Logo
শিরোনাম

ঢাকা কলেজে ঈদের ছুটি আজ থেকেই: শিক্ষামন্ত্রী

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৯ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৩ জুলাই ২০২২ |
Image
ছবি: সংগৃহীত

এক দোকানে খাবারের বিল পরিশোধ নিয়ে কথা কাটাকাটির জেরে ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থী ও ব্যবসায়ীদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা দুঃখজনক বলে মন্তব্য করেছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। 

তিনি বলেন, এটা খুবই দুঃখজনক। আমাদের কয়েকজন শিক্ষার্থী আহত হয়েছে। আহত শিক্ষার্থীদের বিষয়ে আমরা দেখছি। সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ২০ এপ্রিল থেকে ঈদের ছুটি শুরু হলেও ঢাকা কলেজে যেহেতু ক্লাসের পরিবেশ নেই, তাই আজ থেকে এই কলেজে ঈদের ছুটি শুরু হয়ে যাবে। আগামী ৫ মে অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে ঢাকা কলেজও খোলা হবে। 

মঙ্গলবার বিকালে চাঁদপুর সার্কিট হাউসে এক সভা শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে শিক্ষামন্ত্রী এসব কথা বলেন। 

তিনি বলেন, আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী সকাল থেকে থাকলে হয়তো পরিস্থিতি আরেকটু ভালো হতে পারত। তবে তারাও চেষ্টা করেছেন, এখনো তারা চেষ্টা করছেন থামানো। আমি ছাত্র-ব্যবসায়ী সকল পক্ষকে শান্ত থাকার আহ্বান জানাই। 

এর আগে সোমবার মধ্যরাতে দোকান কর্মচারীদের সঙ্গে শিক্ষার্থীদের প্রায় আড়াই ঘণ্টা সংঘর্ষ চলে। পরে পুলিশের হস্তক্ষেপে রাত আড়াইটার দিকে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এলেও মঙ্গলবার সকাল ১০টা থেকে দুপুর আড়াইটা পর্যন্ত আবারও চলে এ সংঘর্ষ। 

দুপুরের পর পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে কাঁদানে গ্যাস ছোড়া শুরু করলে শিক্ষার্থী ও ব্যবসায়ীরা ছত্রভঙ্গ হয়ে যায়। সংঘর্ষে ২০ জন আহত হয়েছে। আহতদের ঢাকা মেডিকের কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।


আরও খবর



একদিনে টোল আদায় তিন কোটি ছাড়াল

প্রকাশিত:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

পদ্মা সেতুতে একদিনে ৩ কোটি ১৬ লাখ টাকারও বেশি টোল আদায় হয়েছে। শুক্রবার (১ জুলাই) এই টোল আদায় করা হয়। ২৬ জুন পদ্মা সেতুতে যান চলাচল চালুর পর এটাই টোল আদায়ের রেকর্ড। এদিন সেতু দিয়ে যানবাহন পারাপার করেছে ২৬ হাজার ৩৯৮টি।

এর আগে ২৬ জুন চালুর পর ১ দিনে ৬১ হাজারের বেশি যানবাহন চলাচল করেছিল। আর টোল আদায় হয়েছিল প্রায় পৌনে তিন কোটি টাকা। তবে ওই দিন পার হওয়া যানবাহনের ৭৫ শতাংশ ছিল মোটরসাইকেল। ২৭ জুন থেকে সেতু দিয়ে মোটরসাইকেল পারাপার বন্ধ করে দেওয়া হয়।

এদিকে পদ্মা সেতুর দুই প্রান্তে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মহাসড়কে শুক্রবার থেকে টোল আদায় শুরু হয়েছে। সড়ক ও জনপথ সূত্র জানায়, প্রথম দিনে ৬৯ লাখ ৮১ হাজার ৮৮০ টাকা টোল আদায় হয়েছে। এর মধ্যে যানবাহন পারাপার করেছে মোট ৪১ হাজার ৭১৪টি।

এর মধ্য ধলেশ্বরী সেতুর কাছের টোল প্লাজা দিয়ে যানবাহন পারাপার হয়েছে ২৬ হাজার ৬৪। টোল আদায় হয়েছে ৪৫ লাখ ৭৭ হাজার ২৪০ টাকা। আর ভাঙা দিয়ে যানবাহন পারাপার করেছে ১৫ হাজার ৬৫০টি। টোল আদায় করা হয়েছে ২৪ লাখ ৪ হাজার ৬৪০ টাকা।

পদ্মা সেতুর মাওয়া প্রান্ত দিয়ে যানবাহন পারাপার হয়েছে ১৩ হাজার ৮০১টি। টোল আদায় হয়েছে ১ কোটি ৬৫ লাখ ৪২ হাজার ১০০ টাকা। জাজিরা দিয়ে যানবাহন পারাপার হয়েছে ১২ হাজার ৫৯৭টি। টোল আদায় করা হয়েছে ১ কোটি ৫১ লাখ ১১ হাজার ১০০ টাকা।


আরও খবর



বন্যাকবলিত এলাকা পরিদর্শনে সিলেটে প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২১ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

বন্যা কবলিত এলাকা পরিদর্শন করতে সিলেটে পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সকাল ১০টার কিছুক্ষণ আগে প্রধানমন্ত্রী সিলেটের ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করেন বলে সিলেটের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (সার্বিক) দেবজি সিংহ জানান।

দুপুর ১টা পর্যন্ত তিনি সিলেটে নির্ধারিত কর্মসূচিতে অংশ নেবেন।

অতিবৃষ্টিতে উজানের ঢলে সিলেট ও সুনামগঞ্জ অঞ্চলে ভয়াবহ বন্যা দেখা দিয়েছে, যাতে দুর্দশায় পড়েছে প্রায় অর্ধ কোটির মতো মানুষ।  

সিলেটের বিভাগীয় কমিশনার মুহাম্মদ মোশাররফ হোসেন জানান, প্রধানমন্ত্রী বিমানবন্দরে আসার পর সার্কিট হাউজে আসবেন। সেখানে রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ও স্থানীয় প্রশাসনকে বন্যা মোকাবেলায় প্রয়োজনীয় দিক নির্দেশনা দেবেন।


আরও খবর



ছাত্রের হাতে শিক্ষক মৃত্যুর ঘটনায় উত্তাল সাভার

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৮ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

ছাত্রের অতর্কিত হামলা ও আঘাতে শিক্ষক উৎপলের মৃত্যুর পর অভিযুক্তদের বিচারের দাবিতে এই দাবিতে সাভার উপজেলার শহীদ মিনার প্রাঙ্গনে ও জামগড়ার চিত্রশাইল এলাকায় মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে ।

মঙ্গলবার (২৮ জুন) সকালে আশুলিয়ায় বিচারের দাবিতে কর্মসূচি পালন করেন হাজী ইউনুস আলী স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা। একইদিন দুপুরে সাভার উপজেলার শহীদ মিনার প্রাঙ্গনে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেন স্বাধীনতা শিক্ষক পরিষদ।

নিহত শিক্ষক উৎপল কুমার সরকার সিরাজগঞ্জ জেলার উল্লাপাড়া উপজেলার এলংজানি দত্তপাড়া গ্রামের মৃত অজিত সরকারের ছেলে। তিনি ২০১৩ সালে আশুলিয়ার চিত্রশাইল এলাকার হাজী ইউনুস আলী কলেজে রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক হিসেবে যোগদান করেন। প্রতিষ্ঠানের শৃঙ্খলা কমিটির প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন শিক্ষক উৎপল কুমার সরকার।

অভিযুক্ত বখাটে ছাত্র চিত্রশালাই এলাকার উজ্জ্বল হাজীর ছেলে বিদ্যালয়টির দশম শ্রেণির বিজ্ঞান বিভাগে অধ্যয়নরত।

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানটির মালিক হাজী হযরত আলীর ভাগিনার ছেলে ওই ছাত্র। ঘটনার পর স্থানীয়দের কাছ থেকে ছাড়া পেয়ে পালিয়ে যায় বখাটে ছাত্র।

মানববন্ধনে সাভার উপজেলা কিন্ডারগার্টেন ফেডারেশনের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম তার সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে বলেন, হত্যাকান্ডের আসামীকে দ্রুত গ্রেফতার ও শাস্তির দাবি জানাই।

অধর চন্দ্র উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রতন পিটার গমেজ তার বক্তব্যে বলেন, ‘বখাটে ওই ছাত্রকে আমরা কুলাঙ্গার হিসেবে আখ্যায়িত করছি। তার স্ট্যাম্পের আঘাতে শিক্ষক উৎপলের মৃত্যু হয়েছে। মানববন্ধনে আরও উপস্থিত ছিলেন স্বাধীনতা শিক্ষক পরিষদের সাধারণ সম্পাদক শাহজাহান আলম সাজুসহ প্রমুখ।

চিত্রশাইল এলাকায় হাজী ইউনুস আলী কলেজ শিক্ষার্থীদের মানববন্ধনে ৬ দফা দাবি তুলে ধরেন।

শিক্ষার্থীরা বলেন, আমরা সারা দিন এই কর্মসূচি পালন করব। স্থানীয় অন্যান্য স্কুল এবং কলেজের শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের কাছে গিয়ে তাদের আমাদের সঙ্গে সামিল করব। যতক্ষণ পর্যন্ত ন্যায় বিচার এবং দাবি পূরণ না হবে ততক্ষণ আমরা আমাদের কর্মসূচি চালিয়ে যাব।

তাদের দাবিগুলো হলো- অনতি বিলম্বে ২৪-৪৮ ঘণ্টার মধ্যে হত্যাকারীকে গ্রেপ্তার করতে হবে, হত্যাকারীর সঙ্গে থাকা অজ্ঞাতনামা আসামিদের শনাক্ত করে আইনের আওতায় আনতে হবে, হত্যাকারীর বাবা ও তার পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের আইনের আওতায় আনতে হবে, নিহতের পরিবারকে সর্বোচ্চ আর্থিক ক্ষতিপূরণ দিতে হবে, কলেজের সাধারণ শিক্ষার্থী ও স্থানীয় শিক্ষার্থীদের ভেদাভেদ নির্মূলে সাধারণ সর্বজনীন আইন প্রণয়ন করতে হবে, পুরো এলাকা থেকে কিশোর গ্যাং মুছে দেওয়ার জন্য রাজনৈতিক ব্যক্তিদের বিক্ষোভ মিছিলকে বেগবান করতে হবে।

উল্লেখ্য- শনিবার (২৫ জুন) দুপুরে আশুলিয়ার চিত্রশাইল এলাকায় হাজী ইউনুস আলী স্কুল অ্যান্ড কলেজের মাঠে শিক্ষক উৎপল কুমারের ওপর অতর্কিত হামলা চালিয়ে ক্রিকেটের স্টাম্প দিয়ে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে একই প্রতিষ্ঠানের দশম শ্রেণীর এক ছাত্র। পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সোমবার (২৭ জুন) ভোরে শিক্ষক উৎপল কুমার সরকার মারা যান। রবিবার (২৬ জুন) আশুলিয়া থানায় নিহত শিক্ষকের ভাই বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছেন।


আরও খবর



আরফানুল হক রিফাত, বিজয়ী মেয়র কুমিল্লা সিটিপকর্পোরেশন

কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনে বিগত ১০ বছরের দুর্নীতির শ্বেতপত্র প্রকাশ করব

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৬ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

 কুমিল্লা জেলা প্রতিনিধি ঃ

প্রথমবারের মতো কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের নির্বাচনে মেয়র পদে দাঁড়িয়ে বাজিমাত করলেন আওয়ামী লীগ প্রার্থী রিফাত। প্রতিদ্বন্ধী স্বতন্ত্র প্রার্থী দুই বারের মেয়র মনিরুল হক সাক্কুকে ৩৪৩ ভোটের ব্যবধানে পরাজিত করে মেয়র নির্বাচিত হলেন মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আরফানুল হক রিফাত। বিজয়ের অনুভূতিতে রিফাত বলেন- এবিজয় নৌকার বিজয়, এবিজয় নৌকার, এবিজয় শেখহাসিনার ,এবিজয় আমার নেতা বাহার ভাইয়ের বিজয়, বিগত দিনে সিটিকর্পেপারেশনে যারা দূনীর্তি করেছে তাদের শ্বেতপত্র প্রকাশ করব। আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আরফানুল হক রিফাত বলেছেন, কুমিল্লাবাসীকে দেওয়া কথা আমি রাখবো। আমি কুমিল্লার মানুষকে কথা দিয়েছি। কথা রাখবো।

কুমিল্লাবাসীর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে আরফানুল হক রিফাত বলেন, নগরীর যানজট ও জলাবদ্ধতা সমস্যা সমাধানের জন্য আপনাদের কাছে এক বছর সময় চাইলাম। ইনশাল্লাহ্ একবছরের মধ্যে আপনারা এই দুর্ভোগ থেকে মুক্তি পাবেন।

তিনি বলেন, সিটি কর্পোরেশনকে আমি দলীয় কার্যালয় বানাবো না। নগর ভবনের দরজা সবার জন্য সবসময় খোলা থাকবে। আমার বাসার দরজাও খোলা থাকবে।

প্রতিক্রিয়ায় তিনি বলেন,সিটি কর্পোরেশনে বিগত ১০ বছরের দুর্নীতির শ্বেতপত্র প্রকাশ করব। এটা আমার প্রথম দায়িত্ব। কুমিল্লার মানুষকে আমি কথা দিয়েছি।’

এর আগে, রাত ৯টা ৪৫ মিনিটের দিকে বিজয়ী প্রার্থীর নাম ঘোষণা করেন রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. শাহেদুন্নবী।

নির্বাচনে ৩৪৩ ভোটের ব্যবধানে জয়ী হয়েছেন আরফানুল হক রিফাত। তিনি পেয়েছেন ৫০ হাজার ৩১০ ভোট। আর তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী মনিরুল হক সাককু পেয়েছেন ৪৯ হাজার ৯৬৭ ভোট।

কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনের ১০৫ কেন্দ্রের ৬৪০ কক্ষে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে কাউন্সিলর পদে ১০৮ জন ও সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে ৩৬ জন প্রার্থী অংশ নেন।

১০৫ কেন্দ্রে রিফাত পেয়েছেন ৫০ হাজার ৩১০ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্ধী সাক্কু ভোট পেয়েছেন ৪৯ হাজার ৯৬৭ভোট। টানটান উত্তেজনার মধ্যে দিয়ে রাত ৯টা ৪৫মিনিটে  কুমিল্লা সিটি নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা শাহেদুন্নবী চৌধুরী বেসরকারিভাবে ফলাফল ঘোষণা করেন। মোট ভোটের সংখ্যা ছিল ২ লাখ ২৯ হাজার ৯২০। এরমধ্যে ভোট পড়েছে এক লাখ ৩৪ হাজার ৬৪। ভোট পড়েছে ৫৮ দশমিক ৭৪ শতাংশ। বাতিল ভোটের পরিমাণ ৩১৯টি।

এবারই প্রথম কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে সবকটি কেন্দ্রে ও ভোট কক্ষে ছিল সিসি তবে বৃষ্টি উপেক্ষা করে কোনোরকম ঝামেলা ছাড়াই শান্তিপূর্ণ পরিবেশে সকাল আটটা থেকে বিকাল চারটা পর্যন্ত শান্তিপূর্ণভাবে ভোট গ্রহণ সম্পন্ন হয়। কোনো প্রার্থীর পক্ষ থেকে ছিল না কোনোরকম অভিযোগ-অনুযোগ। শতভাগ ইভিএম-এ সম্পন্ন হওয়া কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের তৃতীয় নির্বাচনে ভোটর উপস্থিতি ছিল বেশ আশাব্যঞ্জক। নির্বাচনের পরিবেশ নিয়ে বড় কোনো প্রশ্ন উঠেনি কোনো পক্ষ থেকে।কুমিল্লা সিটিপকর্পোরেশনের প্রথম নির্বাচনে ভোট পড়েছে ৫৮দশমিক ৭৪ শতাংশ। 


আরও খবর



বলিউড ছাড়ছেন নার্গিস ফাখরি

প্রকাশিত:বুধবার ০৮ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

রণবীর কাপুরের হাত ধরে ২০১১ সালে রোমান্টিক ঘরানার সিনেমার মধ্য দিয়ে বলিউডে কাজ করা শুরু করেন নার্গিস ফাখরি। প্রথম সিনেমার মধ্য দিয়েই দর্শকদের নজরে আসে নার্গিসের অভিনয়। এভাবেই বলিউড যাত্রা শুরু। এবার বলিউড ছাড়ছেন অভিনেত্রী নার্গিস ফাখরি। হতাশা থেকেই তার এ সিদ্ধান্ত বলে ভারতীয় বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন তিনি। 

বেশ কিছু সিনেমায় অভিনয় করলেও বলিউডে নিজের জায়গা পাকাপোক্ত  করতে পারেননি তিনি। অভিনেত্রী হওয়ার সেই লড়াই নিয়ে একাধিকবার মুখ খুলেছিলেন অতীতে। এবার নার্গিস জানালেন তিনি অভিনয় থেকে বিরতি নিতে চান। 

তার এমন সিদ্বান্তের পর উঠে এসেছিল অনেক প্রশ্ন ও বিতর্ক। এবার নিজেই জানালেন বলিউড ছাড়ার কারণ। তিনি বলেন, টানা ১১ বছর ধরে বলিউডে কাজ করছি। কিন্তু এত পরিশ্রম করে কী লাভ যদি পরিবার ও নিজেকে সময় না দিতে পারি? তাই বলিউড থেকে আপাতত নিজেকে সরিয়ে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

তিনি আরও বলেন, আগামীতে এমনও হতে পারে, আমি হয়তো আর কাজ পাব না। সিনেমার এই জগতে ফিরতেও সমস্যা হতে পারে। তার পরও নিজের এ সিদ্ধান্তে আমি খুশি। কারণ এখন আর অন্তত বলিউড তারকাদের সঙ্গে ইঁদুর দৌড়ে নামতে হবে না। কিন্তু বলিউড ছাড়লেও অভিনয়ের প্রতি যে ভালোবাসা সবসময় ছিল, তা অটুট থাকবে। যে কারণে ভবিষ্যতে হয়তো অভিনয়ে ফিরেও আসতে পারি।


আরও খবর

শিশুদের সিনেমায় মিথিলা

শুক্রবার ০১ জুলাই ২০২২