Logo
শিরোনাম

বিএনপির রাজনীতি পদ্মার গহিন অতলে নিমজ্জিত

প্রকাশিত:সোমবার ২৭ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ১০ আগস্ট ২০২২ |
Image

শেখ হাসিনার উন্নয়নের রাজনীতির কারণে বিএনপির নেতিবাচক রাজনীতি এখন পদ্মার গহিন অতলে নিমজ্জিত। এ কথা বলেছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

সোমবার (২৭ জুন) রাজধানীর সরকারি বাসভবন থেকে পাঠানো এক বিবৃতিতে এ কথা জনান তিনি।

‘সরকার অজানা আতঙ্কে সবসময় উদ্বিগ্ন’— বিএনপি মহাসচিবের এমন বক্তব্যের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, এমন বক্তব্য বিএনপির হতাশা এবং রাজনৈতিক দীনতা উন্মোচিত হয়েছে।

তিনি বলেন, শেখ হাসিনা সরকারের সঙ্গে জনগণ রয়েছে, আছে আস্থা ও আত্মবিশ্বাস। তাই সরকারের কোনো উদ্বেগ নেই উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, আর বিএনপি নেতারা এখন নির্বাচন আতঙ্কে ভুগছেন এবং প্রবল জনরোষের আশঙ্কায় উদ্বিগ্ন।

বিএনপি পদ্মা সেতুর বিরোধিতা করেছিল; কিন্তু শেখ হাসিনার সাহসী নেতৃত্বে পদ্মা সেতু নির্মিত হয়েছে জানিয়ে সেতুমন্ত্রী বলেন, বিএনপির ষড়যন্ত্র আর পদে পদে বাধা শেখ হাসিনা সরকারের উন্নয়নকে একটুও বাধাগ্রস্ত করতে পারেনি।

মন্ত্রী বলেন, এ থেকেই বিএনপি নেতারা দিন দিন গভীর থেকে গভীরতর হতাশায় আক্রান্ত।


আরও খবর



লালমনিরহাটে বন্যার খনিকটা উন্নতি, ত্রান পাননি বানভাসি মানুষ

প্রকাশিত:বুধবার ০৩ আগস্ট ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৯ আগস্ট ২০২২ |
Image

নিজস্ব প্রতিনিধি,লালমনিরহাট :

লালমনিরহাটে বন্যা পরিস্থিতির খানিকটা উন্নতি, তিস্তা ব্যারাজ পয়েন্টে বিপদসীমার ১০ সেন্টিমিটার নীচ দিয়ে পানি বইছে  তবে বানভাসিদের মাঝে  সরকারি বরাদ্দ থাকলেও তা এখনো পৌছায়নি। 

পানি উন্মন বোর্ড সূত্র জানায়, যদি উজানে ভারিবৃষ্টিপাত না হয় তাহলে দ্রুত তিস্তার পানি নেমে যাবে। ইতোমধ্যে তিস্তার ডালিয়া পয়েন্টে আজ সকালম৯ টায়  বিপদসীমার ১০ সেন্টিমিটার নীচ দিয়ে পানি বইছে।  এদিকে এখন পর্যন্ত নতুন করে নদীতে ভাঙ্গন দেখ দেয়নি।  

জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন অফিস সূত্রে জানা গেছে এ পর্যন্ত ৩৩শত শুকনো খাবারের প্যাকেট বরাদ্দ হয়েছে তা বিতরণের প্রস্তুতি চলছে।  মাঠপর্যায়ের তথ্য মতে জেলার হাতিবান্ধা, কালীগঞ্জ,আদিতমারি ও লালমনিরহাট সদর উপজেলার ১৬ টি ইউনিয়নে প্রায় ৩০ হাজার পরিবার পানি বন্দী অবস্থায় আছে। এই বানভাসিদের জন্য যে পরিমান বরাদ্দ দিয়েছে তা চাহিদার চেয়ে একেবারেই অপ্রতুল।  অপরদিকে বানভাসিদের মানুষদের সুপেয় পানির অভাব সহ  পয়োনিষ্কাশনের মারাত্মক সমস্যা,  রান্নাঘরে পানি ওঠায় খাবারের সমস্যা, গোখাদ্য সমস্যা দেখা দিয়েছে।  আদিতমারি উপজেলা নির্বাহী অফিসার  সারোয়ার আলম জানান মহিষ খোঁচা ইউনিয়নে প্রায় ৩ হাজার পরিবার পানি বন্দী রয়েছে।  


অপরদিকে লালমনিরহাট সদর পিআইও মশিউর রহমান জানান,তালিকা হচ্ছে আর জেলা প্রশাসক আবু জাফর, উপজেলা চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান সুজন ও খুনিয়াগাছ ইউপি চেয়ারম্যান বাদল সহ মঙ্গলবার বিকেল ৫ টার পর বানভাসি এলাকা পরিদর্শন করা হয়েছে।  

এছাড়াও হাতিবান্ধা পিআইও এবং কালীগঞ্জ উপজেলায় কর্মরত পিআইও ( প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা) এর সাথে মোবাইলে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তারা ফোন রিসিভ না করায় তাদের তথ্য পাওয়া যানি।  তবে হাতিবান্ধার জাউয়া বাড়ী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মশিউর রহমান জানান, ওই ইউনিয়নে ২হাজারেরও বেশি পরিবার পানি বন্দী হয়ে আছেন। জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার গোলাম নবী সরেজমিনে এসে জানান,বানের পানি ওঠায় আপাতত ৭ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পাঠদান কার্যক্রম বন্ধ  রয়েছে।


আরও খবর



নোয়াখালী সোনাইমুড়িতে

গরু বাজারের টাকার ভাগ নিয়ে ছাত্রলীগ নেতা গুলিবিদ্ধ

প্রকাশিত:সোমবার ১১ জুলাই ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৯ আগস্ট ২০২২ |
Image

নোয়াখালী প্রতিনিধি

নোয়াখালীর সোনাইমুড়ীতে ঈদুল আজহা উপলক্ষে স্থাপিত গুরু বাজারের হাসিলের টাকা ভাগ-বাটোয়ারা নিয়ে বিরোধের জের ধরে এক ছাত্রলীগ নেতা গুলিবিদ্ধ হওয়ার অভিযোগ উঠেছে। এ সময় ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ায় আহত হয়েছেন আরও ৫ জন।  

গুলিবিদ্ধ ছাত্রলীগ নেতার নাম রিফাতুল ইসলাম রিফাত (২৩)। সে সোনাইমুড়ী উপজেলা ছাত্রলীগের সদস্য এবং সোনাইমুড়ী পৌরসভার ৫নম্বর ওয়ার্ডের নোয়া বাড়ির মৃত সিরাজুল ইসলামের ছেলে। আহতদের মধ্যে গুলিবিদ্ধ রিফাতকে ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

রোববার রাত ৯টার দিকে উপজেলার সোনাইমুড়ী পৌরসভার ৫নম্বর ওয়ার্ডের মদিনা ভবনের সামনে এ ঘটনা ঘটে। 

জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সম্পাদক সাইফুল ইসলাম জুয়েল বলেন, সোনাইমুড়ী পৌরসভার হাইস্কুল মাঠে ঈদুল আজহা উপলক্ষে একটি গরু বাজার সরকারি ভাবে ইজারা দেওয়া হয়। ওই গরু বাজারের হাসিল আদায়ের টাকা সরকার দলীয় নেতাকর্মিদের সমন্বয় করে শিডিউল ক্রয়কারীদের মধ্যে বিতরণ করার সিন্ধান্ত নেয় স্থানীয় নেতারা।  এর মধ্যে সোনাইমুড়ী পৌরসভার বানুয়া গ্রামে সরকার দলীয় নেতাকর্মিকে হাসিলের ৪০ পার্সেন্ট,নাওতলা গ্রামের নেতাকর্মিকে ২০ পার্সেন্ট টাকা এবং পৌরসভার ৫-৬নম্বর ওয়ার্ডের নেতাকর্মিকে হাসিলের ৪০ পার্সেন্টের টাকা ভাগ করে দেওয়ার কথা ছিল। এর মধ্যে আমাকে হাসিল আদায়ের ২০ পার্সেন্ট টাকা ও রাসেলদের লোকজনকে ২০ পার্সেন্টের টাকা দেওয়ার কথা ছিল। শুক্রবার স্থানীয় এমপির অনুসারী নেতারা হাসিল আদায়ের টাকা ভাগ করে রাসেলের কাছে দিয়ে দেয়। পরবর্তীতে রাসেল টাকা অর্ধাঅর্ধি ভাগ হবে না ঘোষণা দিলে বিরোধ দেখা দেয়। 

জুয়েল অভিযোগ করে আরো বলেন, এ নিয়ে শুক্রবার রাতে আমার সাথে রাসেলের সাথে বাকবিতন্ডা হয়। পরের দিন জানতে পারি যাদের নামে সিডিআর ফরম কেনা হয়েছে তাদের কে ফরম প্রতি ৪০ হাজার টাকা করে দিয়ে দেওয়া হয়। যে সব শিডিউল বিক্রি হয়েছে তার ৫টি রাসেলদের লোকজন ক্রয় করে। তারা স্থানীয় এমপির অনুসারী হিসেবে পরিচিত। শনিবার সন্ধ্যায় তারা আমাকে বাইপাস এলাকার একটি বাড়িতে ডেকে নেয়। একপর্যায়ে ওই স্থানে তারা আমার ২জন লোককে মারধর করে। এরপর রোববার বিকেলের দিকে রাসেলও তার সাঙ্গপাঙ্গরা শিপন নামে আমাদের আরেক অনুসারীকে মারধর করে। ওই সময় আমরা প্রতিরোধ করতে গেলে দুই গ্রুপের মধ্যে পাল্টাপাল্টি মারধরের ঘটনা ঘটে। এরপর রোববার রাত ৯টার দিকে ছাত্রলীগ কর্মি রিফাত তার দোকান থেকে বাড়ি যাওয়ার পথে মদিনা ভবনের সামনে তাকে গতিরোধ করে রাসেল, জয়নালসহ তাদের ১০-১৫জন সাঙ্গপাঙ্গ তার ওপর হামলা চালায়। শেষে রাসেলের নির্দেশে জয়নাল নামে এক যুবক রিফাতের পায়ে গুলি চালায়।  

সোনাইমুড়ী উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মো.শামল উদ্দিন জানান, অভিযুক্ত রাসেল বছর খানেক আগে জামায়াত শিবির থেকে ছাত্রলীগের রাজনীতিতে অনুপ্রবেশ করে।  কিছু দিন আগে তাকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয় বলেও জানান তিনি। গরু বাজারের হাসিলের টাকা নিয়ে বিরোধের জের ধরে রিফাতকে গুলি করে রাসেল ও তার সহযোগী বহিরাগত সন্ত্রাসীরা।   

নোয়াখালী-১ আসনের (চাটখিল-সোনাইমুড়ী) সংসদ সদস্য এইচ এম ইব্রাহিম জানান, অভিযুক্ত যুবক তার অনুসারী নয়। তাকে আগেই দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে।  

এ বিষয়ে জানতে চাইলে সোনাইমুড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হারুন অর রশিদ বলেন,খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। রিফাত নামে এক যুবকের পায়ের পাতায় আঘাতের চিহৃ রয়েছে। গুলির আঘাতের চিহৃ কিনা তা ডাক্তারি রিপোর্ট হাতে পেলে বলা যাবে। বিষয়টি পুলিশ তদন্ত করে দেখছে।  


আরও খবর



বাংলাদেশের অর্থনীতি সংকটের ঝুঁকি কম

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৯ জুলাই ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৯ আগস্ট ২০২২ |
Image

দুই বছরের বেশি সময় ধরে চলমান করোনাভাইরাস মহামারি আর ছয় মাসের ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধ বিশ্বজুড়ে নজিরবিহীন অর্থনৈতিক সংকট তৈরি করেছে। এই সংকটে বেশি ঝুঁকিতে আছে এশিয়ার উন্নয়নশীল দেশগুলো। এরই মধ্যে দেউলিয়া হয়ে গেছে শ্রীলঙ্কা, পাকিস্তানেও সংকট তীব্র হচ্ছে। তবে বাংলাদেশের অর্থনীতি এবং ভবিষ্যতের ব্যাপারে আশার বাণী শোনাল বিশ্বের শীর্ষ ক্রেডিট রেটিং সংস্থা মুডিস ইনভেস্টরস সার্ভিস। বৃহস্পতিবার (২৮ জুলাই) মার্কিন এই সংস্থা বলেছে, বাংলাদেশের অর্থনীতির ওপর চাপ তৈরি হলেও সংকটের ঝুঁকি কম।

সিঙ্গাপুরে মুডিসের বিশ্লেষক ক্যামিল চৌটার্ড বলেছেন, মূল বার্তা হলো যদিও বাংলাদেশের বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ সম্প্রতি কমেছে উচ্চ স্তর থেকে, তারপরও দেশটির বাহ্যিক দুর্বলতার সূচকে ঝুঁকি কম। আমদানি ব্যয় বেড়ে যাওয়ায় বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ কমে গেছে। যে কারণে সামষ্টিক অর্থনৈতিক ঝুঁকি হ্রাস এবং সংকট কাটাতে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) কাছে ঋণ চাইছে বাংলাদেশ।

বাংলাদেশ সরকার এরই মধ্যে বিদ্যুৎ সরবরাহে কাটছাঁট ঘোষণা করেছে এবং ডলারের তীব্র ঘাটতির মাঝে মজুদকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করছে। বাংলাদেশের বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ এক বছর আগের ৪৫ দশমিক ৫১ বিলিয়ন ডলার থেকে কমে গত ২০ জুলাই ৩৯ দশমিক ৬৭ বিলিয়ন ডলার হয়েছে।

ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে সরবরাহে বিঘগ্ন এবং দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি বাংলাদেশে দুর্ভোগ তৈরি করছে। কিন্তু তার আগে পর্যন্ত ৪২৬ বিলিয়ন ডলারের অর্থনীতির বাংলাদেশ বিশ্বের সবচেয়ে দ্রুত বর্ধনশীল অর্থনীতির দেশ ছিল। বুধবার (২৭ জুলাই) অর্থমন্ত্রী আ হ ম মোস্তফা কামাল বলেছিলেন, ভবিষ্যতের যেকোনো চাহিদা মেটানোর জন্য আইএমএফের কাছে ঋণ চাইলেও অর্থনৈতিক সংকটের মুখে নেই বাংলাদেশ।

মুডিসের ক্যামিল চৌটার্ড বলেছেন, আমরা রেমিট্যান্স প্রবাহ কমে যাওয়া, রপ্তানির কম চাহিদা এবং অবশ্যই জ্বালানি ও খাদ্যের উচ্চ মূল্যের কারণে চলতি হিসাবের ঘাটতির অবনতির আশা করছি। এসব চাপ আসলে তৈরি হচ্ছে এবং সম্প্রতি দেশটিতে ভয়াবহ বন্যার কারণে পরিস্থিতির আরো খারাপ হয়েছে। বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ কমে যাওয়ায় অপ্রয়োজনীয় আমদানি রোধে দ্রুত পদক্ষেপ নিয়েছে বাংলাদেশ সরকার। বিদেশে বসবাসরত লাখ লাখ অভিবাসীর দেশে রেমিট্যান্স পাঠানোর বিধিবিধান শিথিল করা হয়েছে। কর্মকর্তাদের বিদেশ ভ্রমণে লাগাম টানা হয়েছে। সেই সময় এসঅ্যান্ডপি গ্লোবাল রেটিংয়ের বিশ্লেষক কিম ইং তান বিবিসিকে বলেন, আমদানি আয় ও রপ্তানি ব্যয়ে অর্থনৈতিক ঘাটতিতে থাকা বাংলাদেশ, পাকিস্তান ও শ্রীলঙ্কা সরকারকে ভর্তুকি বাড়াতে গুরুতর প্রতিবন্ধকতার মুখোমুখি হতে হবে। পাকিস্তান ও শ্রীলঙ্কা আর্থিক সহায়তার জন্য আইএমএফ এবং অন্য দেশের সরকারের দ্বারস্থ হয়েছে।

অর্থমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশকে সরকারি ব্যয়ের ক্ষেত্রে পুনরায় অগ্রাধিকার নির্ধারণ এবং ভোক্তা কার্যক্রমের ওপর বিধিনিষেধ আরোপ করতে হয়েছে। ক্রমবর্ধমান খাদ্য ও জ্বালানির দাম মহামারিতে বিপর্যস্ত বিশ্ব অর্থনীতিকে হুমকির মুখে ফেলে দিয়েছে। এখন উন্নয়নশীল দেশগুলো যারা বছরের পর বছর ধরে বিপুল পরিমাণ ঋণ নিয়েছে, তারা নিজেদের নড়বড়ে অর্থনৈতিক ভিত্তি যে বৈশ্বিক টালমাটাল পরিস্থিতিতে বিশেষভাবে ঝুঁকিপূর্ণ সেটি উপলব্ধি করছে।


আরও খবর

আকাশ ছুঁলো কাঁচা মরিচের দাম

শনিবার ০৬ আগস্ট ২০২২




বিশ্ববাজারে কমলো জ্বালানি তেলের দাম

প্রকাশিত:সোমবার ০১ আগস্ট ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৯ আগস্ট ২০২২ |
Image

বিশ্ববাজারে কমেছে জ্বালানি তেলের দাম। জুলাই মাসে চীন ও জাপানে উৎপাদন কম হয়েছে, এমন তথ্য প্রকাশিত হওয়ার পরই দাম কমল তেলের। চলতি সপ্তাহে বিশ্বের তেল রপ্তানিকারী দেশগুলোর সংগঠন ওপেক ও অন্য বড় তেল উৎপাদনকারী দেশের কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠকে বসবেন বিনিয়োগকারীরা। বৈঠকে তেলের সরবরাহে সামঞ্জস্য আনা নিয়ে আলোচনা হবে। এর আগে বিশ্ববাজারে জ্বালানি তেলের দাম কমল। বার্তা সংস্থা রয়টার্স সোমবার (১ আগস্ট) এ খবর জানিয়েছে।

জানা যায়, সোমবার বিশ্ববাজারে ব্রেন্ট ক্রুড তেলের দাম প্রতি ব্যারেলে ১ দশমিক ১৯ ডলার বা ১ দশমিক ১ শতাংশ কমে হয়েছে ১০২ দশমিক ৭৮ ডলার। ওয়েস্ট টেক্সাস ইন্টারমিডিয়েট ক্রুডের দর প্রতি ব্যারেল এখন ৯৭ দশমিক ১৯ ডলার। ওয়েস্ট টেক্সাস ইন্টারমিডিয়েট ক্রুডের দাম ১ দশমিক ৪৩ ডলার বা দেড় শতাংশ কমেছে।

বিশ্বের সর্ববৃহৎ ক্রুড তেল আমদানিকারক দেশ চীনে গত জুনে উৎপাদনের গতি বেড়েছিল। কিন্তু করোনাভাইরাসের কারণে নতুন করে লকডাউন ঘোষণা করায় জুলাইয়ে প্রত্যাশিত উৎপাদন হয়নি। কেইক্সিং/মার্কিটের ম্যানুফ্যাকচারিং ম্যানেজারস ইনডেক্সে (পিএমআই) গত জুনে চীনের পয়েন্ট ছিল ৫১ দশমিক ৭। গত ১৩ মাসের মধ্যে জুনে উৎপাদন ছিল সবচেয়ে বেশি। কিন্তু জুলাইয়ে এ সূচকে চীনের পয়েন্ট ছিল ৫০ দশমিক ৪, যেটা ছিল প্রত্যাশিত পয়েন্টের চেয়েও অনেক কম।

এদিকে, জাপানেও উৎপাদন কমেছে। আজ সোমবার প্রকাশিত তথ্য-উপাত্তে দেখা যায়, জাপানে গত ১০ মাসের মধ্যে জুলাইয়ে সবচেয়ে কম উৎপাদন হয়েছে। আর্থিক সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান সিএমসি মার্কেটসের টিনা টেং বলেন, আজ তেলের দাম কমার প্রথম ও মূল কারণ চীনের উৎপাদন হতাশজনকভাবে কমে যাওয়া।



আরও খবর



দুর্নীতিবাজ সরকারের পতন ঘটাতে হবে

প্রকাশিত:রবিবার ৩১ জুলাই ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৯ আগস্ট ২০২২ |
Image

 বুলবুল আহমেদ সোহেল; নারায়ণগঞ্জঃ

বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব হাবিব উন নবী খান সোহেল বলেন, দুনীর্তিবাজ আওয়ামীলীগ সরকারের বিরদ্ধে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন গড়ে তুলে পতন ঘটয়ে নিদলীয় তত্ত¦বধায়ক সরকার, নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশন গঠন করা হবে বলে হুশিয়ারী দিয়েছেন । তিনি বলেন, বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান আন্দোলনের  প্যাকেজ ঘোষনা করবেন। দলীয় নেতাকর্মীরা সেই নির্দেশনার অপেক্ষায় আছে। তারেক রহমান জানেন কোথায় ডালায় করলে প্যাকেজ ফুলফিল হবে। তিনি সেই জায়গায়ই ডায়াল করবেন।

রবিবার বিকেলে নারায়ণগঞ্জের চাষাঢ়া কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে জেলা বিএনপি আয়োজিত সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন। 

সারাদেশে বিদ্যুৎতের লোডশেডিং ও জালানী তেলের সরকারের অব্যবস্থাপনা প্রতিবাদে জেলা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত আহবায়ক মনিরুল ইসলাম রবির সভাপতিত্বে  সমাবেশে  বক্তব্য রাখেন যুগ্ম আহবায়ক নাসির লুৎফর রহমান আব্দু, জেলা বিএনপির সদস্য সচিব অধ্যাপক মামুন মাহমুদ সহ অনেকেই। 

হাবিব উন নবী খান সোহেল বলেন,  বাংলাদেশ থেকে হাজার হাজার কোটি টাকা পাচার করেছে দুনীর্তিবাজ এই সরকার । যে কারনে বাংলাদেশ শ্রীলংকা পথে হাটছে। তিনি বলেন, শ্রীলংকার প্রেসিডেন্ট রাজা পাকশে তো কাপড় চোপড় নিয়ে পালাতে পারেনি। তাই আগে থেকে কাপড় চোপড় গুছিয়ে রাখার পরামর্শদেন সকারের কর্তাব্যক্তিদের।


আরও খবর