Logo
শিরোনাম

দৌলতদিয়া-পাটুরিয়ায় ঘরমুখো মানুষের ভিড়

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৯ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

ঈদের আর মাত্র তিন দিন বাকি। দক্ষিণ বঙ্গের প্রবেশদ্বার খ্যাত দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে চোখে পড়ার মত ছিলো ঘরমুখো মানুষের উপচে পড়া ভিড়।

সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়, পাটুরিয়া ঘাট থেকে ছেড়ে আসা প্রতিটি ফেরিতে রয়েছে ঘরমুখো মানুষের উপচে পড়া ভিড়।

দৌলতদিয়া ঘাটে এসে পন্টুনে সাথে ফেরি ভিড়ার সাথেই অঘোষিত প্রতিযোগিতা নিয়ে ফেরি থেকে নামছে শত শত ঢাকা ফেরত মানুষ।

বিশেষ করে এই গরমে শিশুসহ নারীদের চরম ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে। এদিকে দৌলতদিয়া ফেরিঘাটের জিরো পয়েন্ট হতে ঢাকা খুলনা মহাসড়কে প্রায় ৪ কিলোমিটার জুড়ে গণপরিবহনের দীর্ঘ সারির সৃষ্টি হয়েছে।

ঢাকা ফেরত যাত্রী সবুজ মিয়া বলেন, ঢাকায় আমি একটি হোটেল কাজ করি। কাল রাতে আমাদের ছুটি হয়েছে সেই জন্য আমি ভোর রাতে ঢাকা থেকে রওয়ানা হয়েছি। যাতে করে রোদের গরমে পড়তে না হয়। তার পরও পরিবারের সাথে ঈদ করার জন্য আগে ভাগেই চলে যাচ্ছি। পরিবারের সাথে ঈদ করার মজাই অন্যরকম। যদিও গাড়ি ভাড়া একটু বেশি নিচ্ছে গাড়ি চালকরা।

ঢাকা ফেরত আরেক যাত্রী রহিমা বলেন, আমরা পরিবারসহ ঢাকায় থাকি, পরিবারের সবার সাথে ঈদ করার জন্য গ্রামের বাড়ি মাগুরায় যাচ্ছি। যদিও এই গরমে ছোট বাচ্চাদের নিয়ে যাতায়াত করা কষ্টকর তারপর যেতে হচ্ছে ঈদের আনন্দ পরিবারের সাথে ভাগাভাগি করার জন্য।

বিআইডাব্লিউটিসির ঘাট শাখার ব্যবস্থাপক মো. সিহাব উদ্দিন বলেন, এই ঈদে যানজট মুক্ত রাখতে দৌলতদিয়া পাটুরিয়া ফেরি বাড়ানো হয়েছে। এই নৌরুটে ছোট বড় ২১ টি ফেরি চলাচল করছে।


আরও খবর



রায়গঞ্জের চকঁনুর চারমাথার ব্রিজটি যেন মরণ ফাঁদ

প্রকাশিত:বুধবার ২২ জুন 20২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image
সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি: সিরাজগঞ্জের রায়গঞ্জ উপজেলার ৮ নং পাঙ্গাসী ইউনিয়নের চকঁনুর চারমাথা থেকে গোঁতগাতী রাস্তায় যে ব্রিজটি রয়েছে তা মরণ ফাঁদে পরিণত হয়েছে।

যেকোনো সময় ঘটতে পারে বড় ধরনের দূর্ঘটনা। ব্রিজটির দু,পাশের দু' টি পাখা ভেঙ্গে পড়েছে। সাইটের মাটি সরে গেছে। জীবনের ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছে এ পথের শত শত শিক্ষার্থী।

এছাড়াও এই ব্রিজ দিয়ে চলাচল করছে বিভিন্ন ধরনের যানবাহন। তাছাড়া প্রতিদিন হাজারো মানুষ এই ব্রিজের ওপর দিয়ে আসা-যাওয়া করছে। বলা চলে দিন দিন ব্রিজটি নরবড়ে হয়ে যাচ্ছে।

স্হানীয় বেশ কয়েক জন বাসিন্দার সাথে কথা বলে জানা যায়, দীর্ঘদিন সংস্কার না করা এবং রক্ষণাবেক্ষণের অভাবে চলাচলের জন্য ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে। ব্রিজটির এমন ভগ্নদশা হলেও ব্রিজটি সংস্কারে কারো কোনো মাথাব্যথা নেই। সংশ্লিস্ট কর্তৃপক্ষও নিচ্ছে না কোনো কার্যকর পদক্ষেপ।

এমতাবস্হায় উপজেলার হাটপাঙ্গাসী আন্চলিক মহাসড়ক চকঁনুরের চারমাথা থেকে গোতগাতী রাস্তার ব্রিজটি ভেঙ্গে নতুন একটি ব্রিজ নির্মাণ অথবা উক্ত ব্রিজটি সংস্কার করার জন্য সংশ্লিস্ট কর্তৃপক্ষের নিকট জোড় দাবি জানিয়েছেন অত্র এলাকাবাসী।

আরও খবর



ঈদের আগে অনুষ্ঠিত হচ্ছে না এসএসসি পরীক্ষা

প্রকাশিত:শনিবার ১৮ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

মইনুল ইসলাম মিতুল :   দেশজুড়ে বন্যা পরিস্থিতির অবনতির কারণে পিছিয়ে গেল এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা। ঢাকা শিক্ষাবোর্ডের বিশ্বস্ত সূত্র থেকে পাওয়া এক খবরে এ তথ্য নিশ্চিত হওয়া গেছে। সূত্রটি বলছে, বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি হলে আগামী সাত থেকে দশ দিন পর পুনরায় এসএসসির নতুন রুটিন প্রকাশ করা হবে।

এ বিষয়ে আন্তঃশিক্ষাবোর্ড সমন্বয় কমিটির সভাপতি ও ঢাকা শিক্ষাবোর্ড চেয়ারম্যান অধ্যাপক তপন কুমার সরকার বলেন, ঈদের আগে এসএসসি পরীক্ষা আয়োজনের সুযোগ যে একেবারে নেই তা বলবো না। তবে সবকিছুই নির্ভর করছে বন্যা পরিস্থিতির ওপর। আমরা আশা করছি আগামী এক সপ্তাহের মধ্যেই বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি হবে। আর পরিস্থিতি ভাল হলেই পরীক্ষার সময়সূচি প্রকাশ করা হবে।

এবার এসএসসি ও সমমান পরীক্ষায় ২০ লাখ ২১ হাজার ৮৬৮ জন শিক্ষার্থীর অংশ নেবে। সাধারণ নয়টি বোর্ডের অধীনে ১৫ লাখ ৯৯ হাজার ৭১১ জন পরীক্ষার্থী রয়েছে। এর বাইরে দাখিলে ২ লাখ ৬৮ হাজার ৪৯৫ জন আর কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের অধীনে এসএসসি ও দাখিল ভোকেশনালে ১ লাখ ৬৩ হাজার ৬৬২ পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় বসবে।

এসএসসি পরীক্ষার্থীরা বলছেন, দীর্ঘ আড়াই বছরের বেশি সময় ধরে তারা নাইন-টেনের ক্লাস করছেন। এতদিনে তাদের কলেজে ক্লাস করার কথা।

এ বিষয়ে বোর্ড চেয়ারম্যান বলেন, আসলে প্রাকৃতিক দুর্যোগের উপর কারও হাত নেই। তবে প্রথমদিকে করোনা ও পরবর্তীতে বন্যার কারণে এমন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, আমাদের নিয়মিত সময় ছিল ফেব্রুয়ারি-মার্চে এসএসসি পরীক্ষা আয়োজনের। ওই সময় দেশে বৃষ্টিপাত বা বন্যার সম্ভাবনা থাকে না। কিন্তু করোনা মহামারি আমাদের শিক্ষা ক্যালেন্ডার তছনছ করে দিয়েছে। আমরা আবার আগের সূচিতে ফিরে যাওয়ার চেষ্টা করবো।

এদিকে এসএসসি পরীক্ষাকে কেন্দ্র করে অনেক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ করা হয়েছে। এ বিষয়ে অধ্যাপক তপন কুমার সরকার বলেন, বন্যা কবলিত এলাকা ছাড়া অন্য সব এলাকার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে স্বাভাবিক নিয়মে পাঠদান চালু থাকবে। যদি কোনো প্রতিষ্ঠান ক্লাস কার্যক্রম ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ করে তবে তা পূণরায় চালু করতে হবে।

এর আগে শুক্রবার দেশের সার্বিক বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় আগামীর ১৯ জুন থেকে শুরু হওয়া সকল শিক্ষা বোর্ডের এসএসসি জেনারেল, এসএসসি ভোকেশনাল এবং দাখিল পরীক্ষা স্থগিত করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে মন্ত্রণালয় পরীক্ষার পরিবর্তিত সময়সূচি পরে জানানো হবে বলেও জানিয়েছে।

জানা যায়, এ বছর এসএসসিতে তিনটি বিষয়ে পরীক্ষা দিতে হবে না শিক্ষার্থীদের। এসএসসিতে বিভাগভেদে বাংলা, ইংরেজি, গণিত, গার্হস্থ্য বিজ্ঞান, কৃষিশিক্ষা, সংগীত, আরবি, সংস্কৃত, পালি, শারীরিক শিক্ষা ও ক্রীড়া, চারু ও কারুকলা, পদার্থবিজ্ঞান, বাংলাদেশের ইতিহাস ও বিশ্বসভ্যতা, ফিন্যান্স ও ব্যাংকিং, রসায়ন, পৌরনীতি ও নাগরিকতা, ব্যবসায় উদ্যোগ, ভূগোল ও পরিবেশ, উচ্চতর গণিত, হিসাববিজ্ঞান, জীববিজ্ঞান, অর্থনীতি বিষয়ে পরীক্ষা হবে।

এর আগে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি পদ্মা সেতু উদ্বোধনের কারণে ২৫ জুন এসএসসি পরীক্ষার্থীদের ইংরেজী দ্বিতীয় পত্র পরীক্ষা আগের দিন অর্থাৎ ২৪ জুন নেয়ার ঘোষণা দেন। তিনি, এসএসসি পরীক্ষাকে কেন্দ্র করে ১৫ জুন থেকে সারাদেশের কোচিং সেন্টার তিন সপ্তাহ বন্ধের নির্দেশ দেন।


আরও খবর



হঠাৎ সবার কাছে ক্ষমা চেয়ে যা বললেন প্রভা

প্রকাশিত:বুধবার ২৯ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

নাটকের অভিনয়ে নিয়মিত সাদিয়া জাহান প্রভা। নিয়মিত সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ইনস্টগ্রামেও দেখা যায় তাকে। প্রায় ইনস্টগ্রাম স্টোরিতে নিজের অনুভূতি শেয়ার করেন। শেয়ার করেন নিজের নানা গেটআপের ছবি।

সম্প্রতি মানুষের অনিশ্চিত জীবনের কথা স্মরণ করে একটি স্টোরি শেয়ার করেছেন প্রভা, যেখানে লিখেছেন— ‘জীবন খুবই অনিশ্চিত। যে কারোর সঙ্গে যে কোনো কিছু ঘটে যেতে পারে। এ মুহূর্তে আমার যেটি মনে হচ্ছে, যদি আমার কিছু হয়ে যায়…। যদি আমি কাউকে জেনে-বুঝে কিংবা অজান্তে কষ্ট দিয়ে থাকি, কারও অনুভূতিতে আঘাত করে থাকি, তার জন্য দুঃখ প্রকাশ করছি।’

প্রভা আরও লিখেন— ‘আমি ক্ষমা চাইছি। প্লিজ আমার অপরাধ ক্ষমা করে দিন এবং আমার জন্য দোয়া করবেন। আল্লাহ আপনাদের মঙ্গল করুন।’

‘কাউন্টডাউন’ নামের একটি ধারাবাহিক নাটকে অভিনয় করছেন প্রভা। সকাল আহমেদের পরিচালনায় নাটকটির প্রচার শুরু হয়েছে গত ৩১ মে। এতে প্রভার সঙ্গে আরও আছেন তৌসিফ মাহবুব, সজল, অর্ষা, উর্মিলা, মিশু সাব্বির, আরফান আহমেদ প্রমুখ। এ ছাড়া ঈদের বেশ কিছু একক নাটকে অভিনয় করছেন এই অভিনেত্রী।

 

সুত্রঃ যুগান্তর


আরও খবর

শিশুদের সিনেমায় মিথিলা

শুক্রবার ০১ জুলাই ২০২২




পাহাড়ি ঢলে রাঙ্গামাটির বাঘাইছড়ি, জুরাছড়ি, বরকলের নিম্নাঞ্চল প্লাবিত

সুবলং চ্যানেলে তীব্র স্রোতের কারণে কাপ্তাই হ্রদে লঞ্চ চলাচল বন্ধ

প্রকাশিত:সোমবার ২০ জুন ২০22 | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

 উচিংছা রাখাইন,রাঙ্গামাটি প্রতিনিধি 

অতি ভারী বষর্ণে রাঙ্গামাটি সীমান্তের ওপারের উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে সুবলং চ্যানেলে পানির তীব্র স্রোতের কারনে দূর্ঘটনার আশঙ্কায় সোমবার (২০ জুন) সকাল থেকে রাঙ্গামাটির অন্তত ছয়টি নৌ-রুটে যাত্রীবাহি লঞ্চ চলাচল বন্ধ রাখার ঘোষণা দিয়েছে লঞ্চ মালিকদের সংগঠন বাংলাদেশ অভ্যন্তরীন নৌ চলাচল যাত্রী পরিবহণ সংস্থা রাঙ্গামাটি জোন কর্তৃপক্ষ।

রবিবার (১৯ জুন) দিবাগত রাতে সংগঠনটির পক্ষ থেকে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-চলাচল ও যাত্রী পরিবহন সংস্থার রাঙ্গামাটি জোন চেয়ারম্যান মো. মঈনুদ্দীন সেলিম ও যাত্রীবাহি লঞ্চের মালিক গিয়াস উদ্দিন আদর। তবে পরিস্থিতি উত্তরণ হলে মঙ্গলবার (২১ জুন) এ পথে নৌযান চলাচল স্বাভাবিক হওয়ার কথা রয়েছে। পরিস্থিতি সাপেক্ষ এ বিষয়ে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে জানান তারা।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-চলাচল ও যাত্রী পরিবহন সংস্থার রাঙ্গামাটি জোন চেয়ারম্যান মো. মঈনুদ্দীন সেলিম জানান, রাঙ্গামাটিতে গত কয়েকদিনে টানা বৃষ্টির কারণে কাপ্তাই হ্রদের পানি বেড়ে যাওয়ার পাশাপাশি উজান থেকে নেমে আসা পানির ঢলে সুবলং চ্যানেলে তীব্র স্রোতে স্বাভাবিক লঞ্চ চলাচল বিঘ্নিত হচ্ছে। তাই ভারি বর্ষণ ও স্রোতের কারণে সোমবার (২০ জুন) থেকে রাঙ্গামাটির সব রুটে লঞ্চ চলাচল বন্ধ থাকবে। প্রচন্ড স্রোতের কারণে লঞ্চ দুর্ঘটনার সম্ভাবনার ঝুঁকি থাকায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। মঙ্গলবার স্রোতের পরিস্থিতি দেখে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

এদিকে, রাঙ্গামাটিতে সীমান্ত থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে বাঘাইছড়ি, জুরাছড়ি, বরকল এর নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। ৪ দিনের বৃষ্টিপাত কিছুটা কমে আসলেও পাহাড়ি ঢল নেমে আসছে। উপজেলাগুলোতে জরুরি ভিত্তিতে আশ্রয় কেন্দ্র খোলা হয়েছে। উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে আশ্রিতদের শুকনো খাবার বিতরণ করা হয়েছে। 

অন্যদিকে, রাঙ্গামাটিতে পাহাড় ধ্বসের আশংকায় প্রাথমিক ভাবে রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে শহরে ২৮টি ঝুঁকিপুর্ণ এলাকা চিহ্নিত করে রাঙ্গামাটি শহরের ১০টি আশ্রয় কেন্দ্রে প্রায় ১ হাজারের বেশি মানুষ সরিয়ে আনা হয়েছে। প্রবল বর্ষণে রাঙ্গামাটি চট্টগ্রাম সড়কের বিভিন্ন অংশে পাহাড় ধস ও রাস্তায় ভাঙ্গন দেখা দিয়েছে। রাঙ্গামাটি-চট্টগ্রাম সড়ক স্বাভাবিক রাখতে সড়ক ও জনপদ বিভাগের কাজ করে যাচ্ছে।


আরও খবর



মেদিনীমণ্ডল আনোয়ার চৌধুরী উচ্চ বিদ্যালয়ে

ব্যবস্থাপনা কমিটির নির্বাচন অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ৩০ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

মুন্সীগঞ্জ জেলা প্রতিনিধিঃ

মুন্সীগঞ্জের লৌহজংয়ে মেদিনীমন্ডল আনোয়ার চৌধুরী উচ্চ বিদ্যালয়ে ব্যবস্থাপনা কমিটির নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। উৎসবমুখোর পরিবেশে বুধবার সকাল ১০ টা থেকে বিকাল ৪ টা পর্যন্ত এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। পরে বিকাল ৫ টার দিকে ভোট গণনা করে ফলাফল ঘোষণা করা হয়। এতে ৪ টি অভিভাবক প্রতিনিধি পদের জন্য ৬ জন প্রার্থী নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন। ৫৯৯ জন ভোটারের মধ্যে ৪২৪ জন ভোটার ভোট প্রদান করেন। এতে শিবু দাস ২৭৮ ভোট পেয়ে প্রথম, মো. মহিউদ্দিন মৃধা ২৫৬ ভোট পেয়ে দ্বিতীয়, কুদ্দুস ঢালী ২৪৯ ভোট পেয়ে তৃতীয় ও জিল্লু হাওলাদার ২২৮ ভোট পেয়ে চতুর্থ স্থান দখল করেন বিজয়ী হন।

এদিকে বিনা প্রতিদ্বন্দীয় হাজী বকুল খান দাতা সদস্য, ছালমা বেগম সংরক্ষিত মহিলা অভিভাবক প্রতিনিধি, আব্দুল হালিম, মো. রাসেল শিক্ষক প্রতিনিধি ও সানজিদা সুলতানা সংরক্ষিত মহিলা শিক্ষক প্রতিনিধি হিসেবে জয়ী হন।

প্রিজাইডিং কর্মকর্তা দেওয়ান মো. জাহাঙ্গীর জানান, সকাল থেকে উৎসবমুখোর পরিবেশে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। বিভিন্ন পদে ৫ জন বিনা প্রতিদ্বন্দীয় জয়ী হয়েছে। আর অভিভাবক প্রতিনিধি পদে ৬ জন প্রার্থী নির্বাচন করেছেন। মূলত ৪ টি অভিভাবক প্রতিনিধি পদের জন্য এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সকাল ১০ টা থেকে বিকাল ৪ টা পর্যন্ত ভোট চলমান ছিলো। পরে সকল প্রার্থীদের উপস্থিতিতে ভোট গণনা করা হয়। এবং চারজনকে পর্যায়ক্রমে বেশিভোট পাওয়ায় বিজয়ী ঘোষণা করেন।

তিনি বলেন, বিদ্যালয়ের ২টি ক্লাস রুমে বুথ তৈরি করা হয়। বুথে দুইজন সহকারী প্রিজাইডিং ও দুইজন পুলিং অফিসার নিযুক্ত ছিলেন। নিরাপত্তার জন্য পদ্মা সেতু উত্তর থানা থেকে পুলিশ মোতায়েন করা হয়।

তিনি আরও জানান, আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে নির্বাচিত সদস্য ও প্রিজাইডিং কর্মকর্তাকে নিয়ে ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি ঘোষণা করা হবে। এতে সাজাপ্রাপ্ত ও মানুষিক ভারসাম্যহীন ছাড়া যেকোন ব্যক্তিকে এই বৈঠকের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সভাপতি নির্ধারণ করা হবে। তবে বিনা প্রতিদ্বন্দীয় ও নির্বাচনে জয়ীদের বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে।

এসময় নির্বাচনে উপস্থিত ছিলেন মেদিনীমণ্ডল ইউপি চেয়ারম্যান আশরাফ হোসেন খান, মেদিনীমণ্ডল আনোয়ার চৌধুরী উচ্চ বিদ্যালয়ের আজীবন দাতা সদস্য মোতালেব চৌধুরী, দাতা সদস্য বকুল খান, প্রধান শিক্ষক নারায়ণ চন্দ্র মন্ডল, লৌহজং প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মো. মানিক মিয়া, শ্রীনগর প্রেস ক্লাবের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক শাহ আলম নিতুল, আমিন মোহাম্মদ গ্রুপের হিসাব রক্ষক মো. জলিলুর রহমানসহ স্কুল শিক্ষক ও নির্বাচনে দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তারা।


আরও খবর