Logo
শিরোনাম

বন্যাকবলিত এলাকা পরিদর্শনে সিলেটে প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২১ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

বন্যা কবলিত এলাকা পরিদর্শন করতে সিলেটে পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সকাল ১০টার কিছুক্ষণ আগে প্রধানমন্ত্রী সিলেটের ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করেন বলে সিলেটের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (সার্বিক) দেবজি সিংহ জানান।

দুপুর ১টা পর্যন্ত তিনি সিলেটে নির্ধারিত কর্মসূচিতে অংশ নেবেন।

অতিবৃষ্টিতে উজানের ঢলে সিলেট ও সুনামগঞ্জ অঞ্চলে ভয়াবহ বন্যা দেখা দিয়েছে, যাতে দুর্দশায় পড়েছে প্রায় অর্ধ কোটির মতো মানুষ।  

সিলেটের বিভাগীয় কমিশনার মুহাম্মদ মোশাররফ হোসেন জানান, প্রধানমন্ত্রী বিমানবন্দরে আসার পর সার্কিট হাউজে আসবেন। সেখানে রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ও স্থানীয় প্রশাসনকে বন্যা মোকাবেলায় প্রয়োজনীয় দিক নির্দেশনা দেবেন।


আরও খবর



আল-জাজিরার প্রতিবেদন

পোল্যান্ড বর্ডারের কাছে ন্যাটোর অস্ত্রাগার ধ্বংসের দাবি রাশিয়ার

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৬ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

ইউক্রেনের পশ্চিম লিভিভ অঞ্চলে ন্যাটোর একটি অস্ত্রাগার ধ্বংস করেছে রাশিয়ান সেনারা। রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ইগর কোনাশেনকভ জানিয়েছেন, পোল্যান্ড সীমান্তের কাছে ন্যাটোর ওই অস্ত্রভাণ্ডারটি ধ্বংস করতে দূরপাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবহার করা হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার কাতার ভিত্তিক সংবাদ মাধ্যম আল-জাজিরা এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে। 

রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ইগর কোনাশেনকভ আরও জানিয়েছেন, ইউক্রেনের ওই অস্ত্রভাণ্ডারে আমেরিকার সরবরাহকৃত এম ৭৭৭ হাউইটজারের শেল সংরক্ষণ করা ছিল। সেগুলো ধ্বংস করা হয়েছে। পাশাপাশি চারটি অত্যাধুনিক স্বচালিত কামান ব্যবস্থা ‘হাউইটজার’ও ধ্বংস করা হয়েছে। এছাড়াও বিমান হামলা চালানো হয়েছে ইউক্রেনের দক্ষিণ মাইকোলাইভ অঞ্চলের একটি সামরিক বিমানঘাঁটিতে।

তবে তাৎক্ষণিকভাবে এই হামলা সম্পর্কে কিয়েভ কর্তৃপক্ষ কোনো মন্তব্য করেনি। এদিকে, রাশিয়ার বিরুদ্ধে যুদ্ধরত ইউক্রেনকে আরও এক বিলিয়ন ডলারের সামরিক সহায়তা দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। গতকাল বুধবার এই ঘোষণা দেওয়া হয়। এই সামরিক সহায়তার মধ্যে রয়েছে অত্যাধুনিক ১৮টি স্বচালিত কামান ব্যবস্থা ‘হাউইটজার’, ৩৬ হাজার রাউন্ড গোলাবারুদ ও ১৮টি কৌশলগত যান।

ইউক্রেনের প্রেসিডেন্টের উপদেষ্টা মাইখাইলো পোডোলিয়াক গত সোমবার জানিয়েছেন, রাশিয়ান সেনাদের রুখে দিতে তার দেশের আরও এক হাজার হাউইটজার, ৫০০ ট্যাঙ্ক, এক হাজার ড্রোন এবং আরও ভারী অস্ত্র। অন্যদিকে, প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কি জানিয়েছেন, তার দেশের আরও আধুনিক ক্ষেপণাস্ত্র-বিরোধী সিস্টেমের প্রয়োজন।

প্রসঙ্গত, গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে বিশেষ সামরিক অভিযান পরিচালনা করছে রাশিয়া। এরপর থেকে যুক্তরাষ্ট্রসহ পশ্চিমা দেশগুলো রাশিয়াকে ঠেকাতে ইউক্রেনকে একের পর এক অস্ত্র সহায়তা দিয়ে আসছে। এরই অংশ হিসেবে যুক্তরাষ্ট্র আবারও নতুন করে অস্ত্র সহায়তার ঘোষণা দিয়েছে। সূত্র : আল-জাজিরা 


আরও খবর



ঢাকা-মাওয়া এক্সপ্রেসওয়েতে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৫

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৩ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

শাহ আলম ইসলাম নিতুল:  ঢাকার কেরানীগঞ্জের ঢাকা-মাওয়া এক্সপ্রেসওয়ের সার্ভিস রোডে ভেকু বহনকারী লরি ও সিএনজি অটোরিকশার মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে ঘটনাস্থলেই চারজন নিহত হয়েছেন। আহত অবস্থায় আরও দুজনকে মিটফোর্ড হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে একজন মারা যান। আহত অপরজনের অবস্থাও আশঙ্কাজনক।

বৃহস্পতিবার (২ মে) রাত সোয়া ১২টায় দক্ষিণ কেরানীগঞ্জে ঢাকা-মাওয়া মহাসড়কের তেঘরিয়া এলাকার আর্মি ক্যাম্পের কাছে ভেকু বহনকারী লরিটি আর্মি ক্যাম্পের ভেতর যাওয়ার উদ্দেশ্যে মোড় নিচ্ছিল।

অন্যদিকে একটি সিএনজিচালিত অটোরিকশা ইকুরিয়া থেকে মাওয়া অভিমুখে যাচ্ছিল। উভয় গাড়ির গতি বেশি থাকায় অটোরিকশাটি লরির নিচে চলে যায়। এ সময় অটোরিকশার চালকসহ ছয়জন যাত্রীর মধ্যে ঘটনাস্থলেই চারজন মারা যান। পরে হাসপাতালে নেওয়ার পর একজন চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

নিহতরা হলেন অটোরিকশার চালক মো. তমাল (১৮), যাত্রী জোনায়েদ হোসেন জিহাদ (২৩), নাহিদ হোসেন ফাহিম (২১), মো. সামাদ (২১) ও মো. জনী (২৮)। আহত ব্যক্তির নাম আহাদ (২২)।

এ বিষয়ে হাইওয়ে পুলিশের নারায়ণগঞ্জ সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার অমৃত সূত্রধর বলেন, দুর্ঘটনাকবলিত অটোরিকশা ও লরিটি আমাদের হেফাজতে রয়েছে। তবে লরির চালক ও হেলপার পালিয়ে গেছেন। এ ঘটনায় দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানায় মামলা প্রক্রিয়াধীন।


আরও খবর



যেসব কর্মকর্তারা নির্বাচনকে বিতর্ক করার মিশন নিয়ে নেমেছিল তাদের তদন্ত করতে হবে

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৬ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

কু‌মিল্লা জেলা প্রতিনিধি ঃ

কুমিল্লা মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার এমপি বলেছেন,নতুন নির্বাচন কমিশনের অধীনে প্রথম নির্বাচন ‘কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন’ সফল-সার্থক ভাবে করতে সক্ষম হয়েছে। আমরা এ নির্বাচনকে অত্যন্ত ধৈর্য্যরে সাথে মোকাবেলা করেছি। এতে আপনাদের সন্তান কুমিল্লার বাহার আরেকটি ইতিহাস সৃষ্টি করল বাংলাদেশে। এ সূষ্ঠ নির্বাচনকে বিতর্কিত করতে কিছু অসাধু কর্মকর্তা বিশেষ মিশন নিয়ে নেমেছিল। তারা শুধু নির্বাচন কমিশনকে বিতর্কিত করার পাশাপাশি আন্তরজাতিক ভাবে প্রমাণ করাতে চেয়েছেলি বাংলাদেশে সূষ্ঠু নির্বাচন হয় না। যারা এ কাজ করেছে  তারা হয় স্বাধীনতা বিরোধী লোক নতুবা বিশাল টাকার বিনিময়ে এ কাজ করেছে। এসব অসাধু কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে তদন্ত করতে হবে।

 বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে নবাগত মেয়র-কাউন্সিলরদের পরিচিতি সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন। এসময় নবনির্বাচিত মেয়র মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক আরফানুল হক রিফাত, এমপি বাহারের সহধর্মেনী নারী নেত্রী মেহেরুন্নেসা বাহার, নবনির্বাচিত মেয়র পতœী অধ্যাপিকা ফারহানা হক শিল্পী ,মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আতিকুল্লাহ খোকন, জেলা পরিষদের সাবেক প্যানেল চেয়ারম্যান আবদুল¬াহ আল মাহমুদ সহিদ, আদর্শ সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট আমিনুল ইসলাম টুটুল, জাগ্রত মানবিকতার চেয়ারম্যান তাহসিন বাহার সূচনা ও বিভিন্ন ওয়ার্ড থেকে নব নির্বাচিত কাউন্সিলরগণ, আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

 হাজী বাহার এমপি আরও বলেন, কুমিল্লা সিটি নির্বাচনে সাড়ে তিন হাজার পুলিশ সদস্য কাজ করেছেন। দূর্নীতিগ্রস্থ ৭/৮ জন কর্মকর্তা নির্বাচন নসাৎ করার চেষ্টা করেছে। সব কর্মকর্তা এক রকম না। কুমিল্লা পুলিশ সুপার একজন সৎ মানুষ। তাকে নিয়ে কারো কোন অভিযোগ নেই। আমি ব্যক্তিগতভাবেও তাকে পছন্দ করি। কিন্তু বাতির নিচের অন্ধকার থাকে। এমনই একজন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সোহান সরকার। সে যেখানে নৌকার ব্যাজ পড়া লোক পেয়েছে সেখানে অকারণে নৌকা কর্মীদের পিটিয়েছে। নৌকার ব্যাজ ধরে টানাটানি করেছেন। নৌকার কর্মীদের গালিগালাজ করেছে। আমাদের কর্মীদের পিটিয়ে বেহুশ করে দিয়েছেন। সে একজন ভুয়া মুক্তিযোদ্ধার সন্তান।  এক সময়  তার বিরুদ্ধে তদন্ত হয়েছিল। তখন সে আমার  সরাপন্ন হয়েছিল। এ নির্বাচনে তার কর্মকান্ডে দেখে বুঝলাম সে ভূয়া মুক্তিযুদ্ধার সন্তান। মুুক্তিযুদ্ধের চেতনার মানুষ বিনা কারণে নৌকার ব্যাজ ছিড়তে পারে না। নৌকার কর্মীদের পিটাতে পারেনা। নৌকার কর্মীদের গালাগালি করতে পারে না। তার আবারো তদন্ত হওয়া দরকার। নির্বাচনে কয়েকজন জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্যাট এমন আচরণ করেছে আল্লাহর পরে সবচেয়ে বেশি ক্ষমতা প্রয়োগ করেছে আমাদের সাথে। একজন ম্যাজিস্ট্যাট বিনা কারণে নৌকার চিফ এজেন্ট আতিকুল্লাহ খোকনের সাথে সাথে বাাজে আচরণ করেছে। ভোটারদের হয়রানী করেছেন। নির্বাচনে আচরন বিধি লংঘনের দায়ে ১২ জন লোককে জেল দেওয়া হয়েছে।  সবাই নৌকার লোক। নৌকা ছাড়া একজন লোকও নেই। ৪৫ জন ম্যাজিস্ট্যাট এ কাজ করে নাই। যারা নির্বাচনকে বিতর্কিত করতে চেয়েছিল তাদের তদন্ত করতে হবে। সাক্কু সাব অহেতুক অভিযোগে তিন টা চিঠি দিয়েছিল নির্বাচন কমিশন। চক্রান্ত করে আমার নামে একটা আশালীল ছিঠি ইস্যু করা হয়েছিল নির্বাচন কমিশন থেকে। তারা চক্রান্ত করে কুমিল্লা থেকে ত্যাগ করাতে চেয়েছিল। যেন কুমিল্লায় নির্বাচেেনর পরিবেশ নষ্ট হয়। নির্বাচনে লাশ পড়ে। আমি যদি কুমিল্লায় না থাকতাম তাহলে লাশ পড়ত। আমি সকল কর্মীদের বলেছিলাম তারা ধৈর্য্য ধরে নির্বাচনে কাজ করে। আমরা ধৈর্য্য ধরার কারণে কোন অঘটন ঘটেনি।

এর আগে নবনির্বাচিত মেয়র আরফানুল হক রিফাত মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার ও দলীয় নব-নির্বাচিত কাউন্সিলরদের নিয়ে দলীয় কার্যলয়ের সামনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। বিকেলে নগর উদ্যানে বঙ্গবন্ধুর মূর‌্যালেও শ্রদ্ধা নিবেদন করেন আরফানুল হক রিফাত।


আরও খবর



বাঙালি জাতির সব অর্জন এসেছে আওয়ামী লীগের হাত ধরে: তথ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৩ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, ‘দীর্ঘ ৭৩ বছরের পথচলায় আওয়ামী লীগের হাত ধরেই বাঙালি জাতির সব অর্জন এসেছে।’

বৃহস্পতিবার (২৩ জুন) বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ৭৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে সকালে রাজধানীর ধানমন্ডিতে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ শেষে এ কথা বলেন তিনি।

ড. হাছান বলেন, ‘বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে, সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে বাংলাদেশের স্বাধীনতা অর্জন করেছে। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে, বঙ্গবন্ধুকন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ খাদ্য ঘাটতির দেশ থেকে খাদ্যে উদ্বৃত্তের দেশে, স্বল্পোন্নত থেকে উন্নয়নশীল দেশে উন্নীত হয়েছে। অর্থাৎ বাঙালি জাতির সব অর্জন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের নেতৃত্বেই হয়েছে।’

সম্প্রচারমন্ত্রী বলেন, ‘স্বাধীনতার পর আরো একটি বড় অর্জন হচ্ছে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে, আওয়ামী লীগ সরকারের নেতৃত্বে বিশ্ববেনিয়াদের বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে পদ্মা সেতু নির্মিত হয়েছে। তাই বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ইতিহাস প্রকৃতপক্ষে বাঙালি জাতিরই ইতিহাস। বাঙালি জাতির সমস্ত অর্জনের সাথে জড়িয়ে আছে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ।’

‘অতীতে যেমন সমস্ত ষড়যন্ত্রকে ছিন্ন করে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে বিশেষ করে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ এগিয়ে গেছে, আমরা ইনশাআল্লাহ ২০৪১ সাল নাগাদ সমস্ত ষড়যন্ত্রের জাল ছিন্ন করে আওয়ামী লীগের নেতৃত্বেই বাংলাদেশকে উন্নত সমৃদ্ধ রাষ্ট্রে পরিণত করবো’- প্রত্যয় ব্যক্ত করেন মন্ত্রী হাছান মাহমুদ।



আরও খবর



প্যানেল মেয়র ও তার ভাইয়ের বিরুদ্ধে কবরস্থানের জায়গা দখলের অভিযোগ

প্রকাশিত:সোমবার ১৩ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

উচিংছা রাখাইন, রাঙ্গামাটি  প্রতিনিধি

প্যানেল মেয়র ও তার ভাইয়ের বিরুদ্ধে কবরস্থানের জায়গা দখলের অভিযোগ উঠেছে। রাঙ্গামাটি শহরের রির্জাভ বাজারের পশ্চিমে শরিয়তপুর এলাকায় কবরস্থানের জায়গা দখলের অভিযোগ উঠেছে রাঙ্গামাটি পৌরসভার প্যানেল মেয়র হেলাল উদ্দিনও তার বড় ভাই আলমগীরের বিরুদ্ধে। সোমবার বিকালে ওই এলাকার কবরস্থানের সামনে স্থানীয় প্রতিবাদী জনতা স্থানীয় প্রিন্ট এন্ড ইলেকট্টনিক্স মিডিয়ার সামনে এসব অভিযোগ তুলেন। 

এসময় প্যানেল মেয়র হেলাল উদ্দিন ও তার বড় ভাইয়ের বিরুদ্ধে জায়গা দখলের অভিযোগ এনে স্থানীয় জনতা বলেন, শরিয়তপুরে পূর্বেও হেলাল রাতারাতি ১শতাধিক শ্রমিক নিয়ে রাতের আধাঁরে মন্দিরের জায়গা দখল করে। তারই ধারাবাহিকতায় শরিয়তপুর কবরস্থানের জায়গা দখলের পায়তারা করছেন তারা। এর প্রতিবাদ করতে গিয়ে স্থানীয় লোকজনের বিরুদ্ধে হামলা মামলার হুমকি দিচ্ছে প্যানেল মেয়র হেলাল ও তার বড় ভাই। 

শরিয়তপুর জামে মসজিদের সভাপতি শফি সওদাগর ও স্থানীয় যুবক আবুল হোসেন আরমান বলেন, হেলালের বড় ভাই কবরস্থানের জায়গাটি লঞ্চ মেরামত করার জন্য ভায়া নিয়েছিলেন। পরে সে কবরস্থানের জায়গা দখলের চেষ্টা করেন। আবার বিভিন্ন জনের কাছে বলে বেড়ায় সে জায়গাটি ক্রয় করেছেন।

এব্যাপারে হেলালের বড় ভাইয়ের সাথে স্থানীয় লোকজনের সাথে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে হালকা পাতলা মারধরের ঘটনা ঘটে। বিষয়টি কেন্দ্র করে হেলালের বড় ভাই আমাদের বিরুদ্ধে কোতয়ালি থানায় অভিযোগ করলে থানা থেকে তদন্ত ও আসে। বর্তমানে হেলাল কমিশনার ও তার ভাই এলাকার লোকজনদের বিভিন্ন ভাবে হুমকি ধমকি দিচ্ছে। 

প্যানেল মেয়র হেলাল উদ্দিন বলেন, আমার বড় ভাই ওই জায়গাটি ভাড়া নিয়েছিল বটে। তবে তার সাথে স্থানীয় লোকজনের সাথে বিরোধ সৃষ্টি হয়েছে শুনে তা আমি নিরসনের চেষ্টা করি। কিন্তু ওই এলাকার উত্তেজিত জনতা আমার কথা শুনতে নারাজ। তারা আমার বিরুদ্ধে ও আমার ভাইয়ের বিরুদ্ধে যে সকল কুরুচিপূর্ণ বক্তব্য দিয়েছেন তা সম্পূর্ণ মিথ্যা ও ষড়যন্ত্রমূলক। আমার ভাই ও আমি কবরস্থানের জায়গা জমি দখল করতে যাইনি।


আরও খবর