Logo
শিরোনাম
রাজধানীর সেতু ভবনে আগুন কমপ্লিট শাটডাউন : ঢাকাসহ সারা দেশে বিজিবি মোতায়েন জয়পুরহাটের পাঁচবিবিতে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ইট বোঝায় ট্রাক খাদে কুষ্টিয়ায় আন্দোলনকারী ও ছাত্রলীগের মধ্যে সংঘর্ষ -কয়েকটি মোটর সাইকেলে আগুন পুঠিয়ায় আ’লীগের বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সভা লালমনিরহাটে অনুষ্ঠিত হয়েছে তিস্তা সমাবেশ বেনাপোল স্থল বন্দর দিয়ে মিথ্যা ঘোষণায় আমদানি করা হয়েছে ১৮ কোটি টাকার সালফিউরিক এসিড কুমারখালীতে মহাসড়ক অবরোধ করে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ, আহত-২ শরণখোলায় নার্সের চিকিৎসার অবহেলায় এক রোগীর মৃত্যুর অভিযোগ শেরপুরে কোটাবিরোধী শিক্ষার্থী-ছাত্রলীগের সংঘর্ষ, সাংবাদিকসহ আহত-২০

বঙ্গবন্ধু সেতুতে একদিনে টোল আদায় ২ কোটি ৬৮ লাখ টাকা

প্রকাশিত:বুধবার ১২ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৩ জুলাই ২০২৪ |

Image

বিডি টু ডে ডেস্ক:


কোরবানির ঈদের দিন যত ঘনিয়ে আসছে ততই ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়কে যানবাহন চলাচলের সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে।



 তারমধ্যে পশু ও পণ্যবাহী পরিবহন বেশি চলাচল করতে দেখা গেছে। কোথাও কোথাও যানবাহনের দীর্ঘ সারি দেখা গেছে। এদিকে, উত্তরবঙ্গের প্রবেশদ্বার টাঙ্গাইলের যমুনা নদীর ওপর নির্মিত বঙ্গবন্ধু সেতু ওপর দিয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় ২৮ হাজার ৪০১টি যানবাহন পারাপার হয়েছে। এতে টোল আদায় হয়েছে ২ কোটি ৬৮ লাখ ২০ হাজার ২৫০ টাকা।


বুধবার (১২ জুন) সকালে বঙ্গবন্ধু সেতু সাইট অফিসের নির্বাহী প্রকৌশলী আহসানুল কবীর পাভেল বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।


তিনি জানান, গত সোমবার রাত ১২টা থেকে ১০ জুন মঙ্গলবার রাত ১২টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় ২৮ হাজার ৪০১টি যানবাহন পারাপার হয়েছে। এতে টোল আদায় হয়েছে ২ কোটি ৬৮ লাখ ২০ হাজার ২৫০ টাকা।


উত্তরের ঈদযাত্রায় এবারও যানজটের শঙ্কা

তারমধ্যে টাঙ্গাইলের সেতু পূর্বে ১৪ হাজার ২৮০টি যানবাহন পারাপার হয়েছে, এর বিপরীত টোল আদায় হয়েছে ১ কোটি ৩২ লাখ ৭৪ হাজার ৩০০ টাকা এবং সিরাজগঞ্জের সেতু পশ্চিমে ১৪ হাজার ১২১ টি যানবাহন পারাপার হয়েছে, এর বিপরীত টোল আদায় ১ কোটি ৩৪ লাখ ৪৫ হাজার ৯৫০ টাকা।


গত মঙ্গলবার ১১ জুন বঙ্গবন্ধু সেতু দিয়ে ২৪ ঘণ্টায় ছোট-বড় সব মিলিয়ে ২৫ হাজার ৯২৩টি যানবাহন পারাপার হয়। এতে ২ কোটি ৪৮ লাখ ৮৭ হাজার ১০০ টাকা টোল আদায় হয়েছিল।


আরও খবর

রাজধানীর সেতু ভবনে আগুন

বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০২৪




কোটা বাতিল আন্দোলনরত রাবি শিক্ষার্থীরা জেলা প্রশাসকের কাছে স্মারকলিপি প্রদান

প্রকাশিত:রবিবার ১৪ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৩ জুলাই ২০২৪ |

Image

ওবায়দুল ইসলাম রবি - রাজশাহী ব্যুরো প্রধান

আন্দোলনরত রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা সরকারি চাকরির সকল গ্রেডে অযৌক্তিক ও বৈষম্যমূলক কোটা বাতিল করে কোটা পদ্ধতি সংস্কার করার একদফা দাবিতে শান্তিপূর্ণ গণপদযাত্রা ও স্মারক লিপি জমা দিয়েছেন। রাজশাহী জেলা প্রশাসক শামীম আহমেদর কাছে স্মারকলিপি প্রদান ও তাদের সাথে দেখা করে কথা বলায় সন্তুষ্টি প্রকাশ করেন আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা।

পায়ে হেটে প্রায় ৯ কিলোমিটার পথ অতিক্রম করে জেলা প্রশাসকের মেইন গেটের সামনে গেলে কর্তব্যরত পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের থামিয়ে কয়েকজনকে স্মারকলিপি প্রদানের জন্য যাওয়ার অনুরোধ করেন।

রবিবার সকাল ১১ টার সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় লাইব্রেরির সামনে থেকে পদযাত্রা শুরু হয়ে নগরীর তালাইমারি মোড় থেকে রাজশাহী জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে গিয়ে সমবেত হয়। এসময় তারা বিভিন্ন স্লোগান দিয়ে পদযাত্রা বেগমান করে তোলেন। আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের মধ্যে ১৮ জনের প্রতিনিধি দল রাজশাহী জেলা প্রশাসক শামীম আহমেদের সভাকক্ষে যান। এসময় জেলা প্রশাসকের প্রতিনিধিদল শিক্ষার্থীদের সুন্দর পরিবেশে বসার জায়গা করে দেন। কিছুক্ষণ পরই জেলা প্রশাসক শামীম আহমেদ সভাকক্ষে এসে শিক্ষার্থীদের সাথে কথা বলেন এবং মহামান্য রাষ্ট্রপতি বরাবর লিখিত স্মারক লিপি গ্রহণ করে আজকের মধ্যেই তা যথাযথ প্রক্রিয়ায় রাষ্ট্রপতির দপ্তরে পাঠানোর আশ্বাস প্রদান করেন।

ওই সময় শিক্ষার্থীরা দাবি জানান, অনেক শিক্ষার্থী কষ্ট করে পায়ে হেঁটে এসেছেন এই কথাগুলোই আপনি তাদের সামনে গিয়ে বললে আশ্বস্থ হবেন ও তাদের শান্তিপূর্ণ আন্দোলন আরও সুশৃঙ্খল হবে বলে জানান। জেলা প্রশাসক তাদের কথা রাখেন ও মেইন গেটের সামনে গিয়ে কথা বলেন এবং স্মারক লিপি রাষ্ট্রপতির নিকট আজকেই পাঠানোর কথা জানালে তারা উল্লাসিত হয়ে স্লোগান দেন। এছাড়াও জেলা প্রশাসক আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের প্রতি আহ্বান জানান, এই আন্দোলন যাতে কোনো বিশৃঙ্খলায় রুপ না নেয় এবং জানমালের ক্ষতি হয় এমন কোনো কর্মকান্ড থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানান।


আরও খবর



বাংলাদেশকে ১০০ কোটি ডলার দেবে চীন

প্রকাশিত:বুধবার ১০ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ২১ জুলাই ২০২৪ |

Image

অর্থনৈতিক সহযোগিতার অংশ হিসেবে বাংলাদেশকে ১০০ কোটি ডলার প্রদানের ঘোষণা দিয়েছেন চীনের প্রধানমন্ত্রী লি কিয়াং।

বুধবার (১০ জুলাই) পররাষ্ট্রমন্ত্রী হাছান মাহমুদ এতথ্য জানান। তিনি সাংবাদিকদের জানান, বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্ককে চীন সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিচ্ছে বলে জানিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী।

তিনি জানান, বাংলাদেশ ও চীনের সম্পর্ককে নতুন মাত্রায় নিয়ে যাওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন চীনের প্রধানমন্ত্রী।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, সৌহার্দ্যপূর্ণ পরিবেশে বাংলাদেশ ও চীনের মধ্যে সব বিষয়ে ফলপ্রসূ আলোচনা হয়েছে।

ড. হাছান মাহমুদ আরও জানান, ১৯৫২ ও ১৯৫৭ সালে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের চীন সফর এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছয়টি সফরের মধ্য দিয়ে যে সম্পর্কের সূচনা হয়েছিল তা স্মরণ করে লি কিয়াং বলেছেন, আগামী দিনগুলোতে এই সম্পর্ক আরও সম্প্রসারিত হবে।

দুই দেশের মধ্যে কূটনৈতিক সম্পর্কের ৫০ বছর পূর্তি উদযাপনে আগামী বছর বাংলাদেশ সফরের জন্য চীনের প্রেসিডেন্ট, প্রধানমন্ত্রী ও অন্যদের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন শেখ হাসিনা।

কূটনৈতিক সম্পর্কের সুবর্ণজয়ন্তী যথাযথভাবে উদযাপনের ওপর দুই নেতাই গুরুত্বারোপ করেন। রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে চীনের সহযোগিতা কামনা করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এছাড়াও তিনি চীনের সঙ্গে বাণিজ্য ব্যবধান কমানোর ওপর গুরুত্বারোপ করেন। জবাবে চীনে আরও বাংলাদেশি পণ্য আমদানির কথা বলেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী।

এসময় চীনের প্রধানমন্ত্রীকে চামড়াজাত পণ্য, পাটজাত পণ্য, ওষুধ পণ্য ও সিরামিক পণ্য আমদানির অনুরোধ জানান শেখ হাসিনা।

বিশ্বশান্তি প্রতিষ্ঠা ও বিশ্বজুড়ে মানবতা সমুন্নত রাখতে একসঙ্গে কাজ করতে সম্মত হয়েছে দুই দেশ।

চীনা বিনিয়োগকারীদের জন্য বাংলাদেশ একটি রপ্তানি প্রক্রিয়াকরণ অঞ্চল বরাদ্দ করেছে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী ১০০টি বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলে আরও চীনা বিনিয়োগের আমন্ত্রণ জানান।

এছাড়াও ব্রিকসে যেকোনো ফরম্যাটে বাংলাদেশের অন্তর্ভুক্তির কথা উল্লেখ করেন শেখ হাসিনা।


আরও খবর

রাজধানীর সেতু ভবনে আগুন

বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০২৪




নওগাঁয় বিদ্যুৎ পিষ্ট হয়ে এক জনের মৃত্যু

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৫ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৩ জুলাই ২০২৪ |

Image

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন, সিনিয়র রিপোর্টার :

নওগাঁয় বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিটে (বিদ্যুৎ পিষ্ট হয়ে) এক জনের মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার দুপুর আড়াইটার দিকে নওগাঁর মান্দা উপজেলার টিটিহারি গ্রামে এমৃত্যুর ঘটনাটি ঘটে। নিহত আব্দুল গফুর (৪৫) টিটিহারি গ্রামের মৃত নছের উদ্দিনের ছেলে।

নিহতের পরিবার সুত্রে জানা গেছে, নিহত আব্দুল গফুর তার নিজ বাড়ীতে বৈদ্যুতিক কাজ করতে গিয়ে অ-সাবধানতা বশত বৈদ্যুতিক সক লেগে মাটিতে পড়ে অজ্ঞান হয়ে যায় এবং ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। সত্যতা নিশ্চিত করে মান্দা থানার অফিসার ইনচার্জ মোজাম্মেল হক কাজী বলেন, নিহত আব্দুল গফুর তার নিজ বাড়িতে বৈদ্যুতিক লাইনের কাজ করার এক পর্যায়ে অ-সাবধান বশত বৈদ্যুতিক শর্ট-সার্কিটে তার মৃত্যু হয়েছে বলে স্বজনরা জানিয়েছেন। এমৃত্যুর ঘটনায় কেউ কোন অভিযোগ করেন নি। 


আরও খবর



উরুগুয়েকে বিদায় করে ফাইনালে আর্জেন্টিনার সঙ্গী কলম্বিয়া

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১১ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৩ জুলাই ২০২৪ |

Image

মার্সেলো বিয়েলসার অধীনে এবারের কোপা আমেরিকায় দাপুটে ফুটবল খেলেছে উরুগুয়ে। গ্রুপপর্ব থেকেই দুর্দান্ত পারফর্ম করে সেমিফাইনালে জায়গা করেন নেয় দলটি। কোয়ার্টার ফাইনালে ব্রাজিলকে হারানো ফেদে ভালভার্দেরা ফাইনালের টিকিট নিশ্চিতের লড়াইয়ে মাঠে নেমেছিল কলম্বিয়ার বিপক্ষে। জেমস রদ্রিগেজদের বিপক্ষে এই ম্যাচটিতে মুহূর্মুহু ছড়িয়েছে উত্তাপ, দুই দলই ফাউল করায় বারবার কার্ড দেখাতে হয়েছে রেফারিকে। দুই দলের ম্যাচটিতে আজ প্রথমে গোলের দেখা পেয়েছে কলম্বিয়া, তবে বিরতিতে যাওয়ার আগেই লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়তে হয় কলম্বিয়ার ড্যানিয়েল মুনোজকে। কিন্তু প্রতিপক্ষ দশজনের দলে পরিণত হলেও আর গোল শোধ করতে পারেনি বিয়েলসার শিষ্যরা। ফলে ১-০ গোলের জয়ে ফাইনাল নিশ্চিত হয়েছে কলম্বিয়ার।

ফাইনালে উঠার লড়াইয়ে নেমে আজ শুরু থেকেই সমানে সমান লড়াই করেছে দুই দল। ম্যাচে ৬ মিনিটে প্রথম আক্রমণে যায় কলম্বিয়া। তবে জন অ্যারিসের নেয়া শট ঠিকানা খুঁজে পেতে ব্যর্থ হয়। এরপর মিনিট দশেক পর আরও একটিই সুযোগ কাজে লাগাতে ব্যর্থ হন জেফারসন লার্মা।

এদিকে কলম্বিয়ার বিপক্ষে আজ উরুগুয়ে প্রথম আক্রমণে যায় ম্যাচের ১৭ মিনিটে। তবে ডারউইন নুনিয়েজের নেয়া শট চলে যায় পোস্টের বাইরে দিয়ে। এরপর ২৩ মিনিটে আরও একটি সুযোগ কাজে লাগাতে ব্যর্থ হন লিভারপুলের এই তারকা ফুটবলার। ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে নেমে আজ লক্ষ্যভেদ করার আরও বেশ কয়েকটি সুযোগই পেয়েছিলেন তিনি, তবে দলকে এগিয়ে দিতে পারেননি।

এদিকে ম্যাচের ২৬ মিনিটে প্রথম লাল কার্ড দেখেন উরুগুয়ের নিকোলাস দে লা ক্রুজ। এর মিনিট পাচেক পর কলম্বিয়ার ড্যানিয়েল মুনোজকেও হলুদ কার্ড দেখান রেফারি। পরে বিরতিতে যাওয়ার আগে যোগ করা সময়ে আরও একবার কার্ড দেখায় লাল কার্ড পেয়ে মাঠ ছাড়েন তিনি। তবে এর আগেই লিডে দেখা পায় কলম্বিয়া। ম্যাচের ৩৯ মিনিটের সময় ৬ গজ বক্সের বা দিক থেকে লার্মার করা হেডে জালের ঠিকানা খুঁজে পায় বল।

এদিকে প্রথমার্ধে এগিয়ে যাওয়া কলম্বিয়া দ্বিতীয়ার্ধে খেলেছে দশজনের দল নিয়ে। তবে খর্বশক্তির প্রতিপক্ষের বিপক্ষেও আর গোল করতে পারেননি সুয়ারেজরা। এক গোলের লিড পাওয়া কলম্বিয়া দশজনের দল নিয়ে দ্বিতীয়ার্ধে রক্ষণেই মনোযোগী থেকেছে বেশি। ফলে বারবার আক্রমণে গিয়েও জালের দেখা পায়নি উরুগুয়ে।

এদিকে উরুগুয়ের একের পর আক্রমণের মাঝেই পালটা আক্রমণে উরুগুয়ের রক্ষণে ভয় ধরিয়েছে কলম্বিয়া। তবে বেশ কয়েকটি সহজ সুযোগ কাজে লাগাতে ব্যর্থ হওয়ায় শেষ পর্যন্ত আর গলের দেখা পায়নি কলম্বিয়া। এদিকে সুয়ারেজরা শেষ পর্যন্ত গোল করতে না পারায় ১-০ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে কলম্বিয়া।


আরও খবর



ফুলবাড়ীর দৌলতপুর ইউনিয়নে গরু চুরির হিড়িক

প্রকাশিত:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৩ জুলাই ২০২৪ |

Image

মোঃ জাহাঙ্গীর আলম - নিজস্ব প্রতিবেদক ::


দিনাজপুরের ফুলবাড়ি উপজেলার ৬নং দৌলতপুর ইউনিয়নে বেড়েছে চোরের উপদ্রব।  কয়েকটি পাড়াতে গত দুই মাসে ৭টি বাড়ি থেকে চুরি করে নিয়ে গেছে ১৩ টি গরু। তাছাড়া ইউনিয়নের মধ্যে কয়েকটি বাড়িতে চোর প্রবেশ করে কিন্তু বাড়ির লোকজন টের পাওয়ায়  চোরেরা চুরি করার সুযোগ না পেয়ে পালিয়ে যায়।


গত মে মাস হতে জুলাই মাসের ১০ তারিখ পর্যন্ত ইউনিয়নের ৩ নং ৪ নং ও ৯ নং ওয়ার্ডে ৭ টি বাড়িতে চোর প্রবেশ করে মোট ১৩টি গরু বের করে নিয়ে যায়। এরমধ্যে গত ১০ জুলাই ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ডের হড়হড়িয়া গ্রামের জনৈক বাবু মিয়ার বাড়িতে গভির রাতে চোর প্রবেশ করে দুইটি গাভওয়ালা গাভি ও একটি বড়  বকনা গরু বের করে নিয়ে যায় কিন্তু তেজসম্পর্ন বকনা গরুটি চোরদের হাত থেকে ছুটে বড়িতে ফিরে আসে আর বাঁকি গাভি দুটোকে চোরেরা নিয়ে যেতে সক্ষম হয়।


এভাবেই ইউনিয়নে পরতে পরতে হচ্ছে গরু চুরি। গত মে মাস থেকে এই এলাকায় গরুচোরের একটি সঙ্গবদ্ধ দল সক্রিয় হয়ে দৌলতপুর ইউনিয়নে গরু চুরি করছে। প্রথমে এই ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের পলিপাড়ার (নাপিত পাড়া) মৃত রজনী কান্ত রায়ের ছেলে শ্রী অমলচন্দ্র রায়ের বাড়ি হতে ২টি গাভী চুরি করে নিয়ে যায়। কয়েকদিন পর পুর্বপলিপাড়া গ্রামের শ্রী কার্তিক চন্দ্র রায়ের বাড়ি হতে ২টি গাভী নিয়ে যায়। এর কিছু দিন পর আবার পলিপাড়া (নাপিত পাড়া)র শ্রী বিমল চন্দ্র রায়ের বাড়ি হতে ২টি গরু নিয়ে যায়।


আবারও সপ্তাহ পার না হইতেই  পলিপাড়া গ্রামের মোঃ আবুল কাশেমের বাড়িহতে ২টি গরু এরপর দু একদিন পর হড়হড়িয়া পাড়ার মজির হোসেনের বাড়ি হতে ১টি গরু, তার কয়েকদিন পর ৪নং ওয়ার্ডে কুশলপুর (তেলিপাড়া) গ্রামের মৃত দফিরউদ্দিনের ছেলে আলমের বাড়ি হতে ২টি গরু এবং সর্বশেষ জুলাই মাসের ১০ তারিখ দিবাগত রাতে ৯ নং ওয়ার্ডের হড়হড়িয়া পাড়া গ্রামের মোঃ ইউনুস আলীর ছেলে মোঃ বাবুর বাড়ি হতে ২টি গরু নিয়ে যায়।


তাছাড়া কুশলপুর গ্রামের মোঃ কায়েশ চৌধুরীর বাড়ীতে প্রাচির টপকিয়ে প্রবেশ করে চার্জার ভ্যানের ব্যাটারী চুরি করে নিয়ে যায়। এর কয়েকদিন পর একই বাড়িতে বিদ্যুতের মিটার লাঠিদিয়ে বেড়ে ভেঙে দিয়ে সিধ কাটে কিন্তু বাড়ির লোকজন টের পাওয়ায়  চোরেরা পালিয়ে যায়। এরপর দুইদিন পর সীধকাটা এই বাড়িতে রাত্রে একটা চিরকুট লিখে যাদের বাড়ি হতে গরু চুরি হয়েছে তারা সবায় খেটে খাওয়া গরিব ও অসহায় পরিবারের মানুষ। এই পরিবার গুলোর একমাত্র সম্বল ছিল তাদের গরুগুলো। সেই গরুগুলো চুরি হওয়ায় অসহায় পরিবারের মানুষগুলো এখন দিশেহারা।


এভাবে যদি চুরি সংগঠিত হয় বা হতেই থাকে তবে গ্রামাঞ্চলের দরিদ্র অসহায় পরিবারগুলো একমাত্র সম্বল গরু হারিয়ে পথে বসবে অচিরেই। বিষয় টি  নিয়ে ফুলবাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মোস্তাফিজুর রহমানের সঙ্গে সাক্ষাতে এই এলাকার গরু চুরির বিষয় টি  নিয়ে কথা বললে তিনি বলেন, দৌলতপুর ইউনিয়নে গরু চুরির বিষয়ে আমাদের নিকট তথ্য আছে। আমরা দৌলতপুর এলাকাতে গোপনে পুলিশ টহল বৃদ্ধি করেছি যাতেকরে আর যেন কোনো চুরি সংগঠিত নাহয় এবিষয়ে পুলিশি কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছি।


এক ইউনিয়নে পর পর এতগুলো চুরি সংগঠিত হওয়ায় ঐ ইউনিয়নের সংশ্লিষ্ট ৩ নং ওয়ার্ড সদস্য শ্রী স্বপন কুমারের সঙ্গে কথা বললে তিনি বলেন, এবিষয়ে এখনো আনুষ্ঠানিক ভাবে পরিষদ থেকে আমরা কোনো পদক্ষেপ নেইনি তবে গ্রামপুলিশ দিয়ে গ্রামে গ্রামে রাতে বিশেষ পাহারা দেওয়া হচ্ছে।



আরও খবর