Logo
শিরোনাম

ব্যবসায়ীকে অস্ত্র দিয়ে ফাঁসানোর অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন

প্রকাশিত:শুক্রবার ২২ এপ্রিল 20২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৩ জুলাই ২০২২ |
Image

অনুপ সিংহ,নোয়াখালী প্রতিনিধিঃ

নোয়াখালীর সোনাইমুড়ী থেকে অস্ত্র উদ্ধার দেখিয়ে পার্শ্ববর্তী বেগমগঞ্জ থেকে এক ব্যবসায়ীকে আটক করে র‍্যাব-৩ কর্তৃক হয়রানির প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেছেন ব্যবসায়ীর স্ত্রী শিল্পী আক্তার ও তার সহোদররা।

বৃহস্পতিবার দুপুরে সোনাইমুড়ী প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে শিল্পী আক্তার জানান,তার স্বামী পার্শ্ববর্তী বেগমগঞ্জ উপজেলার বরইচাতাল বাজারের একজন ব্যবসায়ী ছিলেন।

বিগত ২০ এপ্রিল ইফতার শেষে রাত ৭টার দিকে পারভেজ হোসেনের বাড়ীর সামনের দোকানে গেলে তাকে আটক করেন র‍্যাব-৩ এর সদস্যরা। পরে গভীর রাতে সোনাইমুড়ী উপজেলার বজরা ইউনিয়নের বারাহীনগর গ্রামের পরিত্যক্ত একটি বাড়ি থেকে বিপুল পরিমাণ অস্ত্র উদ্ধার করে সোনাইমুড়ী থানায় র‍্যাব-৩ বাদী হয়ে অস্ত্র আইনে মামলা দায়ের করে।

এই মামলায় আমার নিরপরাধ স্বামীকে গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে প্রেরণ করে। তিনি আরও জানান,আমার স্বামীকে আটকের পর থানায় রেখে রাতভর অমানবিক নির্যাতন চালায় র‍্যাব সদস্যরা। আমার স্বামী বিগত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ওয়ার্ড সদস্য হিসেবে নির্বাচনে অংশগ্রহন করেন। এর প্রতিহিংসায় জের ধরে একটি মহল র‍্যাব সদস্যকে দিয়ে আটক করে মিথ্যা ঘটনা সাজিয়ে হয়রানি করছে।

এঘটনায় তিনি সুষ্ঠ তদন্ত করে প্রশাসনের উর্ধতন কতৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।


আরও খবর



চাঁদাবাজদের বের করে দিতে হবে : ওকা

প্রকাশিত:শনিবার ১১ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

মুন্সী মো: আল ইমরান:   আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, আগামী জাতীয় নির্বাচনে বিজয়ের উপযোগী শক্তি হিসেবে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আধুনিক, ঐক্যবদ্ধ ও সুশৃঙ্খল আওয়ামী লীগ গড়ে তুলতে হবে।

তিনি শনিবার ভোলা জেলা আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে তার বাসভবন থেকে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে দলের নেতাকর্মীদের উদ্দেশে এ কথা বলেন।

শেখ হাসিনা ফিরে এসেছিলেন বলেই স্বৈরাচার হটিয়ে আজ দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠিত হয়েছে উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, তিনি এসেছিলেন বলেই দেশ-বিদেশের সকল ষড়যন্ত্র মোকাবিলা করে স্বপ্নের পদ্মাসেতু আজ নির্মাণ হয়েছে।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা এসেছিলেন বলেই বাংলাদেশ আজ স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নতশীল রাষ্ট্রে পরিণত হয়েছে।

ওবায়দুল কাদের দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, আওয়ামী লীগ কখনো কারো বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করেনি, অথচ আওয়ামী লীগ বারবার ষড়যন্ত্রের শিকার হয়েছে। যারা বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করে ইতিহাস থেকে মুছে ফেলতে চেয়েছিল, আজ তারাই ইতিহাস থেকে মুছে যাচ্ছে।

ঐক্যবদ্ধ আওয়ামী লীগ গড়ে তোলার আহ্বান জানিয়ে ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, দল থেকে সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজদের বের করে দিতে হবে। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগে ভালো লোকের অভাব নেই, তাই খারাপ লোকদের দলে নেওয়া যাবে না।


আরও খবর



রিলিফ নয় নদী খনন ও স্থায়ী নদীতীর রক্ষর বাধ চান লালমনিরহাট বাসি

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৩ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৩ জুলাই ২০২২ |
Image

লালমনিরহাট জেলা প্রতিনিধি ঃ

 কমতে শুরু করেছে তিস্তা ও ধরলার পানি

লালমনিরহাটে চলমান বন্যা পরিস্থিতির খানিকটা উন্নতির পথে তিস্তা ধরলায় বিপদসীমার ৪৫ ও  ৫০ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে পানি বইছে তবে নিচু এলাকার মানুষজন এখনো পানিবন্দি আছে । লালমনিরহাট তিস্তা ধরলা পারেন মানুষজন সরকার কিংবা কোনো ব্যক্তির কাছে রিলিজ স্লিপ চান না তারা চান নদী খনন সহ নদীর পাড় ভাঙ্গন রোধে স্থায়ী বন্দোবস্ত। অপরদিকে বানভাসি সেই সকল মানুষের পয়োনিষ্কাশন সহ বিশুদ্ধ পানির অভাব চরম পর্যায়ে। স্বাস্থ্য বিভাগ ও জনসাস্থ বিভাগের পক্ষ থেকে পানি বিশুদ্ধকরণ ট্যাবলেট কিংবা ভালবাসি ওই এলাকার উঁচু জায়গায় কোথাও গভীর নলকূপ স্থাপন করতে দেখা যায়নি। 

মোগলহাট ইউনিয়নের ভূমিকা গ্রামের বাসিন্দা আমিনা বেগম জানান যে ত্রাণ  মানুষের কোন কাজে আসে না সেই রিলিফ নয় নদী খনন ও স্থায়ী নদীতীর রক্ষর বাধ চান ।

অপরদিকে সরকারি সাহায্যের ১০ কেজি করে চাল কিছুসংখ্যক বানভাসি পরিবার পেলেও এখনো অনেক মানুষ তার আওতায় আসেনি। এছাড়াও চাহিদার চেয়ে অপ্রতুল বরাদ্দ আছে এমনটা অভিযোগ স্থানীয় অনেক জনপ্রতিনিধিদের।  ১০ কেজি করে চাল বরাদ্দ হলেও বানভাসিদের অভিযোগ তারা পাননি শিশুখাদ্যের বরাদ্দ সহ গবাদিপশুর খাবার।

তিস্তার ও ধরলার পানি কমতে শুরু করেছে, আপাতত বন্যার পানি বিপদ সীমার নিচে । নদীপারের নিম্নাঞ্চলের মানুষজন বিশুদ্ধ পানি সহ শিশু গবাদিপশুর খাবার সংকটে রয়েছে। এসকল ভুক্তভোগী নদীপাড়ের মানুষজন বলেন কেউ পাবে কেউ পায় না এমন রিলিফ, সিলিপ নয়,নদী খনন ও ভাঙনরোধে স্থায়ী বন্দোবস্ত চান।


আরও খবর



১২ বছর পর বিচ্ছেদের ঘোষণা দিলেন পিকে-শাকিরা

প্রকাশিত:রবিবার ০৫ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

দীর্ঘ একযুগের সম্পর্কের অবসান ঘটেছে। বিচ্ছেদের ঘোষণা দিয়েছেন জনপ্রিয় পপ গায়িকা শাকিরা এবং তার সঙ্গী তারকা ফুটবল খেলোয়াড় জেরার্ড পিকে। তাদের দুটি সন্তান রয়েছে। বার্তা সংস্থা এএফপি শনিবার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

এক যৌথ বিবৃতিতে সদ্য বিচ্ছেদের পথে হাঁটা এই তারকা জুটি জানান, আমরা দুঃখিত যে আমরা আমাদের বিচ্ছেদের বিষয়টি নিশ্চিত করছি। আমাদের সর্বাধিক অগ্রাধিকার, আমাদের সন্তান। তাদের ভালোর জন্য আমরা আমাদের গোপনীয়তাকে সম্মান জানানোর অনুরোধ করছি।

অবশ্য যতটা সোজাসাপ্টা ভাবে তারা বিচ্ছেদের ঘোষণা দিয়েছেন, বিষয়টা মোটেও ততটা সহজ নয়।  শোনা যাচ্ছে পিকের পরকীয়াই বিচ্ছেদের পর্দা টেনে দিয়েছে এই যুগলের মাঝে। এমনকি বিচ্ছেদের কারণে শাকিরাকে ‘অ্যাংজাইটি অ্যাটাক’ কারণে হাসপাতালে পর্যন্ত যেতে হয়। অ্যাম্বুলেন্সে উঠার সময়ও নাকি জনপ্রিয় এই তারকা কাঁদছিলেন!

পিকে আর শাকিরার গল্পের শুরুটা ২০১০ সালে। সে বছর বিশ্বকাপ ফুটবলের থিম সং গেয়েছিলেন এই পপ তারকা। বিশ্ব আক্রান্ত হয়েছিল শাকিরা জ্বরে। সেই আঁচ লেগেছিল স্প্যানিয়ার্ড ডিফেন্ডার জেরার্ড পিকেরও। ১০ বছরের বড় শাকিরার সঙ্গে প্রণয়ে জড়ান তিনি। এরপর একই ছাদের নিচে কেটে গেছে ১২টি বছর। দুই সন্তানও রয়েছে এই দম্পতির। তবে টান কমে যাবে ভেবে বিয়ের পিঁড়িতে না বসলেও বন্ধনটা শেষমেস টুটেই গেল।

সম্প্রতি শাকিরার একটি গানে তাদের বিচ্ছেদের ইঙ্গিত ছিল। শাকিরা গানের নতুন অ্যালবামের কাজ নিয়ে ব্যস্ত। একটি নাচের অনুষ্ঠানের বিচারকও তিনি। পিকে বার্সেলোনার হয়ে খেলছেন ২০০৮ সাল থেকে। তিনি রক্ষণভাগের ফুটবলার হলেও বার্সেলোনার হয়ে লা লিগায় ২৯টি গোল করেছেন।


আরও খবর

শিশুদের সিনেমায় মিথিলা

শুক্রবার ০১ জুলাই ২০২২




মাংকিপক্স: বিশ্বে আক্রান্ত ছাড়িয়েছে ৭০০

প্রকাশিত:রবিবার ০৫ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

বিশ্বজুড়ে আতঙ্ক ছড়াচ্ছে মাংকিপক্স। সারাবিশ্বে মাংকিপক্সে আক্রান্তের সংখ্যা ৭০০ ছাড়িয়ে গেছে। তবে এ রোগে এখন পর্যন্ত কেউ মারা যায়নি। গতকাল শনিবার যুক্তরাষ্ট্রের সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোলের (সিডিসি) উপপরিচালক জেনিফার ম্যাককুইসটন এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানিয়েছেন।

ওই বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রে এ পর্যন্ত ২১ জনের দেহে মাংকিপক্স শনাক্ত হয়েছে।

তাদের মধ্যে ১৬ জন সমকামী পুরুষ এবং এই ২১ রোগীদের ১৪ জনই আফ্রিকা ভ্রমণে গিয়েছিলেন।

যুক্তরাষ্ট্রে আক্রান্তদের মধ্যে কয়েকজন এরই মধ্যে সুস্থ হয়েছেন। অন্যরাও চিকিৎসার মাধ্যমে সুস্থ হওয়া পথে।

কানাডাতে মোট ৭৭ জন মাংকিপক্সে আক্রান্ত হয়েছে। রোগীদের প্রায় সবাই কানাডার পূর্বাঞ্চলীয় কুইবেক প্রদেশের।

সূত্র: ফ্রান্স২৪, এএফপি।


আরও খবর



কু‌সিক নির্বাচ‌নে ৪ কেন্দ্রে পুনরায় ভোট চেয়ে সাক্কুর আবেদন

প্রকাশিত:বুধবার ২৯ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

কুমিল্লা জেলা প্রতিনিধি ঃ 

কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের ১০৫ কেন্দ্রের শেষ ৪ কেন্দ্রে পুনরায় ভোট নেয়ার আবেদন করেছেন সদ‌্য বিদায়ী মেয়র স্বতন্ত্র প্রার্থী মনিরুল হক সাক্কু। ২৪ জুন প্রধান নির্বাচন কমিশনার বরাবর লিখিত আবেদন করেন তিনি। মঙ্গলবার (২৮ জুন) রা‌তে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সদ‌্য বিদায়ী মেয়র  ব‌হিস্কৃত‌ বিএন‌পিনেতা টেবিল ঘড়ি প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থী মনিরুল হক সাক্কু।

আবেদন পত্রে উল্লেখ করা হয়, নগরীর ৪২, ৭৮, ৭৯ ও ৩৭ নম্বর যথাক্রমে- ভিক্টোরিয়া সরকারি বিদ্যালয় (উত্তর পাশের ত্রিতল ভবন), দিশাবন্দ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় (নতুন ভবন ও পশ্চিম পাশের পুরাতন ভবন), দিশাবন্দ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় (উত্তর পাশের ভবন) ও শালবন বিহার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় (পূর্ব উত্তর পাশের ভবন) সালমানপুর কেন্দ্রের ফলাফল বাতিল ও গেজেট স্থগিত করে পুনরায় ভোটগ্রহণ করার আবেদন করেন তিনি।

তিনি আ‌বেদ‌নে আরো উল্লেখ করেন, ‌১৫ জুন কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের দিন  ৪টা পর্যন্ত ১০৫ টি কেন্দ্র ই.ভি.এম পদ্ধতিতে ভোট গ্রহণ সম্পন্ন হয়। ৪২, ৭৮, ৭৯ ও ৯৭ এই ৪টি কেন্দ্র ব্যতিত সকল কেন্দ্রের ফলাফল ঘোষণা করা হয়। এরপর রিটার্নিং কর্মকর্তা অজ্ঞাত টেলিফোন পেয়ে পাঁচ মিনিটের জন্য সময় চান এবং ফলাফল ঘোষণা স্থগিত করে তিনি তার চেয়ার থেকে উঠে যান। আইন ও নিয়ম বহির্ভূতভাবে বাকী ৪ কেন্দ্রের মেয়র প্রার্থীর ফলাফল ঘোষণা স্থগিত করে কাউন্সিলর পদের ফলাফল ঘোষণা করা হবে বললে আমি ও আমার নির্বাচনী এজেন্টরা প্রতিবাদ করেন। এতে রিটার্নিং অফিসার ভোট গণনার ফলাফল প্রায় ৪৫ মিনিট স্থগিত করে রাখেন।

তিনি সর্বশেষ ঘোষিত উক্ত ৪টি কেন্দ্রের ফলাফল ভুয়া ও কাল্পনিক দাবি করে করে আ‌বেদ‌নে উ‌ল্লেখ ক‌রেন, আমাকে পরাজিত করার জন্য আলাদাভাবে কেন্দ্র ভিত্তিক ১০২, ১০৩, ১০৪ ও ১০৫ ফলাফল ঘোষণা না করে রিটার্নিং কর্মকর্তা একসাথে ঘোষণা করেন। তারপর 

আমি টেবিলঘড়ি প্রতীকের প্রার্থীকে ৪৯হাজার ৯৬৭ ভোট এবং নৌকা প্রতীকের মেয়র প্রার্থী আরফানুল হক রিফাতকে ৫০হাজার ৩১০ ভোট প্রাপ্ত দেখিয়ে তাকে ৩৪৩ ভোটে বেসরকারিভাবে বিজয়ী ঘোষণা করে। যা সম্পূর্ণ অবৈধ ও বেআইনি।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় মনিরুল হক সাক্কু বলেন,‌নির্বাচনে কোন প্রকার আপ‌ত্তি থাক‌লে নির্বাচন ক‌মিশন,রিটা‌নিং কর্মকর্তা ও চট্টগ্রাম বিভাগীয় অ‌ফি‌সে আ‌বেদন কর‌তে হয় আ‌মিও  আ‌বেদন ক‌রে‌ছি। ‌তি‌নি আ‌রো বলেন গেজেট প্রকাশের ৩০ দিনের মধ্যে মামলা করার নিয়ম আছে। আমি মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছি। নির্বাচ‌নের বি‌ভিন্ন অ‌নিয়মগু‌লো তু‌লে ধ‌রে  মামলা করবো।

এ বিষয়ে সি‌টিক‌র্পো‌রেশ‌নের রিটার্নিং কর্মকর্তা শাহেদুন্নবী চৌধুরী বলেন, বিষয়‌টি নির্বাচন কমিশন দেখবে। এবিষয়ে আমার কোন মন্তব‌্য  নেই।


আরও খবর