Logo
শিরোনাম
জ্বালানি মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ পালিত

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৯ আগস্ট ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ |
Image

জ্বালানি তেলের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদ এবং বর্ধিত মূল্য প্রত্যাহারের দাবিতে আজ ৯ আগস্ট মঙ্গলবার সারাদেশে জেলায় জেলায় ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করেছে। কোন কোন জেলায় বিক্ষোভ সমাবেশ করলেও মিছিল করতে দেয়নি পুলিশ। কোথাও কোথাও বাধার সম্মুখীন হয়েছে জেলা নেতৃবৃন্দ।

বিক্ষোভ সমাবেশগুলোতে নেতৃবৃন্দ বলেন, জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির সিদ্ধান্ত চরম অমানবিক ও গণবিরোধী। এ সিদ্ধান্ত বাতিল করতে হবে। অন্যথায় সারাদেশে জনতার রুদ্ররোষ সৃষ্টি হয়ে সরকারের করুণ পরিণতি বরণ করতে হবে। জেলা নেতৃবৃন্দ বলেন, সামগ্রিক বৈশ্বিক পরিস্থিতিতে জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির ফলে সাধারণ মানুষের জীবনকে দুর্বিষহ করে তুলবে। সরকার জ্বালানি তরল-ডিজেল, কেরোসিন, অকটেন, পেট্রোলের দাম যে মাত্রায় বৃদ্ধি করেছে, তা নিয়ে দেশবাসী উদ্বিগ্ন। কোভিড-পরবর্তীতে মানুষ অর্থনৈতিকভাবে বিপর্যস্ত। নেতৃবৃন্দ বলেন, জ্বালানির দাম বৃদ্ধির ফলে ভোগ্যপণ্যসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্যের দাম আরেক দফা বৃদ্ধি পাবে। ফলশ্রুতিতে জনদুর্ভোগ বেড়ে যাবে। অর্থনৈতিক উন্নয়নের গতিধারা নিরবচ্ছিন্ন রাখতে তেল-গ্যাসসহ সব ধরনের জ্বালানি সহনীয় পর্যায়ে রাখতে হবে।

চাঁদপুরে ইসলামী আন্দোলনের বিক্ষোভ সমাবেশে শায়খে চরমোনাই : জ্বালানি তেলের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদ এবং বর্ধিত মূল্য প্রত্যাহারের দাবিতে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ চাঁদপুর জেলা শাখার বিক্ষোভ সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন দলের সিনিয়র নায়েবে আমীর মুফতী সৈয়দ মুহাম্মদ ফয়জুল করীম শায়খে চরমোনাই। চাঁদপুরের বিক্ষোভ মহাসমাবেশে রূপ নেয়। শায়খে চরমোনাই বলেন, সরকার অন্তিম শয্যায় অবস্থায় থাকার পরও জনগণের পক্ষ কাজ করতে পারছে না। সরকার গত ৭ বছরে ৪৩ হাজার কোটি টাকা লাভ করার পরও জনগণের স্বার্থে কাজ করতে পারছে না। সরকার সেবার মানসিকতা বাদ দিয়ে ব্যবসায়ী মানসিকতার পরিচয় দিয়েছে। তিনি বলেন, তেলের দাম ১ লক্ষ টাকা লিটার হলেও সরকার দলীয় লোকজনের কোন সমস্য নেই। কেননা তারা দুর্নীতি করে প্রচুর টাকা কামিয়েছে। কিন্তু জনগণর আয় বাড়েনি, সমস্যার সমাধান হয়নি।

যেসকল জেলায় বিক্ষোভ কর্মসূচি একযোগে পালিত হয়েছে সেগুলোর মধ্যে রয়েছে, ঢাকা জেলা দক্ষিণ, নারায়ণগঞ্জ, নরসিংদী, মুন্সিগঞ্জ, গাজীপুর, মানিকগঞ্জ, টাঙ্গাইল, শেরপুর, মোমেনশাহী, কিশোরগঞ্জ, নেত্রকোনা, জামালপুর, শেরপুর, রাজবাড়ী, ফরিদপুর, গোপালগঞ্জ, মাদারীপুর, শরীয়তপুর, মাগুরা, ঝিনাইদহ, যশোর, খুলনা, নড়াইল, বাগেরহাট, সাতক্ষীরা, মেহেরপুর, চুয়াডাঙ্গা, কুষ্টিয়া, সিরাজগঞ্জ, পাবনা, নাটোর, রাজশাহী, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, চট্টগ্রাম মহানগর, বি-বাড়ীয়া, চাঁদপুর, নোয়াখালী, কুমিল্লা, ফেনী, বরিশাল, পটুয়াখালী, ঝালকাঠী, বরগুনা, পিরোজপুর, সিলেট, হবিগঞ্জ, সুনামগঞ্জ, মৌলভীবাজার জেলায় পৃথক পৃথকভাবে বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

পীরসাহেব চরমোনাই’র অভিনন্দন: জ্বালানি তেলের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে দেশব্যাপী জেলায় জেলায় শান্তিপূর্ণভাবে বিক্ষোভ সমাবেশ ও মিছিল সফল করায় ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর আমীর মুফতী সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম পীর সাহেব চরমোনাই জেলা নেতৃবৃন্দ, সংশ্লিষ্ট সকলকে আন্তরিক মোবারকবাদ ও অভিনন্দন জানিয়েছেন।


আরও খবর

শিগগিরই বাড়ছে বিদ্যুতের দাম

মঙ্গলবার ০৪ অক্টোবর ২০২২




রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের শেষকৃত্য

প্রকাশিত:সোমবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ |
Image

ওয়েস্টমিনস্টার অ্যাবেতে স্থানীয় সময় সকাল ১১ টায় শুরু হয়েছে রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের শেষকৃত্য অনুষ্ঠান। এতে যোগ দিয়েছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীসহ বিভিন্ন দেশের নেতারা । 

ভাবগাম্ভীর্যপূর্ণ রাষ্ট্রীয় অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ার মধ্যে দিয়ে প্রয়াত ব্রিটিশ রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথকে শেষ বিদায় জানানো হচ্ছে। সকালে ওয়েস্টমিনস্টার হল থেকে অল্প দূরত্বে ওয়েস্টমিনস্টার অ্যাবের দরজাগুলো অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ায় যোগ দিতে আসা অতিথিদের জন্য খুলে দেওয়া হয়। রাজকীয় নৌবাহিনীর ১৪২ জন নাবিক একটি কামানবাহী শকটে করে কফিনটি টেনে নিয়ে যান ওয়েস্টমিনস্টার অ্যাবেতে। রাজা তৃতীয় চার্লস ও রাজপরিবারের সদস্যরা ছিলেন কফিনের সাথে। দিনব্যাপী নানা আনুষ্ঠানিকতার পর রানীকে সমাহিত করা হবে সেন্ট জর্জেস চ্যাপেলে তার স্বামী প্রিন্স ফিলিপের পাশে।


আরও খবর

চিকিৎসাবিজ্ঞানের নোবেল ঘোষণা

মঙ্গলবার ০৪ অক্টোবর ২০২২




করোনা টিকার মেয়াদ বাড়ল তিন দিন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৪ অক্টোবর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ |
Image

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে চলমান প্রথম ও দ্বিতীয় ডোজের বিশেষ টিকা দান ক্যাম্পেইনের সময়সীমা আগামী ৮ অক্টোবর পর্যন্ত বৃদ্ধি করেছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

৩ অক্টোবর দুপুরে কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনেশন বিশেষ ক্যাম্পেইন বিষয়ক এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আহমেদুল কবির।

আহমেদুল কবির বলেন, করোনার বিশেষ এই টিকাদান ক্যাম্পেইন আজ শেষ হওয়ার কথা থাকলেও সরকারি ছুটি ও লক্ষ্যমাত্রা পূরণ না হওয়ায় আরও তিনদিন এই কর্মসূচি বাড়ানোর সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক বলেন, আগামী ৪, ৬, ৮ তারিখ পর্যন্ত বাদ পড়া ব্যক্তিরা নির্ধারিত টিকা কেন্দ্রগুলোতে গিয়ে টিকা নিতে পারবেন।

এরইমধ্যে গত ছয়দিনে ১ কোটিরও বেশি মানুষ প্রথম, দ্বিতীয় ও বুস্টার ডোজ নিয়েছেন। এর মধ্যে প্রথম ডোজ দেওয়া হয়েছে ৬ লাখ ২ হাজার ৪৮ জনকে, দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া হয়েছে ১৫ লাখ ৪ হাজার ৬৩৮ জনকে। আর বাকি সব বুস্টার ডোজ দেওয়া হয়েছে।

আহমেদুল কবির বলেন, টিকাদানের কারণেই বর্তমানে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা কমেছে। তবে গত কয়েকদিনে সংক্রমণ কিছুটা বাড়লেও হাসপাতালে ভর্তির সংখা খুবই কম। এসব বিষয় চিন্তা করেই বাদ পড়াদের টিকার আওতায় আনতে নতুন করে আবারও বিশেষ টিকা দান ক্যাম্পেইনের সময় বাড়ানো হয়েছে।


আরও খবর

ভয়াবহ হচ্ছে ডেঙ্গু

মঙ্গলবার ০৪ অক্টোবর ২০২২

ডেঙ্গু নিয়ে ঢাকায় দিনে, ২৫ জন ভর্তি

শুক্রবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২




সুনামগঞ্জের টাঙ্গুয়ার হাওরে ভ্রমণে সাহিত্যিকদের জলভোজন

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ |
Image

শফিউল আলম, স্টাফ রিপোর্টার :

সুনামগঞ্জের বিভিন্ন উপজেলার কবি সাহিত্যিক সাংবাদিক লেখক কলামিস্ট গীতিকার শিল্পী সহ

জেলার তাহিরপুর উপজেলার টাঙ্গুয়ার হাওরে জলভোজনের আয়োজন করা হয়। ৯ সেপ্টেম্বর শুক্রবার শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আলী হায়দারের আমন্ত্রণে জলভোজন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। 

ইসলামগঞ্জ ডিগ্রি কলেজের বাংলা প্রভাষক সুরমার মোহনার সম্পাদক কবি ফজলুল হক দোলন,দিগেন্দ্র বর্মন সরকারি কলেজের ইংরেজি প্রভাষক কবি মোঃ মশিউর রহমান,

 জাগ্রত কন্ঠ সমাজকল্যাণ সাংস্কৃতিক পরিষদের সভাপতি কবি মোঃসহিদ মিয়া, কবি এস ডি সুব্রত,ডেল্টা লাইফ ইন্সুরেন্সের জেলা এজিএম মিসবাহ উদ্দিন রুমি, মইনুল হক কলেজের প্রভাষক কবি তৈয়ুবুর  রহমান, পল্লী চিকিৎসক কবি মো শফিক আহমদ, গীতিকার সামরান আহমদ মিলন,সাংবাদিক শফিউল আলম প্রমুখ। টাঙ্গুয়ার হাওর ভ্রমণের পরে শহীদ সিরাজ লেকে (নীলাদ্রি) 


বৈকালি আড্ডায় গান,কবিতা আবৃত্তি অনুষ্ঠিত। প্রভাষক কবি মোঃ মশিউর রহমান বলেন,

সকালে টাঙ্গুয়ার হাওরে বিশাল জলরাশির সৌন্দর্য উপভোগ করে, দুপুরে তাহিরপুর উপজেলার পাটলাই নদীর তীরে উত্তর শ্রীপুর বাজার ঘাটে নৌকায় স্থানীয় চেয়ারম্যান আলী হায়দার সাহেবের আমন্ত্রণে জল ভোজন শেষে বিকেলে তাহিরপুর উপজেলার টেকেরঘাটে শহিদ সিরাজ লেক ( নীলাদ্রি লেক) এ  গানে, আড্ডায় , কবিতা পাঠে চমৎকার সময় পার হলো।কবি ফজলুল হক দোলন বলেন,আজকের আয়োজন ছিল খুবই আনন্দদায়ক।এদিনটি কোন দিন ভুলা যাবে না।সময় পেলে যে কোন জন ভ্রমণে আসতে পারেন স্বপরিবারে! টাঙ্গুয়ার হাওর ভ্রমণের পরে শহীদ সিরাজ লেকে (নীলাদ্রি) 

প্রকাশ জনৈক কবি খালেদ বলেন,বনে ভ্রমণ করে খাওয়া দাওয়া করলে হয় বনভোজন। এভাবে জলে ভ্রমণ করে খাওয়া দাওয়া করলে হয় জলভোজন।


আরও খবর



ধর্ষণ মামলায় মামুনুল হকের আদালতে হাজিরা

প্রকাশিত:সোমবার ০৩ অক্টোবর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ |
Image

বুলবুল আহমেদ সোহেল ঃ

নারায়নগঞ্জের সোনারগাঁও থানায় দায়ের করা ধর্ষণ মামলায়  হেফাজতে ইসলাম সাবেক যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হকের আদালতে হাজিরা। দুজন পুলিশ কর্মকর্তা সাক্ষ্য।

নারায়নগঞ্জের সোনারগাঁয়ে রির্সোট কান্ডের ঘটনায় থানায় দায়ের করা ধর্ষণ মামলায় ৭ম দফায় হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের সাবেক যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হকের বিরুদ্ধে আরও দুজন পুলিশ কর্মকর্তা সাক্ষ্য দিয়েছেন। সাক্ষীরা হলেন- এএসআই বোরহান দর্জি, এবং এএসআই ওবায়েদ হোসেন।৩ অক্টোবর সোমবার নারায়ণগঞ্জ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনাল আদালতের বিচারক নাজমুল হক শ্যামলের আদালতে এ সাক্ষ্যগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়।

এর আগে সকাল ১০টায় কাশিমপুর কারাগার থেকে নারায়ণগঞ্জের আদালতে আনা হয়। কড়া নিড়াপত্তায় সকাল ১১টায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনাল আদালতের বিচারক নাজমুল হক শ্যামলের আদালতে তাকে উঠানো হয়।

আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) রকিব উদ্দিন আহমেদ এর সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, সোমবার মামুনুল হকের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলায় আরও দু’জন পুলিশ কর্মকর্তা সাক্ষ্য দিয়েছেন। এ নিয়ে মোট ১৫ জন সাক্ষ্য দিয়েছেন। এ মামলার চার্জশিটে সাক্ষী রয়েছেন ৪০ জন। 

প্রসঙ্গত,  ২০২১ সালের ৩ এপ্রিল নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে রয়েল রিসোর্টে এক নারীর সঙ্গে অবস্থান করছিলেন মামুনুল হক। ওই সময় স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা এসে মামুনুল হককে ঘেরাও করেন। পরে স্থানীয় হেফাজতের নেতাকর্মী ও সমর্থকরা এসে রিসোর্টে ব্যাপক ভাঙচুর করেন এবং তাকে ছিনিয়ে নিয়ে যান। পরে ৩০ এপ্রিল সোনারগাঁ থানায় মামুনুল হকের বিরুদ্ধে বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণ মামলা করেন ওই নারী। তবে ওই নারীকে তার দ্বিতীয় স্ত্রী দাবি করে আসছেন মামুনুল হক।


আরও খবর



উত্তাল ইরান, সেনা নামানোর পরিকল্পনা

প্রকাশিত:শনিবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ |
Image

পুলিশ হেফাজতে এক তরুণীর মৃত্যুকে কেন্দ্র করে উত্তাল হয়ে উঠেছে ইরান। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার লক্ষ্যে সেনাবাহিনী নামানোর পরিকল্পনা করা হয়েছে। যাতে আর কোনো ধরনের বিক্ষোভ না হয় এবং বিক্ষোভের জন্য কেউ যাতে রাস্তায় নেমে না আসেন সে কথা স্মরণ করিয়ে দিয়ে সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে সতর্ক করে দেওয়া হয়েছে।

ওই সতর্কবার্তায় বলা হয়েছে, দেশের জনগণের সুরক্ষা নিশ্চিত করতে তারা বিশৃঙ্খলাকারীদের মোকাবিলা করার জন্য নামবেন। অনুপযুক্ত পোশাক পরার অপরাধে গত সপ্তাহে পুলিশের হাতে আটক হওয়ার পর ২২ বছর বয়সি ইরানি তরুণী মাশা আমিনি পুলিশ হেফাজতে মারা যান। তার মৃত্যুর ঘটনাকে ঘিরে ইরানে বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে। শুক্রবারও (২৩ সেপ্টেম্বর) তেহরান ও অন্যান্য নগরীতে বিক্ষোভ হয়েছে।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানায়, এই বিক্ষোভ দমনে শুক্রবার সেনাবাহিনী এ হুঁশিয়ারি দিয়েছে। সতর্কবার্তায় বলা হয়েছে, এ ধরনের বিশৃঙ্খলামূলক কর্মকাণ্ড হচ্ছে ইসলামি শাসনব্যবস্থাকে দুর্বল করার উদ্দেশে শত্রুদের কৌশলের অংশ। অন্যায়ভাবে আক্রমণের শিকার হওয়া ব্যক্তিদের নিরাপত্তা ও শান্তি নিশ্চিত করতে যেকোনো অপতৎপরতা কঠোরভাবে মোকাবিলা করা হবে।

এদিকে বিক্ষোভের প্রতিবাদ জানিয়ে শুক্রবার সরকার সমর্থকরাও তেহরানে সমাবেশ করেন। ইরানি গণমাধ্যম জানায়, জুমার নামাজের পর সমাবেশে বক্তারা বলেন, তাদের এই জমায়েত হলো ‘দাঙ্গাকারীদের বিরুদ্ধে জনশক্তির আওয়াজ।’

মাশা আমিনির মৃত্যুকে ঘিরে সৃষ্ট অস্থিরতা ভয়াবহ আকার নিতে পারে বলে আশঙ্কা করছে ইরান সরকার। এর আগে ২০১৯ সালে জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধির প্রতিবাদে দেশটিতে ব্যাপক বিক্ষোভ হয়। সে বারের বিক্ষোভ-সহিংসতায় দেড় হাজার লোকের প্রাণহানি ঘটে।

পুলিশ হেফাজতে মাশা আমিনির মৃত্যুকে ঘিরে এবার বিক্ষোভে ক্ষুব্ধ আন্দোলনকারীরা তেহরান ও আরো কয়েকটি শহরে যানবাহন এবং থানা পুড়িয়ে দিয়েছে; অনেক জায়গায় নিরাপত্তা বাহিনীর ওপর হামলা হয়েছে। ইরানি গণমাধ্যম জানায়, পুলিশ ২৮০ জনকে গ্রেপ্তার করেছে।

আমিনির মৃত্যু নারীর পোশাক নিয়ে কঠোর বিধিনিষেধসহ ব্যক্তি স্বাধীনতার ওপর হস্তক্ষেপ এবং নিষেধাজ্ঞায় ধুঁকতে থাকা অর্থনীতিসহ বিভিন্ন ইস্যুতে ইরানিদের ক্ষোভ উসকে দিয়েছে। আমিনি তার ভাইয়ের সঙ্গে তেহরান গিয়েছিলেন। বিবিসি জানায়, হিজাব আইন ঠিকমতো না মানার অভিযোগে নীতি পুলিশ তাকে আটক করে নিয়ে যাওয়ার পর ডিটেনশন সেন্টারে তিনি জ্ঞান হারিয়ে পড়ে যান এবং কোমায় চলে যান।

মানবাধিকার বিষয়ে ইরানে জাতিসংঘের ভারপ্রাপ্ত হাইকমিশনার নাদা আল-নাশিফ বলেন, তারা জানতে পেড়েছেন নীতি পুলিশ আমিনির মাথায় লাঠি দিয়ে মেরেছে এবং তাদের একটি গাড়ির সঙ্গে আমিনির মাথা জোরে ঠুকে দিয়েছে।

নীতি পুলিশের পক্ষ থেকে অবশ্য এসব অভিযোগ অস্বীকার করা হয়। তাদের দাবি, আমিনি ‘হঠাৎই হৃদরোগে আক্রান্ত হন’। তবে আমিনির পরিবার বলেছে, সে একেবারেই সুস্থ এবং সবল ছিল।

ইরানের তথাকথিত নৈতিকতা রক্ষার দায়িত্বে থাকা নীতি পুলিশ বাহিনীর হেফাজতে মাশা আমিনির মৃত্যুর পর ক্ষোভে ফেটে পড়েছেন ইরানের নারীরা। ইসলামি প্রজাতন্ত্রটির কঠোর পোশাকবিধি এবং তা বলবৎ করার দায়িত্বে যারা আছে তাদের বিরুদ্ধে বিক্ষোভে ফুঁসে ওঠা নারীরা প্রতিবাদস্বরূপ তাদের হিজাব পুড়িয়ে ফেলছেন।



আরও খবর

চিকিৎসাবিজ্ঞানের নোবেল ঘোষণা

মঙ্গলবার ০৪ অক্টোবর ২০২২