Logo
শিরোনাম
রাজধানীর সেতু ভবনে আগুন কমপ্লিট শাটডাউন : ঢাকাসহ সারা দেশে বিজিবি মোতায়েন জয়পুরহাটের পাঁচবিবিতে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ইট বোঝায় ট্রাক খাদে কুষ্টিয়ায় আন্দোলনকারী ও ছাত্রলীগের মধ্যে সংঘর্ষ -কয়েকটি মোটর সাইকেলে আগুন পুঠিয়ায় আ’লীগের বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সভা লালমনিরহাটে অনুষ্ঠিত হয়েছে তিস্তা সমাবেশ বেনাপোল স্থল বন্দর দিয়ে মিথ্যা ঘোষণায় আমদানি করা হয়েছে ১৮ কোটি টাকার সালফিউরিক এসিড কুমারখালীতে মহাসড়ক অবরোধ করে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ, আহত-২ শরণখোলায় নার্সের চিকিৎসার অবহেলায় এক রোগীর মৃত্যুর অভিযোগ শেরপুরে কোটাবিরোধী শিক্ষার্থী-ছাত্রলীগের সংঘর্ষ, সাংবাদিকসহ আহত-২০

বিশ্বব্যাংকের সামনে আনন্দ সমাবেশ করবে আওয়ামী লীগ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ৩১ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২০ জুলাই ২০24 |

Image

পদ্মা সেতু উদ্বোধনের দিনে যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটন ডিসিতে অবস্থিত বিশ্বব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ের সামনের আনন্দ সমাবেশের প্রস্তুতি নিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ। আগামী ২৪ জুন বিকেল ৩টায় এ আনন্দ সমাবেশ হবে। এ উপলক্ষে ব্যাপক প্রস্তুতি নিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনসমূহ।

যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতি ড. সিদ্দিকুর রহমান জানান, ২৫ জুন সকাল ১০টায় (বাংলাদেশ সময়) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা স্বপ্নের ঐতিহাসিক পদ্মা সেতুর উদ্বোধনকালে ২৪ জুন বিকেল ৩টা (যুক্তরাষ্ট্র সময়) ওয়াশিংটন ডিসিতে অবস্থিত বিশ্বব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ের সামনের আনন্দ সমাবেশের প্রস্তুতি নিয়েছে। আনন্দ সমাবেশে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ, সকল অঙ্গসংগঠন ও আওয়ামী লীগ সমর্থিত সকল প্রবাসীর যথাসময়ে উপস্থিত থেকে সমাবেশকে সফল ও সার্থক করার আহ্বান জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের নেতারা।

উল্লেখ্য, ২০১২ সালে পদ্মা সেতু প্রকল্প নিয়ে বিশ্বব্যাংক প্রধানমন্ত্রী ও তার সরকার এবং তার পরিবারের সদস্যদের নামে মিথ্যাচারের তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছিল যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ। প্রতিবাদের অংশ হিসেবে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ এক হাজারের বেশি নেতাকর্মী নিয়ে ২০১২ সালের ১১ জুন বিশ্বব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ের সামনে প্রতিবাদ ও অবরোধ করে ইতিহাসে সৃষ্টি করে, যা পরবর্তীতে প্রধানমন্ত্রী এক বক্তৃতায় উল্লেখ করেন।


আরও খবর



খাগড়াছড়িতে পাহাড় ধসে সড়ক যোগাযোগ বন্ধ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০২ জুলাই 2০২4 | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০২৪ |

Image



বিডি টুডেস রিপোর্ট:


ভারী বৃষ্টিতে খাগড়াছড়িতে পাহাড় ধসে পড়েছে।


 মঙ্গলবার (২ জুলাই) ভোর ৬টার দিকে জেলার আলুটিলার সাপমারায় এ ঘটনা ঘটে। এতে ঢাকা-খাগড়াছড়ি ও ঢাকা-চট্টগ্রাম সড়কে যান চলাচল বন্ধ রয়েছে। 


আটকা পড়েছে অনেক যানবাহন এবং ভোগান্তিতে যাত্রীরা। সড়কের মাটি সরানোর কাজ করছে ফায়ার সার্ভিস।



খাগড়াছড়ির ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স লিডার মো. জসিম উদ্দিন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, সড়ক থেকে মাটি সরানোর কাজ করছি। দ্রুত সড়কে যান চলাচল স্বাভাবিক হবে। সড়কের বেশ কিছু স্থানে পাহাড় ধসের ঝুঁকি দেখা দিয়েছে বলেও জানান তিনি।



জানা যায়, ভোরের দিকে সাপমারা এলাকায় পাহাড়ের মাটি ধসের পর এক ঘণ্টার বেশি সময় ধরে যান চলাচল বন্ধ রয়েছে।



 এছাড়া ভারী বৃষ্টিতে খাগড়াছড়ি-রাঙ্গামাটি সড়ক তলিয়ে গেছে। এ কারণে সড়কে যান চলাচল বন্ধ রয়েছে। সোমবার (১ জুলাই) সকাল থেকে জেলায় ভারী বৃষ্টি শুরু হয়।



 এতে সড়কে পানি জমে সব ধরনের যান চলাচল বন্ধ হয়ে পড়ে। বৃষ্টির পানিতে সকাল থেকে মহালছড়ির চব্বিশ মাইল সড়কে জলাবদ্ধতা তৈরি হয়ে যানবাহন চলাচল বন্ধ রয়েছে।


এছাড়া দীঘিনালা-লংগদু সড়কের হেডকোয়াটার এলাকায় সড়ক বৃষ্টির পানিতে ডুবে গেছে। এ কারণে রাঙামাটির লংগদুর সঙ্গে সারা দেশের সড়ক যোগাযোগ বন্ধ হয়ে পড়েছে।



এদিকে সাজেক পর্যটন কেন্দ্রের সঙ্গেও খাগড়াছড়ির সড়ক যোগাযোগ বন্ধ হয়ে গেছে। পাহাড়ি ঢলে সাজেক-খাগড়াছড়ি সড়কের বাঘাইহাট বাজার, মাচালং বাজারসহ একাধিক স্থানে সড়কের ওপরে পানি উঠে যাওয়ায় যান চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে।


 পর্যটকবাহী যান চলাচল বন্ধ থাকায় সাজেকে আটকা পড়েছেন শতাধিক পর্যটক।


অন্যদিকে জেলার পাহাড়গুলোর পাদদেশে ঝুঁকিপূর্ণভাবে বসবাসকারীদের নিরাপদে সরিয়ে নিতে কাজ শুরু করেছে স্থানীয় প্রশাসন। সোমবার সকাল থেকে জেলা সদরের শালবন, মোহাম্মদপুর, সবুজবাগ ও কুমিল্লা টিলা এলাকার বাসিন্দাদের সরিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করেন জনপ্রতিনিধিরা। 



এছাড়া পাহাড় ধসের ঝুঁকিতে থাকা এলাকার আশ্রয়কেন্দ্র প্রস্তুত রাখা হয়েছে। ভারী বর্ষণ অব্যাহত থাকায় নিম্নাঞ্চলগুলো প্লাবিত হওয়ার শঙ্কা রয়েছে বলে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।



আরও খবর



ট্রাম্প মার্কিন জাতির জন্য হুমকি : বাইডেন

প্রকাশিত:শনিবার ১৩ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২০ জুলাই ২০24 |

Image

সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে ধরাশায়ী হওয়ার পর প্রার্থিতা ধরে রাখতে হিমশিম খেতে হচ্ছে বর্তমান প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে। বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিধর রাষ্ট্র আমেরিকাকে আরও চার বছর শাসন করার মানসিক ও শারীরিক সক্ষমতা রয়েছে, এ প্রমাণ দিতে ডেট্রয়েটে বিরল এক সমাবেশ করেছেন তিনি। সেখানে উল্লাসরত জনতাকে বাইডেন বলেছেন, তিনি নির্বাচনী দৌড় ছেড়ে যাবেন না। একই সঙ্গে রিপাবলিকান প্রার্থী ট্রাম্পকে গুরুতর হুমকি হিসেবে অবহিত করেছেন ৮১ বছর বয়সী বাইডেন। খবর রয়টার্সের।

যুক্তরাষ্ট্রের স্থানীয় সময় শুক্রবার (১২ জুলাই) সন্ধ্যায় মিশিগান অঙ্গরাজ্যের ডেট্রয়েটে বাইডেন বলেন, আমি প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছি এবং আমরা জিততে চলেছি। আমিই মনোনীত প্রার্থী। আমি (নির্বাচনী মাঠ ছেড়ে) কোথাও যাচ্ছি না।

জিমের প্রেস এলাকার দিকে ইঙ্গিত করে বাইডেন বলেন, তারা আমাকে আরও শক্তিশালী করছে। অনুমান করুন, ডোনাল্ড ট্রাম্প বিনামূল্যে পাস পেয়ে গেছেন। এরপরই ট্রাম্পকে মার্কিন জাতির জন্য হুমকি হিসেবে ঘোষণা করেন তিনি। এ সময় উপস্থিত সমর্থকদের তাকে হাল না ছাড়ার অনুরোধ জানান।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন সামনে রেখে দেশের প্রথা মেনে গত বৃহস্পতিবার (২৭ জুন) রাতে সরাসরি বিতর্ক হয় প্রধান দুই প্রার্থী জো বাইডেন ও ডোনাল্ড ট্রাম্পের মধ্যে। বিতর্কে ট্রাম্পের জোরালো বক্তব্যের বিপরীতে অনেকটাই নিষ্প্রভ ছিলেন বাইডেন। এ নিয়ে ডেমোক্র্যাট ভোটারদের মধ্যে অসন্তোষ ও আতঙ্ক দেখা দিয়েছে। তাদের অসন্তোষ ও আতঙ্কের মাত্রা এতই প্রবল যে তারা বাইডেনকে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়াতে বলছেন। দিন যত সামনে যত গড়াচ্ছে, তাদের এই দাবি ততই জোরদার হচ্ছে।

তবে এমন বিপদের দিনে গতকাল দুজন বিশিষ্ট ডেমোক্র্যাট নেতা জেমস ক্লাইবার্ন এবং ক্যালিফোর্নিয়ার গভর্নর গ্যাভিন নিউজম বাইডেনকে সাহস দিয়েছেন। তারা তাকে নির্বাচনে লড়ার কথা বলেছেন। এ ছাড়া শুক্রবার বিকেলে ইউনাইটেড অটো ওয়ার্কার্সের সভাপতি শন ফেইন বাইডেনের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন। যদিও এর আগে তিনি বাইডেনের প্রার্থিতা নিয়ে নিজের দুশ্চিন্তার কথা প্রকাশ করেছিলেন।


আরও খবর



প্লাটিনাম জয়ন্তীতে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা জানালো আওয়ামী লীগ

প্রকাশিত:রবিবার ২৩ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২০ জুলাই ২০24 |

Image



বিডি টুডেস ডিজিটাল ডেস্ক :


আওয়ামী লীগের গৌরবোজ্জ্বল প্লাটিনাম জয়ন্তী, অর্থাৎ ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন দলটির সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।


রোববার (২৩ জুন) সকাল ৭টায় ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানানো হয়।



প্রথমে প্রধানমন্ত্রী ও পরে আওয়ামী লীগের সভাপতি হিসেবে দলের শীর্ষ নেতাদের নিয়ে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা জানান শেখ হাসিনা।


প্লাটিনাম জয়ন্তীতে সূর্যোদয়ের সময় আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয় ও দেশব্যাপী দলীয় কার্যালয়ে জাতীয় পতাকা ও দলীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়।


এ দিন সকাল সাড়ে ১০টায় গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় জাতির জনকের সমাধিতে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের পক্ষ থেকে প্রতিনিধিদল শ্রদ্ধার্ঘ্য নিবেদন করবে।


এছাড়া বিকেল ৩টায় ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে। এ সভায় শেখ হাসিনা সভাপতিত্ব করবেন। আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতা, আমন্ত্রিত অতিথিসহ দলের সর্বস্তরের নেতা-কর্মীরা অংশ নেবেন।



আরও খবর

রাজধানীর সেতু ভবনে আগুন

বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০২৪




নওগাঁর ৩ জন সৌদি আরবে আগুনে পুড়ে নিহত

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৫ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ |

Image

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন :

সৌদি আরবের রিয়াদের মুসাসানাইয়া এলাকায় একটি সোফা তৈরির কারখানায় আগুনে পুড়ে নিহত ৪ জন বাংলাদেশির মধ্যে নওগাঁর আত্রাই উপজেলার-ই রয়েছেন ৩ জন রেমিট্যান্স যোদ্ধা। বুধবার সৌদির স্থানীয় সময় বিকেল ৫টারদিকে আগুনে নিহতের এ ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছেন নিহতদের স্বজনরা। মৃত্যুর খবর পাবার পর থেকে ওই তিনজন রেমিট্যান্স যোদ্ধার পরিবারে চলছে শোকের মাতব।

নিহতরা ৩ জন হলেন,  নওগাঁর আত্রাই উপজেলার তেজনন্দি গ্রামের মজিবর রহমানের ছেলে ফারুক হোসেন (৪০), শিকারপুর গ্রামের সাহাদ আলীর ছেলে এনামুল হোসেন (২৫) ও দিঘা স্কুলপাড়া গ্রামের কবেজ আলীর ছেলে শুকবর রহমান (৪০)।

নিহত ফারুকের ভাতিজা পিন্টু আলী বলেন, চাচা ফারুক হোসেন গার্মেন্টসে কাজ করতেন। প্রায় ৬ বছর আগে ধার-দেনা করে সৌদি আরবে যান তিনি। কিন্তু যাবার পর থেকেই সেখানে নানা সমস্যার মধ্যে পড়ে যান। প্রায় ৮ মাস হচ্ছে স্থায়ীভাবে সোফা তৈরির কারখানায় কাজে যোগদান করেছেন। এরই মধ্যে বুধবার রাত ১০টা নাগাদ মোবাইল ফোনে জানতে পারেন কারখানায় আগুনে ফারুক নিহত হয়েছেন। একই

উপজেলার দিঘা গ্রামের নিহত শুকবর আলীর জামাই বিদ্যুত হোসেন বলেন, তার শ্বশুড় কৃষি শ্রমীক ছিলেন। গত আড়াই বছর আগে একমাত্র সম্বল ১১শতক জায়গা বিক্রি করে তার সাথে ধার-দেনার টাকায় তিনি সৌদি আরবে পাড়ি জমান। এখন পর্যন্ত ধার-দেনার টাকা শোধ করতে পারেন নি। শুকবরের দুই ছেলে এক মেয়ে। ছেলেদের মধ্যে বড় ছেলে শামিম হোসেন প্রতিবন্ধি। তার মাথা গোঁজার একমাত্র বাড়ির তিন শতক জায়গা ছাড়া আর কোন জমি নেই। কিভাবে শ্বাশুড়ী, শ্যালোকদের নিয়ে চলবেন তা নিয়ে চরম বিপাকে পরেছেন। শ্বশুর শুকবর আলীই ছিলেন পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তি। শিকারপুর গ্রামের নিহত যুবক এনামুলের চাচা জাহিদুল ইসলাম বলেন, এনামুল গার্মেন্টস শ্রমিক ছিলেন। অনেকটা সুখের আসায় ঘর বাঁধতে ধার-দেনা করে সৌদি আরবে যান। সেখান থেকে কেবলমাত্র রোজগারের টাকায় ধার-দেনা শোধ করে ইটের বাড়ি নির্মান করছেন। বাড়ির কাজ শেষ হলে আগামী বছর দেশে এসে বিয়ে করার কথা ছিলো। কিন্তু সেটা তার ভাগ্যে জুটলোনা। বুধবার রাত অনুমান সাড়ে ১০ টারদিকে আগুনে পুরে মারা যাবার খবর আসে। তখন থেকেই একমাত্র ছেলেকে হারানোর শোকে বাবা-মা পাথর হয়ে পড়েছেন। কিছুতেই যেন তাদেরকে বুঝ দিয়ে থামানো যাচ্ছেনা। নিহতদের তিন পরিবার থেকেই দ্রুত মৃতদেহ দেশে আনতে সরকারের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেছেন। এব্যাপারে আত্রাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সঞ্চিতা বিশ্বাস বলেন, সৌদি আরবে আগুনে পুরে ৩ জন নিহতের খবর পেয়েছি। তাদের পরিবারের খোঁজ খবর রাখা হচ্ছে। এছাড়া নিহতদের লাশ দেশে ফেরাতে এবং সরকারী কোন সুযোগ সুবিধা থাকলে তা সহায়তা করতে সার্বিক সহযোগিতা করা হবে।


আরও খবর



বিশ্বকাপ জয়ের পর যা বললেন রোহিত

প্রকাশিত:রবিবার ৩০ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২০ জুলাই ২০24 |

Image



বিডি টুডেস রিপোর্ট:


 এক দশক ধরেই আইসিসির শিরোপা খরায় ভুগছিল ভারত। অবশেষে রোহিত শর্মার হাত ধরে সেই শিরোপা খরা কাটাল টিম ইন্ডিয়া।



শনিবার (২৯ জুন) বার্বাডোজে দক্ষিণ আফ্রিকাকে ৭ রানে হারিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের শিরোপা ঘরে তুলল ম্যান ইন ব্লুরা।



 দীর্ঘ ১৩ বছর পর ভারতকে উল্লাসের উপলক্ষ এনে দিয়ে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিকে বিদায় জানান বিশ্বকাপজয়ী এই অধিনায়ক।


এদিন কোহলির সঙ্গে পুরস্কার বিতরণের মঞ্চে নিজের অবসরের ঘোষণা না দিলেও কেবল অফিসিয়াল সংবাদ সম্মেলন পর্যন্ত অপেক্ষা করলেন রোহিত। 



৩৭ বছর বয়সী এই ক্রিকেটার সবচেয়ে বেশি বয়সে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জিতেছেন। বিদায়ের দিনে অনেক কথাই বলেছেন তিনি। দলের চাওয়া-পাওয়া নিয়েও খোলাসা করেছেন এই ওপেনার।


রোহিতের ভাষ্য, ‘গত তিন-চার বছর ধরে আমরা কীসের মধ্যে দিয়ে গেছি, সেটা বলা খুব কঠিন। পর্দার আড়ালেও অনেক কিছু হয়েছে। 



এটা শুধু আজকের না, আমরা গত তিন-চার বছর ধরে যা করছি, তার ফল। আমরা অনেক চাপের ম্যাচ খেলেছি, শেষে ভুল দিকে থেকেছি।’


আরও খবর