Logo
শিরোনাম
মেঘনা নদীতে গোসল করার সময় নিখোঁজ ছাত্রের মরদেহ উদ্ধার রাজবাড়ীতে ট্রাকের সাথে সংঘর্ষে মোটর সাইকেল আরোহীর মৃত্যু রাজবাড়ীতে আবৃত্তি ও কথামালায় প্রকাশনা উৎসব নওগাঁয় মোটরসাইকেলের ধাক্কায় স্কুল ছাত্র নিহত-মা ও ছোট বোন আহত মোরেলগঞ্জে শ্রমীকদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করলেন এমপি মিলন লালমনিরহাটে বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে মারাগেছে স্কুলছাত্র নওগাঁয় বোরো ধান চাষের শুরুতেই বিদ্যুতের লোড শেডিং, দুঃশ্চিন্তায় কৃষকরা নওগাঁয় ৩৫ কোটি টাকা মূল্যের কষ্টিপাথরের মূর্তি উদ্ধার করেছে পুলিশ কুড়িগ্রামের শীতকাতর অসহায় মানুষের পাশে কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেত্রকোনায় বিশ্ব জলাভূমি দিবস উপলক্ষে মানববন্ধন

ইউএনও রোমানা আফরোজ বনাম শীর্তাত মানুষের শরীরে গড়ম কাপড়

প্রকাশিত:Thursday ১৯ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Friday ০৩ February ২০২৩ |
Image

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন, স্টাফ রিপোর্টার :


নওগাঁয় মানবিক ইউএনও রোমানা আফরোজ তীব্রশীতে শীর্তাত মানুষের শরীরে তুলে দিচ্ছেন গড়ম কাপড়।

নওগাঁয় কয়েক দিন ধরেই চলমান শৈত্য প্রবাহে দরিদ্র, ছিন্নমুল ও পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীর মানুষের যখন যুবুথুবু অবস্থায়, ঠিক সে সময়-ই   শির্তাতদের শীত নিবারণের জন্য গড়ম কাপড় নিয়েএগিয়ে এলেন নওগাঁর পত্নীতলা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোছাঃ রোমানা আফরোজ। তিনি বুধবার বিকাল থেকে রাত পর্যন্ত হতদরিদ্র ও ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী বসবাসরত এলাকায় ঘুরে ঘুরে নিজ হাতে ৫ শতাধিক অসহায় শীতার্ত মানুষের শরীরে জড়িয়ে দিয়েছেন শীত নিবারনে গড়ম কাপড়। অপরদিকে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের হাতে শীত নিবারণের গড়ম কাপর, জামা পেয়ে নারী-পুরুষ ও শিশুরা আনন্দ প্রকাশ করেন। 

বুধবার সন্ধ্যায় পত্নীতলা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোছাঃ রোমানা আফরোজ নজিপুর ইউনিয়নের সুলতানপুর ভুঁইয়া পাড়া, পাটিচরা ইউনিয়নের পাটিচরা ও ছালিগ্রাম গ্রামে গিয়ে ৫ শত শীর্তাত নারী-পুরুষ ও শিশুর মাঝে শীত নিবারণের জন্য গড়ম মোটা কাপড় বিতরণ করেন। এ সময় তার সাথে ছিলেন, নজিপুর ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ হাবিবুর রহমান, ঘোষনগর ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ আবু বক্কর সিদ্দিক প্রমুখ। উল্লেখ্য এর আগেও রোমানা আফরোজ রাতের আঁধারে বিভিন্ন গ্রাম ঘুরে ঘুরে ৫শত শীতার্ত মানুষের মাঝে কম্বল বিতরণ করেন। 

এব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রোমানা আফরোজ বলেন, এলাকার শীতার্ত মানুষকে সুরক্ষা দেওয়া সকলের নৈতিক দায়িত্ব। পর্যায়ক্রমে শীর্তাত আরো মানুষের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করা হবে 


আরও খবর



সামরিক শক্তি সূচকে ৪০তম বাংলাদেশ

প্রকাশিত:Sunday ১৫ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Wednesday ০১ February ২০২৩ |
Image

সামরিক সক্ষমতার ওপর নির্ভর করে তৈরি করা আন্তর্জাতিক গবেষণা প্রতিষ্ঠান গ্লোবাল ফায়ারপাওয়ারের (জিএফপি) চলতি বছরের সামরিক শক্তি সূচকে বিশ্বের ১৪৫টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশ ৪০তম অবস্থানে রয়েছে। এই সূচকে গত বছরের মতো শীর্ষ সামরিক ক্ষমতাধর দেশ নির্বাচিত হয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। এর আগে, ২০২০ ও ২০২১ সালে বাংলাদেশের এই অবস্থান ছিল যথাক্রমে ৪৬ ও ৪৫ তম।

জিএফপির চলতি বছরের সূচকে দেশগুলোর শক্তি বৃদ্ধির প্রবণতার ওপর ভিত্তি করে জাতীয় সামরিক শক্তিকে তুলে ধরা হয়েছে। জিএফপির পর্যালোচনায় ‘পাওয়ারস অন দ্য রাইজ’ তালিকায় ১২তম স্থানে রয়েছে বাংলাদেশ। জিএফপির ২০২৩ সালের বার্ষিক প্রতিরক্ষা পর্যালোচনায় ‘পাওয়ারস অন দ্য রাইজ’ হিসেবে ৫৩টি দেশকে বেছে নেওয়া হয়।

আন্তর্জাতিক এই সংস্থার ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে, বিশ্বের ১৪৫টি দেশের সামরিক সক্ষমতার সর্বশেষ সহজলভ্য সামরিক সরঞ্জাম, প্রতিরক্ষা বাজেট, সৈন্য সংখ্যাসহ বিভিন্ন ধরনের ৬০টির বেশি মাপকাঠির ওপর ভিত্তি করে চলতি বছরের সূচক তৈরি করা হয়েছে।

‘২০২৩ মিলিটারি স্ট্রেন্থ র‍্যাংকিং’ নামে প্রকাশিত এই সূচকে সামরিক শক্তিমত্তা বিচারে দেশগুলোর স্কোরও নির্ধারণ করা হয়েছে। এতে বাংলাদেশের সামরিক বাহিনীকে বিশ্বের ৪০তম হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে। সামরিক শক্তিসূচকে বাংলাদেশ স্কোর পেয়েছে শূন্য দশমিক ৫৮৭১।

গত ৫ জানুয়ারি পর্যন্ত বাংলাদেশের সামরিক সক্ষমতাকে এই সূচকের ভিত্তি হিসেবে ধরে নিয়ে বাংলাদেশের অবস্থান নির্ধারণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছে জিএফপি।

এদিকে, গত বছরের মতো এই সূচকে শীর্ষ স্থান ধরে রেখেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। রাশিয়া-ইউক্রেন চলমান যুদ্ধের পটভূমিতে ১৪৫টি দেশের মধ্যে বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী সামরিক বাহিনীর তালিকায় ১৫তম স্থানে রয়েছে ইউক্রেন।

অন্যদিকে, জিএফপির সূচকে দ্বিতীয় সামরিক ক্ষমতাধর দেশ নির্বাচিত হয়েছে রাশিয়া। দেশটির স্কোর শূন্য দশমিক ০৭১৪। আর সামরিক শীর্ষ ক্ষমতাধর দেশের এই সূচকে চীন রয়েছে তৃতীয় স্থানে। চীনের স্কোর শূন্য দশমিক ০৭২২।

বাংলাদেশের প্রতিবেশি ভারত শীর্ষ সামরিক ক্ষমতাধর দেশের এই তালিকায় চতুর্থ স্থানে আছে ভারত; দেশটির স্কোর শূন্য দশমিক ১০২৫। পাকিস্তান রয়েছে ৭ম স্থানে; স্কোর শূন্য দশমিক ১৬৯৪। আর মিয়ানমার রয়েছে ৩৮তম স্থানে। দেশটির স্কোর শূন্য দশমিক ৫৭৬৮।

জিএফপির এই সূচকে ইরান ১৭তম, ইসরায়েল ১৮তম, ভিয়েতনাম ১৯তম, সৌদি আরব ২২তম, তাইওয়ান ২৩, থাইল্যান্ড ২৪তম ও উত্তর কোরিয়া ৩৪তম সামরিক ক্ষমতাধর দেশের অবস্থানে রয়েছে।

আর এই তালিকার একেবারে তলানিতে রয়েছে দক্ষিণ এশিয়ার দেশ ভুটান। ১৪৫তম অবস্থানে থাকা দেশটির স্কোর ৬ দশমিক ২০১৭।


সূত্র : জিএফপি।


আরও খবর



প্রতিবেশীদের নিয়ে ধামরাইয়ে শুরু ‘প্রতিবেশী উৎসব’

প্রকাশিত:Thursday ১৯ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Friday ০৩ February ২০২৩ |
Image

মাহবুবুল আলম রিপন (স্টাফ রিপোর্টার)

ঢাকার ধামরাইয়ে অনুষ্ঠিত হয়ে গেল আইএফআইসি BANK এর ‘প্রতিবেশী উৎসব'

উক্ত অনুষ্ঠানটি উদ্বোধন করেন ধামরাই পৌরসভার সুযোগ্য মেয়র আলহাজ্ব গোলাম কবির মোল্লা।অনুষ্ঠানটি সভাপতিত্ব করেন শাখা ব্যাবস্হাপক এ.বি.এম. মাসুম। 

আইএফআইসি যখন প্রতিবেশী ব্যাংকিং করি যত খুশি !আইএফআইসি ব্যাংক উপশাখা আরো কাছে সবার মাঝে পাড়ায় পাড়ায় আমার ব্যাংক। •এজেন্ট বা কারো মাধ্যমে নয় সরাসরি ব্যাংকের কাছ থেকে ব্যাংকিং সেবা  • ব্যাংকের নিজস্ব কর্মী দ্বারা পরিচালিত • ঋণসহ সব ব্যাংকিং সেবা • শাখার মতোই রিয়েল টাইম ব্যাংকিং অভিজ্ঞতা • এর মধ্যেই গ্রাম- শহর সারাদেশে ছড়িয়ে গেছে আইএফআইসি ব্যাংক উপশাখা।

শহুরে জীবন মানুষকে এক ধরনের বিচ্ছিন্নতাবােধের দিকে ঠেলে দিয়েছে।যেখানে প্রতিবেশীদের নিজেদের মধ্যে কোনাে যােগাযােগ নেই, যেখানে একই এলাকার ভেতরে এক প্রতিবেশীর কাছে অপর প্রতি বেশীকে আগন্তুক বলে মনে হয়, যা সামাজিকভাবে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ‘প্রতিবেশী কমিউনিটি’কে দুর্বল করে ফেলছে।প্রতিবেশীদের মধ্যে এ সংযােগকে পুনরুজ্জীবিত করে তুলতেই ঢাকার ধামরাইয়ে অনুষ্ঠিত হচ্ছে ‘প্রতিবেশী উৎসব’।


আরও খবর



শীতের দাপট থাকবে কয়েকদিন

প্রকাশিত:Friday ২০ January ২০23 | হালনাগাদ:Friday ০৩ February ২০২৩ |
Image

মইনুল ইসলাম মিতুল :মৌলভীবাজারে মাঘের প্রথম সপ্তাহে আবারো জেঁকে বসেছে শীত। সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৫ দশমিক ছয় ডিগ্রি সেলসিয়াস।

এটি এখন পর্যন্ত সবচেয়ে কম তাপমাত্রা। উত্তরের জেলা পঞ্চগড়ে মৃদু শৈত্যপ্রবাহের পর এবার শুরু হয়েছে মাঝারি শৈত্যপ্রবাহ। হিমেল বাতাস আর ঘন কুয়াশায় বিপর্যস্ত জনজীবন। তেঁতুলিয়ায় তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৬ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এদিকে তাপমাত্রা কমে যাওয়ায় বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে জনজীবন। বেড়েছে ঠাণ্ডাজনিত রোগের প্রকোপ। সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিতে রয়েছে শিশু ও বয়স্করা।

মাঝারি ও মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বইছে ২৭ জেলায়। শীতের সঙ্গে ঘন কুয়াশায় বিপর্যস্ত জনজীবন। কষ্টের জীবন কাটছে ছিন্নমূল মানুষের। আরো কিছু দিন শীতের দাপট চলবে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া অফিস।

বিভিন্ন স্থানে কুয়াশায় ঢেকে থাকে প্রকৃতি। শীত আর কুয়াশার কারণে প্রয়োজন ছাড়া ঘর থেকে বের হচ্ছেন না কেউ। তারপরও জীবিকার তাগিদে ঘরে বসে থাকলে চলে না অনেকের। মাঘের শীত যতই কাঁপন ধরাক হাড়ে, কাজে বের হওয়ায় নিস্তার নেই।

ঘন কুয়াশা আর সূর্য কিরণের অভাবে দিন ও রাতের তাপমাত্রার পার্থক্য কমেছে। চলতি মাসে দেশের কোথাও সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৫ ডিগ্রির উপরে ছিল না। আর ঢাকায় এ মাসে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১১ দশমিক ৭ ডিগ্রি।

এদিকে আবহাওয়া অফিসের পূর্বাভাস বলছে, শৈত্যপ্রবাহ থাকবে আরো কিছু দিন। বাড়বে বিস্তৃতি। নতুন করে আরো কিছু জেলায় ওপর দিয়ে বইতে পারে শৈত্যপ্রবাহ।


আরও খবর



নেত্রকোনায় মারা গেছেন বাকলজোড়া ইউনিয়ন চেয়ারম্যান

প্রকাশিত:Tuesday ১০ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Friday ০৩ February ২০২৩ |
Image

নেত্রকোনা প্রতিনিধি :


নেত্রকোনার দুর্গাপুরের বাকলজোড়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো. ইয়াকুব আলী তালুকদার (৬৫) মারা গেছেন। মঙ্গলবার বিকেলে শ্বাসকষ্ট জনিত সমস্যা নিয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মৃত্যু হয় তার। 

পরিবার সূত্রে জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরে তিনি শ্বাসকষ্ট জনিত সমস্যায় ভুগছিলেন। মঙ্গলবার দুপুরের পর হঠাৎ তার শ্বাসকষ্ট বেড়ে গেলে পরিবারের সদস্যরা তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এ নিয়ে যান। হাসপাতালে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক ডাঃ তানজিরুল ইসলাম রায়হান তাকে মৃত ঘোষনা করেন। 

গত ২৮ নভেম্বর ২০২১ তৃতীয় ধাপে ইউপি নির্বাচনে বাকলজোড়া ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী মোটরসাইকেল প্রতীক নিয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছিলেন তিনি। এর আগেও তিনি আওয়ামী লীগের মনোনয়ন নিয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছিলেন। 

এদিকে হঠাৎ তার মৃত্যুতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে তার নির্বাচনী এলাকা সহ পুরো উপজেলায়। তার মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন স্থানীয় সংসদ সদস্য সহ জেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দরা।


আরও খবর



নওগাঁয় বাঁশের তৈরী পণ্য বিক্রি করে সংসার চালাচ্ছেন দম্পতি

প্রকাশিত:Thursday ১৯ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Friday ০৩ February ২০২৩ |
Image

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন, স্টাফ রিপোর্টার :


নওগাঁর মহাদেবপুরে বাঁশদিয়ে আসবাব পত্র তৈরী ও বিক্রি করে সংসারে সফলতা এনেছেন উজ্জ্বল ও পুষ্প তরনী দম্পতি।

কুটির শিল্পের কারিগর এই দম্পতি বাড়িতে বাঁশের তৈরী বিভিন্ন রকম ডালা, চালুন, কুলা, ডালি, হাতপাখা, ঝাড়ুসহ নানা রকম সাংসারিক সামগ্রী তৈরী করে এসব হাটেবিক্রি করে সংসারে খরচ করেন। সংসারে স্বামীকে সহযোগিতা করার পাশাপাশি স্ত্রী নিজেই এখন বড় ব্যবসায়ী। তার দোকানে সাজানো আছে বাঁশ দিয়ে হাতের তৈরি বিভিন্ন রংয়ের কুলা, চালন, ডালি, হাতপাখা, ঝাড়ু সহ অনেক বাঁশের তৈরী আরো অনেক আসবাব পত্র। মহাদেবপুর উপজেলা সদরের সারপট্রি এলাকায় বসে এই শিল্পের ব্যবসায়ীরা বাঁশের তৈরী এসব আসবাব পত্র বিক্রিও করে থাকেন।

সরেজমিনে গিয়ে কথা হয় উজ্জ্বল তরনী দম্পতির সঙ্গে। তারা বলেন, আমরা থাকি উপজেলা সদরের কালিতলা মন্দিরের কাছে সুলতানপুর আশ্রয়ণ প্রকল্পে প্রধানমন্ত্রীর দেয়া উপহার ঘরে। তিনি আরো বলেন, আমরা স্বামী স্ত্রী দুজনেই বাঁশদিয়ে নিজেরাই এসব আসবাব পত্র তৈরী করি, এছাড়াও কিছু জিনিস আমরা কিনে নিয়ে আসি। 

এসময় দেখা যায়, রঙিন গোমাই। সেগুলো বিক্রি হচ্ছে ২০ টাকা করে। হাঁস মুরগী ঢাকা টোপা বিক্রি হয় ২০০ থেকে ৩০০ টাকা করে। এছাড়া বিভিন্ন দামের বিভিন্ন শিল্প আছে এদম্পতির দোকানে।

পুষ্প তরনী বলেন, ডালি, হাতপাখা, চালন, কুলা সহ অনেক কিছু আমরা নিজেই তৈরি করি। দিনে মাঝারি ডালি ৬-৭টা, কুলা ২০টি তৈরি করা যায়। কুলার দাম ৫০-৭০ টাকা। এগুলো হাতের তৈরি আদীয় শিল্প। সারা বছর এই ব্যবসা চলে। সপ্তাহে শনি ও বুধবার হাট হলেও আমরা প্রতিদিন এখানে নিয়ে এসে বিক্রি করি। এছাড়া বাড়ি থেকেও অনেকে কিনে নিয়ে যায়। প্রকারভেদে এবং মানঅনুযায়ী ৫০ থেকে ১২০ টাকা পর্যন্ত ঝাড়ু বিক্রি হয়।

পাশাপাশি পাইকারি নিয়ে এসে বিক্রি করছে অনেক কিছু। এদম্পতি টিকিয়ে রেখেছে বাঁশের তৈরি আদীয় শিল্পকে। তারা দু'জনেই বলেন, ৪ মেয়েকে নিয়ে ভালোই আছি। এক মেয়ের বিয়ে হয়েছে। আরেক মেয়ের বিয়ের কথা চলছে। অন্য মেয়েরা পড়াশোনা করছে।

এব্যাপারে মহাদেবপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ আবু হাসান মুঠোফোনে গনমাধ্যমকে বলেন, স্বামী-স্ত্রী দম্পতি হারিয়ে যাওয়া ঐতিহ্যকে ধরে রেখেছে এটা অবশ্যই সবার জন্য একটা অনুপ্রেরণা মূলক কাজ। 

এটা আগে ছিল নিত্য প্রয়োজনীয়। তবে এখন এই শিল্পগুলো অনেক জায়গায় সৌখিন হিসেবে ব্যবহার হয়ে থাকে। তিনি বলেন, তারা যদি কোন সহযোগিতার জন্য আসে আমি উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সর্বাত্মক চেষ্টা করবো।


আরও খবর