Logo
শিরোনাম

চুল পড়া দূর করে কফি

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ৩১ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

কফি জনপ্রিয় পানীয়। এক কাপ কফিতে চুমুক দিলেই শরীর হয়ে ওঠে সতেজ। পানীয় ছাড়াও রূপচর্চার ক্ষেত্রেও দারুণ উপকারী এটি।

চুল পড়া এবং খুশকি দূর করতে কফির জুড়ি নেই। সপ্তাহে মাত্র দুবার কফি দিয়ে তৈরি মাস্ক লাগালেই চুলের সমস্যা থেকে মুক্তি মিলবে।

কফিতে বিদ্যমান ক্যাফিন মাথার ত্বক পরিষ্কার রাখতে সাহায্য করে। অ্যান্টিঅক্সিড্যান্টে পরিপূর্ণ কফি চুলের পুষ্টিও জোগায়। চুলের গোড়াকে মজবুত রাখে। ফলে সহজে চুল পড়ে যায় না।

চুল পড়া রোধ করার পাশাপাশি কফি মাথার মৃত কোষ দূর করে। মাথার তালু পরিষ্কার থাকলে অক্সিজেন সরবরাহ ঠিক থাকে। এর ফলে চুলও থাকে সতেজ। আর চুলের স্বাস্থ্যও বজায় থাকে।

যেভাবে তৈরি করবেন কফির মাস্ক

পাঁচ চামচ নারকেল তেলের সঙ্গে দুচামচ কফি পাউডার ভাল করে মিশিয়ে নিন। এই মাস্ক সপ্তাহে দুদিন মাথায় ২০ মিনিট রাখুন। এরপর শ্যাম্পু দিয়ে পরিষ্কার পানি দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন।

একটি লোহার পাত্রে নারকেল তেল নিয়ে অল্প তাপে গরম করুন। এরপর তার মধ্যে কফি পাউডার মিশিয়ে নিন। এই মিশ্রণ চুলে লাগালে চুল সতেজ হয়।

 ছাড়া শুকনো আমলাগুঁড়োঅলিভ অয়েলক্যাস্টর অয়েল আর কফি একসঙ্গে মিশিয়ে নিয়ে চুলের মাস্ক বানিয়ে নিন। এতে কিন্তু খুশকির সমস্যাও কমবে।


আরও খবর



কমনওয়েলথ উইমেন্স ফোরামের সভায় প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা

পরিবারই প্রথম প্রতিষ্ঠান, যা নারী নেতৃত্ব সৃষ্টি ও ক্ষমতায়ন করতে পারে”

প্রকাশিত:সোমবার ২০ জুন ২০22 | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

‘নারী নেতৃত্ব সৃষ্টি করা অত্যন্ত কঠিন। পরিবার থেকেই নারীর নেতৃত্ব তৈরি ও নারীর ক্ষমতায়ন করতে হবে। কারণ পরিবারই প্রথম প্রতিষ্ঠান, যা তাদের কন্যা ও বোনদের মাঝে নেতৃত্ব সৃষ্টি ও ক্ষমতায়ন করতে পারে বলে জানিয়েছেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা।

প্রতিমন্ত্রী ইন্দিরা বলেন, বাংলাদেশে প্রধানমন্ত্রী নারী, স্পিকার নারী, বিরোধী দলীয় নেতা নারী ও সংসদীয় উপনেতা নারী। যা বিশ্বে বিরল উদাহরণ সৃষ্টি করেছে। বাংলাদেশে নারী সচিব, বিচারক, মেজর জেনারেল, বিশ্ব বিদ্যালয়ের ভিসি ও জাতিসংঘের অধীনে বাংলাদেশের নারীরা শান্তি রক্ষা মিশনে দায়িত্ব পালন করছে। বাংলাদেশে মোট চুয়াত্তর জন সংসদ সদস্য আছে যার মধ্যে পঞ্চাশটি আসন নারীদের জন্য সংরক্ষিত। এছাড়া স্থানীয় সরকার পর্যায়ে বিশ হাজার নির্বাচিত নারী জনপ্রতিনিধি রয়েছে। 

আজ (২০ জুন সোমবার) রুয়ান্ডার রাজধানী কিগালিতে অনুষ্ঠিত ৩য় কমনওয়েলথ উইমেন্স ফোরামের প্রথম দিনে ‘উইমেন ইন লিডারশিপ: বিয়ন্ড নাম্বারস’ সেশনে আলোচনায় অংশ নিয়ে প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা এসব কথা বলেন। রুয়ান্ডার রাজধানী কিগালিতে অনুষ্ঠিত দুই দিনব্যাপী সম্মেলনের উদ্বোধন করেন রুয়ান্ডার ফার্স্ট লেডি জেনেট কাগামে (Jeannette Kagame)। স্বাগত বক্তব্য দেন কমনওয়েলথের সেক্রেটারি জেনারেল প্যাট্রিসিয়া স্কটল্যান্ড কিউসি (Patricia Scotland QC)।   

প্রতিমন্ত্রী ইন্দিরা আরো বলেন, নারী নেতৃত্ব সৃষ্টিতে বড় বাধা হলো সামাজিক বাধা ও সচেতনতার অভাব। নারী ক্ষমতায়ন হলে সমাজের সকলে উপকৃত হবে। কারণ নারীরা কর্মক্ষেত্রে অত্যন্ত বিশ্বস্ত ও সৎ। বিশ্বে যেসকল দেশে নারী সরকার প্রধান আছে, সেখানে নারীর ক্ষমতায়ন দ্রুত হচ্ছে। বাংলাদেশ রাজনৈতিক দলে এক তৃতীয়াংশ নারী সদস্য রাখার নির্দেশনা রয়েছে। বাংলাদেশে অর্থনৈতিক কাজে নারীরা অনেক এগিয়েছে এবং চল্লিশ লক্ষ নারী গার্মেন্টস সেক্টরে কাজ করছে। যা রপ্তানী আয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে। 

প্রথম দিনে ‘উইমেন ইন লিডারশিপ: বিয়ন্ড নাম্বারস’ সেশনে যুক্তরাজ্যের চেরী ব্লেয়ার ফাউন্ডশনের প্রতিষ্ঠাতা চেরী ব্লেয়ার ( Cherie Blair), দক্ষিণ আফ্রিকার সমবায় বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী থেম্বেসাইল নকান্ডিমেং ( Thembisile Nkandimeng), যুক্ত্রাজ্যের এমপি হ্যারিয়েট ব্যাল্ডউইন ( Harriet Baldwin), নাইজেরিয়ার অ্যামেরিকান ইউনিভার্সিটির প্রেসিডেন্ট ড. মার্গি এনসাইন ( Margee ensign) ও কমনওয়েলথ লোকাল গভার্নমেন্টের সেক্রেটারি জেনারেল লুসি স্লাক (Lucy Slack) । 

কমনওয়েলথ উইমেন্স ফোরামে কমনওয়েলথভুক্ত দেশের নারী ও জেন্ডার বিষয়ক মন্ত্রী ও প্রতিনিধিসহ পাঁচশত বেশী ডেলিগেট অংশগ্রহণ করছে।কিগালিতে অনুষ্ঠিত দুই দিনব্যাপী কমনওয়েলথ উইমেন্স ফোরামের প্রতিপাদ্য ডেলিভারিং কমন ফিউচার: ট্রান্সফর্মিং জেন্ডার ইক্যুয়ালিটি। এবারের সভায় ‘উইমেন ইন লিডারশিপ: বিয়ন্ড নাম্বারস, উইমেন’স ইকোনমিক এমপাওয়ারমেন্ট: ব্রেকিং ব্রেরিয়ার্স’, ‘এনগেজিং মেন এন্ড বয়েজ: এন্ডিং ভায়োলেন্স এগেইনিস্ট উইমেন এন্ড গার্লস’, ‘জেন্ডার এন্ড ক্লাইমেট চেঞ্জ: ইন্টার‍্যাকশন এন্ড অপারচুনিটিজ ফর প্রগ্রেস’ এবং হিউম্যান ক্যাপিটাল ডেভেলপমেন্ট: বিল্ডিং গার্লস লিডারস ফর টুমোরো’ সেশন অনুষ্ঠিত হবে। উল্লেখ্য যে, ২০১৩ সালে বাংলাদেশে অনুষ্ঠিত ১০ম কমনওয়েলথ উইমেন এ্যাফেয়ার্স মিনিস্ট্রিয়াল মিটিং ও কমনওয়েলথ জেন্ডার এ্যাকশন প্লান মিটিং এ কমনওয়েলথ উইমেন্স ফোরামের প্রস্তাব করা হয় যা পরবর্তীতে কমনওয়েলথ উইমেন্স ফোরাম হিসবে গৃহীত হয়।

প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা সেশন পরবর্তিতে যুক্তরাজ্যের সাবেক প্রদানমন্ত্রী টনি ব্লেয়ারের স্ত্রী ও চেরী ব্লেয়ার ফাউন্ডশনের প্রতিষ্ঠাতা চেরী ব্লেয়ারের সাথে সৌজন্য সাক্ষাত করেন। এ সময় চেরি ব্লেয়ার বাংলাদেশে নারীর ক্ষমতায়নে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নেতৃত্বের ভূয়সী প্রশংসা করেন। তিনি যুক্তরাজ্য লেবার পার্টির এমপি, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা’র ভাগ্নী ও শেখ রেহানার কন্যা টিউলিপ সিদ্দিক’র নেতৃত্বেরও প্রশংসা করেন। তিনি বাংলাদেশে নারীর ক্ষমতায়ন ও নারীর অগ্রগতি পর্যবেক্ষণের জন্য নিকট ভবিষ্যতে বাংলাদেশ সফর করবেন বলে আগ্রহ প্রকাশ করেন ও বাংলাদেশকে যুক্ত্রাজ্যের ঘনিষ্ঠ বন্ধু রাষ্ট্র হিসবে উল্লেখ করেন।


আরও খবর



নোয়াখালীতে অটোরিকশা চোর চক্রের ৯ সদস্য কারাগারে

প্রকাশিত:সোমবার ২০ জুন ২০22 | হালনাগাদ:শুক্রবার ০১ জুলাই ২০২২ |
Image

অনুপ সিংহ,নোয়াখালী প্রতিনিধিঃ

নোয়াখালীতে আন্তঃজেলা অটোরিকশা চোর চক্রের ৯সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন র‌্যাব-১১। এ সময় গ্রেপ্তারকৃতদের কাছ থেকে ৪টি ব্যাটারি চালিত অটোরিকশা,১৫টি ১২ ভোল্টের ব্যাটারি, চোরাই অটোরিকশা বিক্রয়লব্দ নগদ ষোল হাজার টাকা উদ্ধার করা হয়।

 গ্রেপ্তারকৃতরা হচ্ছেন, চৌমুহনী পৌরসভা ৪নম্বর ওয়ার্ডের মো.মঈন (৩২) মো.ফারুক (২৬) মো.সোহেল (৩৯) মো.পলাশ (৩৬) সোলাইমান ভুট্টু (৪০) মো.কামরুল হোসেন টিপু (২৬) মো.শাহাদাত হোসেন রিপন (৪৫) মো. আহসানুজ্জামান ফয়সাল (৩৫) মো. আ.আরশাদ (২৯)।

গতকাল রোববার (১৯ জুন) ভোর রাতে চৌমুহনী পৌরসভার বিভিন্নস্থানে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করে র‌্যাব।

র‌্যাব-১১, সিপিসি-৩, নোয়াখালী ক্যাম্পের কোম্পানী কমান্ডার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার খন্দকার মো.শামীম হোসেন এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য নিশ্চিত করেন।

ওই বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ১৩ জুন দুপুর ২টার দিকে চৌমুহনী পৌরসভা ডেলটা গেইট সংলগ্ন এলাকা থেকে অটোরিকশা চালক গিয়াস উদ্দিন (৪০) যাত্রী মোরশেদকে অটোরিকশায় করে  চৌমুহনী পৌরসভার সামনে নিয়ে যায়। কিছুক্ষণ পরে পৌরসভার সামনে থেকে আসামি মঈন রিকশায় উঠে আলীপুর কন্ট্রাক্টর মসজিদের নিকট যাওয়ার জন্য ভাড়া করে। দুপুর আড়াইটার দিকে পৌরসভার ১নম্বর ওয়ার্ডের কন্ট্রাক্টর মসজিদের পশ্চিম পাশে যাওয়ার পর পলাতক আসামি মোরশেদকে গিয়াস উদ্দিন দেখতে পায়। তখন মঈন অটোরিকশা থেকে নেমে তাদের আরো ৩ জন লোক পৌরসভার সামনে যাবে বলে অপেক্ষা করতে বলে। তখন চালকের  প্রাকৃতিক ডাকে সাড়া দেওয়ায় শৌচাগারে গেলে মো.মঈন, ফারুক, সোহেল, পলাশ ও পলাতক আসামি মোরশেদ তার অটোরিকশা নিয়া দ্রুতগতিতে পালিয়ে যায়।  

র‌্যাব জানায়, গ্রেপ্তারকৃত আসামিরা অটোরিকশা চোর সিন্ডিকেটের সক্রিয় সদস্য হিসেবে তারা দীর্ঘদিন যাবত ফেনী, নোয়াখালী, লক্ষ্মীপুর জেলা হতে অটোরিকশা চুরি করে। এরপর সোলাইমান ভুট্টুর গ্যারেজে রাতারাতি অটোরিকশার আকার, আকৃতি, রং ও অন্যান্য পরিবর্তন সাধন করে নতুন অটোরিকশায় পরিনত করে অধিক মূল্যে বিক্রয় করে। গ্রেপ্তারকৃত আসামিদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য অভিযোগকারী মো. গিয়াস উদ্দিন বেগমগঞ্জ থানায় বাদী হয়ে এজাহার দায়ের করেন।


আরও খবর



পদ্মা সেতু উদ্বোধনের দিন সতর্ক থাকার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

প্রকাশিত:বুধবার ০৮ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

আওয়ামী লীগের মতবিনিময় সভায় পদ্মা সেতু উদ্বোধনের দিন নেতাকর্মীদের নেতাকর্মীদের সতর্ক থাকার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বুধবার (৮ জুন) বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে পদ্মা সেতু উদ্বোধন উপলক্ষে দক্ষিণাঞ্চলের জনপ্রতিনিধিদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় এক ক্ষুদেবার্তায় (এসএমএস) তিনি এ নির্দেশ দেন।

সভায় প্রধানমন্ত্রীর এ ক্ষুদেবার্তা পড়ে শোনান আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী আপনাদের জন্য একটি মেসেজ দিয়েছেন। আমি পড়ে শোনাচ্ছি। প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, সবাই যেন সাবধানে চলাফেরা করে। গাড়ি যেন ওভারটেক না করে। ভলান্টিয়াররা সক্রিয় থাকবে। ষড়যন্ত্র তো আছেই। কোনো দুর্ঘটনা আনন্দ মাটি করে দিতে পারে। সাবধানে থাকতে হবে।

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের সভাপতিত্বে সভায় দক্ষিণাঞ্চলের শীর্ষ নেতৃবৃন্দ ও জনপ্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

আগামী ২৫ জুন সকাল ১০টায় পদ্মা সেতু উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ওইদিন বেলা ১১টায় কাঁঠালবাড়ি প্রান্তে সমাবেশ করবে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ছাড়াও দিনব্যাপী সেখানে নানান আয়োজন থাকবে।

পদ্মা সেতু উদ্বোধনের দিন আওয়ামী লীগের এ সমাবেশে ১০ লাখের বেশি মানুষের সমাগম ঘটবে বলে প্রত্যাশা করছে ক্ষমতাসীন দলটি।

এরই মধ্যে পদ্মা সেতু দিয়ে পারাপারের জন্য অনুমোদিত যানবাহনের টোল নির্ধারণ করেছে সরকার। পদ্মা সেতু পারাপারে মোটরসাইকেলে ১০০ টাকা, কার ও জিপে ৭৫০ টাকা, পিকআপে এক হাজার ২০০ টাকা, মাইক্রোবাসে এক হাজার ৩০০ টাকা টোল পরিশোধ করতে হবে। বাসের ক্ষেত্রে ছোট বাস (৩১ আসন) এক হাজার ৪০০ টাকা, মাঝারি বাস (৩২ আসন বা এর বেশি) দুই হাজার টাকা, বড় বাসকে (থ্রি-এক্সেল) দুই হাজার ৪০০ টাকা টোল দিতে হবে।

এছাড়া ছোট ট্রাককে (পাঁচ টন পর্যন্ত) এক হাজার ৬০০ টাকা, মাঝারি ট্রাকে (পাঁচ টনের বেশি ও সর্বোচ্চ আট টন পর্যন্ত) দুই হাজার ১০০ টাকা, মাঝারি ট্রাক (আট টনের বেশি ও সর্বোচ্চ ১১ টন) দুই হাজার ৮০০ টাকা, ট্রাকে (থ্রি-এক্সেল পর্যন্ত) পাঁচ হাজার ৫০০ টাকা, ট্রেইলার (ফোর-এক্সেল পর্যন্ত) ছয় হাজার টাকা। ট্রেইলার (ফোর-এক্সেলের অধিক) ছয় হাজারের সঙ্গে প্রতি এক্সেলের জন্য এক হাজার ৫০০ টাকা যুক্ত হবে।


আরও খবর



ডাক্তারের অবহেলায় গৃহবধূর মৃত্যু

প্রকাশিত:সোমবার ০৬ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

অনুপ সিংহ,নোয়াখালী প্রতিনিধিঃ

নোয়াখালীর সেনবাগ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ডাক্তারের অবহেলার এক গৃহবধূর মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। পরে এ ঘটনায় প্রতিবাদে নিহতের স্বজনরা ক্ষিপ্ত হয়ে হাসপাতালে অক্সিজেন কক্ষ ভাংচুর  ।

নিহত জেসমিন আক্তার (৩২) উপজেলার মোহাম্মদপুর গ্রামের বাহার উল্ল্যার স্ত্রী।  

গতকাল রোববার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে সেনবাগ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গতকাল রোববার দুপুর ৩টার দিকে অসুস্থ অবস্থায় জেসমিনকে সেনবাগ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে স্বজনরা।একপর্যায়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সন্ধ্যার দিকে মারা যান তিনি। কিন্তুু নিহতের স্বজনদের দাবি কর্তব্যরত চিকিৎসকের অবহেলায় তার মৃত্যু হয়েছে।এতে রোগীর স্বজনরা ক্ষিপ্ত হয়ে হাসপাতালে অক্সিজেন কক্ষ ভাংচুর করে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের জন্য হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ সেনবাগ থানায় খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। পরে নিহতের স্বজনদের কাছে লাশ হস্তান্তর করা হয়।

অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে সেনবাগ উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. মো. মহিবুস সালাম খান বলেন,আমি একটি মিটিংয়ে আছি। এ বিষয়ে পরে কথা বলব। 

সেনবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.ইকবাল হোসেন পাটোয়ারী বলেন,দীর্ঘদিন থেকে ওই গৃহবধূ জ্বরে ভূগছিলেন।  এর আগেও নাকি তাঁর স্বজনরা তাকে দুইবার সেনবাগ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে নিয়ে যায়। নিহতরে স্বজনদের অভিযোগ সঠিক চিকিৎসা না পাওয়ায় হাসপাতালে ভর্তির দুই ঘন্টায় মাথায় রোগী মারা যায়।  

ওসি আরো জানায়,তবে এ ঘটনায় নিহতের পরিবার কোন লিখিত অভিযোগ দেয় নি।    

 এ বিষয়ে নোয়াখালীর সিভিল সার্জন ডা. মাসুম ইফতেখারের বক্তব্য,এ ঘটনায় তিন সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি ঘটন করা হয়েছে।  তদন্ত কমিটির রিপোর্ট হাতে পেলে এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


আরও খবর



সারাদেশে চলছে ভিটামিন ‘এ’ ক্যাম্পেইন

প্রকাশিত:বুধবার ১৫ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

আজ থেকে শুরু হয়েছে ভিটামিন ‘এ’ ক্যাম্পেইন। স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের অধীনে জাতীয় পুষ্টি সেবার (এনএনএস) সার্বিক ব্যবস্থাপনায় আজ থেকে চার দিনব্যাপী দেশ জুড়ে চলবে এ ক্যাম্পেইন।

জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইনে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত ৬-১১ মাস বয়সী শিশুদের ১ লাখ আইইউ মাত্রার একটি নীল ক্যাপসুল এবং ১২-৫৯ মাস বয়সী শিশুদের ২ লাখ আইইউ মাত্রার একটি লাল ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে।

দেশের সব ইপিআই কেন্দ্র এবং স্থায়ী স্বাস্থ্যকেন্দ্রগুলোয় চার দিন ক্যাম্পেইন পরিচালিত হবে। নির্ধারিত ইপিআই শিডিউল অনুযায়ী প্রত্যেক ওয়ার্ডের (পুরোনো) আটটি সাব-ব্লকে সপ্তাহের চার কর্মদিবসে নির্ধারিত ইপিআই কেন্দ্রে পর্যায়ক্রমে স্বাস্থ্য সহকারী, পরিবার কল্যাণ সহকারী ও স্বেচ্ছাসেবী কর্তৃক উদ্দিষ্ট শিশুদের ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে।

তাছাড়া কমিউনিটি ক্লিনিক ও অন্যান্য সরকারি স্বাস্থ্যসেবা কেন্দ্রে শিশুদের ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে। পৌরসভা ও সিটি করপোরেশন এলাকায়ও ইপিআই কেন্দ্রগুলোয় এ কার্যক্রম পরিচালিত হবে।



আরও খবর