Logo
শিরোনাম

বিদ্যুৎ সরবরাহ স্বাভাবিক হয়ে আসছে

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৮ মার্চ ২০২৩ | হালনাগাদ:সোমবার ২৯ মে ২০২৩ | ১৫৫জন দেখেছেন

Image

রোকসানা মনোয়ার : মার্চ মাস প্রায় শেষ, আসছে এপ্রিল, বাড়বে তাপমাত্রা। গরমে অতিষ্ঠ হবে জীবন। তাই গরমে বিদ্যুৎ সরবরাহ স্বাভাবিক রাখতে বিভিন্ন উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। এ কারণে এলএনজি আমদানি বাড়ানো হচ্ছে। বিদ্যুৎ উৎপাদনে গ্যাস সরবরাহ বাড়ানো হয়েছে।

এখন পর্যন্ত রাজধানীসহ সারাদেশে বিদ্যুৎ পরিস্থিতি স্বাভাবিক আছে বলে মনে করছে বিদ্যুৎ বিভাগ। এপ্রিলে তাপমাত্রা বৃদ্ধি ও কৃষিকাজে সেচ পুরোদমে চালু হলে বিদ্যুৎ চাহিদা আরও বাড়াবে। সেক্ষেত্রে বিদ্যুতের যোগান বা সরবরাহ স্বাভাবিক রাখাই চ্যালেঞ্জ বলে মনে করছেন বিদ্যুৎ খাত-সংশ্লিষ্টরা।

সূত্র জানায়, গ্রীষ্মে বিদ্যুৎ সরবরাহ স্বাভাবিক রাখতে প্রয়োজনীয় সব উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। আন্তর্জাতিক বাজারে জ্বালানির দাম নতুন করে না বাড়লে বিদ্যুৎ উৎপাদন, সরবরাহ ও দাম স্বাভাবিক থাকবে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক বিদুৎ কর্মকতা প্রতিদিনের সংবাদকে বলেন, চৈত্র মাস চলছে, লোডশেডিং নেই বললেই চলে। সামনে বৈশাখ; ঝড়-বৃষ্টি শুরু হয়ে যাবে। চিন্তার কিছু নেই। এ দেশে মৌসুম বিবেচনায় নিয়েই বিদ্যুৎ উৎপাদন বাড়ানোর-কমানোর পরিকল্পনা করা হয়। সামনে কৃষিজমিতে সেচের জন্য বিদ্যু চাহিদা কিছুটা বাড়বে। বিদ্যুৎ উৎপাদন বাড়ানোর প্রস্তুতিও আছে। এরমধ্যে ভারতের গোড্ডা থেকে আদানির বিদ্যুৎ এবং বাগেরহাট থেকে রামপালের বিদ্যুৎ গ্রিডে যুক্ত হওয়ায় পরিস্থিতি আরও অনুকূলে চলে এসেছে। স্পট মার্কেটে এলএনজির দামও কমে এসেছে। সমস্যা হবে না।

এ বিষয়ে বিদ্যুৎ বিভাগের ঐ কর্মকর্তা আরা বলেন, রমজান ও গ্রীষ্মে বিদ্যুৎ চাহিদা বেড়ে যাবে, এটি বিবেচনায় নিয়েই সরকার স্পট মার্কেট থেকে এলএনজি আমদানি বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেয়। ওই এলএনজির কারণেই গ্যাসের যোগান বেড়েছে। কয়েকটি খাতে রেশনিং করে বিদ্যুৎকেন্দ্রগুলোতে গ্যাস সরবরাহ বাড়ানো হয়েছে।

তিনি বলেন, চৈত্র মাস চলছে, লোডশেডিং নেই বললেই চলে। সামনে বৈশাখ; ঝড়-বৃষ্টি শুরু হয়ে যাবে। চিন্তার কিছু নেই। এ দেশে মৌসুম বিবেচনায় নিয়েই বিদ্যুৎ উৎপাদন বাড়ানোর-কমানোর পরিকল্পনা করা হয়। সামনে সেচে চাহিদা কিছুটা বাড়বে। বিদ্যুৎ উৎপাদন বাড়ানোর প্রস্তুতিও আছে। এরমধ্যে ভারতের গোড্ডা থেকে আদানির বিদ্যুৎ এবং বাগেরহাট থেকে রামপালের বিদ্যুৎ গ্রিডে যুক্ত হওয়ায় পরিস্থিতি আরও অনুকূলে চলে এসেছে। স্পট মার্কেটে এলএনজির দামও কমে এসেছে। সমস্যা হবে না।

বিদ্যুৎ, সার কারখানা, ক্যাপটিভ, যানবাহন (সিএনজি), আবাসিকে রান্না, বাণিজ্যিকসহ নানা খাতে দেশে বর্তমানে দৈনিক গড়ে গ্যাসের চাহিদা প্রায় চার হাজার এমএমসিএফ (মিলিয়ন ঘনফুট)। রাষ্ট্রীয় খনি থেকে দেশি-বিদেশি কোম্পানির মাধ্যমে গ্যাস উৎপাদন এবং তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাস (এলএনজি) আমদানি- এই দুইয়ে মিলে সর্বোচ্চ সরবরাহ হয় তিন হাজার এমএমসিএফ। রমজান মাসে ইফতার, তারাবি ও সেহরির সময় বিদ্যুতের চাহিদা বেড়ে যায়। তাই এ সময় বিদ্যুৎ উৎপাদনে গ্যাস সরবরাহ বাড়িয়ে দেয়া হয় বলে জানিয়েছে পেট্রোবাংলা।

বিশ্ববাজারে এলএনজির দাম কমে এসেছে জানিয়ে পেট্রোবাংলার চেয়ারম্যান জনেন্দ্রনাথ সরকার বলেন, এখন প্রতি এমএমবিটিইউ (মিলিয়ন মেট্রিক ব্রিটিশ থার্মাল ইউনিট) এলএনজি খোলা বাজার থেকে ১২ থেকে ১৩ মার্কিন ডলারে কিনছে পেট্রোবাংলা।

পেট্রোবাংলার চেয়ারম্যান জানান, এলএনজি আমদানির দীর্ঘমেয়াদি চুক্তির আওতায় সব মিলিয়ে ৫৬টি জাহাজে এলএনজি আসবে। অন্যদিকে স্পট মার্কেট (দীর্ঘমেয়াদি চুক্তি না করে খোলা বাজার থেকে যে জ্বালানি কেনা হয়) থেকে জুন পর্যন্ত ১২ কার্গো এলএনজি আসবে। এলএনজি সরবরাহ স্বাভাবিক থাকলে বিদ্যুৎ উৎপাদনও স্বাভাবিক থাকবে বলে আশাপ্রকাশ করেন তিনি।

পেট্রোবাংলার সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, এখন দৈনিক গ্যাস সরবরাহ করা হচ্ছে গড়ে প্রায় ২৯০০ মিলিয়ন ঘনফুট। এরমধ্যে এলএনজি সরবরাহ করা হচ্ছে ৭২০ মিলিয়ন ঘনফুট এবং গ্যাস সরবরাহ করা হচ্ছে দুই হাজার ১৮০ মিলিয়ন ঘনফুট।

জ্বালানি ও খনিজসম্পদ বিভাগ সূত্রে জানা যায়, চলতি মার্চ থেকে আগামী জুন পর্যন্ত পর্যায়ক্রমে স্পট মার্কেট থেকে এলএনজি আমদানি বাড়ানোর পরিকল্পনা নিয়ে এগুচ্ছে সরকার। সে অনুযায়ী, আগামী জুনে স্পট মার্কেট থেকে সর্বোচ্চ এলএনজি আমদানি করা হবে।

জ্বালানি ও খনিজসম্পদ বিভাগের সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, দীর্ঘমেয়াদি চুক্তি আওতায় এলএনজি আসা অব্যাহত থাকলেও জানুয়ারি মাসে স্পট মার্কেট থেকে কোন এলএনজি আমদানি হয়নি। দেশীয় গ্যাসক্ষেত্র থেকে উৎপাদন এবং দীর্ঘমেয়াদি চুক্তির আওতায় আমদানির মাধ্যমে জানুয়ারিজুড়ে গড়ে ২৬শ থেকে ২৭শ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস সরবরাহ করা হয়েছে।

ফেব্রুয়ারিতে প্রতিদিন গড়ে ১০০ মিলিয়ন ঘনফুট স্পট মার্কেটের এলএনজি যুক্ত হয়েছে। ফেব্রুয়ারিতেও প্রতিদিন গড়ে ২৬শ থেকে ২৭শ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস সরবরাহ করা হয়েছে। তবে মার্চ থেকে এলএনজির সরবরাহ বেড়েছে। ২৩শ মিলিয়ন ঘনফুট দেশীয় গ্যাসের সঙ্গে ৭৫৫ মিলিয়ন ঘনফুট এলএনজি সরবরাহ করে গড়ে প্রতিদিন তিন হাজার ৫৫ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস সরবরাহ করা হচ্ছে। জুন পর্যন্ত প্রতিদিন গড়ে তিন হাজার মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস সরবরাহে কাজ করছে পেট্রোবাংলা।

পেট্রেবাংলার তথ্য অনুযায়ী, এপ্রিল, মে, জুন মাসে দীর্ঘমেয়াদি চুক্তির আওতায় এলএনজি আমদানি কমবে। তবে এ সময় স্পট মার্কেট থেকে এলএনজি আমদানি বাড়বে।

গরম ও সেচ- দুই কারণে প্রতিবছর ফেব্রুয়ারি থেকে জুন পর্যন্ত দেশে বিদ্যুৎ ও জ্বালানির চাহিদা থাকে সর্বোচ্চ। ফলে এ সময় ঘিরে বিদ্যুৎ উৎপাদন বাড়াতে বিশেষ নজর দেয় সরকার। এ বছর গ্রীষ্মকালে বিদ্যুতের সর্বোচ্চ চাহিদা হতে পারে ১৫ হাজার মেগাওয়াট। নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ উৎপাদন অব্যাহত রাখতে বিদ্যুৎ খাতে এক হাজার পাঁচশ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস প্রয়োজন হবে।

তবে বিদ্যুৎ মন্ত্রণালয়ের একটি সূত্র বলছে, এবার গ্রীষ্মে বিদ্যুৎ উৎপাদনে সর্বোচ্চ গ্যাসের চাহিদা নির্ধারণ করা হয়েছে এক হাজার ২০০ মিলিয়ন ঘনফুট। বর্তমানে পেট্রোবাংলা দৈনিক এক হাজার ৩০ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস সরবরাহ করছে।

পেট্রোবাংলা বলছে, দুটি এলএনজি টার্মিনালের দৈনিক গ্যাস সরবরাহ ক্ষমতা এক হাজার মিলিয়ন ঘনফুট। কিন্তু সাধারণত ৮৫০ মিলিয়ন ঘনফুট পর্যন্ত গ্যাস সরবরাহ করে থাকে। পেট্রোবাংলা যদি সর্বোচ্চ বিদ্যুতের চাহিদার সময় গ্যাস সরবরাহ বৃদ্ধি করতে চায় তাহলে এলএনজির সরবরাহ আরও ১৭০ মিলিয়ন ঘনফুট বাড়াতে হবে।

গরম ও সেচে বিদ্যুৎ সরবরাহ স্বাভাবিক রাখতে বিদ্যুৎ বিভাগ ইতোমধ্যে একটি বৈঠক করে জ্বালানি আমদানি স্বাভাবিক রাখার নির্দেশ দিয়েছে। পায়রা এবং রামপাল বিদ্যুৎকেন্দ্রের কয়লা আমদানি যাতে ডলার সংকট যাতে প্রতিবন্ধক না হয়, সেজন্য বাংলাদেশ ব্যাংকের সঙ্গেও যোগাযোগ রাখা হচ্ছে।

রমজানে রাজধানীর বিদ্যুৎ পরিস্থিতি সম্পর্কে জানতে চাইলে ঢাকা পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানির লিমিটেডের (ডিপিডিসি) ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রকৌশলী বিকাশ দেওয়ান বলেন, বিদ্যুৎতের সমস্যা যাতে না হয় সেজন্য সাবস্টেশন, ট্রান্সফরমার মেনটেইনেন্স চলমান আছে। কোন সমস্যা হলে প্রত্যেকটি উপকেন্দ্রকে দ্রুত সমাধানের নির্দেশনা দেওয়া আছে।

এ বিষয়ে বিদ্যুৎ ও জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেন, জ্বালানির আন্তর্জাতিক বাজার আবারও ঊর্ধ্বমুখী হলে বিদ্যুৎ ও গ্যাস সরবরাহ স্বাভাবিক রাখা চ্যালেঞ্জিং হতে পারে। তারপরও আমরা চেষ্টা করছি গরমে মানুষের যেন াবদ্যুৎ প্রাপপ্তির সমস্যা না হয়।

 


আরও খবর



ঘূর্ণিঝড় মোখা: যেসব স্থান দিয়ে আঘাতের আশঙ্কা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৯ মে ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৬ মে ২০২৩ | ৭৮জন দেখেছেন

Image

রোকসানা মনোয়ার : আবহাওয়া পূর্বাভাস মডেলগুলো থেকে প্রাপ্ত সর্বশেষ তথ্য বিশ্লেষণ করে কানাডার সাসকাচোয়ান বিশ্ববিদ্যালয়ের আবহাওয়া ও জলবায়ুবিষয়ক পিএইচডি গবেষক মোস্তফা কামাল পলাশ জানিয়েছেন, ঘূর্ণিঝড় মোখা ভোলা থেকে কক্সবাজার জেলার মধ্যবর্তী স্থান দিয়ে উপকূলে আঘাত হানার আশঙ্কা সর্বোচ্চ। 

সোমবার (৮ মে) বিকেলে তিনি জানান, মোখার কেন্দ্রের অগ্রভাগ উপকূলে আঘাত শুরু করার সম্ভাব্য সময় ১৪ মে (রোববার) দুপুরের পর থেকে মধ্য রাতের মধ্যে। ঘূর্ণিঝড়ের কেন্দ্র উপকূল অতিক্রম করার সম্ভাব্য সময় ১৪ মে দিবাগত রাত ১২টা থেকে ভোর ৬টা। ঘূর্ণিঝড় মোখার পেছনের অর্ধেক অংশ উপকূলে অতিক্রম করার সম্ভাব্য সময় ১৫ মে ভোর থেকে বিকেল পর্যন্ত। 

সম্ভাব্য ঘূর্ণিঝড়টি উপকূলে আঘাত করার সময় এটি অত্যন্ত তীব্র ঘূর্ণিঝড় কিংবা তীব্র ঘূর্ণিঝড় হিসাবে উপকূল অতিক্রম করতে পারে উল্লেখ করে তিনি জানান, সম্ভাব্য ঘূর্ণিঝড় মোখার বাতাসের সর্বোচ্চ গতিবেগ ওঠার আশঙ্কা রয়েছে ১৬০ থেকে ১৯০ কিলোমিটার (সমুদ্রে থাকা অবস্থায়) ও উপকূলে আঘাত হানার সময় বাতাসের সর্বোচ্চ গতিবেগ ওঠার আশঙ্কা রয়েছে ১৩০ থেকে ১৭০ কিলোমিটার। চট্টগ্রাম ও বরিশাল বিভাগের উপকূলীয় জেলাগুলো ৭ থেকে ১০ ফুট উচ্চতার জলোচ্ছ্বাসের পানিতে প্লাবিত হওয়ার প্রবল আশঙ্কা রয়েছে।

তিনি জানান, আমেরিকার নৌবাহিনী পরিচালিত জয়েন্ট টাইফুন ওয়ার্নিং সেন্টার থেকে প্রাপ্ত তথ্যানুসারে, গতকাল রাত ১২টার সময় ইনভেস্ট ৯১বি (INVEST 91B) এর অবস্থান ছিলও ৬ দশমিক ১ উত্তর অক্ষাংশ ও ৯৩ দশমিক ৪ ডিগ্রি পূর্ব দ্রাঘিমাংশে। আজ সকাল ৭টার সময় জাপানের হিমাওয়ারি ৯ নামক কৃত্রিম ভূ-উপগ্রহ থেকে প্রাপ্ত চিত্র বিশ্লেষণ করে দেখা যাচ্ছে যে, ইনভেস্ট ৯১বি (INVEST 91B) এর কেন্দ্রের অবস্থান ৬ দশমিক ৫ উত্তর অক্ষাংশ ও ৯১ ডিগ্রি পূর্ব দ্রাঘিমাংশে। ইনভেস্ট বর্তমানে যে স্থানে অবস্থান করছে সেই স্থানে উলম্ব বায়ু শিয়ায়ের মান ১০ থেকে ১৫ ও সমুদ্রপৃষ্ঠের পানির তাপমাত্রা ৩১ থেকে ৩২ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

বায়ু শিয়ায়ের এই মান সমুদ্রপৃষ্ঠের এই তাপমাত্রা ঘূর্ণিঝড় সৃষ্টির জন্য সবচেয়ে আদর্শ অবস্থা। ইনভেস্ট ৯১ বি আগামী ২৪ থেকে ২৮ ঘণ্টা উত্তর ও উত্তর-পশ্চিম দিকে অগ্রসর হওয়ার সম্ভাবনা প্রবল। ইনভেস্টের কেন্দ্রে বায়ুচাপ ১০০৫ মিলিবার পরিমাপ করা হয়েছে। কৃত্রিম ভূ-উপগ্রহ থেকে ইনভেস্টের কেন্দ্রে বায়ুর গতিবেগ প্রায় ২৫ কিলোমিটার পরিমাপ করা হয়েছে। ইনভেস্ট ৯১ বি আগামীকালের মধ্যে গভীর নিম্নচাপে পরিণত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে যা ১০ মে সামুদ্রিক ঝড়ে পরিণত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। মে মাসের ১১ তারিখে পূর্ণাঙ্গ ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। ১১ তারিখ থেকে ঘূর্ণিঝড় মোখা উত্তর ও উত্তর পশ্চিম দিকে ভারতের ওড়িশা উপকূলের দিকে অগ্রসর হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে ১০ ও ১১ তারিখে। এরপরে ১২ মে দিক পরিবর্তন করে উত্তর-পূর্ব দিকে বাংলাদেশ ও মিয়ানমার উপকূলের দিয়ে অগ্রসর হওয়ার আশঙ্কার কথা নির্দেশ করছে।

গভীর বঙ্গোপসাগরে মাছ ধরতে যাওয়া ছোট নৌকার জেলেদের জন্য ঘূর্ণিঝড় সতর্কতা 

নিম্নচাপটি ১০ মে দিনের কোনো এক সময় পূর্ণাঙ্গ ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হওয়ার আশঙ্কা বেশি। উপকূলীয় এলাকার কোনো জেলে ছোট নৌকা নিয়ে ৯ মে এর পরে মাছ ধরার উদ্দেশ্যে গভীর বঙ্গোপসাগরের উদ্দেশ্যে যাত্রা করলে প্রাণ নিয়ে উপকূলে ফেরার সম্ভাবনা খুবই ক্ষীণ। ভারতীয় আবহাওয়া অধিদপ্তর এরইমধ্যে আন্দামান ও নিকোবার দ্বীপের চারপাশে জেলেদের মাছ ধরা ও চলাচল না করার জন্য সতর্কতা জারি করেছে।

 


আরও খবর



নওগাঁয় একই মঞ্চে আওয়ামী লীগের দুই মনোনয়ন প্রত্যাশী

প্রকাশিত:শনিবার ০৬ মে ২০২৩ | হালনাগাদ:শনিবার ২৭ মে ২০২৩ | ৮৭জন দেখেছেন

Image

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন, স্টাফ রিপোর্টার :

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে নওগাঁ সদর আসনে আওয়ামী লীগের দুই জন মনোনয়ন প্রত্যাশী একই মঞ্চে দাঁড়িয়েছেন। গত শুক্রবার বিকালে নওগাঁ জেলা শহরের রজাকপুর ৯নং ওয়ার্ডের তুলশিগঙ্গা এলাকায় আওয়ামী লীগের সকল নেতা-কর্মীদের সাথে মতবিনিময় সভা করেছেন। আওয়ামী লীগের দুই জন মনোনয়ন প্রত্যাশীরা হলেন-,নওগাঁ পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি দেওয়ান ছেকার আহম্মেদ শিষান ও জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি রফিকুল ইসলাম। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মোহাম্মদ আলী, শাকিল আহম্মেদ বাদল, যুবলীগ নেতা রায়হান আলী, জেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক আমানুজ্জামান শিউল, মহিলা আওয়ামী লীগের সম্পাদক শিরিন আক্তারসহ পৌর আওয়ামী লীগের ৯নং ওয়ার্ডের সকল নেতাকর্মী ও গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। 

বক্তব্যে তারা বলেন, তারা একই সাথে দুই জন মাঠে নেমেছেন নৌকাকে জয়লাভ করানোর জন্য। তারা একে একে প্রতিটি ওয়ার্ডে সকল আওয়ামী লীগ নেতা-কর্মীদের সাথে মত বিনিময় সভা করবেন। 


আরও খবর

বাসে আগুন দিলে খবর আছে: কাদের

বৃহস্পতিবার ২৫ মে ২০২৩




ঢাকাসহ বিভিন্ন স্থানে ভূমিকম্প

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৫ মে ২০২৩ | হালনাগাদ:রবিবার ২৮ মে ২০২৩ | ৯০জন দেখেছেন

Image

রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে ভূকম্পন অনুভূত হয়েছে। শুক্রবার (৫ মে) সকাল ৫টা ৫৭ মিনিট ৮ সেকেন্ডে এ ভূকম্পন অনুভূত হয়।

রিখটার স্কেলে ভূমিকম্পের তীব্রতা ছিল ৪ দশমিক ৩। এর উৎপত্তিস্থল রাজধানী থেকে প্রায় ৪২ কিলোমিটার দূরে দোহারে।

যুক্তরাষ্ট্রের ভূতাত্ত্বিক জরিপ সংস্থা ইউএসজিএস জানিয়েছে, রিখটার স্কেলে ভূমিকম্পটির তীব্রতা ছিল ৪ দশমিক ৩। উৎপত্তিস্থল দোহার থেকে ১৪ কিলোমিটার দক্ষিণ-পূর্বে। যার গভীরতা ছিল ১০ কিলোমিটার।

তবে প্রাথমিকভাবে এ ভূমিকম্পে ক্ষয়ক্ষতির কোনো খবর পাওয়া যায়নি। রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে ভূমিকম্প অনুভূত হওয়ার খবর জানানো হয়েছে।

এর আগে ৩০ এপ্রিল দুপুরে চট্টগ্রামে ৪ দশমিক ৬ মাত্রার ভূকম্পন অনুভূত হয়। ওই ভূমিকম্পের উৎপত্তিস্থল ছিল মিয়ানমারের মাওলাই নামক স্থানে।


আরও খবর



ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক শনিবার ২ ঘণ্টা বন্ধ থাকবে

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৯ মে ২০২৩ | হালনাগাদ:রবিবার ২৮ মে ২০২৩ | ৭৮জন দেখেছেন

Image

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে ফুটওভার ব্রিজ নির্মাণকাজের জন্য শনিবার (২০ মে) দুই ঘণ্টা বন্ধ থাকবে ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়ক। এদিন ভোর সাড়ে ৫টা থেকে সকাল সাড়ে ৭টা পর্যন্ত নিরাপত্তাজনিত কারণে দেশের অন্যতম ব্যস্ততম এ সড়কটি বন্ধ থাকবে।

সড়ক ও জনপথ অধিদফতরের চট্টগ্রাম বিভাগ থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

চট্টগ্রাম সড়ক বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী পিন্টু চাকমা জানান, শনিবার সীতাকুণ্ড উপজেলার আরআর টেক্সটাইল মিলস এলাকায় নির্মাণাধীন ফুটওভার ব্রিজের ডেকবিম স্থাপন করা হবে। তাই এদিন দুই ঘণ্টার জন্য সড়কটিতে যান চলাচল বন্ধ থাকবে।

গত শনিবার (১১ মে) ডেকবিমটি বসানোর কথা ছিল। তবে ঘূর্ণিঝড় মোখার কারণে তা সম্ভব হয়নি।


আরও খবর



ইসলামপুরে গৃহবধু ধর্ষন চেষ্টার অভিযোগে ইউপি সদস্যের শাস্তির দাবীতে মানববন্ধন

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৫ মে ২০২৩ | হালনাগাদ:রবিবার ২৮ মে ২০২৩ | ৮২জন দেখেছেন

Image

লিয়াকত হোসাইন লায়ন :

ইসলামপুরে চর পুটিমারী ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের মেম্বার আশরাফ আলী আশার কর্তৃক গৃহবধু ধর্ষণেরর চেষ্টার অভিযোগে দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি এবং গেজেট বাতিলের দাবীতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করেছে ভূক্তভোগি পরিবার ও এলাকাবাসী।

শুক্রবার দুপুরে ডিগ্রীর চর সকাল বাজারে এই মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়।

জানাযায়, গত সোমবার ২৪ এপ্রিল চর পুটিমারী ইউনিয়নের আগ্রাখালী গ্রামের রেহান আলীর কন্যা  আঃ রসিদের স্ত্রী লাকী আক্তার বাবার বাড়ি থেকে শশুর বাড়ী যাচ্ছিল। পথিমধ্য ইউপি সদস্য আশা গৃহবধুকে একা পেয়ে পথরোধ করে ধর্ষণের চেস্টা করে। গৃহবধুর চিৎকারে আশপাশের লোকজন চলে এলে ওই ইউপি সদস্য দ্রুত সটকে পড়ে। 

মানববন্ধনে রেহান আলী,রিমন মিয়া,আঃ রশিদ সহ অন্যান্যরা বক্তব্য রাখেন। বক্তারা ও ভূক্তভোগি পরিবার নারী লোভী ইউপি সদস্যের আশরাফ আলী আশার বিচার ও গেজেট বাতিলের দাবী জানান।

এ ব্যাপারে ভূক্তভোগী পরিবার কোন বিচার না পেয়ে আদালতে মামলা দায়ের করেছেন।


আরও খবর