Logo
শিরোনাম

ফুলবাড়ীতে জরাজীর্ণ ঝুপড়িতে অসহায় দম্পতির বসবাস, মেলেনি একটি ঘর

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১২ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | ১৭৯জন দেখেছেন
Image

আরিফুল ইসলাম আরিফঃকুড়িগ্রাম জেলার ফুলবাড়ী উপজেলার বড়ভিটা ইউনিয়নে জরাজীর্ণ ঝুপড়িতে দীর্ঘদিন ধরে বসবাস করছেন এক অসহায় দম্পতি। ঝড়-বৃষ্টিতে ভিজে যায় বিছানাপত্র, অনেক সময় অন্যের বাড়িতে আশ্রয় নিতে হয় তাদের।

উপজেলার বড়ভিটা ইউনিয়নের বড়লই সংলগ্ন নাওডাঙ্গা এলাকার ৭৮ বছর বয়সী অসহায় বৃদ্ধ নূর মোহাম্মদ তার বৃদ্ধা অসুস্থ স্ত্রী জরিনা বেগমকে নিয়ে রাস্তার ধারে বাঁশের চাটাই ও পলিথিন দিয়ে ৪ শতাংশ জমির উপর নির্মিত জরাজীর্ণ ঝুপড়িতে দীর্ঘদিন ধরে বসবাস করে আসছেন।

তাদের ভাগ্যে জোটেনি সরকারি কোনো সুযোগ-সুবিধা মেলেনি একটি সরকারি ঘর। বর্তমানে বসবাসের একমাত্র আশ্রয় ঝুপড়িটি জরাজীর্ণ হওয়ায় একটু ঝড়-বৃষ্টিতেই ভিজে যায় বিছানাপত্র, অনেক সময় বৃষ্টি আসলে কাতা বালিশ মুড়িয়ে ঘরের এক কোণায় বৃষ্টি থামা পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হয়, কখনো কখনো বেশি বৃষ্টি হলে নিতে হয় অন্যের বাড়িতে আশ্রয়, ফলে মানবেতর জীবন যাপন করে আসছেন ওই দম্পতি।

ছেলে মেয়ে না থাকায় শারীরিক অসুস্থ থাকলেও বৃদ্ধ বয়সেও ছুঁটতে হয় খাবার জোগাড় এর খোঁজে। স্ত্রী জরিনার চোখের সমস্যা থাকলেও টাকার অভাবে করতে পারছেন না চিকিৎসা। তাইতো সমাজের বিত্তবান ও সরকারের কাছে একটি ঘরের আবেদন জানিয়েছেন ওই অসহায় দম্পতি।অসহায় দম্পতি নূর মোহাম্মদ জানান, ছেলে মেয়ে আমাদের কেউ নেই, এই বৃদ্ধ বয়সে তেমন কাজ কামান করতে পারিনা, বাশেঁর তৈরী কিছু জিনিষ বাড়ীতে তৈরী করে হাটে বিক্রি করে যা পাই তা দিয়ে অতিকষ্টে দিন পার করছি। থাকার একমাত্র ঘরটি জরাজীণ হওয়ায় আমাদের খুব কষ্ট হয়।

স্ত্রী জরিনা বেগম জানান, চোঁখে তেমন একটা দেখতে পাইনা তার পরও অন্যের বাড়িতে কাজ করে যা পাই তা দিয়ে কোন ভাবে দিন পার করছি। অনেক অন্যের কাছ থেকে খুজে নিয়ে খেতে।

এলাকাবাসী সলিমুদ্দিন, রহমত আলী ও আমেনা বেগম জানান, এই পরিবারটির দুজনেই অসুস্থ তেমন একটা কাজ করতে পারেনা অনেক সময় অন্যের বাড়িতে গিয়ে খুঁজে নিয়ে খায়ড়, থাকার ভালো একটি ঘরও নেই কোন মহৎ ব্যক্তি বা সরকার যদি এই পরিবারটিকে একটি ঘরের ব্যবস্থা করে দিত তাহলে কমপক্ষে তারা রাতের বেলা শান্তি মতো একটু ঘুমাতে পারতো।

বড়ভিটা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আতাউর রহমান মিন্টু, জানান,বিশ্বের মানচিত্রে বাংলাদেশ একটি উন্নয়নের মডেল কিন্তু আমার বড়ভিটা ইউনিয়ন বাসী আধুনিকতার ছোঁয়া থেকে যেমন বঞ্চিত, তেমনি এই পরিবারটি সরকারি কোনো সুযোগ-সুবিধা ছাড়াই মারাত্মক অর্থকষ্টের কারণে তাদের বসতঘরটি পলিথিনের চালা দিয়ে তারা বসবাস করছেন।

সরকারি যে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা রয়েছেন তাদেরকে অনুরোধ জানাচ্ছি যাতে করে ত্রাণ শাখার পক্ষ থেকে এই পরিবারটিকে সহযোগিতা করে তার বসত ভিটাটি মেরামত অথবা একটি নতুন করার ব্যবস্থা করে।


আরও খবর



ইসলামাবাদে তারেক হত্যার খুনীদের গ্রেফতারের দাবীতে মানববন্ধন

প্রকাশিত:শুক্রবার ২২ এপ্রিল 20২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | ৮২জন দেখেছেন
Image

ষ্টাফ রিপোর্টার,ঈদগাঁও  

কক্সবাজারের নবঘোষিত ঈদগাঁও উপজেলার ইসলামাবাদে দোকানদার তারেক হত্যার প্রতি বাদে এক বিশাল মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

২২ এপ্রিল বাদে জুমা চট্রগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের ইসলামাবাদ ইউনিয়নের ওয়াহেদের পাড়াবাসীর উদ্যোগে মরহুম ছগির আহমদের পূত্র মোহাম্মদ তারেক হত্যার প্রতিবাদে খুনীদের গ্রেফতার ও ফাঁসির দাবীতে দীর্ঘলাইন মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।  মানববন্ধনে ওয়াহেদের পাড়া থেকে আউলিয়াদ পযন্ত বিপুল সংখ্যক লোকজনের সমাগম ঘটে। 

স্থানীয় মেম্বার আবদু শুক্কুরের সভাপতিত্বে ছাত্রনেতা জাহেদের পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন, মুরব্বী এজাহার মিয়া,জসিম উদ্দিন, মাষ্টার আবদুল করিম, মেস্বার ও উপজেলা শ্রমিকলীগের আহবায়ক আবু বক্কর ছিদ্দিক বান্ডি,ঈদগাঁও উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আবু হেনা বিশাদ, ওয়ার্ড় আ,লীগের সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবির,ড্রাইভার নুরুল আজিম,মোবারক,মিজান, আবদুল আজিজ সওদাগর,মসজিদের ইমাম ওসমান গনি, যুবনেতা করিম, সাদ্দাম হোসেন,আনচারুল করিম। এই মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশে সর্বস্তরের লোকজন অংশ নেন। 

প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তারা তারেক হত্যার খুনী দের দ্রুত গ্রেফতার পূর্বক দৃষ্টান্তমুলক শাস্থির দাবী জানান। 

উল্লেখ্য,বিগত ১১ এপ্রিল ইসলামাবাদের ঢালার দোয়ার নামক স্থানে নিজ ব্যবসায়ীক প্রতিষ্ঠানে  ছুরিকাঘাতে খুন করা হয় তারেক নামের এক তরুনকে।


আরও খবর



অপহরন ও ২০কোটি টাকা মুক্তিপন দাবীর পটুয়াখালীতে ৬ সহযোগীকে গ্রেফতার

প্রকাশিত:সোমবার ১৮ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | ৯৪জন দেখেছেন
Image
পটুয়াখালী প্রতিনিধিঃ পটুয়াখালীতে চাঞ্চল্যকর বিশিস্ট ব্যবসায়ী শিবু লাল দাস অপহরন করে ২০কোটি টাকা মুক্তিপন এবং গুম করার ঘটনার মূল পরিকল্পনাকারী মামুন ওরূপে ল্যাংড়া মামুনের ৬ সহযোগীকে গ্রেফতারসহ অপহরন গ্যাংয়ের বিশাল নেটওয়ার্ক উদঘাটন করতে সক্ষম হয়েছে।

রোবার দুপুর সাড়ে ১২ টায় পুলিশ সুপার কার্যালয়ের কনফারেন্স কক্ষে ভার্চুয়াল প্রেস কনফারেন্সে জানান পুলিশ সুপার মোহাম্মদ শহীদুল ইসলাম পিপিএম।

তিনি জানান, গত ১১ এপ্রিল রাতে  গলাচিপা থেকে পটুয়াখালীতে  প্যারোডা জীপে করে আসার পথে  বিশিস্ট ব্যবসায়ী শিবু লাল দাস,(৬০) ও তার ড্রাইভার মোঃ মিরাজ(২২) অপহৃত হয়। এ অপহরনের পরদিন ১২ এপ্রিল রাতে অপহৃত শিবু দাসের ছেলে বুদ্ধদেব দাস সদর থানায় সাধারন ডাইরি করেন, যার নং- ৫৪২।

এ প্রেক্ষিতে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ পিপিএম এর নেতৃত্বে  জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন ও অর্থ) আহমাদমাঈনুল হাসান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল)  সাজেদুল ইসলাম৷ সদর থানার ওসি মনিরুজ্জামানসহ বিভিন্ন থানার পুলিশ ও জেলা  গোয়েন্দা শাখার বিশেষ দল সাড়শি অভিযান পরিচালনা করে ১২ এপ্রিল রাত সাড়ে ১০ টার সময় শহরের কাজীপাড়াস্থ এসপি কমপ্লেক্সের নীচে আন্ডারগ্রাউন্ডের দুই হাত, দুই পা, মুখে কসটেপ বাধা প্লাস্টিকের বস্তা ভর্তি অবস্থায় শিবু দাসকে ও ড্রাইভার মিরাজকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে প্রেরন করা হয়।

একই দিন  ১২ এপ্রিল রাত দেড়টায় আমতলী থানাধীন এ রহমান ফিলিং স্টেশন হতে পরিত্যাক্ত অবস্থায় ভিকটিমের প্যারোডা জীপ উদ্ধার করে পুলিশ।  এ সময় জীপের মধ্য থেকে খেলনা  পিস্তলের ভাঙ্গ অংশ জব্ধ করা হয়।

ভিকটিমদ্বয়কে  উদ্ধার স্থান এসপি কমপ্লেক্সের নীচ হতে অপহরনের কাজে ব্যবহৃত হাত, পা, চোখ, মুখ বাধার জন্য কস্টেপ, গামছা, রশি, দুটি প্লাস্টিকের বস্তা এবং সন্দিগ্ধ চুল,  অপহরনের কাজে ব্যবহৃত অটোরিক্সা, অটোতে থাকা অপর বস্তায় মাতৃছায়া স্টিকারযুক্ত শপিং ব্যাগ উদ্ধার করা হয়।

অটোর চালক বিল্লাল  প্যাদা জানায় আমার অটো যে ভাড়া করেছিল তার এক পা ল্যাংড়া এবং অটোরিক্সয় সে সহ চারজন ছিলাম এবং পিছনের সিটে সাদা রং এর কয়েকটি প্লাস্টিকের বস্তা তারা নিয়ে আসে। ভিকটিম ও অটো চালকের জবানবন্দীর সাথে মিল পাওয়ায় এবং বিভিন্ন তথ্য উপাত্ত, সিসিটিভির ফুটেজ, তথ্য সূত্রে ঘটনার মূল পরিকল্পনাকারী হিসেবে পুলিশ ল্যাংড়া মামুনকপ চিহ্নত করা হয়ে।

এ অপহরন ঘটনায় ১০ থেকে ১৫ জন দুর্বৃত্ত জড়িত ছিলো  বলেও পুলিশ সুপার  মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ পিপি সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন। 

গেফতারকৃত ৬ আসামী হচ্ছে- শামিম আহমেদ(৩৯), আক্তারুজ্জামান সুমন(৩২), মো. আতিকুর রহমান পারভেজ (৩২), মো. মিজানুর রহমান ওরপে সাবু গাজী, (৪০), মো. বিল্লাল (৪১) ও মো. সাব্বির হোসেন ওরপে জুম্মন(২২)।  অপহরনের মুল হোতাসহ বাকি দুর্বৃত্তদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত আছে বলে অতিরিক্ত পুলিশ সুওার আহমাদ মাঈনুল হাসান জানান।

এ ঘটনায় পটুয়খালী সদর থানার মামলা নং- ১৫  অনুসন্ধান করে অপহরনের সময়, স্থান চিহ্নিত করে।

আরও খবর



রাশিয়ার সঙ্গে সম্পর্ক আরও জোরদার করবে উত্তর কোরিয়া

প্রকাশিত:সোমবার ২৫ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | ৯৪জন দেখেছেন
Image

উত্তর কোরিয়া বলেছে, তারা রাশিয়ার সঙ্গে সম্পর্ক আরও জোরদার করবে। উত্তর কোরিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় রবিবার এক বিবৃতিতে বলেছে, ২০১৯ সালে রাশিয়ার সঙ্গে যে সমঝোতা হয়েছে, তার ভিত্তিতে ভ্রাতৃত্বপূর্ণ সম্পর্কের উন্নয়ন অব্যাহত রয়েছে।

প্রতিবেশী ও বন্ধুপ্রতীম রাষ্ট্র হিসেবে রাশিয়া তাদের কাছে অত্যন্ত গুরুত্ব পায় বলে বিবৃতিতে জানিয়েছে পিয়ংইয়ং। এতে আরও বলা হয়েছে, রাশিয়ার বিষয়ে উত্তর কোরিয়ার নীতিতে পরিবর্তন আসবে না।

এর আগে মস্কোতে নিযুক্ত উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রদূত সিন হুং চোল বলেন, পূর্ব এশিয়াকে অস্থিতিশীল করার জন্য আমেরিকা নানা পদক্ষেপ গ্রহণ করছে। এসব পদক্ষেপ মোকাবিলার জন্য মস্কোর সঙ্গে পিয়ংইয়ং-এর সহযোগিতা বাড়ানো হবে।

তিনি আরও বলেন, যতদিন পর্যন্ত কোরীয় অঞ্চলে মার্কিন সামরিক উপস্থিতি থাকবে, ততদিন সেখানে শান্তি ও স্থিতিশীলতা প্রতিষ্ঠিত হবে না। পূর্ব এশিয়ায় অস্থিতিশীলতার জন্য ওয়াশিংটন দায়ী বলে তিনি মন্তব্য করেন।


সূত্র : পার্সটুডে


আরও খবর



নোয়াখালীতে জামায়াতের ৪৫ নেতাকর্মী গ্রেফতার

প্রকাশিত:রবিবার ১৫ মে ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | ১৬জন দেখেছেন
Image

অনুপ সিংহ,নোয়াখালী প্রতিনিধিঃ

নোয়াখালীর সদর উপজেলায় একটি প্রাইভেট স্কুলে অভিযান চালিয়ে জামায়াত ইসলামীর ৪৫ নেতাকর্মিকে আটক করেছে পুলিশ। পুলিশ বলছে, তারা ওই একাডেমি ভবনের দ্বিতীয় তলার একটি শ্রেণি কক্ষে গোপন বৈঠকে মিলিত হয়েছিলেন।

রোববার (১৫ মে) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে জেলা শহর মাইজদীর সংলগ্ন আল ফারুক একাডেমির দ্বিতীয় তলা থেকে তাদের আটক করা হয়। তবে তাৎক্ষণিক আটককৃতদের নাম ঠিকানা জানা যায় নি।  

বিষয়টি নিশ্চিত করেন নোয়াখালীর পুলিশ সুপার (এসপি) মো.শহীদুল ইসলাম। তিনি জানান, রোববার দুপুর ১২টার দিকে জেলার বিভিন্ন উপজেলার জামায়াত ইসলামীর নেতাকর্মিরা সুধারাম থানা এলাকার মাইজদী আল ফারুক একাডেমির দ্বিতীয় তলায় সরকার বিরোধী গোপন বৈঠক করার জন্য একত্রিত হয়। বৈঠক চলাকালে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সদর সার্কেল ও সুধারাম থানার ওসি আল ফারুক একাডেমিতে অভিযান চালিয়ে ৪৫ জন জামায়াত ইসলামী নেতাকর্মিকে গ্রেফতার করে।

এসপি আরো জানায়, এ সময় আটকৃতদের কাছে থাকা ধর্মীয় উগ্রতা সৃষ্টিকারী বিভিন্ন ধরনের বই উদ্ধার করা হয়। প্রাথমিক ভাবে জানা যায় যে,ধর্মীয় উগ্রতাকে পুঁজি করে অস্থিতিশীল পরিবেশ সৃষ্টির লক্ষে সরকার বিরোধী ক্ষতিকারক বেআইনী  কার্যকলাপের প্রস্তুতিমূলক অংশ হিসেবে এই গোপন বৈঠকের  আয়োজন করা হয়েছিল। এ বিষয়ে আরও অনুসন্ধানসহ আইনগত বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।


আরও খবর



আমিরাতে বাংলাদেশ দূতাবাসের উদ্যোগে প্রবাসী রেমিটেন্স যোদ্ধাদের সাথে ইফতার মাহফিল

প্রকাশিত:রবিবার ২৪ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | ৮৮জন দেখেছেন
Image

মো নূরুল্লাহ  খান, আরব আমিরাত থেকে 

আবুধাবি বাংলাদেশ দূতাবাসের উদ্যোগে মোছাফ্ফাতে বাংলাদেশী রেমিটেন্স যোদ্ধাদের সম্মানে ইফতার মাহফিল আয়োজন করা হয়েছে। গতকাল ২৩ এপ্রিল শনিবার আমিরাতের রাজধানী আবুধাবির শিল্পনগরী মোছাফফা  ৪০ নাম্বার সানাইয়ার রজনীগন্ধা খান সি আই পি হলরুমে আয়োজিত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন আমিরাতে নিযুক্ত বাংলাদেশ সরকারের মান্যবর রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ আবু জাফর। অনুস্ঠান সঞ্চালনা করেন দূতাবাসের লেবার কাউন্সিলর মোহাম্মদ আব্দুল আলীম মিয়া।  এতে দুবাইতে নিযুক্ত বাংলাদেশের কনসাল জেনারেল বি এম জামাল হোসেন, দূতাবাসের ডিসিএম মোহাস্মদ মিজানুর রহমান, বাংলাদেশ সমিতির সভাপতি প্রকৌশলী মোয়াজ্জেম হোসেন, বিশিষ্ট শিল্পপতি ও মানবতার সেবক, প্রবাসী কল্যাণ সংস্থার প্রধান উপদেষ্টা, আল সুমাইয়া গ্রুপের চেয়ারম্যান ফখরুল ইসলাম খান সি আই পি, ডুবাই কনস্যুলেটের কর্মকর্তাগণ, বঙ্গবন্ধু পরিষদ আবুধাবী কেন্দ্রীয় কমিটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ইমারদ হোসেন ইমু, সাধারন সম্পাদক নাসির উদ্দিন তালুকদার, বাংলাদেশ বিমানের রিজিওনেল ম্যানেজার হোসেন আব্দুল্লাহ, জনতা ব্যাংক, বাংলাদেশ ইসলামিক স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ,প্রবাসী কল্যাণ সংস্থা সভাপতি মোহাম্মদ তারেক, প্রবাসী কল্যাণ সংস্থার সাধারণ সম্পাদক জয়নাল আবেদীন, জাতীয় কবিতা মঞ্চের সভাপতি কবি মুসা, প্রবাসী কল্যাণ সংস্থা সদস্য বৃন্দ, মোহাম্মদ ফরিদ সিআইপি, সাংবাদিক জাহাঙ্গীর কবির বাপ্পী, সাংবাদিক মোহাম্মদ মোরশেদ, সাংবাদিক ও ব্যবসায়ী সঞ্জিত কুমার শীল, বঙ্গবন্ধু পরিষদের নেতৃবৃন্দ, আওয়ামী যুবলীগ নেতৃবৃন্দ, যুবলীগ নেতৃবৃন্দ, মুসাফফা বঙ্গবন্ধু পরিষদ, প্রজন্ম বঙ্গবন্ধু পরিষদ, বঙ্গবন্ধু স্মৃতি সংসদ, আমিরাতের বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ ও বিভিন্ন পেশার প্রবাসীগণ উপস্থিত ছিলেন।

রাস্ট্রদূত রেমিট্যান্স প্রেরন করে দেশের অর্থনীতি সচল রাখার জন্য প্রবাসীদের ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।  সরকারের দেয়া ২.৫% প্রনোদনা এবং প্রবাসী কল্যান কার্ডের  প্রয়োজনীয়তা এবং করোনা ভাক্সিন দেয়ার বা সম্পন্ন করার গুরুত্ব উল্লেখ করেন। রাষ্ট্রদূত মহোদয় আরো বলেন আমিরাতে অবৈধভাবে বসবাসকারী যারা ভিজিট ভিসায় এসে অবৈধ হয়ে গেছেন তাদেরকে বৈধ হবার অনুরোধ  জানান। পরিশেষে রমজানের তাৎপর্য  প্রবাসীদের কল্যাণে দোয়া এবং মোনাজাত করেন দূতাবাসের ডিসিএম মীযানুর রহমান।


আরও খবর