Logo
শিরোনাম
রাজধানীর সেতু ভবনে আগুন কমপ্লিট শাটডাউন : ঢাকাসহ সারা দেশে বিজিবি মোতায়েন জয়পুরহাটের পাঁচবিবিতে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ইট বোঝায় ট্রাক খাদে কুষ্টিয়ায় আন্দোলনকারী ও ছাত্রলীগের মধ্যে সংঘর্ষ -কয়েকটি মোটর সাইকেলে আগুন পুঠিয়ায় আ’লীগের বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সভা লালমনিরহাটে অনুষ্ঠিত হয়েছে তিস্তা সমাবেশ বেনাপোল স্থল বন্দর দিয়ে মিথ্যা ঘোষণায় আমদানি করা হয়েছে ১৮ কোটি টাকার সালফিউরিক এসিড কুমারখালীতে মহাসড়ক অবরোধ করে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ, আহত-২ শরণখোলায় নার্সের চিকিৎসার অবহেলায় এক রোগীর মৃত্যুর অভিযোগ শেরপুরে কোটাবিরোধী শিক্ষার্থী-ছাত্রলীগের সংঘর্ষ, সাংবাদিকসহ আহত-২০

কৃত্রিম মিষ্টি ক্যান্সারের সম্ভাব্য কারণ

প্রকাশিত:শুক্রবার ৩০ জুন ২০২৩ | হালনাগাদ:রবিবার ২১ জুলাই ২০২৪ |

Image

কোমল পানীয়, চুইংগামসহ অন্যান্য পণ্য তৈরিতে অ্যাসপার্টাম নামের যে কৃত্রিম মিষ্টি ব্যবহার করা হয় সেটিকে ক্যান্সার সৃষ্টির সম্ভাব্য কারণ হিসেবে ঘোষণা দেবে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

রয়টার্সের প্রতিবেদনে জানিয়েছে, জুলাইয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে এ ঘোষণা আসবে। কোমল পানীয় তৈরিকারী প্রতিষ্ঠানগুলো সবসময় দাবি করে তাদের পণ্যে ক্যান্সার সৃষ্টিকারী উপাদান নেই। তবে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ক্যান্সার ইউনিট গবেষণার পর অন্য তথ্য পেয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

অ্যাসপার্টাম নামের এ কৃত্রিম মিষ্টি দিয়ে কোকাকোলার ডায়েট সোডা থেকে শুরু করে মার্সের এক্সট্রা চুইংগাম এবং স্ন্যাপেলের কোমল পানীয় তৈরি করা হয়। আর এবারই প্রথমবারের মতো বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ইন্টারন্যাশনাল এজেন্সি ফর রিসার্চ অন ক্যান্সার (আইএআরসি) এ উপাদানটিকে মানবদেহে ক্যান্সার সৃষ্টিকারী হিসেবে ঘোষণা দেবে।

আইএআরসির বিশেষজ্ঞ দল এ মাসের শুরুতে বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে একটি বৈঠকে বসেন। সেখানেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় কৃত্রিম চিনি অ্যাসপার্টেমকে ক্যান্সার সৃষ্টিকারী হিসেবে ঘোষণা দেওয়া হবে।

আইএআরসি এর আগেও খাদ্য পণ্যকে ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে ঘোষণা দিয়েছে। আর সংস্থাটির এমন ঘোষণার পর বাজারে এর বড় প্রভাব পড়েছিল। অনেক প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছিল। কিছু প্রতিষ্ঠান তাদের পণ্যে ব্যবহৃত উপাদান বদলাতে পর্যন্ত বাধ্য হয়েছিল।

সম্ভাব্য ক্যান্সার সৃষ্টিকারী উপাদান একজন মানুষ কতটুকু পর্যন্ত খেতে বা পান করতে পারেন এই তথ্য জানায় না আইএআরসি।

এ বিষয়ে মতামত দিয়ে থাকে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার আরেক অঙ্গ সংস্থা জেইসিএফএ। এ সংস্থাটি ১৯৮৩ সাল থেকে বলে আসছে, একজন মানুষ সীমিত পরিমাণ অ্যাসপার্টাম গ্রহণ করতে পারেন। তবে জেইসিএফএ আবার নতুন করে অ্যাসপার্টাম নিয়ে জুলাইয়েই নতুন মতামত প্রকাশ করবে।

সূত্র: রয়টার্স


আরও খবর



বাড়ছে তিস্তার পানি, খুলে দিলো সবগুলো জলকপাট

প্রকাশিত:রবিবার ৩০ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২০ জুলাই ২০24 |

Image


বিডি টুডেস ডেস্ক:


উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে ও ভারী বৃষ্টিতে লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় তিস্তা নদীর পানি বাড়তে শুরু করেছে। 


পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে দেশের বৃহত্তম সেচ প্রকল্প তিস্তা ব্যারেজের ৪৪টি জলকপাট খুলে দিয়েছে ব্যারেজ কর্তৃপক্ষ।


রোববার (৩০ জুন) সকাল ৮টায় তিস্তার পানিপ্রবাহ রেকর্ড করা হয়েছে ৫১ দশমিক ৮৪ সেন্টিমিটার। যা বিপৎসীমার ৩১ সেন্টিমিটার (স্বাভাবিক ৫২ দশমিক ১৫ সেন্টিমিটার) নিচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।


পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় তিস্তার চরাঞ্চলগুলোর ঘরবাড়ি ও ফসলি জমিতে পানি উঠতে শুরু করেছে। নদীর তীরবর্তী ও চরাঞ্চলে বসবাসরত মানুষ বন্যা ও নদীভাঙন আতঙ্কে পড়েছেন।


ডালিয়া পানি উন্নয়ন বোর্ডের হাইড্রোলজিক বিভাগের পানি পরিমাপক নূরুল ইসলাম বলেন, রোববার সকাল থেকে পানি বাড়তে থাকে।



এদিকে তিস্তার পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় লালমনিরহাট জেলার হাতীবান্ধা উপজেলার ৬টি ইউনিয়নের ৮-১০টি চর ও পার্শ্ববর্তী কালীগঞ্জ, আদিতমারী উপজেলার ১০-১৫টি চর এলাকায় পানি উঠতে পারে বলে জানিয়েছেন স্থানীয়রা।


হাতীবান্ধা উপজেলার গড্ডিমারি ইউনিয়নের প্যানেল চেয়ারম্যান আকবার আলী বলেন, রাতে নদীর পানি বেড়ে যাওয়ায় আমরা আতঙ্কিত হয়ে পড়েছি। কখন যে কী হয়।


আরও খবর



হল ছাড়ছেন মাভাবিপ্রবি শিক্ষার্থীরা

প্রকাশিত:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২০ জুলাই ২০24 |

Image
মো: হ্নদয় হোসাইন - মাভাবিপ্রবি প্রতিনিধি



সরকারি চাকরিতে কোটা সংস্কার আন্দোলনকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষের ঘটনার পর পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে দেশের সব বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা ও শিক্ষার্থীদের হল ছাড়ার নির্দেশ দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি)।


আজ বুধবার (১৭ জুলাই) দুপুর থেকে  শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হল, আলেমা খাতুন ভাসানী হল, শহীদ জননী জাহানারা ইমাম হল, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হল, শেখ রাসেল হল,জননেতা আবদুল মান্নান হলসহ প্রায় সব হল থেকেই শিক্ষার্থীদের অনেককে বেরিয়ে যেতে দেখা যায়। পরিবেশ স্বাভাবিক হয়ে ক্যাম্পাসে ফিরবেন বলে জানিয়েছেন তারা।


কোটা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের সঙ্গে গতকাল সারাদেশের বিভিন্ন স্থানে ব্যাপক সংঘর্ষ হয়। শিক্ষার্থীদের আন্দোলন সহিংস রূপ নেওয়ায় গতকাল দেশের সব সরকারি ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় এবং অধিভুক্ত কলেজের শিক্ষা কার্যক্রম অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধের নির্দেশনা দেয় বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি)। একইসঙ্গে শিক্ষার্থীদের হল ত্যাগেরও নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। সংশ্লিষ্ট বিশ্ববিদ্যালয় এই নির্দেশনা বাস্তবায়ন করবে বলে বলা হয়।


ইউজিসির সচিব ড. ফেরদৌস জামান স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সিদ্ধান্ত মোতাবেক শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তার বিষয়টি বিবেচনায় দেশের সকল পাবলিক ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় এবং বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত মেডিকেল, টেক্সটাইল, ইঞ্জিনিয়ারিং ও অন্যান্য কলেজসহ সকল কলেজের শিক্ষা কার্যক্রম পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত বন্ধ থাকবে। একইসঙ্গে শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তার স্বার্থে আবাসিক হল ত্যাগের নির্দেশনা দিয়ে নিরাপদ আবাসস্থলে অবস্থানের নির্দেশনা প্রদান করা হলো।


মাভাবিপ্রবির রেজিস্ট্রার ড. মোহাঃ তৌহিদুল ইসলাম স্বাক্ষরিত অফিস আদেশ থেকে জানা যায়, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সিদ্ধান্ত মোতাবেক আজ ১৭ জুলাই ২০২৪ তারিখে অনুষ্ঠিত এ বিশ্ববিদ্যালয়ের ২৪৩ তম (জরুরী) রিজেন্ট বোর্ড সভার সিদ্ধান্তের আলোকে শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তার বিষয়টি বিবেচনায় বিশ্ববিদ্যালয়ের (সিরাজগঞ্জ সরকারি ভেটেরিনারি কলেজসহ) সকল শিক্ষাকার্যক্রম পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত বন্ধ থাকবে। একই সাথে শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তার স্বার্থে ২:৩০ টার মধ্যে সকল শিক্ষার্থীকে আবাসিক হল ত্যাগ করে নিরাপদ আবাসস্থলে অবস্থানের নির্দেশ প্রদান করা হলো।


বুধবার সকালে রাসেল  নামের এক শিক্ষার্থী বলেন, আন্দোলন শুরুর পর থেকেই বাবা-মা ফোন দিয়ে বাড়ি চলে যেতে বলছেন। আমাকে নিয়ে উদ্বিগ্ন তারা। কয়েকদিন অপেক্ষার পর আজ বাড়ি যাচ্ছি।


বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের এক শিক্ষার্থী বলেন, সংঘর্ষের ঘটনায় খুবই উদ্বিগ্ন। আতঙ্ক কাটছেই না। বাসা থেকে বাবা-মা অনেক ফোন দিচ্ছেন। ওনারা চিন্তা করছেন। তাই চলে যাচ্ছি। ক্যাম্পাসের পরিবেশ স্বাভাবিক হলে ফিরব।

আরও খবর



কুমিল্লায় পুরুষের চেয়ে নারীর সংখ্যা ৪ লাখ বেশি

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৪ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৯ জুলাই ২০২৪ |

Image



বিডি টুডেস রিপোর্ট:


কুমিল্লা জেলায় জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার বেড়েছে। জেলায় বার্ষিক জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার ১.২৭ এবং জনসংখ্যার ঘনত্ব প্রতি বর্গ কিলোমিটারে ১ হাজার ৯৭৪ জন।



 জনসংখ্যার মধ্যে পুরুষের চেয়ে মহিলা চার লাখের বেশি। জেলায় মোট পুরুষ ২৯ লাখ ৩৭১ জন, মহিলা ৩৩ লাখ ১১ হাজার ৫৮০ জন এবং তৃতীয় লিঙ্গ ২৫৬ জন। 


জেলার জনশুমারি ও গৃহগণনার রিপোর্টটি তুলে ধরেন জেলা পরিসংখ্যান ব্যুরোর উপপরিচালক মোঃ হাবিবুর রহমান। বাংলাদেশের প্রথম ডিজিটাল জনশুমারি ও গৃহগণনা এটি।এতে কুমিল্লার জনসংখ্য৬২ লাখ ছাড়িয়েছে।



এ বিষযে জেলা প্রশাসক খন্দকার মু. মুশফিকুর রহমান বলেন, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশ পরিচালনায় প্রশাসনিক কার্যক্রমে গতিশীলতা আনয়নে বিভিন্ন সময়ে আইনের পরিবর্তিত নতুন বিধিমালা জারি করেন। যা ২০১৩ সালে আদমশুমারি নাম বাদ দিয়ে জনশুমারি করা হয়েছে। 


তিনি বলেন, জনসেবা প্রদানের মধ্যে সঠিক তথ্য নির্ভর করার লক্ষ্যে সঠিকভাবে শুমারির প্রয়োজন। দেশের ও সমাজের উন্নয়ন অগ্রগতির লক্ষ্যে এলাকাভিত্তিক সার্বিক শুমারি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। 



জেলার সকল সরকারি কর্মকর্তাদের জনকল্যাণে ২০২২ সালের জনশুমারির রিপোর্ট অনুসরণ করে সেবা দানের কার্যক্রম গহণের আহ্বান জানান তিনি।



জনশুমারির রিপোর্ট বলা হয়েছে, সাক্ষরতার হার জাতীয় সাক্ষরতার হারের চেয়ে বেশি। জেলা সাক্ষরতার হার ৭৬.৬৮ এবং জাতীয় সাক্ষরতার হার ৭৪.৮০। 


জেলায় মোট ৮৮.৮৫% খানার নিজস্ব বাসগৃহে বসবাস করে। ৯% খানা ভাড়া বাসায় বসবাস করে যাদের অন্যত্র নিজস্ব বাসগৃহ আছে এবং ১.৩৬ শতাংশ খানা ভাড়া  বাসায় বসবাস করে যাদের কোন নিজস্ব বাসগৃহ নেই এবং ০.৩৩ পার্সেন্ট লোক বিনা ভাড়ায় বসবাস করে যাদের অন্যত্র নিজস্ব বাসগৃহ আছে। 


প্রকাশিত রিপোর্ট মোতাবেক জেলায় পাঁচ বছর ও তদুর্ধ বয়সীদের মধ্যে ৫৮.৫৮ শতাংশ মানুষের নিজস্ব ব্যবহারের মোবাইল ফোন রয়েছে এবং ৪০.২৬ শতাংশ লোক ইন্টারনেট ব্যবহার করে। 


জেলার জনশুমারি ও বসবাসকারী ১২ লাখ ৬৯ হাজার ২৮০ জন এবং পল্লী এলাকায় বসবাসকারী ৪৯ লাখ ৪২ হাজার ৯৩৬ জন। এছাড়া জেলায় ধর্মভিত্তিক জনসংখ্যার হার মুসলমান ৯৫.৫৬, হিন্দু ৪.৩৩, বৌদ্ধ ০.০৯, খ্রিস্টান ০.০১ এবং অন্যান্য ধর্মের হার ০.০০৩। বাসস।


আরও খবর



ছাগলকান্ডে আলোচিত রাজস্ব কর্মকর্তা মতিউর রহমান ওএসডি

প্রকাশিত:রবিবার ২৩ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ২১ জুলাই ২০২৪ |

Image



সদরুল আইন:


ছাগলকাণ্ডের জন্য আলচিত জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের কাস্টমস, এক্সাইজ ও ভ্যাট অ্যাপিলেট ট্রাইব্যুনালের সভাপতি মতিউর রহমানকে বিশেষ ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওএসডি) করা হয়েছে।



আজ রোববার (২৩ জুন) অর্থ মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মকিমা বেগম স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপন থেকে এ তথ্য জানা গেছে।



প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, বিসিএস (শুল্ক ও আবগারী) ক্যাডারের কর্মকর্তা ও জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের কাস্টমস, এক্সাইজ ও ভ্যাট অ্যাপিলেট ট্রাইব্যুনালের সভাপতি মতিউর রহমানকে অর্থ মন্ত্রণালয়ের অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগে সংযুক্ত করা হয়েছে। জনস্বার্থে জারিকৃত এ আদেশ কার্যকর হবে।  



আরও খবর

রাজধানীর সেতু ভবনে আগুন

বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০২৪




সমবায়ের মাধ্যমে চাষাবাদ করার আহ্বান পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রীর

প্রকাশিত:রবিবার ১৪ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২০ জুলাই ২০24 |

Image
ওবায়দুল ইসলাম রবি - রাজশাহী


পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী মোঃ আব্দুল ওয়াদুদ, এমপি বলেছেন, কৃষি মন্ত্রণালয় এবং সমবায় বিভাগের সমন্বিত উদ্যেগে কৃষি সমবায় সমিতি গঠন করে সকল কৃষি জমিকে এর আওতায় এনে চাষাবাদ করা হবে। এতে কৃষকরা তাদের উৎপাদিত কৃষি পণ্য সমবায় বাজারে বিক্রয় করতে পারবে। 


আজ রবিবার (১৪ জুলাই) বেলা এগারোটায় রাজশাহী জেলার দুর্গাপুর উপজেলা পরিষদ হলরুমে  সমাজসেবা অধিদপ্তর কর্তৃক সুদমুক্ত ঋণ, অসহায় দরিদ্র ব্যক্তি এবং ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী ভুক্ত শিক্ষার্থী ও ব্যক্তিদের পুনর্বাসন ও অর্থ সহায়তা বিতরণ, নাবী পাট বীজ উৎপাদনকারী চাষীদের মাঝে বিনামূল্যে নাবী পাট বীজ, রাসায়নিক সার ও কীটনাশক বিতরণ, বিভিন্ন প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্ত গরীব, দুঃস্থ ও অসহায় পরিবারের মাঝে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তর কর্তৃক শুকনা খাবার বিতরণ, ‘ইউনিয়ন পরিষদ উন্নয়ন সহায়তা’ খাতের আওতায় অনগ্রসরতা, প্রাকৃতিক দুর্যোগ ও ডেঙ্গু রোগ নিয়ন্ত্রণে বিভিন্ন উপকরণ বিতরণ এবং প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় হতে বাস্তবায়নাধীন বিশেষ এলাকার জন্য উন্নয়ন সহায়তা (পার্বত্য চট্টগ্রাম ব্যতীত) শীর্ষক কর্মসূচির আওতায় আদিবাসী শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষাবৃত্তি এবং বাইসাইকেল বিতরণসহ সরকারের বিভিন্ন অনুদান বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।

আব্দুল ওয়াদুদ বলেন,  দুর্গাপুরে সুবিধামত জায়গায় সুবিধাজনক সময়ে সমবায় বাজার তৈরি করা হবে। এই বাজারে কৃষকরা উৎপাদিত পণ্য দালালের খপ্পর ব্যতীত সঠিক দামে বিক্রয় এবং ভোক্তারা সঠিক দামে পণ্য ক্রয় করতে পারবে। দালালরা যাতে পণ্যের আর্টিফিসিয়াল ক্রাইসিস (কৃত্রিম সংকট) তৈরি করতে না পারে সেদিকে সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে। 

প্রতিমন্ত্রী বলেন, এখানে যে পেঁয়াজের দাম মাত্র ৪০-৫০ টাকা অথচ ঢাকায় সেই পেয়াজের দাম ১৫০ টাকা। এটা হয়েছে শুধু মাত্র মধ্যস্বত্বভোগীদের দৌরাত্মের কারণে। কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগ, সমবায় বিভাগ এবং আপনাদের সহযোগিতায় এই সিন্ডিকেটের কিরুদ্ধে কাজ করবো । তা না হলে আমাদের দেশের এই সীমিত সম্পদ দিয়ে সামনে এগোনো সম্ভব হবে না। সমবায় ব্যবস্থার উপর গুরুত্ব আরোপ করে তিনি বলেন, সমবায়কে আমাদের মূল ভিত্তি করতে হবে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জমি ও সম্পদের মালিকানার আইনে কীভাবে সমবায় সমিতি সম্পদের মালিক হবে তার নির্দেশনা দিয়েছিলেন। এ সময় ব্যক্তি, ইন্ডাস্ট্রি এবং সমবায় সম্পদের এ তিন প্রকার মালিকানার কথা তিনি উল্লেখ করেন। 

তিনি আরও বলেন, শুধু দুর্গাপুর আর পুঠিয়া নয়, প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে পুরো রাজশাহী অঞ্চলের চেহারা বদলে দেয়ার জন্য আমরা কতগুলো কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছি যা অতি শীঘ্রই দেখতে পাবেন। দুর্গাপুরে আগামী পাঁচ বছরে প্রায় ১৫০ কোটি টাকা ব্যয়ে রাস্তা করা হবে যার মধ্যে ২৫ কোটি টাকা ইতোমধ্যে পেয়েছি। আরেকটি প্রায় সাড়ে ৫০০ কোটি টাকার প্রকল্প একনেকে উপস্থাপন করেছি যা দিয়ে ৪১০ কিলোমিটার নদী খনন করা হবে। আগামী শীত মৌসুম থেকে টেন্ডার করতে পারবেন বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন। 

অস্বচ্ছল মেয়েদের উদ্দেশে প্রতিমন্ত্রী বলেন, ২০ বছর আগে মেয়েরা কী পেয়েছেন আর এখন কী পাচ্ছেন তা আপনাদের সকলের জানা। মেয়েদের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যা করেছেন তা ভাবনার অতীত। আজ বাংলাদেশের সকল জায়গায় মেয়েরা কাজ করছে। তারা নিজেদের মেলে ধরার সুযোগ পাচ্ছে। 

এ সময় তিনি স্মার্র্ট বাংলাদেশ গড়তে সত্যপথে চলতে এবং সত্য কথা বলতে সকলের প্রতি আহ্বান জানান। পুঠিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার স্বীকৃতি প্রামাণিক এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ শরিফুজ্জামান বক্তৃতা করেন। অন্যান্যের মধ্যে বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি দপ্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারি, বীর মুক্তিযোদ্ধা, রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গ, উপকারভোগী এবং প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠান শেষে  প্রতিমন্ত্রী উপকারভোগীদের হাতে সরকারের বিভিন্ন অনুদান তুলে দেন। পরে প্রতিমন্ত্রী উপজেলা পরিষদ চত্বরে একটি তাল গাছের চারা রোপণ করেন।


আরও খবর

রাজধানীর সেতু ভবনে আগুন

বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০২৪