Logo
শিরোনাম
মেঘনা নদীতে গোসল করার সময় নিখোঁজ ছাত্রের মরদেহ উদ্ধার রাজবাড়ীতে ট্রাকের সাথে সংঘর্ষে মোটর সাইকেল আরোহীর মৃত্যু রাজবাড়ীতে আবৃত্তি ও কথামালায় প্রকাশনা উৎসব নওগাঁয় মোটরসাইকেলের ধাক্কায় স্কুল ছাত্র নিহত-মা ও ছোট বোন আহত মোরেলগঞ্জে শ্রমীকদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করলেন এমপি মিলন লালমনিরহাটে বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে মারাগেছে স্কুলছাত্র নওগাঁয় বোরো ধান চাষের শুরুতেই বিদ্যুতের লোড শেডিং, দুঃশ্চিন্তায় কৃষকরা নওগাঁয় ৩৫ কোটি টাকা মূল্যের কষ্টিপাথরের মূর্তি উদ্ধার করেছে পুলিশ কুড়িগ্রামের শীতকাতর অসহায় মানুষের পাশে কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেত্রকোনায় বিশ্ব জলাভূমি দিবস উপলক্ষে মানববন্ধন
ভার্জিন পাল্প আমদানি বন্ধ

কাগজ সংকটে বই প্রকাশ অনিশ্চিত

প্রকাশিত:Thursday ০১ December ২০২২ | হালনাগাদ:Friday ০৩ February ২০২৩ |
Image

কাগজ সংকট থেকে উদ্ভূত পরিস্থিতি ক্রমেই আরো জটিল হচ্ছে। ডলার সংকটে বিদেশ থেকে ভার্জিন পাল্প আমদানি বন্ধ। রিসাইকেল পাল্পে তৈরি কাগজের মাধ্যমে বই মুদ্রণ ও স্কুল-কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের লেখার খাতার প্রয়োজন মেটানোর কথা। কিন্তু পুরোনো কাগজের দামও বাড়িয়ে দিয়েছে একটি চক্র। এতে থমকে যাওয়ার উপক্রম হয়েছে শিক্ষাকার্যক্রম। ঘোর অনিশ্চয়তায় পড়েছে প্রকাশনাশিল্প। সৃজনশীল বই প্রকাশের অন্যতম উপলক্ষ একুশে বইমেলাও জৌলুশ হারানোর আশঙ্কায়।

কয়েকটি মিল, পাইকারি কাগজ ব্যবসায়ী এবং নোট-গাইড প্রকাশকরা হাজার হাজার টন কাগজ কিনে মজুদ করে ফেলেছেন বলে অভিযোগ। ফলে বাজারে দেখা দিয়েছে কাগজ সংকট। এ অবস্থায় শুধু পাঠ্যবই নয়, ফেব্রুয়ারিতে একুশে বইমেলায় সৃজনশীল বই, ছোট ছোট প্রকাশনীর গাইড, বই ও লেখার খাতা তৈরি পড়েছে অনিশ্চয়তার মধ্যে। এ অবস্থায় সরকারি হস্তক্ষেপ ছাড়া কাউকে সংকট থেকে উত্তরণের উপায় নেই বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

একুশে বইমেলায় প্রতিটি প্রকাশনী থেকে ২০ থেকে ১৫০টি পর্যন্ত বই প্রকাশ করা হয়। এ ক্ষেত্রে নামি-দামি লেখকের চেয়ে নতুন লেখকদের বই প্রকাশ হয় সংখ্যায় বেশি। নতুন লেখকরা বইমেলার মাধ্যমেই বই প্রকাশের সুযোগ পান।

গত বছর জানুয়ারিতে ৮০-১০০ গ্রাম অপসেট কাজ ১৪৫০-১৫০০ টাকায় বিক্রি হলেও বর্তমানে তা ৩৩০০ থেকে ৩৫০০ টাকা। ১০০ গ্রাম অপসেট কাগজ ১৭০০-১৭৫০ টাকার জায়গায় এবার ৪২০০-৪৩০০ টাকা নেওয়া হচ্ছে। প্রকাশকদের এমনিতে পুঁজির স্বল্পতা, তার ওপর কাগজের দাম বেড়ে যাওয়ায় মেলায় বইয়ের দাম দেড় গুণ হয়ে যাবে। বইয়ের দাম বাড়লে পাঠকের ক্রয়ক্ষমতা কমবে। পরিচিত লেখক ছাড়া নতুন লেখকদের বই প্রকাশনা পড়বে ঝুঁকিতে।

জানা যায়, নিউজপ্রিন্ট কাগজের দাম ৪৫-৫০ থেকে বেড়ে ১০৮ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে। এ কারণে বছরের শুরুতে সহায়ক বই ছাপানো থেকেও পিছিয়ে যাচ্ছেন অনেক প্রকাশক। বড় প্রকাশনীগুলো কিছু সহায়ক ছাপালেও তা দ্বিগুণ মূল্যে শিক্ষার্থীদের কিনতে হবে। বাড়তি দামে প্রকাশকরা বই ছাপবেন। মূল্য কতটা বাড়ানো হবে সেটি নিয়ে পুস্তক প্রকাশনা ও বিক্রেতা সমিতির বৈঠক হয়েছে। সেখানে ফর্মাপ্রতি ২৫ শতাংশ মূল্য বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। যে বইয়ের দাম ৬৫০ টাকা ছিল তা এখন ৮০০-৮৫০ টাকায় বিক্রি হবে।

এখন টাকা থাকলেও প্রয়োজনীয় কাগজ পাওয়া যাচ্ছে না অ্যাকাডেমিক ও সৃজনশীল বই ছাপানোয় প্রকাশকদের ওপর বড় ধরনের ধাক্কা এসেছে। অনেক প্রকাশক নিঃস্ব হয়ে পড়েছেন। কিছু কাগজ ব্যবসায়ী কারসাজি করে মজুদ করে রেখেছেন। তারা ইচ্ছামতো দাম হাঁকছেন। বিশ্ববাজারে যে পরিমাণে পাল্পের দাম তার দ্বিগুণ দামে কাগজ বিক্রি করছে মিলগুলো। সিন্ডিকেট করে সবাই সুযোগ নিচ্ছে। প্রকাশকদের পক্ষে বলার কেউ নেই।

সংকট মোকাবিলায় এ মুহূর্তে শুল্কমুক্ত কাগজ আমদানির অনুমোদন প্রয়োজন। একই সঙ্গে এই খাতকে নিত্যপ্রয়োজনীয় ঘোষণা করে বাংলাদেশ ব্যাংককে পদক্ষেপ নিতে সরকারের পক্ষ থেকে সহযোগিতা করার আহ্বান জানাতে হবে ।


আরও খবর



জয়পুরহাটে পরিত্যক্ত অবস্থায় ৩টি আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার

প্রকাশিত:Monday ৩০ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Friday ০৩ February ২০২৩ |
Image

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন, স্টাফ রিপোর্টার :

র‍্যাবের অভিযানে অস্ত্র ফেলে পালিয়েছে ছিনতাইকারীরা, ৩টি আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার।

রবিবার দিবাগত রাত ৭টার দিকে পরিত্যাক্ত অবস্থায় ৩ টি ওয়ান শুটারগান উদ্ধার করেন র‍্যাব।

সত্যতা নিশ্চিত করে র‍্যাব-৫, সিপিসি-৩, জয়পুরহাট কাম্প থেকে জানানো হয়, ৫/৬ জনের একটি গ্রুপ কিছুদিন ধরে জয়পুরহাটের আক্কেলপুর থানার বটতলী এলাকার ছিনতাই কাজের সাথে জড়িত। রাস্তায় চলাচলকারী সাধারণ মানুষকে অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে তারা ছিনতাই করত। গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে উক্ত এলাকায় একটি মেহগনি বাগানে অভিযান চালানো কালে র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে ছিনতাই গ্রুপের সদস্যরা পালিয়ে যায়। এসময় ঐ স্থান থেকে পরিত্যক্ত অবস্থায় ৩টি ওয়ান শুটার গান উদ্ধার করা হয়।

উদ্ধারকৃত ওয়ান শুটারগান গুলো জেলার আক্কেলপুর থানায় জিডিমূলে হস্তান্তর করা হয়েছে বলেও জানিয়েছেন র‍্যাব।


আরও খবর



দুই দিনের সফরে টুঙ্গিপাড়ায় প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:Friday ০৬ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Friday ০৩ February ২০২৩ |
Image

আওয়ামী লীগের সভানেত্রী নির্বাচিত হওয়ার পর প্রথমবারের মতো দুই দিনের ব্যক্তিগত সফরে আজ গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ সফরে তিনি বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে শ্রদ্ধা জানানোসহ নানা কর্মসূচিতে অংশ নেবেন।তার সাথে আছেন ছোট বোন শেখ রেহানা ও পারিবারের সদস্যরাও।

এছাড়া আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নবনির্বাচিত জাতীয় পরিষদ, কার্যনির্বাহী সংসদ ও উপদেষ্টা পরিষদের যৌথ সভায় অংশ নেবেন তিনি। সভাটি আগামীকাল শনিবার দুপুরে টুঙ্গিপাড়ায় অনুষ্ঠিত হবে। আজ শুক্রবার সকাল ৮টায় ঢাকা থেকে সড়কপথে প্রধানমন্ত্রী গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ার উদ্দেশে রওনা হন। টুঙ্গিপাড়া পৌঁছে প্রধানমন্ত্রী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানাবেন। এরপর তিনি খুলনার দিঘলিয়া উপজেলার নগরঘাট এলাকায় বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের নামে কেনা দুটি পাটের গুদাম দেখতে সড়কপথে খুলনায় যাবেন। রাতে গোপালগঞ্জে থাকবেন। সেখান থেকে পরদিন দলীয় নেতা-কর্মীদের সঙ্গে নিয়ে বঙ্গবন্ধুর মাজার জিয়ারত করে ঢাকায় ফিরবেন।  


আরও খবর



সদরপুরে ঘটনা স্থলে উপস্থিত না থেকেও হত্যা মামলার আসামী মোঃ রফিকুল ইসলাম

প্রকাশিত:Wednesday ১৮ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Thursday ০২ February 2০২3 |
Image

সদরপুর (ফরিদপুর) প্রতিনিধি

ফরিদপুরের সদরপুরে গত (১৭ নভেম্বর) বৃহস্পতিবার দুই গ্রুপের সংঘর্ষের সময় রফিকুল ইসলাম ঢাকা অবস্থান করার পরেও তাকে মিথ্যে হত্যা মামলার আসামী করা হয়েছে।

ফরিদপুরের সদরপুরে কৃষ্টপুর ইউনিয়নের হাটকৃষ্ণপুর বাজারে গত বুধবার (১৬ নভেম্বর) দুপুরে সাবেক চেয়ারম্যানের সমর্থক গিয়াস তালুকদার নামের এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে হাতের কবজি বিচ্ছিন্ন করে বর্তমান চেয়ারম্যান আকতারুজ্জামান তিতাসের সমর্থকরা পরে তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

সেখানে তার শারিরীক অবস্থায় অবনতি হলে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে পাঠানো হয়।

আহত গিয়াস উদ্দিন তালুকদার একই ইউনিয়নের যাত্রাবাড়ি গ্রামের নয়ন তালুকদারের পুত্র।

এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে বিকেলে উভয় গ্রুপের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। পাল্টাপাল্টি হামলা ও সংঘর্ষের সময় বেশ কিছু বাড়িঘর ভাঙচুর করা হয়। এতে আহত হন কমপক্ষে ১৫ জন।

পরে গত (১৭ নভেম্বর) বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টা থেকে দুপুর পযর্ন্ত সদরপুর উপজেলার যাত্রাবাড়ী এালাকায় কৃষ্টপুর ইউনিয়নের সাবেক ও বর্তমান চেয়ারম্যানের সমর্থকদের মাঝে সংঘর্ষ হয় । এ সময় সংঘর্ষে জালাল ফকির নামে এক ব্যক্তি নিহত হন। পরবতিতে নিহত জালালের ফকিরের ভাই দেলোয়ার ফকির বাদী হয়ে ৫১ জনকে আসামী করে থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

কিন্তু ঘটনা স্থলে উপস্থিত না থেকেও বর্তমান চেয়ারম্যান তিতাসের নিদেশে মামলার ৩৯ নং আসামী করা হয় রফিকুল ইসলামকে । যিনি ঐসময়ে ঢাকার কদমতলী সাদ্দাম মার্কেট এলাকার এন, আর, বি, সি, কমার্শিয়াল ব্যাংকে লেনদেন অবস্থায় ছিলেন। যা ব্যাংকের সিসি টিভি ফুটেজে স্পষ্ট ফুটে উঠেছে।

অথচ ঘটনার দিন রফিকুল ইসলামের ঘটনাস্থলে উপস্থিত না থাকার বিষয়টা সদরপুর থানার ওসি ও মামলার তদন্ত অফিসার কৃষ্ণ বিশ্বাসকে জানানো হলেও এই মিথ্যা মামলা থেকে রেহাই পায়নি।

এ বিষয়ে রফিকুল ইসলাম দৈনিক বর্তমান দেশবাংলাকে বলেন, আমি ঘটনার দিন ঢাকার কদমতলী সাদ্দাম মার্কেট এলাকার এন আর বি সি কমার্শিয়াল ব্য্রংকে লেনদেন অবস্থায় ছিলাম। কিন্তু আমাকে বর্তমান চেয়ারম্যান তিতাসের নির্দেশে জালাল হত্যা মামলার মিথ্যা আসামি করা হয়েছে । আমি প্রশাসনের নিকট এই হয়রানি মূলক মিথ্যা মামলার সুষ্ট তদন্ত দাবি করছি। সেই সাথে আমাকে এই মিথ্যা মামলা থেকে অব্যহতি দেওয়ার জন্য বিশেষ ভাবে অনুরোধ জানাচ্ছি।

 


আরও খবর



কু‌মিল্লায় গু‌লিভ‌র্তি পিস্তলসহ ২ সন্ত্রাসী‌ গ্রেপ্তার

প্রকাশিত:Tuesday ১০ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Tuesday ৩১ January ২০২৩ |
Image

কু‌মিল্লা ব্যুরো :

 কু‌মিল্লায় গু‌লিভ‌র্তি বি‌দেশী পিস্তলসহ ২ সন্ত্রাসী‌কে গ্রেপ্তার করেছে ‌ডি‌বিপুলিশ।

সোমবার (০৯ জানুয়া‌রি) দুপু‌রে  জেলা গো‌য়েন্দা (‌ডি‌বিপু‌লি‌শের) ওসি রা‌জেশ বড়ুয়া বি‌পিএম এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এর আগে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জেলা ডি‌বি পুলিশ সোমবার সকা‌ল সোয়া ১০টার দিকে সদ‌রের সাতরা চম্পকনগর প‌শ্চিমপাড়া এলাকায় অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী শামী‌মের বা‌ড়ি‌তে অভিযান চালিয়ে তারঁ ঘ‌রের সো‌কে‌সের বক্স থে‌কে প‌লি‌থি‌নে সোগা‌নো এক‌টি সচল 7.65 বি‌দেশী পিস্তল,২‌টি ম‌্যাগ‌জিন,এক‌টি ম‌্যাগ‌জি‌নে ৮রাউন্ড গু‌লি ভ‌র্তিসহ জব্দ ক‌রে।এর আ‌গে শাসনগাছা  থে‌কে অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী আলী হাসান রিয়াদ‌কে আটক ক‌রে।‌রিয়াদ‌কে জিজ্ঞাসাবা‌দে শাসনগাছা ক‌পি হাউজ থে‌কে শামীম‌কে আটক ক‌রে ডি‌বিপু‌লিশ।

আটককৃতরা হলো সদর উপ‌জেলার শিমপুরের ম‌ফিজুল ইসলা‌মের ছে‌লে আলী হাসান রিয়াদ (২৯) তারঁ সহযোগী সাতরা চম্পকনগর পশ্চিম পাড়ার আলী আহম্মদের‌ ছে‌লে মোঃ শামীম (২৮)।                               ও‌সি ডি‌বি রা‌জেশ বড়ুয়া জানান এ ব‌্যাপা‌রে কু‌মিল্লা কোতয়ালী মডেল থানায় গ্রেপ্তারকৃত দুই অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে এক‌টি অস্ত্র মামলা দায়ের করা হ‌য়ে‌ছে । মামলা নং-৩৭, ডি‌বি পু‌লিশের অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীদের গ্রেপ্তার ও সনাক্ত করণে জেলা পুলিশ সুপারের নির্দেশনায় ডি‌বি পু‌লি‌শের অভিযান অব্যাহত র‌য়ে‌ছে ব‌লে জানান


আরও খবর



বাসায় আটকে রেখে যুবতীকে ধর্ষণ, অভিযুক্তকে আটক করেছে র‌্যাব

প্রকাশিত:Tuesday ১৭ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Wednesday ০১ February ২০২৩ |
Image

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন, স্টাফ রিপোর্টার :

যুবতীকে ভাড়া বাসায় আটকে রেখে জোর পূর্বক অনৈতিক কাজে বাধ্য করা (ধর্ষণের) ঘটনায় র‌্যাবের অভিযানে (ভিকটিম) যুবতীকে উদ্ধার সহ অভিযুক্ত যুবক আটক। 

সত্যতা নিশ্চিত করে র‌্যাব-৫, সিপিসি-৩,জয়পুরহাট কাম্প থেকে জানানো হয়, ভিকটিম যুবতী (১৯) কে হিরো (৩৪) নামের এক অভিযুক্ত যুবক একটি ভাড়া বাড়িতে আটকে রেখে ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোর পূর্বক অনৈতিক কাজ (ধর্ষণ) করছেন বলে ভুক্তভোগী যুবতীর পরিবার থেকে র‌্যাব কাম্পে অভিযোগ করা হলে অভিযোগের ভিত্তিতে র‌্যাব-৫, সিপিসি-৩, জয়পুরহাট ক্যাম্পের একটি চৌকস আভিযানিক দল কোম্পানী অধিনায়ক মেজর মোঃ মোস্তফা জামান এর নেতৃত্বে সোমবার দিনগত রাত সারে ৮ টারদিকে জয়পুরহাট জেলা সদর উপজেলার বিশ্বাসপাড়া এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে ভিকটিম (যুবতী) কে উদ্ধার পূর্বক অভিযুক্ত ধর্ষক হিরো নামে এক যুবক কে আটক করা হয়। আটককৃত যুবক হিরো জয়পুরহাট জেলার পাঁচবিবি উপজেলার পাঁচবিবি গ্রামের ফজল করিম বাবুয়া'র ছেলে।

র‌্যাব আরো জানান, ভিকটিমের পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে প্রথমে অবস্থান সনাক্ত করণের মাধ্যমে সোমবার দিনগত রাতে আভিযান পরিচালনা করে ভিকটিমকে উদ্ধার পূর্বক অভিযুক্ত যুবক হিরোকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয় র‌্যাব।

এঘটনায় জয়পুরহাট সদর থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে বলেও জানিয়েছেন র‌্যাব।


আরও খবর