Logo
শিরোনাম

লাখ লিটার ভোজ্যতেলের অবৈধ মজুদ

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৩ মে ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | ৩৯জন দেখেছেন
Image

বাজারে ভোজ্যতেলের সংকট এবং অধিক মূল্য থাকলেও গোডাউনগুলোতে মিলেছে লাখ লাখ লিটার তেলের অবৈধ মজুদ। পাইকারী ব্যবসায়ীরা অবৈধভাবে এসব তেল মজুদ করে রেখে বাজারে কৃত্তিম সংকট তৈরি করছেন।

খুলনা নগরীর স্যার ইকবাল রোডস্থ বড় বাজারের এলাকার সিটি ব্যাংক গলিতে অবস্থিত সোনালী এন্টার প্রাইজ, সাহা ট্রেডার্স ও রণজিৎ এন্ড সন্স নামক তিনটি প্রতিষ্ঠানের ৮টি গোডাউনে জেলা প্রশাসন ও র‌্যাবের যৌথ ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে অবৈধ মজুদের সত্যতা মেলে।

এসব গোডাউনে পাওয়া যায় ১ হাজার ১২৯ ব্যারেল সয়াবিন ও সুপার পামওয়েল। যার পরিমাণ ২ লাখ ৩০ হাজার লিটার। এ অভিযাগে প্রতিষ্ঠান তিনটিকে ১ লাখ ৬০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেন আদালতের নেতৃত্বে থাকা খুলনা জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও জেলা প্রশাসনের মিডিয়া সেলের মুখপাত্র দেবাশীষ বসাক।

অপরদিকে, ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের অভিযানে অতিরিক্ত মূল্যে সয়াবিন তেল বিক্রির অভিযোগে তিনটি খুচরা ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে আরও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানা যায়, ভোজ্যতেলের অবৈধ মজুদ রাখার গোপন খবরের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার বড় বাজারের সোনালী এন্টারপ্রাইজ, সাহা ট্রেডার্স ও রণজিৎ এন্ড সন্স নামক তিনটি প্রতিষ্ঠানের ৮টি গোডাউনে অভিযান চালানো হয়। এ সময় সোনালী এন্টারপ্রাইজের ৩টি গোডাউনে ১৪৪ ব্যারেল সয়াবিন ও ১৭১ ব্যারেল সুপার পামওয়েল, সাহা ট্রেডার্সে ১৬৭ ব্যারেল সয়াবিন ও ৩৩৯ ব্যারেল সুপার পামওয়েল এবং রণজিৎ এন্ড সন্স নামক প্রতিষ্ঠানে ৩০৪ ব্যারেল তেল পাওয়া যায়। এ অভিযোগে সোনালী এন্টার প্রাইজের মালিক প্রদীপ সাহাকে ৩০ হাজার টাকা, সাহা ট্রেডার্সের মালিক দিলীপ কুমার সাহাকে ৯০ হাজার টাকা এবং রণজিৎ এন্ড সন্স নামক প্রতিষ্ঠানের মালিক অজিত বিশ্বাসকে ৪০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট দেবাশীষ বসাক বলেন, কৃষি বিপণন আইন-২০১৮ অনুযায়ী কোন প্রতিষ্ঠানে সর্বোচ্চ ৩০ মেট্টিক টন এবং ৩০ দিনের বেশি মজুদ রাখা যাবে না। কিন্তু উল্লিখিত প্রতিষ্ঠান ৩টি এ আইন লঙ্ঘন করে অতিরিক্ত তেল মজুদ রেখেছিল। এ কারণে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, জনস্বার্থে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হচ্ছে। কেউ যাতে ভোজ্যতেল মজুদ করে বাজারে কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করতে না পারে সেদিকে নজর রাখা হচ্ছে।

র‌্যাব-৬ খুলনার সদর কোম্পানি কমান্ডার পুলিশ সুপার আল আসাদ মো. মাহফুজুল ইসলাম জানান, গোডাউনগুলোতে অতিরিক্ত তেল পাওয়া গেছে। তাদের এ বিষয়ে সর্তক ও জরিমানা করা হয়েছে। জনস্বার্থে অবৈধ মজুদদারদের বিরুদ্ধে র‌্যাবের এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

তবে প্রতিষ্ঠান মালিকরা দাবি করেন, চলমান ব্যবসার প্রয়োজনে তেল মজুদ করা হয়েছে। দাম বৃদ্ধির জন্য করা হয়নি। বর্তমানে লোকসান দিয়ে পামওয়েল বিক্রি করতে হচ্ছে।

অপরদিকে, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়াধীন জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের খুলনা জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক শিকদার শাহীনুর আলমের নেতৃত্বে তদারকিমূলক অভিযান পরিচালিত হয়। অভিযানে খুলনা মহানগরের সোনাডাঙ্গা থানাধীন বিভিন্ন এলাকায় বোতলজাত সয়াবিন তেল নির্ধারিত মূল্যের অধিক মূল্যে বিক্রির দায়ে মা টেলিকমকে ১০ হাজার টাকা, মায়ের দোকানকে ৫ হাজার টাকা এবং নয়ন স্টোরকে ৩৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। একই সাথে উদ্ধারকৃত তেল নিধারিত দামে জনসাধারণের কাছে বিক্রয়ের আদেশ দেয়া হয়।

ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের খুলনা জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক শিকদার শাহীনুর আলম বলেন, এ অভিযানে সকলকে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন, ২০০৯ অনুসারে ভোক্তা অধিকার বিরোধী কার্যাবলী হতে বিরত থাকার অনুরোধ জানানো হয়। এছাড়া ব্যবসায়ীদের ক্রয়/বিক্রয় রশিদ সংরক্ষণ, মূল্য তালিকা প্রদর্শন করতে অনুরোধ জানানো হয় এবং সচেতন করতে লিফলেট বিতরণ করা হয়।


আরও খবর

পচছে আমদানি পেঁয়াজ

সোমবার ১৬ মে ২০২২




আসছে ঘূর্ণিঝড় ‘আসানি’

প্রকাশিত:সোমবার ০২ মে 2০২2 | হালনাগাদ:শনিবার ১৪ মে ২০২২ | ৬৮জন দেখেছেন
Image

মে মাসের শুরুতেই শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড়ের আশঙ্কা করা হচ্ছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গউড়িষা  বাংলাদেশের ওপর দিয়ে বয়ে যেতে পারে  ঘূর্ণিঝড়

আবহাওয়া অধিদপ্তরের আবহাওয়াবিদ মোআবুল কালাম মল্লিক জানানআগামী  থেকে  মে মধ্যে দক্ষিণ আন্দামান সাগরে একটি লঘুচাপ তৈরি হওয়ার আভাস পাওয়া যাচ্ছে লঘুচাপটি তৈরি হলে সেটি পরবর্তীতে সুনির্দিষ্ট লঘুচাপের পর ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নিতে পারে যার নাম হবে ‘আসানি বর্তমান তথ্য অনুযায়ী ঘূর্ণিঝড়টি তৈরি হলে পশ্চিমবঙ্গউড়িষা  বাংলাদেশের উপকূলে চলতি মাসের ১০ থেকে ১২ মের মধ্যে আঘাত হানতে পারে

তিনি বলেনযদি এই ঘূর্ণিঝড়টি আসেতাহলে এর নাম হবে আসানি বঙ্গোপসাগরে যেসব ঘূর্ণিঝড় তৈরি হয়েছেসেগুলোর মধ্যে অনেকগুলো সুপার সাইক্লোনে রূপ নিয়েছিল তবে এটাও সত্য যেঘূর্ণিঝড়গুলো উপকূলে আসতে আসতে অনেকটা দুর্বল হয়ে যায় যেহেতু এখনো ঘূর্ণিঝড়টি তৈরি হয়নিসেহেতু এর তীব্রতা এই মুহূর্তে বলার সুযোগ নেই তবে এটি যদি তৈরি হয়তাহলে এর তীব্রতা বেশি হবে


আরও খবর



লালমনিরহাটে মাদক বিক্রয়ে বাঁধা দেওয়ায় বাড়ীতে হামলা

প্রকাশিত:শনিবার ০৭ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ১৪ মে ২০২২ | ৬০জন দেখেছেন
Image

লালমনিরহাট জেলা প্রতিনিধিঃ 

জেলা সদরে উচাটারী গ্রামে মাদক বিক্রয়ে বাঁধা দেওয়ায় মাদক বিক্রেতা কর্তৃক খোরশেদা বেগমের বাড়ীতে হামলা,ভাংচুরের ঘটনায় সদর থানায় এ সংক্রান্ত একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন ভুক্তভোগী খোরশেদা বেগম। অভিযোগ নথিতে জানা গেছে স্বপন,সুজন,সুমন, শরিফ হামিদুল ও মেহেদী সহ সংঘবদ্ধ একটি মাদক বিক্রেতা চক্রের কয়েকজন সদস্য উক্ত খোরশেদা বেগমের বাড়ীতে হামলা,ভাংচুর সহ লুটপাট করা সহ মারপিট করে।  এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট থানা সূত্র অভিযোগের বিষয়টি পেয়েছেন এবং তদন্ত করছেন মর্মে নিশ্চিত করেন।


আরও খবর



পার্বতীপুরে রেলহেড ডিপো শুন্য

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১০ মে ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ১৫ মে ২০২২ | ৪৬জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিনিধি, পার্বতীপুর

পার্বতীপুুরে রেলহেড অয়েল ডিপোতে পেট্রোল ও অকটেনের মজুদ আশংকাজনক হারে কমে যাওয়ায় উত্তরাঞ্চলের ৮ জেলায় পেট্রোল ও অকটেনর সরবরাহ প্রায় ১৫দিন ধরে বন্ধ রয়েছে। এ ডিপোতে দৈনিক পেট্রোলের চাহিদা ১ লাখ ৮০ হাজার লিটার। বর্তমানে প্রতি সপ্তাহে মাত্র ১ লাখ ৮০ হাজার লিটার ডিপোতে পেট্রোল সরবরাহ দেয়া হচ্ছে।

জানা গেছে,  প্রায় ২ মাস ধরে মৌলভীবাজারের রশিদপুর গ্যাস ফিল্ড হতে রেলপথে পার্বতীপুর রেলহেড অয়েল ডিপোতে পেট্রোল ও অকটেন সরবরাহ দেয়া হচ্চে। বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম কর্পোরেশনের আওতাধীন ৩ কোম্পানী পদ্মা, মেঘনা ও যমুনা অয়েল কোম্পানী লিমিটেড একদিন পরপর ট্যাংকলরীতে করে ৪ লাখ ৫ হাজার লিটার পেট্রোল পার্বতীপুুর রেলহেড অয়েল ডিপোতে পেট্রোল সরবরাহ করতো। এ ডিপো থেকে প্রতিদিন উত্তরাঞ্চলের ৮ জেলা ঠাকুরগাও, পঞ্চগড়, নীলফামারী, দিনাজপুর, লালমনিরহাট, কুড়িগ্রাম, রংপুর ও গাইবান্ধাসহ ৪৫০ পেট্রোল পাম্পে পেট্রোল সরবরাহ করা হয়ে থাকে যা দিয়ে এ অঞ্চলের পেট্রোল ও অকটেনের চাহিদা পুরণ হয়। প্রায় ২ মাস ধরে রশিদপুর গ্যাস ফিল্ড থেকে হঠাৎ করে পেট্রোল ও অকটেন আসা কমে যাওয়ায় ডিপোতে এ সংকট দেখা দিয়েছে।

জ্বালানি তেল পরিবেশক ও পেট্রোল পাম্প প্রতিনিধিদের অভিযোগ, তারা চাহিদা অনুযায়ী তেল পাচ্ছেন না। পেট্রোল ও অকটেন সংকট চরমে পঞ্চগড়, ঠাকুরগাঁও, নীলফামারী ও দিনাজপুরে। ইতিমধ্যে পেট্রোল ও অকটেন না থাকায় দুই শতাধিক তেল পাম্প বন্ধ হয়ে গেছে। শিগগিরই পেট্রোল ও অকটেন সরবরাহ স্বাভাবিক না হলে সংকট চরম আকার ধারণ করবে।

পেট্রোল ও অকটেন নিতে আসা ট্যাংকলরীগুলো টার্মিনালে ৮/১০ দিন অপেক্ষা করেও পেট্রোল ও অকটেন না পাওয়ায় ব্যবসায়ীরা চরম ক্ষুদ্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন।

পার্বতীপুরে ফিলিং স্টেশনগুলোতে পেট্রোল ও অকটেন সংকটের কারণে জ্বালানি না পেয়ে ফিরে যেতে হচ্ছে যানবাহন চালকদের।

 ঈদের কয়েকদিন আগে থেকে এ অবস্থা চলছে বলে জানিয়েছেন তেল বিক্রয়কারী প্রতিষ্ঠানগুলো।

দুপুরে সরেজমিনে দেখা যায়, পার্বতীপুর কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনালের রিয়েল ফিলিং স্টেশনসহ কয়েকটি পাম্পে তেল নেই। পেট্রোল ও অকটেন না থাকায় মোটরসাইকেল চালকদের ফিরে যেতে হচ্ছে। পাম্প পলিথিন দিয়ে ঢেকে রাখা হয়েছে।

রিয়েল ফিলিং স্টেশনের ব্যবস্থাপক মোঃ নুরুল নবী জানান, ঈদের কয়েকদিন আগেই পেট্রোল ও অকটেন সংকট চরমে পৌঁছেছে। মানুষকে দিতে পারছি না। গত ২৮ এপ্রিল ৯ হাজার লিটার পেট্রোল ও ৪ হাজার ৫শ লিটার অকটেন এসেছিল। সেগুলো বিকেলের মধ্যেই শেষ হয়ে যায়। তিনি আরও জানান, প্রতিদিন এ পাম্পে সাড়ে ৩ হাজার লিটার পেট্রোল ও ১ হাজার ৩শ লিটার অকটেন প্রয়োজন পড়ে। কিন্তু সরবরাহ না থাকায় আমরা গ্রাহককে পেট্রোল ও অকটেন দিতে পারছি না। যার কারণে তেল না থাকায় পাম্পে গায়ে পলিথিন দিয়ে ঢেকে রাখা হয়েছে।

নীলফামারী সৈয়দপুর শহরের ইকু ফিলিং স্টেশনের মালিক মোঃ সিদ্দিকুল আলম জানান, প্রায় মাস থেকে পেট্রোল ও অকটেন সংকট দেখা দেয়। পার্বতীপুর তেল ডিপোতে না পেয়ে সিরাজগঞ্জের বাঘাবাড়ি ডিপো থেকে তেল নিয়ে পাম্পগুলো চালাতে হচ্ছিল। কিন্তু এখন বাঘাবাড়ি ডিপোতেও পেট্রোল ও অকটেন পাওয়া যাচ্ছে না। তবে, পাম্পগুলোতে ডিজেল সরবরাহ রয়েছে।

দিনাজপুর জেলা পেট্রোল পাম্প মালিক সমিতির সাধারন সম্পাদক এটিএম হাবিবুর রহমান শাহীন জানান, পার্বতীপুর রেলহেড অয়েল ডিপোতে প্রায় ১৫ দিন ধরে পেট্রোল ও ৭ দিন ধরে অকটেনের সংকট চলছে। আমরা চাহিদা মত পেট্রোল ও অকটেন সরবরাহ পাচ্ছি না। এরফলে প্রায় অনেক তেল পাম্প বন্ধ হয়ে রয়েছে।

শনিবার রাত ৮টার দিকে মেঘনা পেট্রোলিয়াম লিমিটেডের ডেপুটি ম্যানেজার কাজী মোঃ রবিউল জানান, শনি এবং রবিবার ৬ লাখ পেট্রোল ডিপোতে এসেছে। আজকের মধ্যে ডিপোতে আরও ৪ লাখ লিটার পেট্রোল ও দেড় লাখ অকটেন এসে পৌছাবে। ঈদের ছুটি থাকায় এ সাময়িক সমস্যা হয়েছে বলে তিনি দাবী করেন। বর্তমানে তিন কোম্পানী পদ্মা, মেঘনা ও যমুনায় প্রায় ২০ লাখ ডিজেল মজুদ রয়েছে।  

এ বিষয়ে পদ্মা, মেঘনা ও যমুনা অয়েল তিন কোম্পানীর পার্বতীপুর রেলওয়ে অয়েল হেড ডিপোর ইনচার্জ এমরানুল হাসানের সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে মোবাইল ফোন বন্ধ থাকায় তার বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি।


আরও খবর



কাউন্টারে ধীরগতি ৬ ঘণ্টা দাঁড়িয়েও মিলছে না টিকিট

প্রকাশিত:শনিবার ২৩ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ১৫ মে ২০২২ | ৯১জন দেখেছেন
Image

আসন্ন পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে আজ থেকে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু হয়েছে। একই সঙ্গে স্টেশনের কাউন্টার এবং অনলাইন থেকে টিকিট বিক্রি হচ্ছে। টিকিট পেতে অনেকেই রাত থেকেই লাইনে দাঁড়িয়েও টিকিট পাচ্ছেন না বলে অভিযোগ করেছেন।

যাত্রী‌দের অভি‌যোগ, একেকটি টি‌কিট কিন‌তে প্রায় পাঁচ মি‌নিট সময় লাগ‌ছে। এনআইডি বা জন্মসনদ দে‌খি‌য়ে টি‌কিট নি‌তে হ‌চ্ছে।

কেন এত দে‌রি জান‌তে চাইলে তিন নম্বর কাউন্টা‌রের বিক্রয়ক‌র্মী জানান, সার্ভা‌রে বে‌শি চাপ পড়ার কার‌ণে একটু সময় লাগ‌ছে। তারপরও পর্যাপ্ত টি‌কিট র‌য়ে‌ছে। সবাই শৃঙ্খলা মে‌নে থাক‌লে টি‌কিট পা‌বেন।

দা‌য়িত্বরত একজন আনসার সদস্য ব‌লেন, লোকজন অনেক ধৈর্য ধ‌রে অপেক্ষা কর‌ছেন। তেমন কো‌নো হৈচৈ কর‌ছেন না। ত‌বে টি‌কিট পে‌তে তা‌দের সময় লাগ‌ছে। কিন্তু এবা‌রে কো‌নো কা‌লোবাজারি হ‌চ্ছে না।

আগাম টি‌কিটসহ সা‌র্বিক বিষ‌য়ে কমলাপুর রেল স্টেশনের ম্যানেজার মাসুদ সারওয়ার বলেন, আজ কাউন্টারগুলোতে টিকিটপ্রত্যাশীর সংখ্যা অনেক বেশি। আজ ঈদের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু, তাই ভিড় বে‌শি। ত‌বে অগ্রিম টিকিট বিক্রির সব প্রস্তুতি আমরা নি‌য়ে‌ছি। আশা করছি সুষ্ঠু, সুন্দর পরিবেশে ও সুশৃঙ্খলভাবে টিকিট বিক্রি করতে পারব। অনলাইনের পাশাপাশি কাউন্টারে ৫০ শতাংশ টিকিট বিক্রি হবে।

জানা গেছে, অনলাইনে ই-টিকিটিংয়ের মাধ্যমে ঈদের অগ্রিম টিকিট বিক্রি সকাল ৮টায় শুরু হয়ে‌ছে। এ ছাড়া কাউন্টারে সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত এক টানা অগ্রিম টিকিট বিক্রি চলবে। প্রতিটি টিকিট বিক্রয় কেন্দ্রে একটি করে নারী ও প্রতিবন্ধীদের জন্য কাউন্টার থাকবে। একজন যাত্রী এক সঙ্গে সর্বোচ্চ চারটি টিকিট কিনতে পারবেন। বিক্রি করা ঈদযাত্রার অগ্রিম টিকিট ফেরত নেওয়া হবে না। স্পেশাল ট্রেনের কোনো টিকিট অনলাইনে পাওয়া যাবে না। শুধুমাত্র স্টেশন কাউন্টারে বিক্রি করা হবে।


আরও খবর



শক্তিশালী বিরোধীদল আবির্ভাবের ঘোষণায় বিএনপিকে কাদেরের হুঁশিয়ারি

প্রকাশিত:সোমবার ১৮ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | ১১৫জন দেখেছেন
Image

বিএনপি শক্তিশালী বিরোধীদলে আবির্ভূত হওয়া এবং আন্দোলনের নামে তারা যদি আবারও ধ্বংসাত্মক পথ বেছে নেয় তাহলে জনগণকে সাথে নিয়ে কঠোর প্রতিরোধ গড়ে তোলা হবে। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের সোমবার (১৮ এপ্রিল) এক বিবৃতিতে বিএনপি মহাসচিবের অল্প সময়ের মধ্যে বিএনপিকে শক্তিশালী বিরোধীদল হিসেবে আবির্ভাবের ঘোষণার প্রেক্ষিতে এই  হুঁশিয়ারি করেন।

তিনি বলেন, মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর শীগগিরই বিএনপিকে শক্তিশালী বিরোধীদল ঘোষণায় আবারও প্রমাণিত হয়েছে যে তাদের শক্তিহীনতা দুর্বলতা অক্ষমতা ও দৈন্যতার নির্মম বহিঃপ্রকাশ ঘটেছে। 

বিএনপি মহাসচিব  নিজেই স্বীকার করেছে যে সংসদে কার্যত বিএনপি একটি শক্তিহীন ও অন্তঃসারশূন্য রাজনৈতিক দল, এ প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শক্তিশালী বিরোধীদলের অনুপস্থিতির কথার পরিপ্রেক্ষিতে মির্জা ফখরুলের বক্তব্যের মধ্য দিয়েই সেটাই প্রতীয়মান হয় যে বিএনপি আসলেই বর্তমানে শক্তিহীনতায় আছে।

সংসদীয় গণতন্ত্রের রীতি অনুযায়ী বিরোধী দলের শক্তিমত্তা প্রতিষ্ঠিত করার স্থান হলো জাতীয় সংসদ, এমন মনে করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বিবৃতিতে বলেন, সেজন্য কোন রাজনৈতিক দল শক্তিশালী বিরোধী দল হিসেবে নিজেদের প্রতিষ্ঠিত করার লক্ষ্যে জাতীয় সংসদে প্রয়োজনীয় সংখ্যক আসন প্রাপ্তি নিশ্চিত করা আবশ্যক, কিন্তু বিএনপির এখন আসন সংখ্যা কত? আর সেটা দিয়ে বিএনপি কতটুকু শক্তিশালী বিরোধী দল হতে পেরেছে তা এখন জাতির সামনে পরিষ্কার।


আরও খবর