Logo
শিরোনাম

গোলপ্রতি মেসির পেছনে কত খরচ

প্রকাশিত:শুক্রবার ২২ এপ্রিল 20২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

কাতালান ক্লাব বার্সেলোনা থেকে পিএসজিতে এসে ঝড় তুলবেন লিওনেল মেসি। এমনটিই ধারণা করেছিলো সবাই। ‘ঝড়’ তুলতে হয়তো পারেননি আর্জেন্টাইন তারকা, কিন্তু খারাপ যে খেলেছেন, সে কথা বলা যাবে না মোটেও। কিন্তু তিনি কি সত্যি সত্যি ‘বার্সেলোনার মেসি’র মতো খেলতে পেরেছেন? এ ব্যাপারে উত্তর দিতে দ্বিধায় পড়ে যাবেন বেশির ভাগ মানুষ।

পিএসজিতে এসেই চোটের সঙ্গে লড়তে হয়েছে তাকে। কিন্তু চোট কাটিয়ে তিনি যখন মাঠ ফিরলেন, তখন তার কাছ থেকে পিএসজি আগুনটা পেল না। তিনি মাঠজুড়ে খেলেছেন ঠিকই, গোল করিয়েছেন অন্যকে দিয়ে। কিন্তু নিজে? আগের মৌসুমেই বার্সেলোনার জার্সিতে যেখানে মৌসুমজুড়ে ৩০টির বেশি গোল করেছিলেন, সেখানে এ মৌসুমে পিএসজির জার্সিতে তার গোল মাত্র ৮টি। ২৯টি ম্যাচে ৮ গোল! তিনি মোটেও বার্সেলোনার মেসি হয়ে উঠতে পারেননি। এই ৮ গোলের ৫টি চ্যাম্পিয়নস লিগে, ৩টি ফরাসি লিগে। গোটা মৌসুমে পিএসজির হয়ে তার গোলে সহায়তা ১৩টি।

মৌসুমের এই সময়ে এসে ফরাসি গণমাধ্যম ধীরে ধীরে মেসিকে নিয়ে লাভ-ক্ষতির অঙ্ক কষা শুরু করেছে। পিএসজি বছরে ৩০ মিলিয়ন ইউরো ব্যয় করেন মেসির পেছনে। একটি গণমাধ্যম হিসাব করেছে তবে কি লিগ ওয়ানে মেসির প্রতিটি গোলের জন্য ১০ মিলিয়ন ইউরো ব্যয় পিএসজির? মৌসুমে পিএসজির জার্সিতে তার ৮টি গোলের প্রতিটির পেছনে ব্যয় তাহলে পৌনে ৪ মিলিয়ন ইউরো।

লাভ-ক্ষতির হিসাব যা-ই হোক না কেন, মেসি এবার সেভাবে জ্বলে উঠতে পারেননি। চ্যাম্পিয়নস লিগে আরও একটি ব্যর্থতা সঙ্গী হয়েছে তার। লিগ এ জয়ের দ্বারপ্রান্তে দাঁড়িয়ে থাকা পিএসজির জন্য সেটি বড় ধাক্কাই। এবার মেসিকে দলে নিয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগের ব্যাপারে তাদের প্রত্যাশাটা যে ছিল আকাশছোঁয়াই। এ মৌসুমে গোল সহায়তার কাজটা মেসি বেশি করলেও পিএসজি তার কাছে গোল চায়। প্রত্যাশা মেটাতে আরও একটি মৌসুম পাবেন তিনি। ২০২৩ পর্যন্ত পিএসজির সঙ্গে মেসির চুক্তি।

সম্প্রতি স্পেনের মুন্দো দেপোর্তিভো মেসি বার্সায় ফেরত যাচ্ছেন, এমন একটা গুঞ্জন ছড়িয়েছিল। পিএসজিতে খেলে তিনি সন্তুষ্ট নন, অচিরেই বার্সায় ফেরত যেতে চান—প্রতিবেদনটির মূল নির্যাস ছিল এমনই। কিন্তু মেসি নিজেও এই প্রতিবেদনে নাকি অবাক হয়েছেন। তিনি যে পিএসজি ছাড়ার কথা ভাবনাতেও আনেননি, সেটি স্পষ্ট করেছেন। চুক্তির আরও এক বছর এখনো বাকি তার, সেটি শেষ করেই ভাবতে চান অন্য কিছু।


আরও খবর



শিক্ষার্থীদের জন্য নতুন নির্দেশনা

প্রকাশিত:বুধবার ০৮ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি হওয়া শিক্ষার্থীদের বিষয়, বিভাগ, শিফট, ভার্সন, ছবি পরিবর্তন এবং ভর্তি বাতিল কার্যক্রম শুরু হচ্ছে বুধবার (৮ জুন) থেকে। এই কার্যক্রম চলবে আগামী ৩০ জুন পর্যন্ত। সম্পূর্ণরূপে অনলাইনে এটি সম্পন্ন করতে হবে।

মঙ্গলবার (৭ জুন) ঢাকা মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের কলেজ পরিদর্শক অধ্যাপক আবু তালেব মো. মোয়াজ্জেম হোসেন স্বাক্ষরিত এক অফিস আদেশে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

আদেশে বলা হয়েছে, শিক্ষার্থীরা নিজ নিজ কলেজে তার চাহিদা মোতাবেক আবেদন করলে কলেজ কর্তৃপক্ষ বোর্ডের ওয়েবসাইটে লগ ইন করে অনলাইনে শিক্ষার্থীর চাহিদা মোতাবেক সংশোধনী সম্পন্ন করবে। এক্ষেত্রে কলেজ কর্তৃপক্ষ বোর্ডের প্রয়োজনীয় ফি শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে নিয়ে সোনালী সেবার মাধ্যমে জমা দেবে।

এরপর বোর্ডের অনুমোদন সাপেক্ষে সংশোধনী কার্যকর হবে এবং সংশোধিত তথ্যাবলী কলেজ কর্তৃপক্ষ অনলাইনে দেখতে পাবেন। উক্ত কার্যক্রমের জন্য শিক্ষার্থীদের বোর্ডে যোগাযোগের কোনো প্রয়োজন নেই।

বোর্ডের নির্ধারিত ফিগুলো হচ্ছে- প্রতি বিষয় পরিবর্তন ২০০ টাকা, বিভাগ পরিবর্তন ৮০০ টাকা, ভর্তি বাতিল ৬০০ টাকা। তবে শিফট, ভার্সন ও ছবি পরিবর্তন এবং চতুর্থ বিষয় বাতিলের জন্য কোনো ফি লাগবে না।


আরও খবর



নারায়ণগঞ্জের চাষাড়ায় চলন্ত ট্রেনে থেকে পড়ে কলেজ ছাত্রের মৃত্যু

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৮ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি ঃ

নারায়ণগঞ্জের চাষাড়ায় চলন্ত ট্রেনে থেকে পড়ে মারা গেছে সরকারি তোলারাম কলেজ এন্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের এইচ এসসির শিক্ষার্থী নূর হোসেন। মঙ্গলবার সকাল ১০ টায় ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ রেল পথের ইসদাইর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা সহপাঠীরা জানান, ফতুল্লা থেকে কলেজে যাওয়ার পথে ট্রেনের একটি বগির গেইটের সামনে দাঁড়ানো ছিল সে।  হঠাৎ  হাত ফসকে ট্রেনের নিচে চলে যায় নূর হোসেন।  মূহুর্তেই তার দেহ খন্ড বিখন্ড হয়ে যায়। 

একমাত্র ছেলেকে হারিয়ে দিশেহারা নূর হসেনের মা শাহীনূর হক। তিনি জানান  ছেলের ৫ মাস বয়সে তাদের ফেলে রেখে চলে যায় নূর হোসেনের বাবা। তিনি একজন গার্মেন্টস কর্মী। ছেলেকে আঁকড়ে ধরেই বেঁচে ছিলেন সে। ছেলেকে সু-শিক্ষায় শিক্ষিত করে গড়ে তুলে ভাগ্যের পরিবর্তন করবেন বলে আসায় বুক বেঁধেছিলেন। মুহর্তেই সব হারিয়ে পাগলের মতো বিলাপ করছে সে।

নিহত শিক্ষার্থীর নূর হোসেন সরকারি তোলারাম কলেজ  এন্ড বিশ্ব বিদ্যালয়ের এইচএসসির মানবিক বিভাগের শিক্ষার্থী ছিলেন। ফতুল্লার দাপা ইদ্রাকপুর এলাকায় ভাড়া বাসায় মায়ের সঙ্গে থাকতো সে। 

স্টেশন মাস্টার গয়েশ্বর মল্লিক জানান, পুলিশ খবর দিলে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করেছে। এ ব্যাপারে মামলার প্রস্তুতি চলছে।


আরও খবর



সীতাকুণ্ডে আগুন ও বিস্ফোরণে হতাহতের ঘটনায় প্রধানমন্ত্রীর শোক

প্রকাশিত:রবিবার ০৫ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ২৯ জুন ২০২২ |
Image

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে বিএম কনটেইনার ডিপোতে অগ্নিকাণ্ডে ও বিস্ফোরণে হতাহতের ঘটনায় গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

রবিবার (৫ জুন) প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ শোক জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, প্রধানমন্ত্রী নিহতদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান। তা ছাড়া তিনি আহতদের প্রয়োজনীয় চিকিৎসা সেবা দেওয়ার জন্য নির্দেশনা দেন।

প্রধানমন্ত্রী দ্রুত আগুন নিয়ন্ত্রণে এনে উদ্ধার তৎপরতা পরিচালনা এবং ক্ষতিগ্রস্তদের সর্বাত্মক সহযোগিতায় সরকারের পাশাপাশি দলীয় নেতাকর্মীদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।


আরও খবর



নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে দুই গ্রুপের সংঘর্ষে নিহত ১

প্রকাশিত:শনিবার ১৮ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

বুলবুল আহমেদ সোহেল নারায়ণগঞ্জ ঃ

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে চনপাড়া দুই দিনব্যাপী  টানা সংঘর্ষে সজল মিয়া (১৫) নামে এক কিশোরের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় ১০ জন গুলিবিদ্ধসহ অন্তত ২৫ জন আহত হয়।শুক্রবার (১৭ জুন) সন্ধ্যার দিকে এ ঘটনাটি ঘটে। নিহত সজল চনপাড়ার ৯ নং ওয়ার্ডের ৮ নং প্লটের বুলু মিয়ার ছেলে। তার মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রূপগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) হুমায়ন কবির মোল্লা। 

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়. আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে গত দেড় মাস যাবত চনপাড়ার সন্ত্রাসী জয়নাল গ্রুপের সঙ্গে রাজা ও সিটি শাহিন গ্রুপের দফায় দফায় সংঘর্ষ চলছিল। এরই ধারাবাহিকতায় বৃহস্পতিবার ফের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। যা থেকে থেমে শুক্রবার সন্ধ্যা পর্যন্ত চলছিল। 

সংঘর্ষে পারভীন, ডন আরিফ, মামুন, ফেরদৌস, হিরা, জুবায়ের, জালাল, শাওন, শহিদ, কাদেরসহ ২৫ জন আহত হয়। এদের মধ্যে ইটের আঘাতে আহত সজলকে শুক্রবার বিকেল ৫টায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় মারা যায় সে। নিহত সজল রাজা ও সিটি শাহিন গ্রুপের সদস্য বলে জানান স্থানীয়রা। এ ঘটনায় রূপগঞ্জ থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে জানিয়েছেন পুলিশ।


আরও খবর



স্কুল ছাত্রীকে অপহরনের পর শ্লীলতা হানির চেষ্টা

কু‌মিল্লা দেবীদ্বারে অপহরনকারী আটক

প্রকাশিত:বুধবার ২৯ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

কু‌মিল্লা জেলা প্রতিনিধি ঃ

দেবীদ্বারে অষ্টম শ্রেণীর এক স্কুল ছাত্রীকে বিদ্যালয়ে আসার পথে জহিরুল ইসলাম (২৪) নামে এক সিএনজি চালক অপহরনের চেষ্টাকালে স্থানীয়রা তাকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে। 

ঘটনাটি ঘটে মঙ্গলবার সকাল ৯টায় উপজেলার মাশিকাড়া গ্রামের জোরপুল সড়কে। স্থানীয়রা জানান, আটক সিএনজি চালক জহিরুল ইসলাম(২৪) উপজেলার ধামতী গ্রামের রোসমত আলীর পুত্র। ভিক্টিম স্কুল ছাত্রী (১৪) উপজেলার মাশিকাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণীর ছাত্রী

জহিরুল ইসলাম তার নিজস্ব সিএনজি নিয়ে মাশিকাড়া আসার পথে ওই স্কুল ছাত্রীকে পথিমধ্যে পেয়ে বিদ্যালয়ের সামনে নামিয়ে দেয়ার কথা বলে সিএনজিতে উঠায়।

সিএনজি চালক বিদ্যালয়ে না এসে উল্টোদিকে জোরপুল সড়কের দিকে দ্রæত পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এসময় ওই ছাত্রী সিএনজি থামাতে বললেও সে না থামিয়ে দ্রুত ‘দেবীদ্বার-চান্দিনা’ সড়কের দিকে এগিয়ে যেতে থাকে। এসময় ছাত্রীটি সূর চিৎকার শুরু করলে সিএনজি থামিয়ে ছাত্রীকে জোরপূর্বক তুলে নিয়ে  ঝোপে শ্লীলতাহানীর চেষ্টা করে। পথচারী ও পার্শবর্তী বাড়ির লোকজন ছাত্রীটিকে উদ্ধার এবং সিএনজি চালককে আটক করে পুলিশকে খবর দেয়।

সংবাদ পেয়ে দেবীদ্বার থানার উপ-পরিদর্শক(এসআই) চন্দন চন্দ্র দাস একদল পুলিশ নিয়ে ঘটনাস্থল থেকে অপহরনকারী ও ভিক্টিমকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসেন। 

এ ব্যপারে মাশিকাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মুক্তল হোসেন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান। বিদ্যালয়ে আসার পথে মেয়েটিকে অপহরণ এবং এক পর্যায়ে শ্লীলতাহানীর চেষ্টা করলে স্থানীয়দের সহায়তায় ভিক্টিমকে উদ্ধার ও অপহরণকারীকে মাশিকাড়া বাজারে আটক করে রাখে, পরে পুলিশে সোপর্দ করা হয়।

মঙ্গলবার বিকেল ৫টায় দেবীদ্বার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কমল কৃষ্ণ ধর জানান, সংবাদ পেয়ে আমাদের পুলিশ ভিক্টিমকে উদ্ধার এবং সিএনজিসহ অভিযুক্ত সিএনজি চালককে থানায় নিয়ে আসে। ভিক্টিমের বাবা বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছেন, মামলা নং-২৭।


আরও খবর