Logo
শিরোনাম
রাজবাড়ীতে ট্রাকের সাথে সংঘর্ষে মোটর সাইকেল আরোহীর মৃত্যু রাজবাড়ীতে আবৃত্তি ও কথামালায় প্রকাশনা উৎসব নওগাঁয় মোটরসাইকেলের ধাক্কায় স্কুল ছাত্র নিহত-মা ও ছোট বোন আহত মোরেলগঞ্জে শ্রমীকদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করলেন এমপি মিলন লালমনিরহাটে বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে মারাগেছে স্কুলছাত্র নওগাঁয় বোরো ধান চাষের শুরুতেই বিদ্যুতের লোড শেডিং, দুঃশ্চিন্তায় কৃষকরা নওগাঁয় ৩৫ কোটি টাকা মূল্যের কষ্টিপাথরের মূর্তি উদ্ধার করেছে পুলিশ কুড়িগ্রামের শীতকাতর অসহায় মানুষের পাশে কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেত্রকোনায় বিশ্ব জলাভূমি দিবস উপলক্ষে মানববন্ধন মোরেলগঞ্জে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দৈন্যদশা শিক্ষার্থী ৮ শিক্ষক ২

দূষিত শহরের তালিকায় চার নম্বরে ঢাকা

প্রকাশিত:Tuesday ০৩ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Friday ০৩ February ২০২৩ |
Image

দূষিত শহরের তালিকায় চার নম্বরে রয়েছে ঢাকা। সোমবার সকাল ৯টার দিকে ঢাকার এয়ার কোয়ালিটি ইনডেক্সে (একিউআই) ঢাকার স্কোর ছিল ২০৮। গতকালের চেয়ে এই মাত্রা বেশি। রোববার ঢাকার এই স্কোর ছিল ১৮৫।

ঢাকার চেয়ে দূষণের দিক দিয়ে এগিয়ে রয়েছে, পাকিস্তানের লাহোর (২৮৯), চীনের উহান (২৪০) এবং ঘানার রাজধানী আক্রা (২৩০)। সুইজারল্যান্ডভিত্তিক বায়ুর মান পর্যবেক্ষণকারী প্রযুক্তিপ্রতিষ্ঠান আইকিউ এয়ার দূষিত বাতাসের শহরের এই তালিকা প্রকাশ করে।

বাতাসের মান পরীক্ষা করে এই সূচক তৈরি করে একিউআই। সংস্থাটি নির্দিষ্ট শহরের বাতাস কতটুকু নির্মল বা দূষিত, সে সম্পর্কে মানুষকে তথ্য দেয়। এছাড়া সাধারণ মানুষের জন্য শহরের বাতাসে কোন ধরনের স্বাস্থ্যঝুঁকি তৈরি হতে পারে সে বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য দেয়।

একিউআই স্কোর ১০০ থেকে ২০০ পর্যন্ত ‘অস্বাস্থ্যকর’ হিসেবে বিবেচিত হয়। একইভাবে একিউআই স্কোর ২০১ থেকে ৩০০ হলে স্বাস্থ্যসতর্কতাসহ জরুরি অবস্থা হিসেবে বিবেচিত হয়।


আরও খবর



নওগাঁয় ১২ দফা দাবিতে ইনসাফের মানববন্ধন

প্রকাশিত:Thursday ১৯ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Friday ০৩ February ২০২৩ |
Image

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন, স্টাফ রিপোর্টার :


নওগাঁয় ইমারত নির্মাণ শ্রমিক ইউনিয়ন বাংলাদেশ (ইনসাফ) এর ১২ দফা দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

বুধবার ১৮ জানুযারি নওগাঁ জেলা শহরের ডিগ্রী মোড়ে ইনসাফ জেলা শাখার আয়োজনে ঘন্টাব্যাপী এ কর্মসূচী পালিত হয়। এসময় সংগঠনের কেন্দ্রীয় যুগ্ম সম্পাদক ও জেলা শাখার সভাপতি মো. মাহবুব আলম এর সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন, সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম, সদস্য আতোয়ারুল ইসলাম জুয়েল, আনোয়ার হোসেন ও জহুরুল হক স্বপন এবং পৌর কমিটির সভাপতি ফিরোজ মন্ডল ও সাধারন সম্পাদক খায়রুল বাসার। মানববন্ধনে প্রায় শতাধিক নির্মাণ শ্রমিকের নারী-পুরুষ অংশ নেয়।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, নির্মাণ শ্রমিকদের দাবি দিবস উপলক্ষে ২০২৩-২৪ অর্থ বছরে বাজেটে অর্থ বরাদ্দ করে মৌলিক অধিকারসহ ১২ দফা দাবী বাস্তবায়ন করা হোক। সেই সাথে সরকারি উদ্যোগে রাজধানী ঢাকা শহরে থানা ও ওয়ার্ড ভিত্তিক এবং সারাদেশে জেলা ও উপজেলা ভিত্তিক নির্মাণ কলোনী স্থাপন করে সুলভ মূল্যে দীর্ঘ  মেয়াদী লীজ প্রদানের মাধ্যমে নির্মাণ শ্রমিকদের বাসস্থান নিশ্চিত করতে হবে। কলোনীতে শ্রমিকদের ছেলে মেয়েদের লেখাপড়ার জন্য স্কুল এবং চিকিৎসা কেন্দ্র স্থাপনে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। বাংলাদেশ শ্রমিক কল্যাণ ফাউন্ডেশনের বোর্ড সভা প্রতিমাসে একবার এবং তহবিল থেকে নির্মাণ শ্রমিকদের জন্য ব্যাপক কল্যাণমুখী কর্মসূচি গ্রহণ ও সাহায্যের আবেদন ফরমে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, সিটি কর্পোরেশনের নির্বাহী কর্মকর্তার সুপারিশ বাধ্যতামূলক করা হয়েছে তা প্রত্যাহার করতে হবে। এছাড়াও শ্রমিকদের পূর্ণ অধিকার নিশ্চিত করে রেশনিং ব্যবস্থা, পেনশন স্কীম চালু, দুর্ঘটনায় নিহত এবং আহত বা আজীবন পঙ্গুত্ব বরণকারী শ্রমিকের ক্ষেত্রে বিশেষ গুরুত্ব দিতে হবে বলেও বক্তব্যে দাবি করেন বক্তারা।


আরও খবর



নওগাঁয় সীমান্তে বিজিবির উপর হামলা, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে গুলি

প্রকাশিত:Wednesday ০১ February ২০২৩ | হালনাগাদ:Friday ০৩ February ২০২৩ |
Image

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন, স্টাফ রিপোর্টার :


নওগাঁর ধামইরহাট সীমান্ত এলাকায় মাদককারীদের তল্লাশীর সময় বিজিবি সদস্যদের উপর হামলা চালিয়েছে সঙ্গবদ্ধ মাদককারবারিরা। এ সময় অস্ত্র ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা করা হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে তিন রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছোঁড়ে বিজিবি। ঘটনাস্থল থেকে বেশ কিছু মাদক ও মোটরসাইকেল উদ্ধার করেছে বিজিবি সদস্যরা। 

ঘটনায় তাৎক্ষণিক কাউকে আটক করতে না পারলেও পরিস্থিত নিয়ন্ত্রণের পর আটকের অভিযান শুরু করেছে। পরে ঘটনাস্থলে পুলিশ ও বিজিবি’র উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তাবৃন্দ ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করেছেন। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে বাংলাদেশ বর্ডার গার্ড (বিজিবি)-১৪ (পত্নীতলা) ব্যাটলিয়নের অধিনায়ক লে: কর্ণেল হামিদ উদ্দিন পিএসসি নিশ্চিত করেছেন। 

বুধবার বিকেল ৫টারদিকে উপজেলার উমার ইউনিয়নে চকচন্ডি সীমান্তে সুন্দরা- চকমহেশ এলাকায় এই ঘটনা ঘটেছে। 

অধিনায়ক লে: কর্ণেল হামিদ উদ্দিন জানান, চকচন্ডি বিওপি ক্যাম্পের নায়েক মিজান এর নেতৃত্বে একটি দল  চকচন্ডি ক্যাম্পের এলাকায় বিকেলে সুন্দরা ও চকমহেশ টহল দিচ্ছিলেন। ভারতীয় সীমান্তে ঘেঁষা ধামইহাট উপজেরার চকমহেশ গ্রামের উত্তরে মাঠে নজরুল ইসলামের সরিষা ক্ষেতের পাশের রাস্তা দিয়ে মোটরসাইকেল যোগে ৩জন আরোহী যাচ্ছিলেন। মোটরসাইকেল আরোহীদের গতি বিধি সন্দেহ হলে তাদের পথ রোধ করে দেহ তল্লাশী শুরু করে বিজিবি সদস্যরা। এমতাবস্তায় ওই ৩জন বিজিবি সদস্যদের উপর চড়াও হয়। এক পর্যায়ে ওই ৩ জন তাদের সহযোগিদের মোবাইলে ফোন করলে আরো ৫/৬ টি মোটরসাইকেল নিয়ে আরো ১০ থেকে ১২ জন দ্রুত ঘটনাস্থলে এসে বিজিবি সদস্যদের মারতে শুরু করেন। মাদককারবারিদের সাথে বিজিবি সদস্য লেন্স নায়েক হাফিজ ও সিপাহী মজিবরের সাথে ধস্তাধস্তি হয়। এক পর্যায়ে অস্ত্র ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করলে বিজিবি সদস্যরা ৩ রাউন্ড ফাঁকা গুলি করেন। সংবাদ পেয়ে চকচন্ডি ক্যাম্প হতে আরো বিজিবি সদস্যগণ ঘটনাস্থলে আসলে হামলাকারী মাদককারবারিরা ঘটনাস্থল থেকে দ্রুত পালিয়ে যায়। পরে বিজিবি সদস্যরা ঘটনাস্থল থেকে হামলাকারীদের ফেলে যাওয়া একটি মোটরসাইকেল, ৪০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট ও ৩ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করেন। 

লে: কর্ণেল হামিদ উদ্দিন আরো জানান, ঘটনায় তাৎক্ষণিক কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি। হামলাকারি মাদককারবারিদের আটক করার জন্য অভিযান শুরু হয়েছে। হামলা ও অস্ত্র কেড়ে নেয়ার চেষ্টা সহ মাদক উদ্ধারের ঘটনায় 'অভিযোগে' থানায় মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে। 


আরও খবর



নওগাঁয় সারে ৬ হাজার শিক্ষার্থী পেলো শিক্ষা উপকরণ

প্রকাশিত:Wednesday ০১ February ২০২৩ | হালনাগাদ:Friday ০৩ February ২০২৩ |
Image

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন, স্টাফ রিপোর্টার :

এফবিসিসিআই এর পরিচালক, নওগাঁ চেম্বার অব কর্মাস এ্যান্ড ইন্ড্রাষ্টিজের সভাপতি ও ইথেন এন্টারপ্রাইজ লিমিটেড এর কর্ণধার বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ইকবাল শাহরিয়ার রাসেল এর ব্যক্তিগত উদ্যোগে পৌর এলাকায় ৩২টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সারে ৬ হাজার শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষা উপকরণ বিতরণ করা হয়েছে।

মঙ্গলবার সকালে নওগাঁ শহরের বোয়ালিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে শিক্ষা উপকরন বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন, নওগাঁ জেলা প্রশাসক খালিদ মেহেদী হাসান পিএএ। অনুষ্ঠানে বোয়ালিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সুলতানা সাবিনা সিদ্দিকার সভাপতিত্বে ও জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সাব্বির রহমান রিজভীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন এফবিসিসিআই এর পরিচালক ইকবাল শাহরিয়ার রাসেল, জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার সিদ্দীক মোহাম্মদ ইউসুফ রেজা, সহকারি প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা ওয়াহেদুল্লাহ প্রমূখ। 

ইকবাল শাহরিয়ার রাসেল বলেন, বঙ্গবন্ধুর কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বছরের প্রথম দিনে শিক্ষার্থীর হাতে বই তুলে দিয়ে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন। বর্তমান সরকারের অনন্য উদ্যোগে শিক্ষায় জাতি এগিয়ে যাচ্ছে। সেই গতি আরো তরান্বিত করতে জেলা শহরের পৌর এলাকার সবগুলো প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সকল শিক্ষার্থীর মাঝে দুটি করে খাতা ও কলম বিতরণ করার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। আগামীতেও এই ধরনের কর্মকান্ড অব্যাহত রাখা হবে। প্রধান অতিথি জেলা প্রশাসক খালিদ মেহেদী হাসান বলেন, মানবিক গুনাবলীর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের বাংলাদেশ দুর্বার গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে। ২০৪১ সালের মধ্যে একটি সমৃদ্ধশালী বাংলাদেশ গড়তে আজকের শিশুরাই আগামী দিনের ভবিষ্যৎ। তাই আজকের শিশুদের সঠিকভাবে গড়ে তুলতে পারলে স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে বর্তমান সরকারের গৃহিত মিশন ও ভিশন বাস্তবায়ন করতে অনেক সহজতর হবে। তাই সরকারের পাশাপাশি ব্যক্তি উদ্যোগেও এই ধরনের কল্যাণকর কর্মকান্ড আরো বেশি বেশি সম্পাদন করার প্রতি তিনি আহবান জানান। পরে প্রধান অতিথি শিক্ষার্থীদের হাতে শিক্ষা উপকরণ হিসেবে দুটি করে খাতা ও কলম তুলে দেন।


আরও খবর



নওগাঁয় বোরো ধান চাষের শুরুতেই বিদ্যুতের লোড শেডিং, দুঃশ্চিন্তায় কৃষকরা

প্রকাশিত:Thursday ০২ February 2০২3 | হালনাগাদ:Friday ০৩ February ২০২৩ |
Image

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন, স্টাফ রিপোর্টার :

নওগাঁয় চলতি ইরি বোরো ধান চাষের ভরা মৌসুমের শুরুতেই বিদ্যুতের ঘনঘন লোড শেডিংএ দেখা দিয়েছে। ফলে ইরি বোরো ধান চাষের জমিতে পানি সেচ দেওয়া নিয়ে শঙ্কা দেখা দিয়েছে কৃষকদের মাঝে। সার-তেলের সংকট না থাকলেও ধানের চারা এক চতুর্থাংশ নষ্ট এবং বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধি করায় ধান উৎপাদনে বাড়তি খরচ হচ্ছে বলেও দাবি ধান চাষি কৃষকদের। চৈত্র মাসে বিদ্যুতের চাহিদা বেড়ে যায় বর্তমান সময়ের দেড়গুণ। সে সময় চাহিদা মতো বিদ্যুৎ সরবরাহ না হওয়ায় অধিকাংশ জমিতে পানি সেচ এর অভাবে ধান চাষের জমি শুকে ফেটে যায়। ইতি মধ্যেই ধানের জন্য দেশের মধ্যে বিক্ষাত এজেলায় কৃষি পরামর্শের পাশাপাশি ধান উৎপাদন সঠিক রাখতে নওগাঁয় বিদ্যুতের বিশেষ বরাদ্দের বাদি জানানো হয়েছে। 

নওগাঁ গ্রিড (বিদ্যুৎ) বিভাগ অফিস সূত্রে জানা গেছে, চলতি ইরি বোরো মৌসুমের শুরুতে জেলায় ১শ’ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ চাহিদার পরিবর্তে ৮০ মেগাওয়াটের নিচে সরবরাহ থাকছে। যার ফলে আগের চেয়ে বর্তমানে লোডশেডিং এর পরিমাণ বেড়ে গেছে।

চৈত্র মাসে নওগাঁ জেলায় প্রায় দেড়শ’ মেগাওয়াট বিদ্যুতের চাহিদা হয়। 

নওগাঁর বিভিন্ন এলাকার কৃষকদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, ধান উৎপাদনে দেশের অন্যতম জেলা নওগাঁয় পুরোদমে শুরু হয়েছে ইরি বোরো চাষ। সার-তেলের সংকট না থাকলেও ইরি বোরো চাষের শুরুতেই দেখা দিয়েছে বিদ্যুতের ঘনঘন লোডশেডিং। 

এই লোডশেডিং এর মাত্রা বেড়ে যায় প্রতি বছরের চৈত্র মাসে। সে সময় বিদ্যুতের চাহিদা বেড়ে যায় বর্তমান সময়ের দেড়গুণ। চাহিদা মতো বিদ্যুৎ সরবরাহ না হওয়ায় চৈত্র মাসে সেচ দেওয়া সম্ভব হয় না অনেক বোরো ধান চাষের জমিতে। সে সময় বিদ্যুৎ সরবরাহ না পাওয়ায় ঘনঘন লোডশেডিংএ সেচের অভাবে ধানের জমি ফেটে যায়। এতে তূলনা মূলক ফেটে যাওয়া জমিতে ফলন কম হয়। 

নওগাঁর মহাদেবপুর উপজেলার চৌমাশিয়া ও খোর্দ্দনারায়নপুর গ্রামের কৃষক সাজ্জাদ হোসেন মন্ডল, শাহ আলম, নজরুল ইসলাম বাবু সহ জেলা সদর উপজেলার শৈলগাছী বাজার এলাকায় কথা হয় কৃষক আমজাদ হোসেন, করিম হোসেন, আবুল কালাম সহ আরো কযেক জন কৃষকের সাথে। কৃষকরা জানান, গত কয়েক দিনের ঠান্ডায় এক চতুর্থাংশ ইরি বোরো ধানের চারা নষ্ট হয়ে গেছে। ফলে ধানের চারা বাজার থেকে কিনে প্রতি বিঘায় প্রায় ২ হাজার টাকারও বেশি খরচ হচ্ছে। এসময় কৃষি বিভাগ থেকে পরামর্শ না পাওয়ার অভিযোগ করেন কয়েক জন কৃষক।

নওগাঁ সদরের বোয়ালিয়া গ্রামের মাঠে কৃষক মেহেদী হাসান জানান, জ্বালানি তেল ও বিদ্যুতের দাম সরকারি ভাবে বৃদ্ধি করায় গত বছরের তুলনায় প্রতি বিঘায় এ বছর সেচের দাম ৫শ’ টাকা থেকে ১ হাজার টাকা বেড়ে দিয়েছে নলকূপের মালিকরা। এ ছাড়াও কিটনাশকের দাম বৃদ্ধি, জমি চাষ,  লাগানো, নিরানী সহ শ্রমিকের মূল্যও বেড়েছে। একারনে গত বছরের চেয়ে এ বছর প্রতি বিঘায় ৩ হাজার টাকা থেকে ৪ হাজার টাকা ধান উৎপাদন খরচও বেড়ে গেছে। প্রতি মণ বোরো ধান ১৫শ’ টাকা থেকে ১৬শ’ টাকায় বিক্রি না হলে লোকসান গুণতে হবে বলেও মনে করছেন কৃষকরা।  

নওগাঁ জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক আবু হোসেন জানান, নওগাঁ জেলায় চলতি মৌসুমে ১ লাখ ৮৯ হাজার হেক্টর জমিতে ইরি বোরো ধান চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। ইত্যে মধ্যেই প্রায় ৪৫ হাজার হেক্টর জমিতে ধান চাষ (রোপন) সম্পন্ন করেছেন কৃষকরা। কৃষি বিভাগ থেকে কৃষকদের কৃষি পরামর্শ না পাওয়ার অভিযোগ অস্বীকার করে আবু হোসেন আরো জানান, প্রয়োজন মত লোকবল না থাকায় কোথাও অসুবিধা হতে পারে। তবে মাঠ পর্যায়ে উপ-সহকারিদের সেল ফোন ও তাদের সাথে যোগাযোগ করার জন্যে বলা হয়েছে কৃষকদের। 

বাংলাদেশ কৃষক সমিতি নওগাঁ জেলা শাখার সহ-সভাপতি মহসিন রেজা জানান, একে তো বিদ্যুৎ ও জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধি করায় বোরো ধানের উৎপাদন খরচ বেড়ে গেছে। আবার সেচ নির্ভর বোরো ধান বিদ্যুতের লোডশেডিং আরো বেশি হলে সেক্ষেত্রে সেচ ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে জ্বালানি তেল দিয়ে ইরি বোরো চাষের জমিতে পানি সেচ ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে হবে। এতে আরো বেড়ে যাবে কৃষকদের উৎপাদন খরচ।

ইরি বোরো উৎপাদন মৌসুমে নওগাঁয় নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ রাখার দাবি জানান এই কৃষক নেতা।  

নওগাঁ গ্রিড (বিদ্যুৎ ) বিভাগের উপ-সহকারি প্রকৌশলী সুলতান বায়জিত জানান, বর্তমানে নওগাঁয় ১শ’ মেগাওয়াট বিদ্যুতের চাহিদা থাকলেও সেখানে ৭৫ মেগাওয়াট থেকে ৮০ মেগাওয়াট বিদ্যুত সরবরাহ পাওয়া যাচ্ছে, এজন্য মাঝে মাঝে লোডশেডিং চলছে জানিয়ে অতিদ্রুত চাহিদা মতো বিদ্যুৎ পেলে এসমস্যার সমাধান হবে বলেও আশাব্যাক্ত করেন তিনি। তিনি আরো বলেন, চৈত্র মাসে প্রায় দেড়শ’ ১শ’ মেগাওয়াট বিদ্যুতের চাহিদা হয়। ইত্যে মধ্যেই সরকারের উচ্চ পর্যায়ে চাহিদা পাঠানো হয়েছে বলেও জানান তিনি। 

 


আরও খবর



বকশীগঞ্জ সরকারি বালিকা বিদ্যালয়ে পিঠা উৎসব

প্রকাশিত:Thursday ১৯ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Wednesday ০১ February ২০২৩ |
Image

জামালপুর প্রতিনিধি :

জামালপুরের বকশীগঞ্জ উলফাতুন্নেছা সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে শীতকালিন পিঠা উৎসব অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার বিদ্যালয় মাঠে দিনব্যাপী এ পিঠা উৎসবের আয়োজন করে স্কুল কতৃপক্ষ। উৎসবে বিভিন্ন স্টলে বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা রকমারি পিঠার পসরা সাজিয়ে বসে। বাহারী রকমের পিঠার মধ্যে ছিলো হৃদয় হরণ পিঠা,ডিম সুন্দরী, বিবি খানা, চালতাপাতা, জামাই পিঠা,গোলাপ পিঠা, মালপোয়া,তালের পিঠা,দুধ পুলি,ভাপা, চিতই,ডিম পিঠা, নকশি পিঠা, মুগপাকন, পাটিসাপটা ও লবঙ্গ লতিকা পিঠা। শিক্ষক শিক্ষার্থী ছাড়াও বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ পিঠা উৎসবে অংশ নেয়। দিনভর পিঠা মেলায় দর্শনাথীদের ভীড় ছিলো চোখে পড়ার মত। 

পিঠা উৎসব পরিদর্শন করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মুন মুন জাহান লিজা, বকশীগঞ্জ সরকারি কিয়ামত উল্লাহ কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর নুরুল ইসলাম আব্দুল্লাহ,সহকারী কমিশনার (ভূমি) আতাউর রাব্বী, পৌর মেয়র নজরুল ইসলাম সওদাগর, প্রধান শিক্ষক আতাউর রহমান, সহকারী শিক্ষক আব্দুল্লাহ মাহবুব তানভী ও আজিম উদ্দিন খন্দকার প্রমূখ। 

দশম শ্রেণীর শিক্ষার্থী রোদেলা জান্নাত মিথিলা জানায়,জমকালো পিঠা উৎসব হয়েছে। স্যারদের সাথে আমরা বেশ মজা করেছি। দর্শনার্থীও ছিলো অনেক। 

প্রধান শিক্ষক আতাউর রহমান বলেন,পিঠা উৎসবে দর্শনার্থীর উপস্থিতি ছিলো অনেক বেশি। দিনব্যাপী শিক্ষার্থীরা বেশ করেছে। সাথে শিক্ষক কর্মচারীরাও পিঠা উৎসবে আনন্দ করেছে।


আরও খবর