Logo
শিরোনাম

গজারিয়ায় বিটিভির সাংবাদিক পরিচয় দানকারী দুই প্রতারক গ্রেপ্তার

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৩ মে ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | ৪৩জন দেখেছেন
Image

জারিয়া সংবাদদাতাঃ

মুন্সীগঞ্জের গজারিয়ায় বাংলাদেশ টেলিভিশন (বিটিভি) সাংবাদিক পরিচয়দানকারী নিলয় (২০) ও জাকির হোসেন (২২) নামে দুই প্রতারক কে গ্রেপ্তার করেছে থানা পুলিশ। 

গ্রেপ্তারকৃত নিলয় মুন্সীগঞ্জের সিরাজদীখাঁন উপজেলার হাজীগাঁও গ্রামের আনোয়ার হোসেনের ছেলে অপর জন কুমিল্লার তিতাস উপজেলার গাজীপুর গ্রামের মো. আলম মিয়ার ছেলে।

জানা যায়,গত কয়েক দিন ধরে উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে গিয়ে নিজেদের বিটিভি সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের উন্নয়ন মূলক রিপোর্ট তৈরি কথা বলে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কর্তৃপক্ষদের কাছ থেকে অর্থ আদায় করেন দুই প্রতারক।

এরই ধারাবাহিকতায় আজ বৃহস্পতিবার সকাল ১১টার দিকে উপজেলার হোসেন্দী দাখিল মাদ্রাসার উন্নয়ন মূলক রিপোর্ট তৈরি কথা বলে অত্র মাদ্রাসার সুপার আবদুস সালাম কে ফোন দিয়ে মাদ্রাসায় আসে নিলয় ও জাকির হোসেন। একপর্যায়ে তাঁদের আচার-আচরন সন্দেহ জনক হলে তাদের আটক করে মাদ্রাসার কর্তৃপক্ষ।

পরে পুলিশ গিয়ে দুজন কে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

আবদুস সালাম জানান, গত কয়েকদিন ধরে উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বিটিভিতে উন্নয়নমূলক অনুষ্ঠান প্রচারের কথা বলে অর্থ আদায় করেছে। তাঁরা ভবেরচর ওয়াজির আলী বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক আবুল হোসেন সরকারের কাছ থেকে ৭হাজার টাকা, টেঙ্গারচর রাজিয়া কাদের আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মো. নুরুদ্দিনের কাছ থেকে ৬ হাজার টাকা, ভবেরচর বালিকা উচ্চবিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মো. মামুন ঢালীর কাছ থেকে ৫হাজার টাকা, ভাটেরচর দে এ মান্নান পাইলট উচ্চবিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মো.সাখাওয়াত হোসেনের কাছ থেকে ২হাজার টাকা নিয়েছে বলে জানান তিনি। তাঁদের আচার-আচরন সন্দেহ জনক হলে আটক করে মাদ্রাসার কর্তৃপক্ষ।

এদিকে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ভবেরচর ওয়াজির আলী বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের এক সহকারী শিক্ষক মুঠো ফোনে জানান, কিছু দিন আগে উপজেলার এক সরকারি কর্মকর্তা অত্র বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের ব্যবহৃত মোবাইল ফোনে বার্তা প্রেরন করেন। সেখানে তিনি লিখেন আগামীকাল বিটিভি থেকে সাংবাদিক আসবে বিদ্যালয়ের উন্নয়ন মুলক রিপোর্ট তৈরি করার জন্য। বিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে আপনারা সার্বিক সহযোগিতা করবেন। এমন বার্তা পাওয়ার কারনে বিদ্যালয় থেকে ৭হাজার টাকা দেওয়া হয়েছে দুই প্রতারক কে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার জিয়াউল ইসলাম চৌধুরী বলেন, তাঁদের বিরুদ্ধে অনৈতিক ভাবে অর্থ আদায়,বিটিভির ভুয়া পরিচয় প্রদানের বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার প্রেক্ষিতে থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

গজারিয়া থানার ডিউটি অফিসার এএসআই আইরিন সিদ্দিকা জানান, বাংলাদেশ টেলিভিশন (বিটিভি) সাংবাদিক পরিচয়দানকারী দুজনের বিরুদ্ধে মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।


আরও খবর



বাসাইলে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে তৈরি হচ্ছে আইসক্রিম

প্রকাশিত:রবিবার ১৫ মে ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | ২৫জন দেখেছেন
Image
মোঃ সিরাজ আল মাসুদঃ টাঙ্গাইলের বাসাইল উপজেলার কাশিল বটতলা স্ট্যান্ডের পাশেই অস্বাস্থ্যকর ও নোংরা পরিবেশে  তৈরি হচ্ছে আইসক্রিম। 

অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে নিম্নমানের উপকরণ ব্যবহার করে তৈরি এসব আইসক্রিম খেয়ে মারাত্মক স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে শিশুরা। তপ্ত দুপুরে পাড়া বা মহল্লায় কিংবা বিভিন্ন স্কুলের পাশে ভ্যান গাড়িতে পৌঁছে যাচ্ছে এসব বিষযুক্ত কেমিক্যালে তৈরি আইসক্রিম। প্রশাসনের চোখ ফাঁকি দিয়ে দিনের পর দিন এভাবেই অসাধু উপায়ে বাণিজ্য চালিয়ে যাচ্ছে দীর্ঘদিন। 

সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, কশিল বটতলা এ আইসক্রিম ফ্যাক্টরীতে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে মানবদেহের জন্য ক্ষতিকর এমন সব উপাদান দিয়ে তৈরি হচ্ছে শিশুদের জন্য হরেক রকম আইসক্রিম। বাহারি রঙের এসব আইসক্রিমে দেয়ালে ব্যবহৃত রঙ, পাউডার দুধ, দুধের ক্ষতিকর ফ্লেভার, ঘণ চিনিসহ বিভিন্ন ক্ষতিকর কেমিক্যাল মিশিয়ে তৈরি করা হচ্ছে এসব আইসক্রিম। 
ফ্যাক্টরীর স্যাঁতস্যাতে ভেজা পরিবেশে ময়লা ড্রামে আটা পিষে বিষাক্ত কালার মিশিয়ে বাহারি এই আইসক্রিম তৈরি হচ্ছে। যারা আইসক্রিম বানানোর কাজ করছেন তাদের ঘর্মাক্ত শরীর থেকে চুইয়ে চুইয়ে ঘাম পরছে উপকরণের উপর। 

নেই কারখানা পরিচালনার অনুমতিপত্র ও পরিবেশ ছাড়পত্রও। বিএসটিআইয়ের অনুমতি পত্র ছাড়াই চলছে আইসক্রিম বাণিজ্য। সোয়ত আইচ মালাই আইসক্রিম ফ্যাক্টরীর মালিক লিটন বলেন,করোনার কারণে আমাদের ফ্যাক্টরী দীর্ঘদিন বন্ধ ছিলো। নতুন করে পুনরায় চালু হচ্ছে। যতটুকু সম্ভব পরিস্কার করেই আইসক্রিম উৎপাদন করছি। 

আইসক্রিমে কেমিক্যাল মানবদেহে কি কি বিরূপ প্রতিক্রিয়া ফেলতে পারে এ বিষয়ে বাসাইল উপজেলা স্বাস্থ্য ও প প কর্মকর্তা ডা.শার্লী হামিদ বলেন,যেকোন কেমিক্যালই মানবদেহের জন্য ক্ষতিকর। শুধু ছোটদের ক্ষতি হবে এমন নয়। এটা সবার জন্যই ক্ষতিকর। এসব কেমিক্যাল ব্যবহারে মানুষের কিডনি রোগ হতে পারে। কিডনি তার কার্যক্রম বন্ধ করে দিতে পারে এবং এসব কেমিক্যাল গ্রহণকারীরা মারাও যেতে পারেন।  এ বিষয়ে বাসাইল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সরকারী মোবাইল নাম্বারে বার বার ফোন করলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।
Attachments area

আরও খবর



টাঙ্গাইলে ডাকাতি মামলায় ৮ ডাকাতকে বিভিন্ন মেয়াদে দন্ড

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৬ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | ১১২জন দেখেছেন
Image

মোঃ সিরাজ আল মাসুদঃ টাঙ্গাইলে ডাকাতি মামলায় একজনকে ১০ বছর ও ছয়জনকে আট বছর করে সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। টাঙ্গাইলের দ্বিতীয় অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ মোরশেদ আলম মঙ্গলবার (২৬ এপ্রিল) দুপুরে এ রায় দেন।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন বাসাইল উপজেলার করাতিপাড়া গ্রামের মফিদুল ইসলাম, মো. সম্রাট, রূপন মিয়া, রবিন মিয়া, সুজন মিয়া এবং রাজন মিয়া। 

টাঙ্গাইলের অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর মনিরুল ইসলাম খান  জানান, ২০১৭ সালের ২৩ আগস্ট দিনগত রাতে বাসাইল উপজেলার করাতিপাড়া গ্রামে আইনজীবী বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল আজাদের বাড়িতে ডাকাতির ঘটনা ঘটে।

ডাকাতদল গ্রিল কেটে ঘরে ঢুকে আবুল আজাদ ও তার স্ত্রী শামীমা আজাদকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করে। পরে ১৪ ভরি সোনার গহনাসহ সাত লক্ষাধিক টাকার মালপত্র লুট করে নেয় ডাকাতরা।

ঘটনার পরদিন আবুল আজাদ বাদী হয়ে অজ্ঞাত ব্যক্তিদের আসামি করে বাসাইল থানায় ডাকাতির মামলা দায়ের করেন। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে পুলিশ প্রথমে সম্রাট ও সুজনকে গ্রেফতার করে জিজ্ঞাসাবাদ করলে তারা ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দেন।

তদন্ত শেষে বাসাইল থানার সাবেক উপপরিদর্শক (এসআই) ২০১৮ সালের ১ এপ্রিল আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেন। তথ্য-উপাত্ত ও জবানবন্দি পর্যালোচনা করে অভিযোগ প্রমাণ হওয়ায় মঙ্গলবার এ রায় দিলেন আদালত।

 মামলা চলাকালে সব আসামি জামিন নিয়ে আত্মগোপন করেন। মফিদুল ও রূপনকে কয়েক মাস আগে পুলিশ গ্রেফতার করে। এ দু’জন রায় ঘোষণার সময় আদালতে উপস্থিত ছিলেন। বাকি পাঁচ আসামি এখনো পলাতক।

মামলার বাদী আবুল আজাদ জানান, এ রায়ে তিনি সন্তুষ্ট। পলাতক আসামিদের গ্রেফতার করে সাজার আওতায় আনার দাবি জানান তিনি।


আরও খবর



গরম পানিতে ধুয়ে খেজুর খাওয়ার পরামর্শ

প্রকাশিত:শুক্রবার ২২ এপ্রিল 20২২ | হালনাগাদ:রবিবার ১৫ মে ২০২২ | ৮৯জন দেখেছেন
Image

খেজুর ছাড়া রমজানে ইফতার যেন অসম্পূর্ণ, তাই খেজুর অপরিহার্য। তবে অনেকই আছেন যারা সারা বছরই কম-বেশি খেজুর খান। কিন্তু অনেক সময় তাড়াহুড়ো করতে গিয়ে না ধুয়ে খেজুর খেয়ে ফেলেন।

এবারে বিশ্বের অন্যতম খেজুর উৎপাদনকারী দেশ সৌদি আরব খেজুর খাওয়ার এবং সংরক্ষণ নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ পরামর্শ দিয়েছে।

সৌদি ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অথরিটি (এসএফডিএ) খাওয়ার আগে খেজুর গরম পানি দিয়ে ধুয়ে খাওয়ার পরামর্শ দিয়েছে।

কারণ হিসেবে তারা বলছে, খেজুরে যদি কোনো কীটনাশক এবং রাসায়নিক পদার্থের অবশিষ্টাংশ থাকে তা কমাতে এমনটা করা উচিত। খেজুরে রাসায়নিক পদার্থ যেমন কীটনাশকের অবশিষ্টাংশ, ভারী এবং বিষাক্ত ধাতু দ্বারা দূষিত হয়, অথবা ভৌত কোনো পদার্থ (ফরেন বডি যেমন ধাতব অংশের উপস্থিতি) দ্বারা বা অণুজীবের বৃদ্ধি (ইস্ট এবং ছাঁচ) দ্বারা দূষিত হয়।

সংস্থাটি আরও জানায়, খেজুর সংরক্ষণের বিভিন্ন উপায় রয়েছে, যার মধ্যে সবচেয়ে ভালো উপায় হচ্ছে ‘ফ্রিজিং’। কারণ এটি অণুজীবকে মেরে ফেলতে বা কমাতে কাজ করে, সেই সঙ্গে বায়োপ্রসেস এবং অক্সিডেশন কমাতে কাজ করে।

যতটা সম্ভব কম তাপমাত্রায় খেজুর হিমায়িত করার পরামর্শ দিয়েছে সংস্থাটি। কারণ হিমায়িত সময়টাতে এনজাইমেটিক কার্যকলাপ অব্যাহত থাকে।

খেজুরকে কয়েক সপ্তাহ পর্যন্ত ফ্রিজে রাখা যেতে পারে। তবে সেজন্য উপযুক্ত প্যাকেজিং গুরুত্বপূর্ণ, যাতে খেজুর আর্দ্রতার সংস্পর্শে আসতে না পারে।

এসএফডিএ বলছে, কিছু কিছু খেজুর ফ্রিজে তিন মাস পর্যন্ত সংরক্ষণ করা যায়। অবশ্য ‘ড্রায়িং’ পদ্ধতিতেও খেজুর সংরক্ষণ করা যায়। এই পদ্ধতিতে খেজুর এক বছর পর্যন্ত সংরক্ষণ করা যায়।


সূত্র : সৌদি গেজেট


আরও খবর



সোনারগাঁয়ে নিখোঁজের একদিন পর ধান ক্ষেতে মিলল শিশুর লাশ

প্রকাশিত:রবিবার ১৭ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | ৯৩জন দেখেছেন
Image

সোনারগাঁ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি:

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার নয়ানগর এলাকায় গতকাল রোববার দুপুরে নিখোঁজের একদিন পর ধান ক্ষেত থেকে স্কুল ছাত্র রিমন (১০) নামের এক শিশুর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। 

নিহত রিমন মিয়া উপজেলার নোয়াগাঁও ইউনিয়নের নয়ানগর গ্রামের বিল্লাল হোসেনের ছেলে এবং স্থানীয় পরমেশ্বরদী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় শ্রেনীর ছাত্র।

জানা যায়, উপজেলার নোয়াগাঁও ইউনিয়নের নয়ানগর গ্রামের বিল্লাল হোসেনের ছেলে রিমন মিয়া গত শুক্রবার বিকেলে বাড়ী বের হয়ে খেলতে গিয়ে নিখোজঁ হন। পরে তার স্বজনরা বিভিন্ন স্থানে খুজেঁও তাকে পায়নি। আজ নয়ানগর গ্রামের পাশের একটি ইরি ধানের ক্ষেতে গিয়ে কৃষকদের কাছ থেকে খবর পেয়ে তার লাশ পান স্বজনরা। তার গলায় ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। খবর পেয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে। 

সোনারগাঁ থানার ওসি মোহাম্মদ হাফিজুর রহমান জানান, এ ঘটনায় পুলিশ পাঠিয়ে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। লাশের গলায় ও শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। 


আরও খবর



হজ কোটায় চতুর্থ অবস্থানে বাংলাদেশ

প্রকাশিত:শুক্রবার ২২ এপ্রিল 20২২ | হালনাগাদ:শনিবার ১৪ মে ২০২২ | ৮১জন দেখেছেন
Image

সৌদি আরবের হজ ও ওমরাহ মন্ত্রণালয় প্রতিটি দেশের জন্য হজ কোটা প্রকাশ করেছে। চলতি মৌসুমে ইন্দোনেশিয়া সর্বোচ্চ কোটা পেয়েছে। বাংলাদেশ রয়েছে চতুর্থ স্থানে।

ফলে চলতি বছর হজের জন্য বাংলাদেশ থেকে যেতে পারবে ৫৭,৫৮৫ জন। ইন্দোনেশিয়া থেকে ১,০০,০৫১ জন, পাকিস্তান থেকে ৮১,১৩২ জন, ভারত থেকে ৭৯,২৩৭ জন, নাইজেরিয়া থেকে ৪৩,০০৮ জন, তুরস্ক থেকে ৩৭,৭৭০ জন।

সৌদি হজ মন্ত্রণালয় জানায়, ইন্দোনেশিয়া থেকে সর্বোচ্চ সংখ্যক লোক এবার হজ করতে পারবে। এরপর রয়েছে যথাক্রমে পাকিস্তান, ভারত ও বাংলাদেশ।

সৌদি আরব ১০ এপ্রিল ঘোষণা করেছিল যে তারা আসন্ন হজ মওসুমে দেশী ও বিদেশী মিলিয়ে মোট ১০ লাখ লোককে হজ করার সুযোগ দেবে।

সাধারণভাবে ২৫ লাখের বেশি লোক হজ করে। কিন্তু করোনাভাইরাস সংক্রমণের কারণে ২০২০ ও ২০২১ সালে সৌদি কর্তৃপক্ষ হজ খুবই সীমিত করে। ২০২২ সালে কিছুটা সম্প্রসারণ করলেও তা পুরোপুরি মুক্ত করেনি।

২০২১ সালে মাত্র ৬০ হাজার লোক হজ করতে সক্ষম হয়েছিলেন। আর ২০২০ সালে হজ করেছিলেন মাত্র এক হাজার লোক।

এবারের হজ হবে ০৭ বা ০৮ জুলাই। চাঁদ দেখার ওপর নির্ভর করবে চূড়ান্ত তারিখ।


আরও খবর