Logo
শিরোনাম

ড. কামালের নেতৃত্বে গণফোরামের নতুন কমিটি

প্রকাশিত:রবিবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ |
Image

ড. কামাল হোসেনকে সভাপতি ও ডা. মো. মিজানুর রহমানকে সাধারণ সম্পাদক করে গণফোরামের ১০১ সদস্যের নতুন কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে।

কমিটিতে সভাপতি পরিষদ সদস্য হয়েছেন এ এইচ এম খালেদুজ্জামান, ড. কামাল হোসেন, মফিজুল ইসলাম খান কামাল, এস এম আলতাফ হোসেন, মোকাব্বির খান, আবদুল আজিজ, শান্তিপদ ঘোষ, আ ও ম শফিকউল্লাহ, মেজবাহ উদ্দীন আহমেদ, মোমেন চৌধুরী, মোশতাক আহমেদ, ডা. আব্দুল্লাহ আল-মাহমুদ, সেলিম আকবর, সুরাইয়া বেগম, আবদুর রহমান জাহাঙ্গীর, হারুনুর রশীদ তালুকদার, ইসমাইল হোসেন ও ফরিদা ইয়াছমিন।

কোষাধ্যক্ষ হয়েছেন শাহ মো. নূরুজ্জামান। যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক দুজন হলেন মো. মাহফুজুর রহমান ও শফিউর রহমান খান বাচ্চু। সাংগঠনিক সম্পাদক হয়েছেন অধ্যক্ষ মো. ইয়াছিন। দপ্তর সম্পাদক জহিরুল ইসলাম জহির এবং প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক হয়েছেন এম এ ওয়াহাব।

তথ্য ও গণমাধ্যম সম্পাদক নাজমুল ইসলাম সাগর, শিক্ষা ও প্রশিক্ষণ সম্পাদক অধ্যাপক বকুল ইমাম, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সম্পাদক মোমেনা আহমেদ মুমু, সংস্কৃতি সম্পাদক ড. নীলিমা পারভীন, আইন ও মানবাধিকার সম্পাদক অ্যাডভোকেট শরিফুল ইসলাম সজল, যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক তৌফিকুল ইসলাম পলাশ, আন্তর্জাতিকবিষয়ক সম্পাদক মো. নবাব আলী, কৃষিবিষয়ক সম্পাদক আবদুর রাজ্জাক (নওগাঁ), শ্রমবিষয়ক সম্পাদক রফিকুল ইসলাম রতন (গাজীপুর), নারীবিষয়ক সম্পাদক সাহিদা ইসলাম শিল্পী (ঢাকা), সমাজসেবা সম্পাদক করা হয়েছে মো. আলী লালকে।

সংবাদ সম্মেলনে ড. কামাল বলেন, দেশের নির্বাচনী ব্যবস্থা আজ ধ্বংসপ্রাপ্ত ও প্রশ্নবিদ্ধ। অধিকাংশ দলের আপত্তি সত্ত্বেও ইসি ১৫০ আসনে ইভিএমে ভোটের প্রস্তুতি নিচ্ছে, তা এক ভয়ঙ্কর অশনিসংকেত।

তিনি বলেন, দেশ বর্তমানে গভীর রাজনৈতিক সংকটে নিমজ্জিত। গণতন্ত্র আজ নির্বাসিত, স্বৈরাচারী সরকারের গণবিরোধী কর্মকাণ্ডের কারণে দেশে চরম অরাজক পরিস্থিতি বিরাজ করছে। দেশের অর্থনৈতির আজ চরম দুরবস্থা। আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি ভেঙে পড়েছে। শান্তিপূর্ণ রাজনৈতিক কর্মসূচি পালনও অসম্ভব হয়ে পড়েছে।

দেশের টাকা দুর্নীতি হয়ে পাচার হচ্ছে উল্লেখ করে ড. কামাল আরও বলেন, রাষ্ট্রে যারা দায়িত্বে আছেন, তারা দায়িত্ব পালনে ব্যর্থ হচ্ছেন। সবাই মিলে এ রাষ্ট্রকে বাঁচাতে হবে। দেশকে বাঁচানোর সবচেয়ে বড় সুযোগ হচ্ছে একটি সত্যিকারের স্বাধীন ও নিরপেক্ষ নির্বাচন।


আরও খবর

পুলিশের পক্ষে বললেন খামেনি

মঙ্গলবার ০৪ অক্টোবর ২০২২




উত্তর কোরিয়া থেকে অস্ত্র নেবে রাশিয়া

প্রকাশিত:বুধবার ০৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ |
Image

ইউক্রেনে চলমান যুদ্ধের জন্য উত্তর কোরিয়ার কাছ থেকে কয়েক লাখ রকেট ও কামানের গোলা কেনার প্রক্রিয়ায় রয়েছে রাশিয়া। যুক্তরাষ্ট্রের গোয়েন্দা সংস্থার পক্ষ থেকে এমন তথ্য জানানো হয়েছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক মার্কিন কর্মকর্তা বলেছেন, রপ্তানি নিয়ন্ত্রণ ও নিষেধাজ্ঞার কারণে ইউক্রেনে সরবরাহ ঘাটতিতে পড়েছে রাশিয়া। বিচ্ছিন্ন উত্তর কোরিয়ার দ্বারস্থ হওয়াতে এটিই প্রমাণিত হচ্ছে। মার্কিন গোয়েন্দা কর্মকর্তারা মনে করছেন, ভবিষ্যতে উত্তর কোরীয় সামরিক সরঞ্জামের দিকে ঝুঁকতে পারে রাশিয়া। তবে কী পরিমাণ অস্ত্র উত্তর কোরিয়ার কাছ থেকে কিনতে চাইছে মস্কো, তা নিয়ে বিস্তারিত কিছু জানাননি তারা। এর আগে আগস্ট মাসে, ইরানে নির্মিত ড্রোনের চালান গ্রহণ করেছে রাশিয়া।  


আরও খবর

চিকিৎসাবিজ্ঞানের নোবেল ঘোষণা

মঙ্গলবার ০৪ অক্টোবর ২০২২




ইটনায় শারদীয় দুর্গাপূজা মন্ডপ পরিদর্শনে ডিসি মোহাম্মদ শামীম আলম

প্রকাশিত:রবিবার ০২ অক্টোবর 2০২2 | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ |
Image

মোজাহিদ সরকার, কিশোরগঞ্জ ঃ

কিশোরগঞ্জের হাওর উপজেলা ইটনায় শারদীয় দুর্গাপুজোর মন্ডপ পরিদর্শন করেছেন কিশোরগঞ্জ জেলা প্রশাসক ও বিজ্ঞ জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ শামীম আলম। 

০২ অক্টোবর (রবিবার) সকালে তিনি ইটনা উপজেলার সদর ইউনিয়নের দুর্গাপুজোর মন্ডপে মন্ডপে গিয়ে সার্বিক দিক খোঁজ খবর নেন এবং পূজা উদযাপন কমিটির সাথে মতবিনিময় করেন। 

দুর্গাপুজোর উদযাপনে যেন কোন রকম সমস্যা না হয় সেই দিকে কঠোর নজরদারির জন্য উপজেলা প্রশাসন কে নির্দেশ করেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শামীম আলম। 

পূজা মন্ডপ পরিদর্শনকালে আরও উপস্থিত ছিলেন ইটনা উপজেলা নির্বাহী অফিসার নাফিসা আক্তার, সহকারী পুলিশ সুপার(অষ্টগ্রাম সার্কেল) সামুয়েল সাংমা, ইটনা থানার অফিসার ইনচার্জ কামরুল হাসান মোল্লা, কিশোরগঞ্জ জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি দোলন ভৌমিক, কিশোরগঞ্জ জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক প্রদীপ কুমার সরকার, কিশোরগঞ্জ জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সহ-সভাপতি নারায়ন দত্ত প্রদীপ, পূজা উদযাপন পরিষদ ইটনা উপজেলা শাখার সভাপতি তাপস রায় এবং সাধারণ সম্পাদক কৌশিক দেব নাথ জয় সহ উপজেলা সংবাদকর্মীবৃন্দ। 

ইটনা সদর ইউনিয়নের পূজা মন্ডপ পরিদর্শন শেষে কিশোরগঞ্জ জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শামীম আলম মিঠামইন ও অষ্টগ্রাম উপজেলার পূজা মণ্ডপ পরিদর্শন করেন। 


আরও খবর



নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন বাজেট ঘোষণা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০22 | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ |
Image

বুলবুল আহমেদ সোহেল ঃ

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন রাজস্ব ও উন্নয়নসহ প্রায় ৫৮৮ কোটি ৬৯ লাখ ১০ হাজার ৬৩৮ টাকা টাকার বাজেট ঘোষণা করেছেন মেয়র ডা: সেলিনা হায়াৎ আইভী। মঙ্গলবার দুপুরে আলী আহাম্মদ চুনকা নগর সিটি পাঠাগার মিলনায়তনে মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী এই বাজেট ঘোষণা করেন। এসময় নগরীর বিশিষ্ট জন ও সাংবাদিকগণ উপস্থিত ছিলেন। বাজেট  ঘোষণা শেষে নাগরিক ও সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাব দেন মেয়র আইভী।

মেয়র আইভী বলেন, করোনা মহামারির কারণে গত অর্থবছরের চেয়ে  চলতি অর্থ বছরে এক শত কোটি টাকা বাজেট কম ধরা হয়েছে। মেয়র বলেন, প্রস্তাবিত বাজেটের মোট ৫৫৯ কোটি ৪৫ লাখ ২৬ হাজার ৪৭৯ টাকা ব্যয় ধরা হয়েছে। উদ্বৃত্ত থাকবে ২৯ কোটি ২৩ লাখ ৮৪ হাজার১৫৯ টাকা।

মেয়র আইভী জানান, বিশেষ বরাদ্দ রাখা হয়েছে রাস্তা, ড্রেন ব্রীজ, কালভর্ট নির্মাণ, বৃক্ষ রোপন, দারিদ্র বিমোচন, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা,জরুরি ত্রাণ, তথ্য-প্রযুক্তি, দশিক্ষা,স্বাস্থ্য, যানজট নিরসন, জলাবদ্ধতা দূরীারণ, মশক নিধন,বর্জ্য ব্যবস্থাপনা আধুনিকিকরণ, খেলাধূলার মানোন্নয়নে মাঠ নির্মাণ, স্ট্রীট লাইট স্থাপন ও সুপেয় পানি সরবরাহ।


আরও খবর

কল্যাণপুরে ভবনে ফাটল

রবিবার ০২ অক্টোবর 2০২2

কিশোর গ্যাং আতঙ্কে রাজধানী

শনিবার ০১ অক্টোবর ২০২২




মির্জাগঞ্জে সংখ্যালঘু পরিবারের ঘর ভেঙ্গে জমি দখলের অভিযোগ

প্রকাশিত:বুধবার ০৫ অক্টোবর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ |
Image

মির্জাগঞ্জ (পটুয়াখালী) প্রতিনিধিঃ

পটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জে এক সংখ্যালঘু পরিবারের ঘর ভেঙ্গে জমি দখলের চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে।  বুধবার (৫ সেপ্টেম্বর) সকালে উপজেলার দেউলী সুবিদখালী ইউনিয়নের ডোকলাখালি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ ব্যাপারে বুধবার ভুক্তভোগী পরিবার মির্জাগঞ্জ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

উপজেলার দেউলী সুবিদখালী ইউনিয়নের ডোকলাখালী গ্রামের আলতাফ হাওলাদার, জসিম ও আরিফসহ একাধিক ব্যক্তির নামে এ অভিযোগ করা হয়। 

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, উপজেলার ডোকলাখালী গ্রামের দিনমজুর সঞ্জয় চন্দ্র হাওলাদারের পিতা  মৃত- রাখাল চন্দ্র হাওলাদারের কাছ থেকে ডোকলাখালি মৌজার ১৩৫ নং খতিয়ান এর ৪৬ শতাংশ জমি ক্রয় করেন একই গ্রামের আলতাফ হাওলাদার গংরা। 

স্থানীয় কয়েকজন বাসিন্দা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন,প্রভাবশালী হওয়ায় এলাকায় তাদের ভয়ে  কেউ কথা বলতে সাহস পায় না। 

রাখাল চন্দ্রর মৃত্যু  পরে  অভিযুক্তরা তাদের ক্রয়কৃত সম্পত্তি ভোগ দখল না করে দিন মজুর সঞ্জীব এর বাড়ির সামনের অন্য খতিয়ানের ৬ শতাংশ জমি অবৈধভাবে জোর পূর্বক দখল করে ভোগ দখল করার পাঁয়তারা করতে ৪-৫ দিন পূর্বে ওই জমিতে  বালু ফেলে ভরাট করে এবং জমিতে পূর্বের নির্মানধীন একটি টিনের ঘর ভাংচুর করে। এসময় বাঁধা দিলে ভুক্তভোগী পরিবারের লোকজনকে মারপিট করে  সঞ্জয়ের মা ভিবা রানীর গলায় থাকা চার আনা ওজনের একটি স্বর্ণের চেইন নিয়া যায় অভিযুক্তরা। 

ভুক্তভোগী সঞ্জীব হাওলাদার আরও অভিযোগ করেন,

ওই জমির কাছে গেলে তাদের খুন জখম করার হুমকি প্রদান করেন অভিযুক্তরা।

এ ব্যাপারে সরেজমিনে ও মুঠোফোনে অভিযুক্তদের সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তাদের  পাওয়া যায়নি।

মির্জাগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ার হোসেন তালুকদারের সাথে কথা বলতে তার মুঠো ফোনে একাধিকবার কল করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।


আরও খবর



সিলেট সিটিতে ১০৪০ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা

প্রকাশিত:সোমবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ |
Image

সিলেট সিটি করপোরেশন (সিসিক) ২০২২-২২ অর্থবছরের জন্য ১০৪০ কোটি ২০ লাখ ৪৩ হাজার টাকা আয় ও সমপরিমাণ টাকা ব্যয় ধরে বাজেট প্রণয়ন করা হয়েছে।

সোমবার দুপুর ১২টায় নগরীর আরামবাগ এলাকার আমানউল্লাহ কনভেনশন সেন্টারে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে বাজেট ঘোষণা করেন সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী।

বাজেট ঘোষণার সময় মেয়র বলেন- সিলেট নগরের নাগরিকবৃন্দকে অধিকতর সুযোগ সুবিধা ও সেবা প্রদান নিশ্চিত করার লক্ষ্যকে সামনে রেখে এবার সর্বমোট ১০৪০ কোটি ২০ লাখ ৪৩ হাজার টাকা আয় ও সমপরিমাণ টাকা ব্যয় ধরে বাজেট প্রণয়ন করা হয়েছে।

বাজেটে উল্লেখযোগ্য আয়ের খাত গুলো হলো- হোল্ডিং ট্যাক্স ৪৫ কোটি ২ লাখ ২৮ হাজার টাকা, স্থাবর সম্পত্তি হস্থান্তরের ওপর কর ১৬ কোটি টাকা, ইমারত নির্মাণ ও পুনর্নির্মাণের ওপর কর ২ দুই কোটি টাকা, পেশা ব্যবসার ওপর কর ৮ কোটি ৫০ লাখ টাকা, বিজ্ঞাপনের ওপর কর ১ কোটি ২০ লাখ টাকা, বিভিন্ন মার্কেটের দোকান গ্রহীতার নাম পরিবর্তনের ফি ও নবায়ন ফিস বাবদ ৮০ লাখ টাকা, ঠিকাদারি তালিকাভূক্তি ও নবায়ন ফি বাবদ ৩০ লাখ টাকা, ল্যাব টেস্ট ফিস বাবদ ৬০ লাখ টাকা, বাস টার্মিনাল ইজারা বাবদ আয় ১ কোটি ৭০ লাখ টাকা, ট্রাক টার্মিনাল ইজারা বাবদ আয় ৮ লাখ ৫০ হাজার টাকা, খেয়াঘাট ইজারা বাবদ ১৮ লাখ ৫০ হাজার টাকা, সিটি কর্পোরেশনের সম্পত্তি ও দোকান ভাড়া বাবদ ৪ কোটি ৫০ হাজার টাকা, রোড রোলার ভাড়া বাবদ আয় ৫০ লাখ টাকা, রাস্তা কাটার ক্ষতিপূরণ বাবদ আয় ৩০ লাখ টাকা, বর্জ্য ব্যবস্থাপনা খাতে আয় ১ কোটি ২০ লাখ টাকা, দক্ষিণ সুরমা শেখ হাসিনা শিশু পার্কের টিকিট বিক্রয় থেকে আয় ৮০ লাখ টাকা, পানির সংযোগ লাইনের মাসিক চার্জ বাবদ ৬ কোটি ৫০ লাখ টাকা, পানির লাইনের সংযোগ ও পুনঃসংযোগ ফিস বাবদ ১ কোটি টাকা, নলকুপ স্থাপনের অনুমোদন ও নবায়ন ফি বাবদ ২ কোটি টাকা।

বাজেটে উল্লেখযোগ্য ব্যয় খাত গুলো হলো- নির্মাণ ও সংস্কার, ঢাকায় সিটি কর্পোরেশনের নিজস্ব লিয়াজো অফিসের জন্য ফ্ল্যাট ক্রয়, কসাই খানা নির্মাণ/ময়লা আবর্জনা ফেলার জায়গা উন্নয়ন, সিটি কর্পোরেশনের যানবাহন রক্ষায় গ্যারেজ নির্মাণ, সিটি কর্পোরেশনের যানবাহন, রক্ষণাবেক্ষনে ওয়ার্কসপ নির্মাণ, হাট বাজার উন্নয়ন, বাস টার্মিনাল সংস্কার ও উন্নয়ন, সিলেট সিটি কর্পোরেশন এলাকায় পাঠাগার নির্মাণ, নাগরিক নিরাপত্তার জন্য গুরুত্বপূর্ণ রাস্তায় সিসি ক্যামেরা স্থাপন, গভীর নলকুপ স্থাপন, এমজিএসপি প্রকল্পের রক্ষনাবেক্ষন কাজের নিজস্ব অর্থ ব্যয়, সিটি কর্পোরেশনের জন্য জীপ গাড়ী ও ২টি আধুনিক এ্যাম্বুলেন্স ক্রয় এবং নারীদের উন্নয়নে প্রকল্প গ্রহন ব্যয়সহ ইত্যাদি ব্যয় উল্লেখযোগ্য।


আরও খবর