Logo
শিরোনাম

এবার ‘সুগার ড্যাডি’ নিয়ে ক্ষোভ ঝারলেন রূপাঞ্জনা মিত্র

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ |
Image

শোবিজ অঙ্গনে ‘সুগার ড্যাডি’ খুব পরিচিত শব্দ। অনেক অভিনয়শিল্পী ‘সুগার ড্যাডি’ ধরে টিভি বা ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে ফায়দা নেওয়ার অভিযোগ শোনা যায়। এবার ‘সুগার ড্যাডি’ নিয়ে ক্ষোভ ঝারলেন ভারতীয় বাংলা সিনেমার অভিনেত্রী রূপাঞ্জনা মিত্র।

বিষয়টি নিয়ে এ অভিনেত্রী তার ফেসবুকে একটি পোস্ট দিয়েছেন। তাতে তিনি বলেন, ‘একটা কথা বলতে চাই সেই সব মেয়েদের, যারা কাজ পাওয়ার জন্য ইন্ডাস্ট্রিতে ‘সুগার ড্যাডি’ ধরছেন। মেয়েগুলোর বয়স ১৬-২০ বছর। এরই মধ্যে আপনারা নিশ্চয় বুঝে গেছেন, ইন্ডাস্ট্রি কী নিয়মে চলে? কেউ কেউ তো আবার বার্থডে পার্টিও থ্রো করাছেন সেসব উটকো সুগার ড্যাডিদের দিয়ে। তাতে আমাদের ইন্ডাস্ট্রির কিছু শিল্পী-পরিচালকরাও যাচ্ছেন।’

কলকাতার মডেল-অভিনেত্রী অর্পিতা মুখার্জির কাণ্ডে তোলপাড় পশ্চিমবঙ্গ। তার বিষয়টি উল্লেখ করে রূপাঞ্জনা বলেন, ‘এই মেয়েগুলোও কি আগামী দিনে আর্পিতাদের মতো হবে। খুব চিন্তা হচ্ছে। এই মেয়েগুলোকে গাইড করার মতো অভিভাবক নেই? নিজেদের অভিভাবকরাও কীভাবে প্রশ্রয় দেন? এই ‘ফুড চেইন’ যারা পরতে চায় না তারা কি করবে? সেই মেয়েগুলো যারা মাথা তুলে ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ করতে চায়। তাদের পাশে আপনারা থাকবেন তো?’

এ পোস্ট দেওয়ার পর নেটিজেনদের বড় অংশ তার অভিমতকে সমর্থন জানিয়েছেন। আবার অনেকে দ্বি-মত পোষণ করেছেন। এ নিয়ে চলছে জোর সমালোচনা। ভারতীয় একটি সংবাদমাধ্যম রূপাঞ্জনার সঙ্গে যোগাযোগ করলে আরো বেশি ক্ষোভ ঝারেন তিনি। এ অভিনেত্রী বলেন—‘এটা কি সবাই বেশ্যাখানা তৈরি করবে? যারা কষ্ট করে নিজের জায়গা তৈরির চেষ্টা করেন, তাদের কী হবে? কেউ তো ভরসাই করতে পারবে না। নতুন অভিনেতাদের একটু ভাবা উচিত।

এই প্রবণতা কীভাবে তৈরি হয়েছে? না কি ইন্ডাস্ট্রিতে নিজেদের জায়গা তৈরি করতে সব সময়ই এই ধরনের রাস্তা বেছে নিয়েছেন কিছু অভিনয়শিল্পী? এই প্রশ্নের উত্তরে রূপাঞ্জনা বলেন, ‘হয়তো ছিল। কিন্তু এত বাড়বাড়ন্ত ছিল না। সেই সময়ে পরিবার, মা-বাবার একটা ভয় থাকত; দিনে দিনে এখন সেটাও উড়ে যাচ্ছে।



আরও খবর

ঋতুপর্ণা-প্রসেনজিতের বিয়ে

শুক্রবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২




প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা পেলো ইউক্রেন

প্রকাশিত:সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ০৫ অক্টোবর ২০২২ |
Image

রুশ বাহিনীর হামলা প্রতিহত করেত ইউক্রেন যুক্তরাষ্ট্র থেকে উন্নত প্রযুক্তির আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা পেয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি।

এক ভিডিও বার্তায় প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কি জানান, ন্যাশনাল অ্যাডভান্সড সারফেস-টু-এয়ার মিসাইল সিস্টেম পেয়েছে ইউক্রেন। এই আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা কিয়েভে সরবরাহ করতে গত মাসের শেষের দিকে অনুমোদন দেয় বাইডেন প্রশাসন। যথাযথ পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য প্রেসিডেন্ট বাইডেনকে ধন্যবাদ জানান ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট। ইউক্রেন ভূখণ্ডে রাশিয়ার দখলদারিত্ব ঠেকাতে হাই মোবিলিটি আর্টিলারি রকেট সিস্টেমস সহ অন্যান্য যেসব রকেট সরবরাহ করেছে তার জন্য যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন তিনি।  


আরও খবর

চিকিৎসাবিজ্ঞানের নোবেল ঘোষণা

মঙ্গলবার ০৪ অক্টোবর ২০২২




তেলের দাম ৭ মাসের মধ্যে সর্বনিম্ন

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ |
Image

আন্তর্জাতিক বাজারে আরও কমলো অপরিশোধিত জ্বালানি তেলের দাম কমে গত সাত মাসের মধ্যে সর্বনিম্ন পর্যায়ে পৌঁছেছে।

বুধবার যুক্তরাষ্ট্রের তেলের বেঞ্চমার্ক ওয়েস্ট টেক্সাস ইন্টারমিডিয়েটের (ডব্লিউটিআই) দাম ১ দশমিক ৫৫ ডলার বা ১ দশমিক ৮৮ শতাংশ কমে ব্যারেলপ্রতি ৮৫ দশমিক ৩৩ ডলারে দাঁড়িয়েছে। এ সেশনে লেনদেনের একপর্যায়ে ডব্লিউটিআইয়ের দাম নেমে গিয়েছিল ৮৫ দশমিক ১৭ ডলারে, যা গত ২৬ জানুয়ারির পর থেকে সর্বনিম্ন।

চীনে করোনাভাইরাস সম্পর্কিত লকডাউন, বিশ্বব্যাপী কেন্দ্রীয় ব্যাংকগুলোতে সুদের হার বৃদ্ধি এবং ইউরোপে অর্থনৈতিক মন্দার শঙ্কা জেঁকে বসায় আন্তর্জাতিক বাজারে তেলের দাম কমেছে বলে মনে করছেন বিশ্লষকেরা।

এর আগে,  রাশিয়ার নেতৃত্বাধীন তেল উৎপাদক দেশগুলোর জোট ওপেক প্লাস আগামী অক্টোবর থেকে দৈনিক এক লাখ ব্যারেল তেল কম উৎপাদনের ঘোষণা দেয়। তাদের এ সিদ্ধান্তের পরপরই বিশ্ববাজারে বেড়ে যায় তেলের দাম।

ফোরেক্স কোম্পানি ওএনএডিএ’র জ্যেষ্ঠ বাজার বিশ্লেষক এডওয়ার্ড মোয়া বলেন, বিশ্বব্যাপী অর্থনৈতিক চ্যালেঞ্জের সামনে ওপেক প্লাসের সিদ্ধান্তকে ম্লান করা এতটা কঠিন ছিল না। যুক্তরাষ্ট্র থেকে প্রত্যাশার চেয়েও ভালো কিছু সার্ভিস ডেটা পাওয়া সত্ত্বেও বৈশ্বিক প্রবৃদ্ধি মোটেও ভালো দেখাচ্ছে না। এটি অপরিশোধিত তেলের দামের জন্য সমস্যা।

এর পাশাপাশি মার্কিন ডলারের শক্তিবৃদ্ধি, সুদের হার বৃদ্ধি, চীনের নিম্নমুখী প্রবৃদ্ধি প্রভৃতি আন্তর্জাতিক বাজারে তেলের দামের ওপর চাপ তৈরি করেছে বলে জানিয়েছেন সিএমসি মার্কেটসের বিশ্লেষক টিনা টেং। তার কথায়, তেলের ফিউচার মার্কেটগুলো বিশ্ব অর্থনীতিতে ‘স্ট্যাগফ্লেশন’-এ মূল্য নির্ধারণ করছে। একটি দেশের অর্থনীতিতে উচ্চ বেকারত্ব হার ও স্থবির চাহিদার পাশপাশি ক্রমাগত উচ্চ মূল্যস্ফীতি থাকাকে ‘স্ট্যাগফ্লেশন’ বলা হয়।


আরও খবর

লিটারে ১৪ টাকা কমল সয়াবিন তেলের দাম

মঙ্গলবার ০৪ অক্টোবর ২০২২




কুমিল্লায় পৃথক সড়ক দূর্ঘটনায় কলেজছাত্রীসহ নিহত-৩

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ |
Image

কু‌মিল্লা ব্যুরো ঃ

 কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামের মিয়ারবাজার এলাকায় ‌বিজলী প‌রিবহ‌নের বাসের ধাক্কায়  সিএন‌জিঅ‌টো‌রিক্সার যাত্রী কলেজ ছাত্রী ফাতেমা আক্তার রেবা (২৪) ও মিম (৩) নামের এক শিশু মারা গেছে। 

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ৬টায় ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কের মিয়াবাজার এলাকায় এ দুর্ঘটনাটি ঘটে। 

নিহত রেবা কুমিল্লা অজিতগুহ কলেজের অনার্স ৩য় বর্ষের ছাত্রী এবং উপজেলার কালিকাপুর ইউনিয়নের বিজয়পুর গ্রামের মফিজুর রহমানের মেয়ে। অপর নিহত শিশু মিমের বাড়ি চান্দিনা উপজেলায় বলে জানা গেছে। 

শিশুটির খালা সুমি বেগম জানান, মিমের পিতার নাম সুজন। স্থানীয়ভাবে জানা গেছে নিহত শিশুর পরিবার ছুপুয়ার আমির শার্টস নামক গার্মেন্টেসে কাজ করে। 

নিহত কলেজ ছাত্রী রেবার নিকটাত্নীয় এবং স্থানীয় ইউপি সদস্য জাকির মাহমুদ জানান, কুমিল্লা অজিতগুহ কলেজ থেকে কাজ শেষ করে বাড়ি ফিরছিল ফাতেমা আক্তার রেবা। এসময় মিয়াবাজার নেমে সিএনজিতে উঠে সে। সিএনজিতে নিহত অপর শিশু, শিশুটির খালাসহ ৩জন যাত্রী ছিলো।

পু‌লিশ ও স্থানীয়রা জানায় সন্ধ‌্যায় সিএনজি অটোরিক্সাটি নোয়াবাজারের উদ্দেশ্যে ছাড়ার সাথে সাথে কুমিল্লা-কাশিনগরগামী বিজলী সুপার সার্ভিসের একটি বাস পেছন দিক থেকে সিএনজিকে ধাক্কা দেয়।এসময় সিএনজিঅ‌টো‌রিক্সা‌টি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সামনে থাকা আরেকটি বাসের পিছনে ধাক্কা দিলে সিএনজিতে থাকা শিশু, রেবাসহ ৩যাত্রী আহত হন। এসময় স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে মিয়াবাজার এলাকার একটি হাসপাতালে নিয়ে গেলে হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক ফাতেমা আক্তার রেবাকে মৃত ঘোষনা করেন। গুরুতর আহত শিশু মিমকে কুমিল্লায় নিয়ে গেলে কুমিল্লার একটি হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়।

মিয়াবাজার হাইওয়ে ফাঁড়ির এসআই গিয়াসউদ্দিন  ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, দুর্ঘটনার খবর পেয়ে আমরা দ্রত ঘটনাস্থলে পৌঁছিদূর্ঘটনাকব‌লিত বাসও সিএন‌জি উদ্ধার ক‌রে পু‌লিশ। এ ব‌্যাপা‌রে এক‌টি মামলা প্রক্রিয়ার্ধীন র‌য়ে‌ছে। এ‌দি‌কে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়‌কের কুমিল্লা মাধাইয়া এলাকায়  বা‌সের চাপায় এক মোটরসাইকেল আ‌রোহী বা‌য়ে‌জিদ ইসলাম মারা গে‌ছে। নিহত বায়েজিদ (৩৫) বা‌য়ে‌জিদ তিতাস উপজেলার ভিটিকান্দি ইউনিয়নের কদমতলী গ্রামের ও আসমানীয়া বাজারের হাজী ফার্মেসীর মালিক রফিকুল ইসলামের ছোট ছেলে।

হাইও‌য়ে ই‌লিয়টগঞ্জ ফা‌ড়িরঁ এসআই আবদুল হা‌কিম  ও স্থানীয়রা জানায়  বৃহস্পতিবার বিকালে বায়েজীদ মোটরসাইকেল যোগে কুমিল্লা যাওয়ার পথে ঢাকা - চট্টগ্রাম মহাসড়‌কের কুমিল্লা মাধাইয়া এলাকায় সড়ক পারাপারের সময় পেছনে থেকে একটি ঘাতক বাস তার মোটরসাইকেলটিকে সজোরে ধাক্কা দেয়। এ‌সময় মোটরসাইকেলসহ রাস্তায় ছিটকে পড়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান মোঃ বা‌য়ে‌জিদ ইসলাম।


আরও খবর



নারায়ণনারায়ণগঞ্জে সাজা প্রাপ্ত আসামীর বদলে ভিন্নব্যাক্তির কারাভোগ ;

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ |
Image

 বুলবুল আহমেদ সোহেল :

নারায়ণগঞ্জে মাদক কারবারি জাকিরের বদলে অন্য একজন সাজা খাটতে গিয়ে কারাগারে শনাক্ত হওয়ার মতো চাঞ্চল্যকর ঘটনা ঘটেছে।  বুধবার বিকেলে শুনানী শেষে আসামী জাকির ও ভূয়া আাসমী জুয়েলের বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগে মামলার নির্দেশ দিয়েছে আদালত । 

নারায়ণগঞ্জ আদালত পুলিশের পরিদর্শক আসাদুজ্জামান জানান, নারায়ণনারায়ণগঞ্জ বন্দর থানার ২০১৭ সালের একটি মাদক মামলায় ৬ মাসের সাজা হয় আসামী জাকিরের। ইয়াবাসহ গ্রেপ্তারের পর চলতি বছরের ১০ আগষ্ট তার বিরুদ্ধে আদালত ৬ মাসের কারাদণ্ডাদেশ দেন। রায় ঘোষণার আগে জামিনে মুক্ত হয়ে পলাতক থাকে জাকির। রায় ঘোষনার পর আদালত তার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করে। এ প্রেক্ষিতে চলতি বছরের ১২ সেপ্টেম্বর জুয়েল নামের ব্যাক্তি নিজেকে জাকির দাবি করে  আদালতে আত্মসমর্পণ করে আইনজীবীর মাধ্যমে। আত্মসমর্পণের পর আসামীর পক্ষ জামিনের আবেদন করলে আদালত জামিন না মঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেয়। মূল আসামী জাকিরের পরিবর্তে জুয়েল কারাগারে রয়েছে জানতে পেরে কারা কর্তৃপক্ষ আদালতেকে ব্যাপারটি অবগত করেন। 

মাদক মামলার সাজাপ্রাপ্ত আসামী হলো, জাকির ওরফে সোহেল ওরফে গাজী । সে বন্দর উপজেলার নূরবাগ এলাকার সামেদ মিয়ার ছেলে। তার পরিবর্ততে আসামী হয়ে কারাভোগ করতে যায় জুয়েল। সে উপজেলার নবীগঞ্জের আলাউদ্দিনের ছেলে।স্থানীয়দের দাবি, জাকির ও জুয়েল পূর্ব পরিচিত। জুয়েল বিভিন্ন মামলায় এর আগে একাধিবার জেল খেটেছেন। অর্থের বিনিময়ে এমনটা করেছে সে।  

বুধবার বিকেলে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ শামছুর রহমানের আদালত শুনানি শেষে, তাদের বিরুদ্ধে যোগসাজসে প্রতারণা ও মিথ্যে সাক্ষী দেয়ার অপরাধে দুইজনের বিরুদ্ধে ফতুল্লা থানায় মামলা করার নির্দেশ দেন সহকারী ব্যাঞ্চকে। তবে মাদক মামলায় জুয়েলকে অব্যহতি দেয়া হয়েছে।

অন্যের মাদক মামলায় আত্মসমর্পণ ও  জুয়েলের জামিন আবেদন করেছিলেন আইনজীবীর রোকেয়া সুলতানা। বুধবারের শুনানিতে স্বশরীরে হাজির হয়ে তিনি ব্যাখা প্রদান করেন ও যাচাই না করে আসামীর পক্ষ নেয়ায় আদালতে ক্ষমা প্রার্থনা করেন। আদালতে তাকে মামলার বিষয়ে শর্তক থাকার নির্দেশ দিয়েছে। তবে এ বিষয়ে ক্যামেরার সামনে কথা বলতে রাজী হননি তিনি।


আরও খবর



ঋতুপর্ণা-প্রসেনজিতের বিয়ে

প্রকাশিত:শুক্রবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ |
Image

গত ফেব্রুয়ারিতে বিশ্ব ভালোবাসা দিবসে বিয়ের ঘোষণা দেন টালিউড অভিনেতা প্রসেনজিৎ চ্যাটার্জী। অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তের সঙ্গে বিয়ে তার! বিয়েতে সবাইকে ডিজিটাল কার্ডের মাধ্যমে নিমন্ত্রণও জানান এই অভিনেতা। আর এবার বিয়ের তারিখ জানালেন প্রসেনজিৎ।

তবে এই বিয়ে বাস্তব জীবনে নয়। শুধুই সিনেমায়। সিনেমার নাম ‘প্রসেনজিৎ ওয়েডস ঋতুপর্ণা’। প্রসেনজিৎ-ঋতুপর্ণাকে টালিউডের সবচেয়ে সফল জুটি বলা হয়ে থাকে। এই সফল জুটির সিনেমা নিয়েই অভিনব প্রচারণা চালাচ্ছেন তারা।

২৬ সেপ্টেম্বর সোশ্যাল মিডিয়া ইনস্টাগ্রাম হ্যান্ডেলে টালিউড সুপারস্টার জানান, বিয়ের তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে। আগামী ২৫ নভেম্বর ২০২২ ইং তারিখে বিয়ের বড় উদযাপনে যোগ দিন।

এছাড়া অভিনেতা একটি অ্যানিমেটিক টিজার শেয়ার করেছেন। সেখানে এক পুরুষ কণ্ঠ বলছে, বাবা আসছে নতুন সিনেমা, আসছে প্রসেনজিৎ ওয়েডস ঋতুপর্ণা।

এর আগে ২৩ সেপ্টেম্বর ইনস্টাগ্রাম হ্যান্ডেলে একটি ভিডিও পোস্ট করেছিলেন প্রসেনজিৎ। সেখানে দেখা যায়, প্রসেনজিৎ হঠাৎ করেই বন্ধ ঘরে ‘ঋতু ঋতু’ করে চিৎকার করেন। তার ডাকাডাকিতে অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা বলেন, এত চেঁচামিচি করছো কেন? জবাবে অভিনেতা বলেন, এবার বিয়ের ডেট (তারিখ) ঠিক করা উচিত নয়? প্রসেনজিতের প্রশ্নে লজ্জায় ঋতুপর্ণা বলেন, কী আজেবাজে বকছো! আমাদের বিয়ের ডেট, ছেলে-মেয়ে বড় হয়েছে। আমাদের বিয়ের ডেট! এরপর তারকা বুম্বাদা বলেন, আরে আমাদের বিয়ের ডেটের কথা থোড়ি বলছি! আরে ভেতরে!

এভাবেই প্রসেনজিৎ-ঋতুপর্ণাকে কথা বলতে দেখা যায়। তবে তারপরে তারা কী বলেন-না বলেন তা আর শোনা যায়নি। ‘আরে ভেতরে’ বলার পরই ঘর ছেড়ে বাইরে বেরিয়ে পড়েন অভিনেতা। লজ্জায় অভিনেত্রীও ঘর ছাড়েন।

প্রায় দেড় দশক পর শিবপ্রসাদ-নন্দিতা ‘প্রাক্তন’ সিনেমার মধ্য দিয়ে পর্দায় ফিরেছিলেন প্রসেনজিৎ-ঋতুপর্ণা। এরপর কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায়ের ‘দৃষ্টিকোণ’ সিনেমায় (২০১৮) কাজ করেন তারা।


সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস


আরও খবর