয়ে দেন দাম। এবারও বেড়েছে নামিদামি ব্র্যান্ডসহ সব ধরনের সেমাইয়ের দাম।

বাজার ঘুরে দেখা গেছে, শুধু সেমাইয়ের দাম নয়বেড়েছে সেমাই রান্নার প্রধান উপাদান চিনির দামও। কেজিপ্রতি চিনিতে বেড়েছে ১০ টাকা। এছাড়া চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে কিশমিশ  কাজুবাদামসহ আনুষঙ্গিক অন্য পণ্যগুলোও।

মঙ্গলবার (২৬এপ্রিলদেখা গেছেখোলা লম্বা সেমাই বিক্রি হচ্ছে ১৪০ টাকা থেকে ২০০ টাকা কেজিতে। যা গত বছর বিক্রি হয়েছিল ১২০ থেকে ১৮০ টাকায়। আর খোলা লাচ্ছা সেমাই বিক্রি হচ্ছে ২২০ থেকে ৩০০ টাকা কেজিতে।

মুদি দোকানগুলোতে বিভিন্ন ব্র্যান্ডের ২০০ থেকে ২৫০ গ্রাম ওজনের সেমাই বিক্রি করা হচ্ছে ৪০ টাকা থেকে ১০০ টাকায়। এর মধ্যে বনফুলপ্রাণওয়েল ফুডের ২০০ গ্রাম লম্বা সেমাই বিক্রি হচ্ছে ৪৫ টাকা প্যাকেট। যা গত বছর বিক্রি হয়েছিল ৩৫ টাকায়। প্যাকেট প্রতি ১০ টাকা করে বাড়ানো হয়েছে সেমাইয়ের দাম। তার মানে কোনো ক্রেতা যদি এসব ব্র্যান্ডের  কেজি সেমাই কেনেন তাহলে তাকে ৫০ টাকা বেশি দিতে হবে।

কুলসনকিশোয়ানড্যানিশ  প্রিন্স ব্র্যান্ডের ২০০ গ্রাম লাচ্ছা সেমাই বিক্রি হচ্ছে ৩৫ থেকে ৪০ টাকায়। যা এক মাস আগেও বিক্রি হয়েছে ৩০ থেকে ৩৫ টাকায়।

রাবেয়া ব্র্যান্ডের ঘিয়ে ভাজা ৪০০ গ্রামের লাচ্ছা সেমাই বিক্রি হচ্ছে ১৭০ টাকাআর মিঠাইয়ের ২৫০ গ্রামের লাচ্ছা সেমাই বিক্রি হচ্ছে ১০০ টাকায়।

বাজারে এখন চিনি বিক্রি হচ্ছে ৯০ টাকা কেজি। যা দুই সপ্তাহ আগেও ছিল ৮০ টাকা। অর্থাৎ ঈদকে কেন্দ্র করে চিনির দাম বাড়ানো হয়েছে কেজিপ্রতি ১০ টাকা। এছাড়া মধ্যম মানের কিশমিশ বিক্রি হচ্ছে ৪০০ টাকা কেজিতে। আর কাজু বাদাম বিক্রি হচ্ছে ৭০০ থেকে  হাজার টাকা কেজিতে।

সুপার শপগুলোতে ১০০ গ্রামের কিশমিশ বিক্রি হচ্ছে ৬৫ টাকা। ২৫ গ্রামের পেস্তাবাদাম বিক্রি হচ্ছে ৬৫ টাকা। ৫০ গ্রামের কাজুবাদাম বিক্রি হচ্ছে ৭৮ টাকা। আর ১০০ গ্রামের মিক্সড ফ্রুট বিক্রি হচ্ছে ৮৫ টাকায়।

রাজধানীর সদরঘাটের রায়সাহেব বাজারের মদিনা স্টোরের মালিক মোহাম্মদ টিপু বলেনসেমাইয়ের দাম অল্প বেড়েছেখুব বেশি নয়। যাতায়াতসহ আনুষঙ্গিক খাতে খরচ বাড়ায় দাম বেড়েছে।

তিনি বলেনঈদের বাজার পুরোদমে শুরু হয়েছে। আমাদের প্রত্যাশা এবার লাভের মুখ দেখব।

রাজধানীর সেগুন বাগিচা কাঁচাবাজারের আল-আমিন জেনারেল স্টোরের মালিক আল-আমিন বলেনলম্বা খোলা সেমাই বিক্রি করছি ১৪০ টাকা কেজিতে। গত বছর এই সেমাই বিক্রি করেছি ১২০ টাকা কেজিতে।

বেশি দামে কিনতে হচ্ছে বলে বেশি দামে বিক্রি করছেন তারা এমনটাই দাবি ব্যবসায়ীদের।

তাহমিনা ফারিয়া বলেনগরম মসলা কিনেছি। এখন সেমাই কিনতে আসলাম। এখানেও দেখি দাম বেশি। করোনার কারণে গত দুই বছর মেহমান কম এসেছেন। এবার মেহমান আসবেতাই বেশি করে সেমাই কিনছি।


আরও খবর

পচছে আমদানি পেঁয়াজ

সোমবার ১৬ মে ২০২২




প্রফেসর ডা: প্রাণ গোপাল দত্ত এর নেতৃত্বে বিক্ষোভ মিছিল

সাবেক প্রতিমন্ত্রী রেদোয়ান’র শাস্তির দাবীতে প্রতিবাদে উত্তাল

প্রকাশিত:বুধবার ১১ মে ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | ৬০জন দেখেছেন
Image

  জেলা প্রতিবেদক, কুমিল্লা

ছাত্রলীগ ও স্বেচ্ছাসেবকলীগ কর্মী কে গুলি করে আহত করার ঘটনায় সাবেক প্রতিমন্ত্রী লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি (এলডিপি) মহাসচিব ড. রেদোয়ান আহমেদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে উত্তাল চান্দিনা। 

বুধবার (১১ মে) দুপুরে উপজেলা আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ ও ছাত্রলীগের আয়োজনে চান্দিনা উপজেলা পরিষদ এর সামনের সড়কে মানববন্ধন  ও বিক্ষোভ মিছিল করে তারা। পরে  বেলা ১১টায়‘রেদোয়ান এর শাস্তি চাই’ শ্লোগানে মুখরিত এক বিক্ষোভ  মিছিল চান্দিনার প্রধান প্রধান সড়ক  প্রদক্ষিণ করে। এসময় উপজেলার বিভিন্ন এলাকার নেতা-কর্মীরা অংশ নেয়। 

পথ প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য রাখেন-কুমিল্লা ৭ আসনের সংসদ সদস্য অধ্যাপক ডা: প্রাণ গোপাল দত্ত। এসময় চান্দিনা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা তপন কুমার বকশি, মাইজখার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সেলিম প্রধান, কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক লিটন সরকার সহ আওয়ামীলীগ অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। 

প্রতিবাদ সমাবেশে এলডিপির মহাসচিব রেদোয়ান আহমেদ এর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে অধ্যাপক ডাক্তার প্রাণ গোপাল দত্ত বলেন খুনী রেদোয়ান কিলার রসিদের উত্তারার্ধীকার। চান্দিনায় অশান্তি বিরাজ করার পরিকল্পনাই ছিলো রেদোয়ানের। চান্দিনাকে অশান্তি করা যাবেনা। দৃষ্টান্ত শূলক শাস্তির দাবি করেন।

 উল্লেখ্য যে , গত সোমবার (৯ মে) বিকাল ৪টায় চান্দিনা রেদোয়ান আহমেদ কলেজ ক্যাম্পাস-২ মমতাজ আহমেদ ভবন এ কলেজ ছাত্রলীগ ও পৌর এলডিপি পাল্টাপাল্টি ঈদপুনর্মিলনীর আয়োজন করেন। দুপুর ১টার পর থেকে ছাত্রলীগের আয়োজনে স্বেচ্ছাসেবকলীগ ও যুবলীগ নেতা-কর্মীরা অনুষ্ঠান স্থলে উপস্থিত হতে শুরু করে। দুপুর আড়াইটায় এলডিপি মহাসচিব ড. রেদোয়ান আহমেদ কলেজ ক্যাম্পাস-২ প্রধান ফটকের সামনে গেলে স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতাদের সাথে কথা হয়। এসময় স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতৃবৃন্দ একই স্থানে এলডিপি’র প্রোগ্রাম করতে নিষেধ করেন এবং ছাত্রলীগও প্রোগ্রাম করবেন না বলে জানান। এসময় তিনি গাড়ি নিয়ে ফিরে যাওয়ার সময় কোন এক ছাত্রলীগ কর্মী রেদোয়ান আহমেদ এর গাড়িতে তরমুজ দিয়ে ঢিল ছুড়ে। এসময় রেদোয়ান আহমেদ গাড়ির জানালা খুলে পরপর দুইটি গুলি করেন। এতে ছাত্রলীগ ও স্বেচ্ছাসেবকলীগের দুই কর্মী গুলিবিদ্ধ হয়। এ ঘটনায় উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা কাজী আখলাকুর রহমান জুয়েল বাদী হয়ে ১৫জনের নাম উল্লেখ করে থানায় মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় রেদোয়ান আহমেদসহ চারজনকে গ্রেফতার করে জেল হাজতে পাঠানো হয়।


আরও খবর



ওয়েজবোর্ড বাস্তবায়ন না করলে ক্রোড়পত্র পাবে না পত্রিকা

প্রকাশিত:বুধবার ২৭ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | ৮৪জন দেখেছেন
Image

তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড.হাছান মাহমুদ জানিয়েছেন, দেশের ছাপা পত্রিকার মধ্যে যারা অষ্টম ওয়েজবোর্ড এখনও বাস্তবায়ন করেনি তারা সরকারের কোনো ক্রোড়পত্র পাবে না। ভবিষ্যতে নবম ওয়েজবোর্ড যারা বাস্তবায়ন করবে না, সে ক্ষেত্রে কি ব্যবস্থা নেয়া হবে, সেটি নিয়েও ভাবছি।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, ইংরেজি পত্রিকাগুলোর প্রচার সংখ্যা হালনাগাদ করে বাস্তবতার কাছাকাছি নিয়ে আসা হয়েছে। বাংলা পত্রিকাগুলোর ক্ষেত্রেও আমরা সেটা খুব সহসা করে দেবো। অনেক পত্রিকা যেগুলো আসলে ঠিকভাবে প্রকাশিত হয় না, সেগুলোর বিপুল প্রচার সংখ্যা দেখানো হয়েছে, এ সব অসংগতি দূর করে আমরা এগুলো ঠিক করছি।

সরকারের ভুলত্রুটি থাকলে তা বিএনপি নেতাকর্মীরা তুলে ধরতে পারে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের ‍যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাছান মাহমুদ।

তিনি বলেন, আমরা চাই সরকারের যদি ভুলত্রুটি থাকে, সেগুলো বিএনপি তুলে ধরুক। তাদের আন্দোলন শুধুমাত্র তারেক রহমানের শাস্তি আর খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যের মধ্যেই সীমাবদ্ধ না থাকে এটিই আমাদের কামনা। তারা জনগণের বিষয় নিয়ে কথা বলবে, সরকারের ভুলত্রুটি থাকলে সেগুলো তুলে ধরবে, সেটিই আমরা চাই।

কল্যাণ ট্রাস্টের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সুভাষ চন্দ বাদলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি ওমর ফারুক, সাধারণ সম্পাদক দীপ আজাদ, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক আকতার হোসেন এসময় উপস্থিত ছিলেন। প্রধান তথ্য অফিসার মো. শাহেনুর মিয়া, মন্ত্রণালয়ের যুগ্মসচিব মো: মাহফুজুল হক, ডিইউজের সহসভাপতি মানিক লাল ঘোষ, কল্যাণ ট্রাস্টের সদস্য সেবিকা রাণী প্রমুখ অনুষ্ঠানে যোগ দেন।

সাংবাদিক সহায়তা চেক বিতরণ পর্বে হাছান মাহমুদ বলেন, প্রধানমন্ত্রীর আগ্রহেই এই কল্যাণ ট্রাস্ট গঠিত হয়েছে এবং আজকে এই ট্রাস্ট সাংবাদিকদের একটি ভরসার জায়গা হিসেবে দাঁড়িয়েছে। সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্ট অত্যন্ত সুচারু এবং স্বচ্ছভাবে পরিচালিত হচ্ছে। ট্রাস্ট পরিচালনার সাথে সাংবাদিক নেতারা যুক্ত আছেন, যা উপকারভোগী নির্বাচনে সহায়ক হচ্ছে। শুধু তাই নয়, ট্রাস্টের আওতায় অস্বচ্ছল সাংবাদিকদের ছেলেমেয়েদের শিক্ষা সহায়তা নীতিমালাও চূড়ান্ত হয়েছে।

২০১৪ সালে সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্ট গঠনের পর থেকে আজকের এই আয়োজনসহ ৮ হাজার ১৫৬ জন সাংবাদিক ও তার পরিবারকে মোট ২২ কোটি ৭৯ লাখ টাকা দেওয়া হয়েছে।


আরও খবর



বুড়িমারী হত্যাকান্ড: আত্মসমর্পণ করতে এসে ৩৮ আসামী কারাগারে

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১২ মে ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | ৪৬জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিনিধি, লালমনিরহাট

রংপুর ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজের সাবেক গ্রন্থাগারিক সাহিদুন্নবী জুয়েলকে পিটিয়ে ও আগুনে পুড়িয়ে হত্যা মামলার ৩৮ পলাতক আসামি আত্মসমর্পণ করেছেন।

বুধবার, ১১ মে বিকেলে জ্যেষ্ঠ বিচারিক আমলি আদালত-৩ এর বিচারক জয়নাল আবেদীন তাদের জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন

বুধবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে লালমনিরহাটের কোর্ট পুলিশ পরিদর্শক মো. মুসা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

 

তিনি জানান, জুয়েল হত্যা মামলায় পলাতক ৩৮ আসামি আত্মসমর্পণ করতে আদালতে আসেন। তাদের জামিন আবেদন করেন আইনজীবীরা। তবে শুনানি শেষে তা নাকচ করেন বিচারক। পরে তাদের কারাগারে পাঠানো হয়।

পুলিশ জানায়, জুয়েল হত্যা, পুলিশের ওপর হামলা ও বুড়িমারী ইউনিয়ন পরিষদ ভবনে হামলার পৃথক মামলায় এজাহারভুক্ত ৩৮ আসামি দীর্ঘ দিন ধরে পলাতক ছিলেন। অনেকেই বেশ কিছু দিন হাইকোর্ট থেকে জামিনে ছিলেন। বুধবার সকালে তারা স্বেচ্ছায় আত্মসমর্পণ করতে এলে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন আদালত।

আসামি পক্ষের আইনজীবী ফিরোজ হায়দার লাভলু বলেন, জামিন পেতে জেলা জজ আদালতে আমরা আপিল করব। এর মধ্যে পুলিশ এখন পর্যন্ত ৪৮ জনকে গ্রেপ্তার করেছে। এছাড়া স্বেচ্ছায় আদালতে আত্মসমর্পণ করেছেন আরও ১২ জন। তাদের মধ্যে জামিনে রয়েছেন অনেকেই।

প্রসঙ্গত, গত ২০২০ সালের ২৯ অক্টোবর রাত ৮টার দিকে পাটগ্রাম উপজেলার বুড়িমারী বাজারের বাশকল এলাকায় শহীদুন্নবী জুয়েলকে পিটিয়ে ও পুড়িয়ে হত্যা করা হয়।


আরও খবর



আসছে ঘূর্ণিঝড় ‘আসানি’

প্রকাশিত:সোমবার ০২ মে 2০২2 | হালনাগাদ:শনিবার ১৪ মে ২০২২ | ৬৮জন দেখেছেন
Image

মে মাসের শুরুতেই শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড়ের আশঙ্কা করা হচ্ছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গউড়িষা  বাংলাদেশের ওপর দিয়ে বয়ে যেতে পারে  ঘূর্ণিঝড়

আবহাওয়া অধিদপ্তরের আবহাওয়াবিদ মোআবুল কালাম মল্লিক জানানআগামী  থেকে  মে মধ্যে দক্ষিণ আন্দামান সাগরে একটি লঘুচাপ তৈরি হওয়ার আভাস পাওয়া যাচ্ছে লঘুচাপটি তৈরি হলে সেটি পরবর্তীতে সুনির্দিষ্ট লঘুচাপের পর ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নিতে পারে যার নাম হবে ‘আসানি বর্তমান তথ্য অনুযায়ী ঘূর্ণিঝড়টি তৈরি হলে পশ্চিমবঙ্গউড়িষা  বাংলাদেশের উপকূলে চলতি মাসের ১০ থেকে ১২ মের মধ্যে আঘাত হানতে পারে

তিনি বলেনযদি এই ঘূর্ণিঝড়টি আসেতাহলে এর নাম হবে আসানি বঙ্গোপসাগরে যেসব ঘূর্ণিঝড় তৈরি হয়েছেসেগুলোর মধ্যে অনেকগুলো সুপার সাইক্লোনে রূপ নিয়েছিল তবে এটাও সত্য যেঘূর্ণিঝড়গুলো উপকূলে আসতে আসতে অনেকটা দুর্বল হয়ে যায় যেহেতু এখনো ঘূর্ণিঝড়টি তৈরি হয়নিসেহেতু এর তীব্রতা এই মুহূর্তে বলার সুযোগ নেই তবে এটি যদি তৈরি হয়তাহলে এর তীব্রতা বেশি হবে


আরও খবর



প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ : গোয়েন্দা নজরদারি বাড়বে

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৯ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ১৪ মে ২০২২ | ৮৯জন দেখেছেন
Image

আগামী ২২ এপ্রিল থেকে সারা দেশে তিন ধাপে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোর সহকারী শিক্ষক নিয়োগের লিখিত পরীক্ষা। এই পরীক্ষা সুষ্ঠু ও নির্বিঘে করতে জেলা প্রশাসক (ডিসি) ও বিভাগীয় কমিশনারদের নির্দেশনা দিয়েছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ। সম্প্রতি মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের উপসচিব মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম ভূঁইয়া স্বাক্ষরিত চিঠিতে এই নির্দেশনা দেয়া হয়।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, সহকারী শিক্ষকের ৩২ হাজার ৫৭৭টি শূন্য পদে নিয়োগের জন্য প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতর ২০২০ সালের ২০ অক্টোবর বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে। কিন্তু করোনা মহামারীর কারণে পরীক্ষা নেয়া সম্ভব হয়নি। ইতোমধ্যে অবসর নেয়ার কারণে আরো ১০ হাজারেরও বেশি সহকারী শিক্ষকের পদ শূন্য হয়ে পড়েছে। এতে বিদ্যালয়গুলোয় শিক্ষক ঘাটতি দেখা দিয়েছে। এ সমস্যার সমাধানে মন্ত্রণালয় আগের বিজ্ঞপ্তির শূন্য পদ ও বিজ্ঞপ্তির পরের শূন্য পদ মিলিয়ে প্রায় ৪৫ হাজার সহকারী শিক্ষক নিয়োগের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। প্রাথমিকের ইতিহাসে এটিই এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বড় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি। ২০২০ সালের ২৫ অক্টোবর অনলাইনে আবেদন শুরু হয়। আবেদন করেছেন ১৩ লাখ ৯ হাজার ৪৬১ জন প্রার্থী। সে হিসাবে একটি পদের জন্য প্রতিযোগিতা হবে ২৯ প্রার্থীর মধ্যে।

শিক্ষক নিয়োগের এই লিখিত পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে এর আগে গত ১২ এপ্রিল আন্তঃমন্ত্রণালয় সভা করেছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো: জাকির হোসেনের সভাপতিত্বে মন্ত্রণালয়ের সচিব মো: হাসিবুল ইসলাম, প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক আলমগীর মুহাম্মদ মনসুরুল আলম, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব সাবিরুল ইসলাম, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব তোফাজ্জল হোসাইন, এনএসআইয়ের অতিরিক্ত পরিচালক অসিত বরণ সরকার, জননিরাপত্তা বিভাগের উপসচিব শেখ ছালেহ আহাম্মদ উপস্থিত ছিলেন ।

সভায় প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে নিয়োগ পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করার লক্ষ্যে দেশের সব ডিআইজি, এসপিদের নিয়ে সভা করা এবং প্রয়োজনীয় দিকনির্দেশনা প্রদানের উদ্যোগ গ্রহণ করার জন্য বিশেষভাবে অনুরোধ জানান। তা ছাড়া প্রশ্নপত্র প্রণয়ন স্থানে এবং পরীক্ষা কেন্দ্রগুলোতে মোবাইল নেটওয়ার্কিং সিস্টেম জ্যামারের ব্যবস্থা নেয়ার জন্য বিটিআরসিকে অনুরোধ জানান।

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব সাবিরুল ইসলাম জানান যে, রমজান এবং ট্রাফিক পরিস্থিতি বিবেচনায় নিয়ে পর্যাপ্ত সময় হাতে রেখে ওএমআর শিট ও প্রশ্নপত্রের ট্রাংক এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেটদের তত্ত্বাবধানে সরবরাহ করতে অনুরোধ করেন।

এনএসআইয়ের অতিরিক্ত পরিচালক অসিত বরণ সরকার জানান, সুষ্ঠুভাবে পরীক্ষা সম্পাদনের লক্ষ্যে গোয়েন্দা নজরদারি অব্যাহত থাকবে। তিনি প্রতিটি কেন্দ্রে মেটাল ডিটেকটর স্থাপন এবং মহিলা পরীক্ষার্থীদের কানে পরিহিত কোনো ডিভাইস আছে কি না তা কঠোরভাবে যাচাই করার বিষয়ে গুরুত্বারোপ করেন। তা ছাড়া প্রশ্নপত্র ফাঁস এবং প্রশ্নপত্র ফাঁসের গুজব প্রতিরোধে তাৎক্ষণিকভাবে স্থানীয় প্রশাসন কর্তৃক তদন্তপূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের ওপর গুরুত্বারোপ করেন।
পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে গ্রহণের জন্য আন্তঃমন্ত্রণালয় বৈঠকে ১১টি সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। সিদ্ধান্তের মধ্যে রয়েছে, সহকারী শিক্ষক নিয়োগের লিখিত পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে গ্রহণের প্রয়োজনীয় সহযোগিতা প্রদান এবং পরীক্ষাসংক্রান্ত সার্বিক কার্যক্রমে অংশগ্রহণের নিমিত্ত বিভাগীয় কমিশনার ও জেলা প্রশাসকদেরকে নির্দেশনা প্রদানের জন্য মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।পরীক্ষার দিন প্রতিটি পরীক্ষা কেন্দ্রে একজন করে ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ এবং প্রশ্নপত্র ও অন্যান্য ডকুমেন্ট সংবলিত ট্রাংক ঢাকা হতে গ্রহণ, জেলার ট্রেজারিতে সংরক্ষণ এবং উত্তরপত্র ঢাকায় প্রেরণের জন্য জেলা প্রশাসকরা প্রয়োজনীয়সংখ্যক ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগের ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন। কোনো জেলায় পর্যাপ্তসংখ্যক ম্যাজিস্ট্রেট না থাকলে বিভাগীয় কমিশনাররা প্রয়োজনীয়সংখ্যক ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ দিতে পারেন এবং সুপ্ত ম্যাজিস্ট্রেরিয়াল ক্ষমতাসম্পন্ন কর্মকর্তাদের ক্ষমতা পুনরুজ্জীবিত করার জন্য মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেবেন।

পরীক্ষার দিন প্রতিটি পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রয়োজনীয়সংখ্যক পুলিশ ফোর্স (মহিলা কেন্দ্রে মহিলা পুলিশসহ) নিয়োগের জন্য জননিরাপত্তা বিভাগ ও পুলিশ অধিদফতর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন। এ ছাড়া পরীক্ষার দিন কেন্দ্রগুলোতে টহল প্রদানের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য র্যাব মহাপরিচালক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবেন। যেকোনো ধরনের ইলেকট্রোনিকস কমিউনিকেটিভ ডিভাইস নিয়ে পরীক্ষার্থীরা যাতে পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রবেশ করতে না পারে সে লক্ষ্যে প্রতিটি পরীক্ষা কেন্দ্রে মেটাল ডিটেক্টর সরবরাহ ও স্থাপন করার জন্য নিমিত্ত পুলিশ সুপারদের নির্দেশনা দেয়ার জন্য জননিরাপত্তা বিভাগ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন। পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে সংশ্লিষ্ট এলাকায় মোবাইল নেটওয়াকিং জ্যামার স্থাপন করার নিমিত্ত বিটিআরসি প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।




আরও খবর